আমাদের বসুন্ধরা- ৩য় শ্রেণী আমার বাংলা বই

রচনাটি পড়ে জানতে পারব

  • নানা রকম সবজির নাম
  • গাছে ফুল থেকে ফল হওয়ার প্রক্রিয়া
  • পাখি ও কীট-পতঙ্গরা যেভাবে গাছের উপকার করে
  • গাছপালা আমাদের যেসব উপকার করে

রচনাটির মূলভাব জেনে নিই

এই রচনায় গাছপালার সাথে নানা ধরনের পশুপাখি, কীট-পতঙ্গ এবং মানুষের সম্পর্কের কথা বলা হয়েছে। পাখি ও কীট-পতঙ্গরা গাছপালা থেকে খাদ্য সংগ্রহ করে। আবার নানাভাবে গাছের উপকারও করে। গাছপালা আমাদের সবচেয়ে উপকারী বন্ধু। গাছ না থাকলে আমরা বেঁচে থাকতে পারতাম না। ঐশী ও ওমর খালুর বাড়ি বেড়াতে এসে এ বিষয়গুলো সম্পর্কে জানতে পারল।

বানানগুলো লক্ষ করি

শিম, শালিক, প্রজাপতি, কীট-পতঙ্গ, মৌমাছি, খড়ি, ফড়িং, পরিণত, রেণু, অক্সিজেন, আপনজন, পিঁপড়ে।

অনুশীলনীর প্রশ্ন ও উত্তর

 ছবি দেখি। ছবি নিয়ে ভাবি। বাক্য বলি ও খাতায় লিখি।

১.

Bangla chapter 1 - Our Bashundara
উত্তর : নদীতে ফুটে আছে সাদা ও লাল রঙের অসংখ্য শাপলা ফুল। নদীর পাশে গ্রাম। 

২.

Bangla chapter 1 - Our Bashundara 2
উত্তর : একটি ছেলে ও একটি মেয়ে নৌকায় চড়ে শাপলা ফুল তুলতে এসেছে। ছেলেটি বৈঠা দিয়ে নৌকা বাইছে। মেয়েটি পানি থেকে শাপলা ফুল তুলে নৌকায় রাখছে। লাল-সাদা শাপলায় নৌকার পাটাতন ভরে উঠেছে। 

৩.

Bangla chapter 1 - Our Bashundara 3
উত্তর : ছেলে ও মেয়েটি নদীর পাড়ে এলে বন্ধুরা তাদের ঘিরে ধরে। মেয়েটি তাদের শাপলা ফুলের মালা পরিয়ে দেয়। সবাই খুব খুশি হয়।

অতিরিক্ত প্রশ্ন ও উত্তর

  • সঠিক উত্তরটি লেখ ।

১. ঐশী ও ওমর কোথায় এসেছে?
. মামার বাড়ি . ফুপার বাড়ি
. খালুর বাড়ি . চাচার বাড়ি
২. বেগুনখেতে কোন পাখি মধু খাচ্ছিল?
. শালিক খ. দোয়েল
. বুলবুলি ঘ. টুনটুনি
৩. কোন রঙের ফড়িং ওড়াওড়ি করছিল?
. হলুদ . লাল
. সাদা . সবুজ
৪. কোনটি ছাড়া আমরা বাঁচি না?
ক. মধু খ. কাঠ
গ. কীট-পতঙ্গ ঘ. অক্সিজেন

  • নিচের শব্দগুলোর অর্থ লেখ।

মৌচাক, রেণু, আপনজন, কীট-পতঙ্গ।
উত্তর :

শব্দঅর্থ
মৌচাকমৌমাছি যেখানে মধু জমা করে।
রেণুপরাগ।
আপনজনকাছের মানুষ।
কীট-পতঙ্গপোকা-মাকড়।
  • নিচের শব্দগুলো দিয়ে বাক্য রচনা কর।

উপকার, হাততালি, আপনজন।
উত্তর :

শব্দবাক্য
উপকারঅন্যের উপকার করা ভালো।
হাততালিদর্শকরা খুশিতে হাততালি দিল।
আপনজনবাবা-মা আমাদের সবচেয়ে আপনজন।
  • নিচের যুক্তবর্ণগুলো কোন কোন বর্ণ নিয়ে গঠিত ভেঙে দেখাও এবং প্রতিটি যুক্তবর্ণ দিয়ে একটি করে নতুন শব্দ গঠন করে বাক্যে প্রয়োগ দেখাও।

প্র, চ্ছ, ঙ্গ, ক্স
উত্তর :

যুক্তবর্ণশব্দবাক্য
প্র=প্ + র-ফলা ( ্র )প্রাণীগরু খুব শান্ত প্রাণী।
চ্ছ = চ্ + ছকচ্ছপকচ্ছপ খুব ধীরে চলে।
ঙ্গ = ঙ্ + গঅঙ্গআমার সারা অঙ্গে ব্যথা।
ক্স = ক্ + সবাক্সবাক্সটি খেলনায় ভরা।
  • শূন্যস্থান পূরণ কর।

ক) লাউয়ের ______ ঝুলছে লাউ।
খ) ওমর ______ হাততালি দিল।
গ) _____ ছাড়া আমরা বাঁচতে পারি না।
ঘ) অনেক পাখি আবার মধুও ।
ঙ) আমগাছের ডালে বড় একটা ____।
উত্তর : ক) মাচায়; খ) খুশিতে; গ) অক্সিজেন; ঘ) ভালোবাসে; ঙ) মৌচাক।

  • ডান পাশের বাক্যাংশের সাথে বাম পাশের বাক্যাংশের মিল কর।
ডানপক্ষবানপক্ষ
সবুজ পাতার মধ্যেহাততালি দিল।
অনেক পাখি আবারমধু খাচ্ছে।
গাছ আমাদেরদুলছে সাদা ফুল।
টুনটুনি পাখিরামধুও ভালোবাসে।
ওমর খুশিতেউপকার করে।
ডাল দুলছে।
  • উত্তর :
  • সবুজ পাতার মধ্যে = দুলছে সাদা ফুল
  • অনেক পাখি আবার = মধুও ভালোবাসে।পুষ্প, কুসুম।
  • গাছ আমাদের = উপকার করে।
  • টুনটুনি পাখিরা = মধু খাচ্ছে।
  • ওমর খুশিতে = হাততালি দিল।
  • নিচের শব্দগুলোর সমার্থক শব্দ লেখ।

ফুল, পাখি, গাছ।

উত্তর :

শব্দসমার্থক শব্দ
ফুলপুষ্প, কুসুম।
পাখিবিহঙ্গ, পক্ষী।
গাছতরু, বৃক্ষ।
  • নিচের বানানগুলো শুদ্ধ করে লেখ।

অক্সিসেন, কীট-পতঙ, পিপড়ে, প্রজাপতী, বন্ধুত্ত্ব।

উত্তর :

ভুল বানানশুদ্ধ বানান
অক্সিসেনঅক্সিজেন
কীট-পতঙকীট-পতঙ্গ
পিপড়েপিঁপড়ে
প্রজাপতীপ্রজাপতি
বন্ধুত্ত্ববন্ধুত্ব
  • নিচের কোনটি কোন পদ লেখ।

বেগুন, খুশি, ওড়া, সুন্দর, মধু


উত্তর :

শব্দপদ
বেগুনবিশেষ্য
খুশিবিশেষণ
ওড়াক্রিয়া
সুন্দরবিশেষণ
মধুবিশেষ্য
  • নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখ।

ক) সীমার সাথে ঐশী ও ওমরের সম্পর্ক কী?
উত্তর : সীমা হলো ঐশী ও ওমরের খালাতো বোন।

খ) বাড়ির পাশের সবজি বাগানে কী কী গাছ ছিল?
উত্তর : বাড়ির পাশের সবজি বাগানে ছিল লাউ, শিম, বেগুন ইত্যাদি সবজির গাছ।

গ) বেগুনখেতে কোন কোন রঙের প্রজাপতি ওড়াওড়ি করছিল?
উত্তর : বেগুনখেতে হলুদ ও সাদা রঙের প্রজাপতি ওড়াওড়ি করছিল।

ঘ) পাখিরা কী কী খায়?
উত্তর : পাখিরা নানা রকমের কীট-পতঙ্গ খায়। তবে অনেক পাখি মধু খেতেও ভালোবাসে।

ঙ) আমের মুকুল কিসে পরিণত হয়?
উত্তর : আমের মুকুল আমের গুটিতে পরিণত হয়।

চ) গাছের তিনটি উপকারিতা লেখ।
উত্তর : গাছের তিনটি উপকারিতা হলো :
১. গাছ থেকে আমরা নানা রকম খাবার পাই।
২. গাছ থেকে আমরা খড়ি ও কাঠ পাই।
৩. গাছ থেকে আমরা অক্সিজেন পাই। অক্সিজেন ছাড়া আমরা বাঁচতে পারি না।

  • বুঝিয়ে লেখ।

১. গাছ আমাদের উপকার করে।
উত্তর : আলোচ্য বাক্যটি ‘ছবি ও কথা’ রচনা থেকে নেওয়া হয়েছে।
এখানে গাছের মাধ্যমে আমরা যে সকল সুবিধা পাই তার কথা বলা হয়েছে।
গাছ আমাদের বিভিন্ন প্রয়োজন মেটায়। গাছ থেকে আমরা নানা রকম খাবার ও কাঠ পাই। আবার আমাদের প্রয়োজনীয় অক্সিজেনের চাহিদাও পূরণ করে গাছ।

প্রাথমিক সমাপনী নমুনা প্রশ্ন ও উত্তর

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ১, ২, ৩ ও ৪ নম্বর প্রশ্নের উত্তর লেখ।
ঐশী আর ওমর যেমন অবাক, তেমনি খুশি। খালু বললেন, পাখিরা কীট-পতঙ্গ খায়। অনেক পাখি আবার মধুও ভালোবাসে। ওরা দেখল একটা আমগাছের ডালে বড় একটা মৌচাক। ওরা খালুর কাছে শুনল মৌমাছি, পিঁপড়ে ও পাখিরা গাছের অনেক উপকার করে। পাখি, পিঁপড়ে ও মৌমাছিরা ফুলে ফুলে ঘোরে। মধু খাওয়ার সময় এক ফুলের রেণু অন্য ফুলের রেণুর সঙ্গে মিলে যায়। তাই গাছে ফল ধরে। আম গাছ দেখিয়ে খালু বললেন, এখন গাছে মুকুল হয়েছে। কিছুদিন পর এগুলো আমের গুটিতে পরিণত হবে। সীমা আপা বলল, গাছ আমাদের উপকার করে। একটু ভেবে বলো তো কীভাবে? ওমর খুশিতে হাততালি দিল। বলল আমি জানি, আমরা তো গাছ থেকে কত রকমের খাবার পাই। খড়ি আর কাঠও পাই। খালু বললেন, ঠিক তাই। তবে গাছ আমাদের সবচেয়ে উপকার করে অক্সিজেন দিয়ে। অক্সিজেন ছাড়া আমরা বাঁচতে পারি না।
১. সঠিক উত্তরটি উত্তরপত্রে লেখ।
১) মুকুল ধরেছে কোন গাছে?
(ক) আমগাছে (খ) লাউগাছে
(গ) বেগুনগাছে (ঘ) শিমগাছে
২) আমের মুকুল কোনটিতে রূপান্তরিত হয়?
(ক) ফুলে (খ) বীজে
(গ) গুটিতে (ঘ) মৌচাকে
৩) সীমা আপা জিজ্ঞাসা করল :-
(ক) কীট-পতঙ্গের উপকারিতা সম্বন্ধে
(খ) গাছের উপকারিতা সম্বন্ধে
(গ) মানুষের উপকারিতা সম্বন্ধে
(ঘ) পাখিদের উপকারিতা সম্বন্ধে
৪) কীট-পতঙ্গরা ফুলের মধু খায় বলে গাছের কী উপকার হয়?
(ক) গাছে অক্সিজেন সৃষ্টি হয়
(খ) গাছ বৃদ্ধি পায়
(গ) গাছে আরও ফুল ধরে
(ঘ) গাছে ফল ধরে
৫) ‘অক্সিজেন’ শব্দটির যুক্তবর্ণটি কোন কোন বর্ণ নিয়ে গঠিত?
(ক) ক + র (খ) ক + র-ফলা
(গ) ক + শ (ঘ) ক + স
উত্তর : ১) (ক) আমগাছে; ২) (গ) গুটিতে; ৩) (খ) গাছের উপকারিতা সম্বন্ধে; ৪) (ঘ) গাছে ফল ধরে; ৫) (ঘ) ক + স।
২. নিচের শব্দগুলোর অর্থ লেখ।
খড়ি, অবাক, মুকুল, মৌচাক, রেণু।
উত্তর : শব্দ

শব্দঅর্থ
খড়িজ্বালানি কাঠ।
অবাকবাক্যহীন, নির্বাক।
মুকুলকুঁড়ি।
মৌচাকযেখানে মৌমাছিরা মধু জমা করে।
রেণুপরাগ।

৩. নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখ
ক) আমগাছের ডালে কী দেখা গেল?
উত্তর : আমগাছের ডালে বড় একটা মৌচাক দেখা গেল।
খ) কীট-পতঙ্গ ও পাখিরা কীভাবে গাছের উপকার করে?
উত্তর : গাছের ফুল থেকে মধু খাওয়ার জন্য কীট-পতঙ্গ ও পাখিরা ফুলে ফুলে ঘোরে। তখন তাদের ঠোঁটে, ডানায়, পায়ে লেগে থাকা ফুলের রেণু নতুন ফুলের রেণুর সঙ্গে মেলে। এতে গাছে ফল ধরে। এভাবে কীট-পতঙ্গ ও পাখিরা গাছের উপকার করে।
গ) অক্সিজেন কী?
উত্তর : অক্সিজেন হলো এমন একটি রাসায়নিক পদার্থ যেটি ছাড়া আমরা বাঁচি না। গাছ আমাদের অক্সিজেন দেয়।
৪. অনুচ্ছেদটির মূলভাব লেখ।
উত্তর : পাখি ও কীট-পতঙ্গরা গাছ থেকে যেমন উপকার পায় তেমনি গাছের উপকারও করে থাকে। ওরা গাছের ফুল থেকে ফল হওয়ায় সাহায্য করে। গাছ আমাদের খাদ্য, কাঠ, খড়ি, ইত্যাদির জোগান দেয়। আমাদের বাঁচার জন্য অক্সিজেনের বিকল্প নেই। এটিও আমরা গাছ থেকে পাই।

পাঠ্য বই বহির্ভূত যোগ্যতাভিত্তিক

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ৫, ৬ ও ৭ নম্বর প্রশ্নের উত্তর লেখ।
কামাল স্যার একদিন ক্লাসে গাছপালা নিয়ে কথা বলছিলেন। তিনি বললেন, গাছ আমাদের নানাভাবে উপকার করে। বাদল বলল, কীভাবে স্যার? স্যার বললেন, গাছপালা থেকে আমরা খাবার পাই, কাঠ পাই, অক্সিজেন পাই। সুমি প্রশ্ন করল, অক্সিজেন কী স্যার? স্যার জবাব দিলেন, অক্সিজেন হলো এক ধরনের রাসায়নিক উপাদান। আমাদের বেঁচে থাকার জন্য অক্সিজেন অপরিহার্য। খুশি বলল, কিন্তু স্যার মানুষ তো দেখি প্রায়ই গাছপালা কেটে ফেলে। স্যার হেসে বললেন, হ্যাঁ, মানুষ অনেক সময় কাঠ, খাদ্য, বস্ত্র ইত্যাদির চাহিদা মেটাতে গাছ কাটে। তবে একটি গাছ কাটলে অন্তত দুটি গাছ লাগানো উচিত। গাছ আমাদের পরিবেশ রক্ষা করে। গাছপালা কমে গেলে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হয়।
৫. সঠিক উত্তরটি উত্তরপত্রে লেখ।
১) কামাল স্যার কোন ব্যাপারে কথা বলছিলেন?
(ক) গাছপালার প্রয়োজনীয়তার ব্যাপারে
(খ) গাছ কাটার প্রয়োজনীয়তার ব্যাপারে
(গ) খাবার খাওয়ার প্রয়োজনীয়তার ব্যাপারে
(ঘ) অক্সিজেনের প্রয়োজনীয়তার ব্যাপারে
২) একটি গাছ কাটলে কমপক্ষে কয়টি গাছ লাগানো উচিত?
(ক) ১টি (খ) ২টি
(গ) ৩টি (ঘ) ৪টি
৩) আমরা কী থেকে অক্সিজেন পাই?
(ক) খাদ্য থেকে (খ) কাঠ থেকে
(গ) বস্ত্র থেকে (ঘ) গাছ থেকে
৪) ‘উপকার’ শব্দটির বিপরীত শব্দ কোনটি?
(ক) অপকার (গ) উপহার
(গ) প্রকার (ঘ) আকার
৫) কোনটি করলে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হবে?
(ক) বেশি করে গাছ লাগালে
(খ) গাছের যত নিলে
(গ) বেশি বেশি গাছ কাটলে
(ঘ) মানুষকে গাছ লাগাতে বললে
উত্তর : ১) (ক) গাছপালার প্রয়োজনীয়তার ব্যাপারে; ২) (খ) ২টি; ৩) (ঘ) গাছ থেকে; ৪) (ক) অপকার; ৫) (গ) বেশি বেশি গাছ কাটলে।

৬. নিচে কতগুলো শব্দ ও শব্দার্থ দেওয়া হলো। নিচের বাক্যগুলোর শূন্যস্থানের উপযুক্ত শব্দটি উত্তরপত্রে লেখ।
শব্দ শব্দার্থ
অপরিহার্য = অবশ্যই যা প্রয়োজন
জবাব = উত্তর
ধ্বংস = ক্ষয়, বিনাশ
বস্ত্র = পরার কাপড়
উপাদান = উপকরণ, মাল মশলা
চাহিদা = প্রয়োজন
ক) বাবা গরিব বৃদ্ধটিকে শীতের________দিলেন।
খ) আমার কথার_________দাও।
গ) বেঁচে থাকার জন্য খাবার খাওয়া_______।
ঘ) দুধ, চিনি, ক্রিম, বরফ ইত্যাদি হলো আইসক্রিম তৈরির ________।
ঙ) মুক্তিবাহিনীর আক্রমণে পাকিস্তানিদের জাহাজ ________হয়ে গেল।
উত্তর : ক) বস্ত্র; খ) জবাব; গ) অপরিহার্য; ঘ) উপাদান; ঙ) ধ্বংস।

৭. নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখ।
ক) গাছ আমাদের কী কী উপকার করে? তিনটি বাক্যে লেখ।
উত্তর : গাছ আমাদের নানাভাবে উপকার করে। যেমন
১) গাছ থেকে আমরা খাবার পাই।
২) গাছ থেকে আমরা অক্সিজেন পাই।
৩) গাছ পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে।

খ) বাদল ও সুমি স্যারের কাছে কী কী জানতে চাইল?
উত্তর : বাদল স্যারের কাছে গাছের উপকারিতার কথা জানতে চাইল। আর সুমি জানতে চাইল অক্সিজেন সম্পর্কে।
গ) আমরা বেশি বেশি গাছ লাগাব কেন?
উত্তর : গাছ থেকে আমরা খাদ্য, বস্ত্র, কাঠ, অক্সিজেন ইত্যাদি পাই। গাছ আমাদের পরিবেশ রক্ষা করে। গাছ না থাকলে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হয়। তাই আমরা বেশি বেশি গাছ লাগাব।

৮. নিচের যুক্তবর্ণগুলো কোন কোন বর্ণ নিয়ে গঠিত ভেঙে দেখাও এবং প্রতিটি যুক্তবর্ণ দিয়ে একটি করে শব্দ গঠন করে বাক্যে প্রয়োগ দেখাও।
ন্দ, চ্ছ, ঙ্গ, ক্স, প্র।
উত্তর :

যুক্তবর্ণশব্দবাক্য
প্র = প + র-ফলা ( ্র )প্রিয়জবা ফুল আমার খুব প্রিয়।
ন্দ = ন + দআনন্দশিশুরা খেলাধুলা করে খুব আনন্দ পায়।
চ্ছ = চ্ + ছকচ্ছপকচ্ছপ খুব ধীরে চলে।
ঙ্গ = ঙ্ + গঅঙ্গআমার সারা অঙ্গে ব্যথা।
ক্স = ক্ + সবাক্সবাক্সটি খেলনায় ভরা।


৯. সঠিক স্থানে বিরামচিহ্ন বসিয়ে অনুচ্ছেদটি আবার লেখ।
ঐশী আর ওমর যেমন অবাক তেমনি খুশি খালু বললেন পাখিরা কীট পতঙ্গ খায়
উত্তর : ঐশী আর ওমর যেমন অবাক, তেমনি খুশি। খালু বললেন, পাখিরা কীট-পতঙ্গ খায়।

১০. ক্রিয়াপদের চলিত রূপ লেখ।
দুলিতেছে, বলিলেন, দেখাইবেন, খাইবে, শুনিল।
উত্তর : ক্রিয়াপদ চলিত রূপ
দুলিতেছে = দুলছে
বলিলেন = বললেন
দেখাইবেন = দেখাবেন
খাইবে = খাবে
শুনিল = শুনল

১১. নিচের শব্দগুলোর বিপরীত শব্দ লেখ।
পরিণত, উঁচু, ভরা, উপকার, প্রথম।
উত্তর : শব্দ বিপরীত শব্দ
পরিণত = অপরিণত
বড় = ছোট
ভরা = খালি, শূন্য
উপকার = অপকার
প্রথম = শেষ

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.