স্বাধীনতা দিবসকে ঘিরে বাংলা বই ৩য় শ্রেনী

 রচনাটি পড়ে জানতে পারব

স্বাধীনতা দিবসকে ঘির

রচনাটি পড়ে জানতে পারব

           স্বাধীনতা দিবস উদ্যাপন সম্পর্কে

           মুক্তিযুদ্ধের কথা

           দলবদ্ধ হয়ে কাজ করার গুরম্নত্ব

রচনাটির মূলভাব জেনে নিই

          স্বাধীনতা দিবস উদ্যাপনকে ঘিরে শিড়্গার্থীদের ভাবনা ও কাজের পরিচয় তুলে ধরা হয়েছে রচনাটিতে। দিনটি উদ্যাপনের জন্য শিড়্গার্থীরা শ্রেণিকড়্গটি সাজিয়ে তোলে। ছবি আঁকার শিড়্গক দুজন ছাত্রছাত্রীকে মূল দায়িত্বে রাখেন। তাদের নেতৃত্বে ছেলেমেয়েরা দুটি দলে ভাগ হয়ে যায়। কাগজের ফুল, পাতা, শিকল ইত্যাদির মাধ্যমে শ্রেণিকড়্গরে চারপাশের দেয়াল সাজানো হয়। আর দেয়ালের মাঝখানে তৈরি করা হয় মুক্তিযুদ্ধের একটি দৃশ্য। সবার প্রচেষ্টায় শ্রেণিকড়্গটি খুব সুন্দরভাবে সেজে ওঠে।

 বানানগুলো লড়্গ করি

বৃহস্পতিবার, শ্রেণিকড়্গ, পরামর্শ, আর্টবোর্ড, প্রতীড়্গা, যত্ন, স্বাধীনতা, দৃশ্য, কারম্নকাজ, শিকল, পুরস্কার।

অনুশীলন প্রশ্ন উত্তর

১. শব্দগুলো পাঠ থেকে খুঁজে বের করি। অর্থ বলি।

স্বাধীনতা   পিরিয়ড   অপেড়্গা   আর্টবোর্ড   রাংতা   কারম্নকাজ    সাঁটা    রাইফেল   যুদ্ধ   মগডাল   পুরস্কার

          উত্তর :

          স্বাধীনতা       –        বাধাহীনতা, মুক্তি।

          পিরিয়ড        –        বেঁধে দেওয়া সময়।

          অপেড়্গা      –        প্রতীড়্গা। সবুর।

          আর্টবোর্ড      –        ছবি আঁকার শক্ত কাগজ।

          রাংতা            –         ধাতুর খুব পাতলা পাত।

          কারম্নকাজ    –        সুন্দর কাজ। শিল্প।

          সাঁটা              –        লাগানো। যুক্ত করা।

          রাইফেল        –        বন্দুক। এক ধরনের হাতিয়ার।

          যুদ্ধ              –        লড়াই।

          মগডাল        –        গাছের সবচেয়ে উঁচু ডাল।

          পুরস্কার         –        বখশিশ।

২.      ঘরের ভিতরের শব্দগুলো খালি জায়গায় বসিয়ে বাক্য তৈরি করি।

            যুদ্ধ            কারম্নকাজ   স্বাধীনতা      

            আর্টবোর্ডে  অপেড়্গা      পুরস্কার

উত্তর :

ক)      গরমের ছুটির  অপেড়্গা  করছি।

খ)      ২৬শে মার্চ বাংলাদেশের  স্বাধীনতা  দিবস।

গ)      ছবি এঁকে শাকিল  পুরস্কার  পেয়েছে।

ঘ)       আমরা  যুদ্ধ  করে স্বাধীনতা লাভ করেছি।

ঙ)      শাড়িতে মা সুতার  কারম্নকাজ  করেছেন।

চ)       রাকিব  আর্টবোর্ডে  প্রজাপতি এঁকেছে।

৩.      বাম পাশের দুটি শব্দ জোড়া দিয়ে একটি শব্দ তৈরি করি।

উত্তর :

ছাত্র             ছাত্রী            ছাত্রছাত্রী

আপা           মণি              আপামণি

দল               নেতা            দলনেতা

আর্ট             বোর্ড            আর্টবোর্ড

ফুল              পাতা            ফুলপাতা

৪. যুক্তবর্ণগুলো চিনে নিই। যুক্তবর্ণ দিয়ে তৈরি করা নতুন শব্দ পড়ি।

          বৃহস্পতিবার                                স্পষ্ট, স্পর্শ

          আর্টবোর্ড                           (ট-রেফ)     শার্ট, চার্ট

          পুরস্কার                                      তিরস্কার, ভাস্কর

          পরামর্শ                              (শ-রেফ)    বর্শা, দর্শক

৫.      ঠিক উত্তরটি বাছাই করে বলি লিখি।

ক)     সবাই বৃহস্পতিবারের অপেড়্গায় থাকে কেন?

          ১.       কোনো ক্লাস থাকে না

          ২.      তাড়াতাড়ি ছুটি হয়ে যায়

          ৩.      শেষের দুই পিরিয়ডে অন্য রকমের কাজ হয়

          ৪.      বিদ্যালয় বন্ধ থাকে

খ)      আমাদের স্বাধীনতা দিবস কবে?

          ১.       ২১শে ফেব্রম্নয়ারি   ২.      ২৫শে মার্চ

          ৩.      ২৬শে মার্চ    ৪.      ১৬ই ডিসেম্বর

গ)      ছাত্রছাত্রীরা মুক্তিযুদ্ধের ছবিটি তৈরি করল কেন?

          ১.       স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান ছিল

          ২.      নিজেরা মুক্তিযোদ্ধা সাজতে চেয়েছিল

          ৩.      মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবে

          ৪.      সবাই মিলে আনন্দ করবে

          উত্তর : ক) ৩. শেষের দুই পিরিয়ডে অন্য রকমের কাজ হয় বলে; খ) ৩. ২৬শে মার্চ; গ) ৩. মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাবে বলে।

৬. বাম দিকের বাক্য খেয়াল করি। বাক্য দিয়ে কী বোঝানো হয়েছে ডান দিকের শব্দের সঙ্গে মিলিয়ে বুঝি বলি।

উত্তর :

ক)      তোমাদের শ্রেণিকড়্গ পরিষ্কার রাখা উচিত।       আদেশ                   উপদেশ

খ)      রম্ননু ও আনিস, এদিকে এসো।     আদেশ                 অনুরোধ

গ)      আমাকে একটু তুলে ধরো না ভাই। অনুরোধ               আদেশ

ঘ) কোথায় লাগাব পতাকাটা?        প্রশ্ন            অনুরোধ

ঙ)      খুব সুন্দর কাজ হয়েছে তোমাদের।          উপদেশ                 প্রশংসা

৭. বাক্যগুলো পড়ি। বৈশিষ্ট্য বোঝানো শব্দ জেনে নিই।

          এটা কাগজ। এটা রঙিন কাগজ।

          ওটা শিকল। ওটা লম্বা শিকল।

          আর্টবোর্ড আনো। সাদা আর্টবোর্ড আনো।

          গাছের নিচে ঝোপ। গাছের নিচে সবুজ ঝোপ।

          এসব বাক্যে রঙিন, লম্বা, সাদা, সবুজ হচ্ছে বৈশিষ্ট্য বোঝানো শব্দ।

          এবার ঘরের ভিতরের বৈশিষ্ট্য বোঝানো শব্দ নিয়ে খালি জায়গায় বসাই।

          সবুজ   চমৎকার   হলুদ   নীল   সাদা

          উত্তর : রম্ননু  সাদা  কাগজে একটা  চমৎকার  দৃশ্য আঁকল। সে তাতে  সবুজ  গাছ,  হলুদ  গাঁদা ফুল,  নীল  আকাশ আঁকল।

৮.শ্রেণিকড়্গ সাজানোর বিষয়টি নিজের ভাষায় বলি।

উত্তর : বিজয় দিবস উপলড়্গ্েয শ্রেণিকড়্গ সাজানোর জন্য শ্রেণিশিড়্গক আমাকে আর রানীকে দলনেতা নির্বাচন করলেন। আমরা দুটি দলে ভাগ হয়ে কে কী কাজ করব সে সম্পর্কে আলোচনা করে নিলাম। শিড়্গকের কাছ থেকে রঙিন কাগজ, আর্টবোর্ড, রাংতা, কাঁচি, আঠা, রং পেনসিলসহ সাজানোর নানা উপকরণ সংগ্রহ করলাম। রঙিন কাগজ দিয়ে ফুল, পাখি, পাতা, জাতীয় পতাকা ইত্যাদি নানা রকম নকশা তৈরি করলাম আমরা। সেগুলোকে রং করলাম এরপর রাংতার ফিতে দিয়ে সেগুলোতে কারম্নকাজ করে আঠা দিয়ে দেয়ালে লাগিয়ে দিলাম। আর্টবোর্ড ও রঙিন কাগজ ব্যবহার করে দেয়ালে মুক্তিযুদ্ধের একটি চিত্র ফুটিয়ে তুললাম আমরা। এভাবে সবাই মিলে শ্রেণিকড়্গটিকে সুন্দর করে সাজালাম।

 অতরিক্তি প্রশ্ন উত্তর

সঠিক উত্তরটি লেখ।

১.       কোন দিন শেষের দুই পিরিয়ডে অন্য রকমের কাজ হয়?        

          ক       সোমবার       খ       মঙ্গলবার

          গ       বুধবার          ঘ       বৃহস্পতিবার

২.      রূপা আপা পরামর্শের জন্য রম্ননু আনিসকে কতড়্গণ সময় দিলেন?       

          ক       দুই মিনিট     খ       পাঁচ মিনিট

          গ       আট মিনিট   ঘ       দশ মিনিট

৩.      রূপা আপা ছাত্রছাত্রীদের কী শেখান?         

          ক       নাচ                        খ       আবৃত্তি        

          গ       ছবি আঁকা               ঘ       গান  

৪.      ছাত্রছাত্রীরা কিসের উপর মুক্তিযুদ্ধের দৃশ্যটি লাগাল?      

          ক       বস্ন্যাকবোর্ডের উপর          খ       কাগজের উপর

          গ       আর্টবোর্ডের উপর  ঘ       টেবিলের উপর

৫.      ছাত্রছাত্রীদের কবে পুরস্কার দেওয়া হবে?    

          ক       বৃহস্পতিবার            খ       শুক্রবার 

          গ       শনিবার        ঘ       রবিবার 

নিচের শব্দগুলো দিয়ে বাক্য রচনা কর।

অপেড়্গা, পরামর্শ, দৃশ্য।

উত্তর :

শব্দ             বাক্য

অপেড়্গা     –        গরমকালে সবাই বৃষ্টির জন্য অপেড়্গা করে।

পরামর্শ         –        ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ খাওয়া অনুচিত।

দৃশ্য              –        সিনেমাটির শেষ দৃশ্য চলছে।

নিচের যুক্তবর্ণগুলো কোন কোন বর্ণ নিয়ে গঠিত ভেঙে দেখাও এবং প্রতিটি যুক্তবর্ণ দিয়ে একটি করে নতুন শব্দ গঠন করে বাক্যে প্রয়োগ দেখাও।

দৃ, স্প, জ্ঞ, ন্য, স্ব।

উত্তর :

দৃ       =        দ + ঋ – কার (  ৃ ) – দৃপ্ত

          –        ছাত্ররা দৃপ্ত ভঙ্গিতে এগিয়ে গেল।

স্প     =        স + প          – পরস্পর    

          –        আমরা পরস্পরকে ভালোবাসব।

জ্ঞ      =        জ + ঞ        – অজ্ঞান     

          –        লোকটি অজ্ঞান হয়ে গেল।

ন্য      =        ন+য-ফলা ( ্য )     – অন্য

          –        বাবা ছাড়া ঘরে অন্য কেউ নেই।

স্ব       =        স + ব – ফলা (  ^ )    – স্বাদ

          –        সামুদ্রিক মাছ নোনতা স্বাদের।

        শূন্যস্থান পূরণ কর।

ক)      হাসি আনন্দে ভরে থাকে পুরো ।

খ)      সবাই আমরা বৃহস্পতিবারের  থাকি।

গ)      রূপা আপামণির হাতে একটি ।

ঘ)        ফিতা দিয়ে কারম্নকাজ করল।

ঙ)      প্রথমে সাদা আর্টবোর্ড  দিয়ে দেয়ালে লাগাল।

চ)       পুরো দৃশ্যটায় যেন  লেগে গেছে।

ছ)      চারদিকটা তখন  করে উঠল।

          উত্তর : ক) সময়টা; খ) অপেড়্গায়; গ) ডালা; ঘ) রাংতার;  ঙ) আঠা; চ) যুদ্ধ; ছ) ঝলমল।

ডান পাশের বাক্যাংশের সাথে বাম পাশের বাক্যাংশের মিল কর।

অন্য রকম কাজ হয়         স্বাধীনতা দিবস উপলড়্গ্েয।

শ্রেণিকড়্গ সাজাতে হবে    রবিবার।

কারম্নকাজ করতে লাগে    হাততালি দিল।

খুশিতে সকলে একসঙ্গে     বৃহস্পতিবার।

                                        রাংতার ফিতে।

উত্তর :

অন্য রকম কাজ হয়         –        বৃহস্পতিবার।

শ্রেণিকড়্গ সাজাতে হবে    –        স্বাধীনতা দিবস উপলড়্গ্েয।

কারম্নকাজ করতে লাগে    –        রাংতার ফিতে।

খুশিতে সকলে একসঙ্গে     –        হাততালি দিল।

নিচের শব্দগুলোর বিপরীত শব্দ লেখ।

আনন্দ, তাড়াতাড়ি, লম্বা, পুরষ্কার।

উত্তর : শব্দ    বিপরীত শব্দ

          আনন্দ         –        বিষাদ/দুঃখ

          তাড়াতাড়ি     –        দেরি

          লম্বা              –        খাটো

          পুরস্কার         –        তিরস্কার

নিচের শব্দগুলোর বানান শুদ্ধ করে লেখ।

          দ্রিশ্য, পরামর্স, রঙ্গিন, কারূকাজ।

          উত্তর : ভুল বানান         শুদ্ধ বানান

          দ্রিশ্য                –              দৃশ্য

          পরামর্স            –              পরামর্শ

          রঙ্গিন               –             রঙিন

          কারূকাজ     –        কারম্নকাজ

নিচের কোনটি কোন পদ লেখ।

          শক্ত, রাইফেল, আপনি, জিজ্ঞেস করা, সুন্দর।

          উত্তর :         শব্দ                  পদ

                              শক্ত    –        বিশেষণ

                        রাইফেল    –        বিশেষ্য

                        আপনি      –        সর্বনাম

               জিজ্ঞেস করা     –        ক্রিয়া

                        সুন্দর        –        বিশেষণ

নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখ।

ক)    বৃহস্পতিবার ছাত্রছাত্রীদের মন আনন্দে ভরে ওঠে কেন?

উত্তর : বৃহস্পতিবার শেষের দুই পিরিয়ডে ছাত্রছাত্রীরা পড়াশোনার বাইরে অন্য রকম কিছু কাজের সুযোগ পায়। তাই এ দিনটি এলে ছাত্রছাত্রীদের মন আনন্দে ভরে ওঠে।

খ)      রূপা আপা রম্ননু আনিসকে কী করতে বললেন?

উত্তর : রূপা আপা রম্ননু ও আনিসকে পাঁচ মিনিট পরামর্শ করে কী কী তৈরি করবে এবং সেগুলো কোথায় লাগাবে তা ঠিক করতে বললেন। প্রয়োজন হলে তাঁর সাহায্য নিতে বললেন।

গ)      দুই দল মিলে কী ধরনের কাজ করল?

উত্তর : দুই দল মিলে রঙিন কাগজ দিয়ে শিকল বানাল। আর্টবোর্ডে ফুল পাতা এঁকে রং করল এবং তাতে রাংতার ফিতে দিয়ে কারম্নকাজ করল।

ঘ)      ছাত্রছাত্রীরা কীভাবে দেয়ালের ওপর যুদ্ধের দৃশ্য তৈরি করল?

          উত্তর : ছাত্রছাত্রীরা প্রথমে সাদা একটি আর্টবোর্ড দেয়ালের সাথে আঠা দিয়ে লাগাল। তারপর আগে থেকে তৈরি করা কাগজের গাছ, ঝোপ, ফুল ইত্যাদি আর্টবোর্ডে লাগাল। সবশেষে এক পাশে মুক্তিযোদ্ধা ও আরেক পাশে পাকি¯ত্মানি সেনাদের ছবি জুড়ে দিয়ে যুদ্ধের দৃশ্য তৈরি করল।

ঙ)      ছাত্রছাত্রীরা শ্রেণিকড়্গটি কীভাবে সাজাল?  

উত্তর : ছাত্রছাত্রীরা প্রথমে দেয়ালজুড়ে মুক্তিযুদ্ধের একটি দৃশ্য তৈরি করল। তারপর কাগজের শিকল শ্রেণিকড়্গরে চারদিকে মালার মতো সাজিয়ে দিল। শেষে নীল সাদা রাংতার ফিতে মালার মাঝে মাঝে ঝুলিয়ে দিল। এভাবেই ছাত্রছাত্রীরা শ্রেণিকড়্গটি সাজাল।

চ)       ছাত্রছাত্রীরা খুশিতে হাততালি দিল কেন?

 উত্তর : ছাত্রছাত্রীদের শ্রেণিকড়্গ সাজানোর প্রশংসা করলেন রূপা আপা। স্বাধীনতা দিবসে এই কাজের জন্য ছাত্রছাত্রীদের পুরস্কার দেওয়া হবে বলেও ঘোষণা দিলেন তিনি। শুনে ছাত্রছাত্রীরা খুশিতে হাততালি দিল।

ছ)      রম্ননু আনিস রূপা আপার কাছে কিসের অনুমতি চাইল?

উত্তর : শ্রেণিকড়্গরে দেয়ালে একটি মুক্তিযুদ্ধের দৃশ্য লাগানোর জন্য রম্ননু ও আনিস রূপা আপার কাছে দেয়ালটি ব্যবহারের অনুমতি চাইল।

প্রাথমকি সমাপনি নমুনা প্রশ্ন উত্তর

পাঠ্য বইভিত্তিক

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ১, ২, নম্বর প্রশ্নের উত্তর লেখ।

বৃহস্পতিবার শেষ দুই পিরিয়ডে অন্য রকমের কাজ হয়। হাসি আনন্দে ভরে থাকে পুরোটা সময়। ছাত্রছাত্রীরা সবাই বৃহস্পতিবারের অপেড়্গায় থাকে। আজ ছাত্রছাত্রীরা স্বাধীনতা দিবস উপলড়্গ্েয শ্রেণিকড়্গটি সাজাচ্ছে। রম্ননু ও আনিস সবাইকে দুটো দলে ভাগ করে দিয়ে কাজ শুরু করল। রূপা আপামণি ওদের কাজগুলো দেখিয়ে দিচ্ছিলেন। ছাত্রছাত্রীরা মুক্তিযুদ্ধের একটা দৃশ্য তৈরি করে দেয়ালে লাগানোর কথা ভাবল। ওরা প্রথমে সাদা আর্টবোর্ড আঠা দিয়ে দেয়ালে লাগাল। রং করা লম্বা গাছটি সেঁটে দিল বাঁ দিকে। গাছের নিচে সবুজ ঝোপে লাল হলুদ কাগজের ফুল লাগাল। চার পাঁচটি গামছাবাঁধা মাথা দেখা যাচ্ছে সেখানে। হাতে ধরা শক্ত আর্টবোর্ড দিয়ে বানানো রাইফেল। দেয়ালের ডান দিকে বালির ব¯ত্মা আঁকা কাগজ লাগাল। সেখানে পাকি¯ত্মানি সেনাদের ছবি। পুরো দৃশ্যটায় যেন একটি যুদ্ধ লেগে গেছে।

১.       সঠিক উত্তরটি উত্তরপত্রে লেখ।

)       ছাত্রছাত্রীরা আর্টবোর্ডটি কিসের সাহায্যে দেয়ালে লাগাল?

          (ক)     আলপিনের সাহায্যে          (খ)     দড়ির সাহায্যে

          (গ)     আঠার সাহায্যে       (ঘ)      স্কচটেপের সাহায্যে

২)      ছাত্রছাত্রীদের দুটো দলে ভাগ করল কে?

          (ক)     রম্ননু  (খ)     আনিস

          (গ)     রূপা আপা    (ঘ)      রম্ননু ও আনিস

৩)      কাদের মাথায় গামছা বাঁধা ছিল?

          (ক)     পাকি¯ত্মানি সেনাদের        (খ)     ছাত্রছাত্রীদের

          (গ)     রম্ননু ও আনিসের    (ঘ)      মুক্তিযোদ্ধাদের 

৪)       ছাত্রছাত্রীরা যে দৃশ্যটি তৈরি করেছিল তাতে ছিল

          (ক)     বাংলাদেশের প্রকৃতির চিত্র

          (খ)     বিদ্যালয়ের বাগানের চিত্র

          (গ)     ছাত্রছাত্রীদের খেলাধুলার চিত্র

          (ঘ)      মুক্তিযুদ্ধের সময়ের যুদ্ধের চিত্র

৫)      অন্য রকম কাজ করে ছাত্রছাত্রীরা

          (ক)     বিরক্ত হয়      (খ)     আনন্দ পায়

          (গ)     ক্লাšত্ম হয়     (ঘ)      সময় নষ্ট করে

          উত্তর : ১) (গ) আঠার সাহায্যে;   ২) (ঘ) রম্ননু ও আনিস;  ৩) (ঘ) মুক্তিযোদ্ধাদের;  ৪) (ঘ) মুক্তিযুদ্ধের সময়ের যুদ্ধের চিত্র;   ৫) (খ) আনন্দ পায়।

২.      নিচের শব্দগুলোর অর্থ লেখ।

          পিরিয়ড, অপেক্ষা, সাঁটা, যুদ্ধ, আর্টবোর্ড।

          উত্তর :         শব্দ              অর্থ

                            পিরিয়ড –      বেঁধে দেওয়া সময়।

                             অপেক্ষা –      সবুর।

                               সাঁটা     –      লাগানো।

                               যুদ্ধ      –      লড়াই।

                       আর্টবোর্ড     –      ছবি আঁকার শক্ত কাগজ।

৩.      নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখ।

ক)     রং করা লম্বা গাছটির নিচে কী কী রঙের কাগজের ফুল লাগানো হলো?

উত্তর : রং করা লম্বা গাছটির নিচে লাল ও হলুদ রঙের কাগজের ফুল লাগানো হলো।

খ)      রূপা আপামণি কী কী করলেন?

          উত্তর : রূপা আপামণি-

(১)      রম্ননু ও আনিসকে কাজ বুঝিয়ে দিলেন।

(২)      শ্রেণিকড়্গ সাজানোর কাজে ছাত্রছাত্রীদের সাহায্য করলেন।

গ)      ছাত্রছাত্রীরা সবাই বৃহস্পতিবারের অপেড়্গায় থাকে কেন?

উত্তর : বৃহস্পতিবার শেষের দুই পিরিয়ডে পড়াশোনার বাইরে অন্য রকম কিছু কাজ করার সুযোগ পায় ছাত্রছাত্রীরা। এ সময়টা তারা হাসি আনন্দে কাটাতে পারে। তাই সবাই বৃহস্পতিবারের অপেড়্গায় থাকে।

৪.      অনুচ্ছেদটির মূলভাব লেখ।

উত্তর : বৃহস্পতিবার শেষ দুই পিরিয়ডে ছাত্রছাত্রীরা আনন্দময় কিছু কাজ করে। স্বাধীনতা দিবস উপলড়্গ্েয আজ তারা তাদের শ্রেণিকড়্গটি সাজাবে। ছবি আঁকার শিড়্গক রূপা আপা সবাইকে কাজের ব্যাপারে সহায়তা করেন। ছাত্রছাত্রীরা মুক্তিযোদ্ধা ও পাকি¯ত্মানি বাহিনীর মধ্যে যুদ্ধের একটি দৃশ্য তৈরি করে শ্রেণিকড়্গরে দেয়ালে লাগিয়ে দেয়। 

পাঠ্য বই বহির্ভূত- যোগ্যতাভিত্তিক

এ অংশে পাঠ্য বই বহির্ভূত অনুচ্ছেদ/কবিতাংশ দেওয়া থাকবে। প্রদত্ত অনুচ্ছেদ/কবিতাংশ পড়ে ৩ ধরনের প্রশ্নের উত্তর করতে হবে। এখানে থাকবে- ৫. বহুনির্বাচনি প্রশ্ন,  ৬. শূন্যস্থান পূরণ ও  ৭. প্রশ্নের উত্তর লিখন। প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর করতে হবে।

পাঠ্য বই বহির্ভূত অনুচ্ছেদ/কবিতাংশ পরীড়্গায় কমন পড়বে না। তাই এটি এখানে দেওয়া হলো না। তবে পরীড়্গার প্রশ্নের পূর্ণাঙ্গ নমুনা (ঋড়ৎসধঃ) বোঝার সুবিধার্থে বইয়ের প্রথম দুটি অধ্যায়ে পাঠ্য বই বহির্ভূত অংশটি সংযোজন করা হয়েছে।

৮.      নিচের যুক্তবর্ণগুলো কোন কোন বর্ণ নিয়ে গঠিত ভেঙে দেখাও এবং প্রতিটি যুক্তবর্ণ দিয়ে একটি করে শব্দ গঠন করে বাক্যে প্রয়োগ দেখাও।

ড়্গ, শ্র, ম্ব, দ্ধ, স্ক।

উত্তর :

ড়্গ     =        ক + ষ –        শিড়্গা

          –        শিড়্গা জাতির মেরম্নদ-।

শ্র       =        শ + র-ফলা (  ্র )  –        শ্রোতা

          –        তাঁর গান শুনে শ্রোতারা মুগ্ধ হয়ে গেল।

     ম্ব   =        ম + ব –        কম্বল

          –        কম্বলটা দাও, শীত লাগছে।

দ্ধ       =        দ + ধ –        বিশুদ্ধ

          –        বিশুদ্ধ পানি পান কর।

স্ক       =        স + ক –        স্কুল

          –        আজ স্কুল ছুটি।

৯.      সঠিক স্থানে বিরামচিহ্ন বসিয়ে অনুচ্ছেদটি আবার লেখ।

          এগুলো নাও পাঁচ মিনিট দুজনে পরামর্শ কর কী কী তৈরি করবে কোথায় কোথায় সেগুলো লাগাবে আমি সাহায্য করব

          উত্তর : এগুলো নাও। পাঁচ মিনিট দুজনে পরামর্শ কর। কী কী তৈরি করবে, কোথায় কোথায় সেগুলো লাগাবে। আমি সাহায্য করব।

১০. ক্রিয়াপদের চলিত রূপ লেখ।

          লাগাইয়া, দিতেছি, করিয়া, যাইতেছে, আসিলেন।

          উত্তর :          ক্রিয়াপদ                চলিত রূপ

                   লাগাইয়া       –        লাগিয়ে

          দিতেছি         –        দিচ্ছি

          করিয়া –        করে

          যাইতেছে      –        যাচ্ছে

          আসিলেন      –        এলেন

১১.     নিচের শব্দগুলোর বিপরীত শব্দ লেখ।

                   হাসি, খুশি, শক্ত, ছাত্র, যুদ্ধ।

                   উত্তর :          শব্দ              বিপরীত শব্দ

          হাসি   –        কান্না

          খুশি    –        অখুশি

          শক্ত    –        নরম

          ছাত্র    –        ছাত্রী

          যুদ্ধ    –        শাšিত্ম

১২.    নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :

          (গদ্যের ড়্গেেত্র প্রযোজ্য নয়)

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.