|

৯ম-১০ম শ্রেণী BGS চতুর্দশ অধ্যায়ঃ বাংলাদেশ সামাজিক পরিবর্তন

অধ্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো সংক্ষেপে জেনে রাখি

  • সামাজিক পরিবর্তনের ধারণা : সামাজিক পরিবর্তন বলতে সমাজ কাঠামো ও এর কার্যাবলির পরিবর্তনকে বোঝায়। প্রতিটি সমাজের মৌল কাঠামো গড়ে উঠে সে সমাজের উৎপাদন ব্যবস্থা এবং উক্ত ব্যবস্থার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত বিভিন্ন পেশার মানুষের সম্পর্কের মাধ্যমে আবার এই কাঠামোর সাথে গড়ে উঠে কতোগুলো উপরিকাঠামো। যেমন  আইন-কানুন, রাজনীতি, সংস্কৃতি প্রভৃতি।
  • বাংলাদেশের সমাজ পরিবর্তনের উপাদান এবং এর প্রভাব : বাংলাদেশের সামাজিক পরিবর্তন দেশের আর্থ-সামাজিক, রাজনৈতিক, শিক্ষা, ধর্ম ও সংস্কৃতি প্রভৃতি ক্ষেত্রে প্রতিভাত হয়। সমাজের এ ক্ষেত্রসমূহে পরিবর্তনের মূলে রয়েছে সুনির্দিষ্ট কতকগুলো উপাদান। যথা  ১. প্রাকৃতিক উপাদান, ২. জৈবিক উপাদান, ৩. সাংস্কৃতিক উপাদান, ৪. শিক্ষা, ৫. প্রযুক্তি, ৬. যোগাযোগ, ৭. শিল্পায়ন ও নগরায়ণ।
  • সামাজিক পরিবর্তন এবং নারীর ভূমিকা : বাংলাদেশে শিল্পের ক্রমোন্নতি নারীর সামাজিক জীবন ও মর্যাদার ক্ষেত্রকে প্রভূত পরিবর্তন সাধন করেছে। শিল্পের প্রসার আজ নারীকে গৃহের সীমিত পরিবেশ থেকে বাইরের  কর্মমুখর জগতে টেনে এনেছে। তাছাড়া নারী সমাজের চাকরি, বাড়তি অর্থোপার্জনের সুযোগ সম্প্রসারিত করেছে। শিক্ষাক্ষেত্রে নারী আগের তুলনায় অনেক অগ্রসর হয়েছে। নারীরা এখন শুধু প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মাধ্যমি বিদ্যালয়ের গÊিতে আবদ্ধ নয়। তারা এখন উচ্চশিক্ষার জন্য মেডিকেল কলেজ, সাধারণ বিশ্ববিদ্যালয়, প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে পড়াশুনা করছে।

বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

১.            নিচের কোনটি সমাজ পরিবর্তনের সাংস্কৃতিক উপাদান?

                ক বৈশ্বিক উষ্ণায়নের প্রভাব        খ জনসংখ্যার ঘনত্ববৃদ্ধি

                 সমবায় আন্দোলন        ঘ পোশাক শিল্পের সম্প্রসারণ

২.           নগরায়ণ কী?

                 গ্রামীণ জীবন ছেড়ে নগর জীবন গ্রহণ প্রক্রিয়া

                খ শিল্প সম্প্রসারণের ধারাবাহিক উপায়

                গ নগর সভ্যতা গড়ে তোলার পদ্ধতি

                ঘ অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন প্রক্রিয়া

৩.           বাংলাদেশের নারী শিক্ষায় সাম্প্রতিক পরিবর্তনের কারণ হলো-

                র. বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ

                রর. মাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত অবৈতনিক শিক্ষা

                ররর. উপবৃত্তি কার্যক্রমের প্রভাব

                নিচের কোনটি সঠিক?

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

নিচের অনুচ্ছেদটি পড় এবং নম্বর প্রশ্নের উত্তর দাও :

চন্দন নগর একসময় নারীশিক্ষায় অনেক পিছিয়েছিল। বিদ্যালয়গুলোতে মেয়ে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ছেলে শিক্ষার্থীর অর্ধেকেরও কম ছিল। সাম্প্রতিক সময়ে এ অঞ্চলে বিদ্যালয় উপস্থিতি, পরীক্ষায় কৃতিত্ব ও অন্যান্য ক্ষেত্রে মেয়ে শিক্ষার্থীরা অনেক এগিয়ে।

৪.           চন্দন নগরে নারী শিক্ষার পরিবর্তনের কারণ-

                র. পিতা-মাতার সচেতনতা বৃদ্ধি  রর. সরকারি-বেসরকারি পদক্ষেপ

                ররর. প্রযুক্তির উন্নয়ন

                নিচের কোনটি সঠিক?

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

৫.           চন্দন নগরে নারী শিক্ষার পশ্চাদপদতার কারণ-

                র. অজ্ঞতা ও অশিক্ষা     রর. শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অপ্রতুলতা

                ররর. আর্থসামাজিক ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন

                নিচের কোনটি সঠিক?

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

প্রশ্ন- ১  সামাজিক পরিবর্তনে নারীর ভূমিকা 

মহাত্মা গান্ধীর ‘সর্বদয়া’ আন্দোলন এক সময়ে ভারতের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে জীবনমুখী করেছিল। বাংলাদেশের বেসরকারি সংস্থা সিডিএম উক্ত কর্মসূচির অনুরূপ ‘শ্রমদানা’ কার্যক্রম গ্রহণ করে বগুড়ার অবহেলিত জনগোষ্ঠীর সমস্যা সমাধানে নানা কাজ করছে, যা বগুড়ার বিভিন্ন গ্রামে নানামুখী পরিবর্তন সাধন করেছে। এ অঞ্চলে এখন যৌতুক ও বাল্যবিবাহ নেই বললেই চলে। এখানে বহু নারী উন্নয়ন সংঘ এখন জনসংখ্যারোধ, ¶ুদ্র ঋণ প্রকল্পে কাজ করে সমাজ জীবনে ব্যাপক পরিবর্তন এনেছে।

 ক.সামাজিক পরিবর্তন কী?        

খ.বাংলাদেশের সামাজিক পরিবর্তনের একটি কারণ ব্যাখ্যা কর।   

গ.‘সর্বদয়া ও শ্রমদানা’ কার্যক্রমের প্রভাবে সৃষ্ট সামাজিক পরিবর্তনের কোন উপাদানের প্রভাবের সাথে মিল রয়েছে? ব্যাখ্যা কর।         

ঘ.ঋণ প্রকল্প নারীর ভূমিকার পরিবর্তনে সমাজ জীবনে কী প্রভাব ফেলেছে? বিশ্লেষণ কর।

 ক          সামাজিক পরিবর্তন হচ্ছে কোনো জাতির জীবনব্যবস্থার সামগ্রিক পরিবর্তন।

 খ           বাংলাদেশের সামাজিক পরিবর্তনের একটি কারণ হলো বাংলাদেশের ভূপ্রকৃতিগত অবস্থান। ধীর এবং আকস্মিক ভৌগোলিক পরিবর্তন, জলবায়ু সংক্রান্ত পরিবর্তন, বৈশ্বিক উষ্ণায়ন প্রভৃতি বাংলাদেশের মানুষের জীবনযাত্রার ওপর প্রভাব ফেলে এবং সমাজের ব্যাপক পরিবর্তন সাধন করে। প্রাকৃতিক বিভিন্ন বিপর্যয় বাংলাদেশের জন্য নিয়মিত ঘটনা। এসব বিপর্যয় নতুন নতুন সমস্যার সৃষ্টি করে। মানুষ এসব সমস্যা মোকাবিলায় নানামুখী কার্যক্রম গ্রহণ করে সমাজের পরিবর্তন সাধন করে।

 গ           ‘সর্বদয়া ও শ্রমদানা’ কার্যক্রমের প্রভাবে সৃষ্ট সামাজিক পরিবর্তনের সাথে শিক্ষা উপাদানের প্রভাবের মিল রয়েছে। সামাজিক পরিবর্তনের একটি বিশেষ উপাদান হলো শিক্ষা। শিক্ষা হলো এক ধরনের সংস্কার সাধন এবং বিরামহীন প্রক্রিয়া। সমাজের সদস্যদের মধ্যে শিক্ষার প্রসার আত্মবিশ্বাস ও বিচার বিবেচনার ক্ষমতা জাগ্রত করে। শিক্ষা যাবতীয় অন্ধত্ব, অজ্ঞতা, কুসংস্কার প্রভৃতি থেকে মুক্তি দেয়। যেমন : বাংলাদেশের সমাজে নারী শিক্ষার প্রসার জনগণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করেছে। এর ফলে দেশে নারী অধিকার প্রতিষ্ঠায় সৃষ্টি হয়েছে বহু সামাজিক নীতি ও আইন। যৌতুক আইন, পারিবারিক আইন, নারী উন্নয়ন নীতি প্রভৃতি সামাজিক সচেতনতার ফসল। উদ্দীপকে উল্লিখিত ‘সর্বদয়া আন্দোলন এক সময়ে ভারতের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে জীবনমুখী করেছিল। উক্ত কর্মসূচির অনুরূপ ‘শ্রমদানা’ কার্যক্রমের প্রভাবে বগুড়ার বিভিন্ন গ্রামে নানামুখী পরিবর্তন সাধন হয়েছে এবং যৌতুক ও বাল্যবিবাহ নেই বললেই চলে। এসব কিছু সামাজিক সচেতনতার ফসল। এ সচেতনতা মানুষের মাঝে জাগ্রত করে শিক্ষা। তাই বলা যায়, ‘সর্বদয়া ও শ্রমদানা’ কার্যক্রমের প্রভাবের সাথে সামাজিক পরিবর্তনের শিক্ষা উপাদানের প্রভাবের মিল রয়েছে।

 ঘ ¶ুদ্র ঋণ প্রকল্প নারীর ভূমিকার পরিবর্তনে সমাজ জীবনে ইতিবাচক প্রভাব ফেলেছে।   আমাদের গ্রাম পর্যায়ে নারীরা সরকারি কিংবা বেসরকারি সংস্থা থেকে ঋণ নিয়ে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে। এ কর্মসংস্থানগুলোর মধ্যে রয়েছে বৃক্ষরোপণ, নার্সারি, গরু মোটাতাজাকরণ, ছাগল পালন, মৎস্য চাষ, মধুচাষ, হাঁস-মুরগি পালন, টেইলারিং, ফলমূলের ব্যবসা প্রভৃতি। আত্মকর্মসংস্থানমূলক কাজে নিয়োজিত হওয়ার কারণে মহিলারা এখন পরিবারকে আর্থিক সহায়তা করতে পারছে। এর ফলে পরিবারের অভাব অনেকটা দূর হচ্ছে। এছাড়া নারীদের উপার্জনের টাকায় তাদের ছেলেমেয়েরা পড়াশোনার সুযোগ পাচ্ছে। পরিবারের সদস্যরা স্বাস্থ্যসেবা পাচ্ছে। উদ্দীপকেও দেখা যায়, বগুড়া গ্রামে বহু নারী উন্নয়ন সংঘ জনসংখ্যারোধ, ¶ুদ্র ঋণ প্রকল্পের কাজ করে সমাজ পরিবর্তনে ব্যাপক ভূমিকা রাখছে। এর ফলে সে গ্রামের নারীরা স্বাবলম্বী হওয়ার পাশাপাশি নিজের অধিকার রক্ষায় সচেতন হয়েছে। অর্থাৎ সামাজিক পরিবর্তনের সাথে সাথে বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীর ভূমিকারও পরিবর্তন ঘটেছে। নারীর ভূমিকার এই পরিবর্তন নারীকে ক্ষমতায়নে ও মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করেছে।

প্রশ্ন- ২   সামাজিক পরিবর্তনের উপাদান 

       ছক : ক                       ছক : খ

 ক.‘মানবীয় সম্পর্কের পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক পরিবর্তন’- উক্তিটি কার?              

খ.শিক্ষা সামাজিক পরিবর্তনের অন্যতম উপাদান ব্যাখ্যা কর।      

গ.ছক ‘ক’ এ নির্দেশকসমূহে যে উপাদানটির প্রভাব রয়েছে সমাজে এর ইতিবাচক দিকটি ব্যাখ্যা কর।          

ঘ.ছক ‘খ’ এ নির্দেশকসমূহের উপাদানটির একদিকে আশীর্বাদ অন্যদিকে অভিশাপ- তুমি কী এই বক্তব্যের সাথে একমত? যুক্তি দাও।        

 ক          “মানবীয় সম্পর্কের পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক পরিবর্তন”- উক্তিটি ম্যাকাইভারের।

 খ           শিক্ষা হলো এক ধরনের সংস্কার সাধন এবং বিরামহীন প্রক্রিয়া। সমাজের সদস্যদের মধ্যে শিক্ষার প্রসার আত্মবিশ্বাস ও বিচার বিবেচনার ক্ষমতা জাগ্রত করে। শিক্ষার প্রসার জনগণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করে। নারী-পুরুষ নির্বিশেষে সবাইকে তার অধিকার প্রতিষ্ঠায় বিভিন্ন সামাজিক আন্দোলনে উদ্বুদ্ধ করে। একটি দেশের সমাজ ও অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে শিক্ষার ভূমিকা অপরিসীম। তাই শিক্ষা সামাজিক পরিবর্তনের একটি অন্যতম উপাদান।

 গ           ছক ‘ক’ এ নারীর ক্ষমতায়ন, কুসংস্কার দূর, দারিদ্র্যবিমোচন, আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি নির্দেশকসমূহের মাধ্যমে শিক্ষার প্রভাব দেখানো হয়েছে। সমাজে শিক্ষার ইতিবাচক দিক নিচে ব্যাখ্যা করা হলো। সামাজিক পরিবর্তনের একটি বিশেষ উপাদান হলো শিক্ষা। শিক্ষা হলো এক ধরনের সংস্কার সাধন এবং বিরামহীন প্রক্রিয়া। সমাজের সদস্যদের মধ্যে শিক্ষার প্রসার আত্মবিশ্বাস ও বিচার বিবেচনার ক্ষমতা জাগ্রত করে। শিক্ষা যাবতীয় অন্ধত্ব, অজ্ঞতা, কুসংস্কার প্রভৃতি থেকে মুক্তি দেয়। যেমন : বাংলাদেশের সমাজে নারীশিক্ষার প্রসার জনগণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করেছে, যা বিভিন্ন সামাজিক আন্দোলনে উদ্বুদ্ধ করেছে। এর ফলে দেশে নারী অধিকার প্রতিষ্ঠায় সৃষ্টি হয়েছে বহু সামাজিক নীতি ও আইন। যৌতুক আইন, পারিবারিক আইন, নারী উন্নয়ন নীতি প্রভৃতি সামাজিক সচেতনতার ফসল। নারী শিক্ষা নারীকে কর্মমুখী করেছে। এতে নারীর ক্ষমতায়ন ঘটেছে। এভাবে বিজ্ঞান শিক্ষা, বাণিজ্য শিক্ষা প্রভৃতি সমাজ জীবনে ইতিবাচক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে।

 ঘ            ছক ‘খ’ এ নির্দেশসমূহ হলো অপরাধবৃদ্ধি, উৎপাদনবৃদ্ধি, মাদকাসক্তি, মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি। এগুলো শিল্পায়ন ও নগরায়ণকে নির্দেশ করে। শিল্পায়ন ও নগরায়ণ একদিকে যেমন আশীর্বাদ অন্যদিকে অভিশাপ-আমি এই বক্তব্যের সাথে একমত। এর যুক্তিসমূহ উপস্থাপন করা হলো শিল্পায়নের ফলে আমাদের সমাজ জীবনে উচ্চবিত্ত, মধ্যবিত্ত এবং নিম্নবিত্ত শ্রেণির উদ্ভব হয়েছে। এদেশের কর্মসংস্থান বৃদ্ধি, অধিকহারে উৎপাদন বৃদ্ধি, মাথাপিছু আয় ও জাতীয় আয় বৃদ্ধির মূলে রয়েছে শিল্পায়ন। তাছাড়া শিল্পায়নের ফলে শিল্পের স্থানীয়করণ প্রক্রিয়ায় নগরায়ণ সৃষ্টি হয়েছে। যাতায়াত ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি এই শিল্পায়ন ও নগরায়ণের ফসল। এদিক থেকে শিল্পায়ন ও নগরায়ণকে আশীর্বাদ বলা যায়। অপরদিকে শিল্পায়ন ও নগরায়ণের ফলে ভৌগোলিক দূরত্ব কমে গেলেও সামাজিক দূরত্ব বেড়ে গেছে। শিল্পনগরীর বাসস্থান স্বল্পতা, স্বল্প মজুরি ইত্যাদি কারণে পরিবারের সব সদস্যদের একসাথে থাকা সম্ভব হয় না। পারিবারিক সংগঠনে বিবাহবিচ্ছেদ, শিশু-কিশোরদের সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে সমস্যা, প্রবীণদের নিরাপত্তাহীনতা, অপরাধপ্রবণতাসহ বিভিন্ন সমস্যার জন্ম দিয়েছে। আমাদের দেশের শহরে বস্তির উদ্ভব এ শিল্পায়নের ফসল। যেসব স্থানে পোশাক শিল্প, চামড়াশিল্প, চুড়িশিল্প, তামাক-বিড়ি শিল্প, গড়ে উঠেছে সেসব স্থানে বস্তির উদ্ভব হয়েছে-যা সামাজিক জীবনে দ্বন্দ্ব-সংঘাত, রাহাজানি, অপরাধ, কিশোর অপরাধসহ বহু সামাজিক সমস্যার জন্ম দিয়েছে। এসব সমস্যা আবার অন্যান্য সমস্যার সৃষ্টি করেছে। যা নগর জীবনকে বিষিয়ে তুলেছে। এক্ষেত্রে শিল্পায়ন ও নগরায়ণকে অভিশাপ বলা যায়। সুতরাং বলা যায়, শিল্পায়ন শহর অর্থনীতিতে একদিকে যেমন আশীর্বাদ অন্যদিকে অভিশাপ।

সংক্ষিপ্ত প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন শিল্পায়ন কী?

উত্তর : শিল্পায়ন হলো এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে কৃষিভিত্তিক অর্থনীতি ও সমাজব্যবস্থা, শিল্পভিত্তিক ও উৎপাদনমুখী অর্থনীতি ও সমাজে রূপান্তরিত হয়।

প্রশ্ন নারীর ক্ষমতায়নকে কীভাবে সংজ্ঞায়িত করবে?

উত্তর : বাংলাদেশে শিল্পের ক্রমোন্নতি নারীর সামাজিক জীবন ও মর্যাদার ক্ষেত্রকে সম্প্রসারিত করছে। নারী সমাজের চাকরি, বাড়তি উপার্জনের সুযোগ সম্প্রসারিত করছে। নারী শিক্ষার পাশাপাশি বিভিন্ন কর্মক্ষেত্রে নিয়োজিত হচ্ছে। সামাজিক পরিবর্তনের সাথে সাথে নারীর বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা, মতামত প্রকাশ ও সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতাই নারীর ক্ষমতায়ন।

প্রশ্ন সামাজিক পরিবর্তন কী?

উত্তর : সামাজিক পরিবর্তন বলতে সমাজ কাঠামো ও এর কার্যাবলির পরিবর্তনকে বোঝায়। প্রতিটি সমাজের মৌল কাঠামো গড়ে ওঠে সে সমাজের উৎপাদন ব্যবস্থা এবং উক্ত ব্যবস্থার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত বিভিন্ন পেশার মানুষের সম্পর্কের মাধ্যমে। আবার এই কাঠামোর সাথে গড়ে ওঠে কতকগুলো উপরি কাঠামো। যেমন : আইনকানুন, রাজনীতি, সংস্কৃতি প্রভৃতি। সুতরাং সমাজের মৌল ও উপরি কাঠামোর পরিবর্তনই সামাজিক পরিবর্তন।

বর্ণনামূলক প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন সামাজিক পরিবর্তন কীভাবে নারীর ক্ষমতায়নে মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত করেছে-ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : বাংলাদেশে শিল্পের ক্রমোন্নতি নারীর সামাজিক জীবন ও মর্যাদার ক্ষেত্রকে বহুলাংশে পরিবর্তন সাধন করেছে। শিল্পের প্রসার আজ নারীকে গৃহের সীমিত পরিবেশ থেকে বাইরের কর্মমুখর জগতে টেনে এনেছে। তাছাড়া নারী সমাজের চাকরি, বাড়তি অর্থ উপার্জনের পথ সম্প্রসারিত করছে। নারী এখন শিক্ষার পাশাপাশি কর্মক্ষেত্রে নিয়োজিত হচ্ছে। আজ

নারীরা বাংলাদেশের শহর এলাকায় পোশাকশিল্প, ওষুধ তৈরির কারখানা, টেলিফোন ও টেলিযোগাযোগ শিল্প, পাট, চা প্রভৃতি শিল্প ও কলকারখানায় কাজ করছে। আবার এসব নারী পুরুষের পাশাপাশি বহু সামাজিক দায়িত্বও পালন করছে। সামাজিক পরিবর্তনের সাথে সাথে বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীর ভূমিকারও পরিবর্তন ঘটেছে। নারীর ভূমিকার এই পরিবর্তন নারীকে ক্ষমতায়নে ও মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত করেছে।

প্রশ্ন গ্রামীণ কৃষির পরিবর্তনে প্রযুক্তিবিদ্যার ভূমিকা বিশ্লেষণ কর।

উত্তর : কৃষিক্ষেত্রে প্রযুক্তিবিদ্যার কল্যাণে উন্নতজাতের বীজ, সেচ, সার প্রয়োগের ফলে কৃষি উৎপাদন বহুগুণে বেড়ে গেছে। তাছাড়া আমাদের দেশে এখন মৎস্য চাষে নতুন নতুন পদ্ধতির প্রয়োগ লক্ষ করা যায়। চিংড়ি চাষে অভাবনীয় পরিবর্তন, সমন্বিত মাছ চাষ, গবাদিপশুর প্রজনন, গরু মোটাতাজাকরণ প্রভৃতি প্রযুক্তির প্রত্যক্ষ ফসল। প্রযুক্তি কৃষি খামার অর্থনীতিতে ব্যাপক পরিবর্তন এনে দিয়েছে। কৃষিক্ষেত্রে উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে গড়ে উঠেছে বিভিন্ন পল্লি উন্নয়ন সংস্থা। এসব সংস্থা গ্রামীণ কৃষির পরিবর্তনের পাশাপাশি মানুষের সম্পর্কেরও পরিবর্তন সাধন করছে। সুতরাং বলা যায় যে, গ্রামীণ কৃষির পরিবর্তনে প্রযুক্তি বিদ্যার ভূমিকা অনস্বীকার্য।

প্রশ্ন বাংলাদেশের গ্রামীণ শহুরে সমাজে সামাজিক পরিবর্তনের প্রভাব বিশ্লেষণ কর।

উত্তর : বাংলাদেশের গ্রামীণ ও শহুরে সমাজে সামাজিক পরিবর্তনের ব্যাপক প্রভাব রয়েছে। সামাজিক পরিবর্তনের ফলে গ্রামীণ অর্থনীতি পরিবর্তিত হয়ে শিল্পায়নে পরিণত হয়। ব্যাপক শিল্পায়নের ফলে গ্রামীণ জীবন ছেড়ে নগর জীবন পদ্ধতি গ্রহণের প্রক্রিয়াই নগরায়ণ। শিল্পায়ন ও নগরায়ণের ফলে যাতায়াত ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন ঘটেছে। এতে ভৌগোলিক দূরত্ব কমে গেলেও সামাজিক দূরত্বকে বাড়িয়ে দিয়েছে। আমাদের দেশে বস্তির উদ্ভব শিল্পায়নের ফসল। যা বিভিন্ন অপরাধ কার্যক্রমের আখড়াস্থল এবং যা নগরজীবনকে বিষিয়ে তুলেছে। শিল্পায়ন ও নগরায়ণের ফলে উৎপাদন বৃদ্ধিসহ দেশের জনগণের মাথাপিছু আয় বৃদ্ধি করছে। সুতরাং সমাজে সামাজিক পরিবর্তনের ইতিবাচক ও নেতিবাচক দুই ধরনের প্রভাবই বিদ্যমান।

 গুরুত্বপূর্ণ বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

সাধারণ বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

১.            নিচের কোনটি সামাজিক অবকাঠামো?

                ক সেচ ব্যবস্থা                    খ ব্যাংক

                 হাসপাতাল                      ঘ  মোবাইল ফোন

২.           সামাজিক পরিবর্তনের অন্যতম উপাদান কোনটি?

                ক শিক্ষা               খ নদী ভাঙ্গা         যোগাযোগ      ঘ শিল্পায়ন

৩.           কোনটি মানুষের সমাজ জীবনের মূল বিষয়?

                ক বিবাহ                মূল্যবোধ          গ আচরণ            ঘ মিথষ্ক্রিয়া

৪.           ব্যাপক নগরায়ণ বলতে কী বোঝায়?

                 ক্রমশ গ্রামগুলো শহরে রূপান্তরিত হওয়া

                খ নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধি পাওয়া

                গ যানবাহনের পরিমাণ বেড়ে যাওয়া

                ঘ টিভি ও সিমেনা হল বেড়ে যাওয়া

৫.           “সামাজিক পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক সংগঠনের মধ্যকার পরিবর্তন”উক্তিটি কার?

                ক ম্যাকাইভার   খ এরিস্টটল         কিংসলে ডেভিস           ঘ ডাল্টন

৬.           “মানবীয় সম্পদের পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক পরিবর্তন”- উক্তিটি কার?

                 ম্যাকাইভার                     খ কিংসলে ডেভিস

                গ অগাস্ট কোৎ                 ঘ এরিস্টটল

৭.           সামাজিক পরিবর্তনের ইতিবাচক ভূমিকা রাখছে কোনটি?

                 বিজ্ঞান শিক্ষা                  খ জনসংখ্যা বৃদ্ধি

                গ বহুবিবাহ                         ঘ রাজনৈতিক অস্থিরতা

৮.           নারী উন্নয়ন নীতি কীসের ফসল?

                ক সরকারের সফলতা    খ ধর্মীয় গোঁড়ামি

                 সামাজিক সচেতনতা  ঘ নারী অধিকার আন্দোলন

৯.           আত্মনিয়োজিত পেশা কোনটি?

                ক প্রশাসনে চাকরি           খ পোশাক শিল্পে চাকরি

                গ ঔষধ কোম্পানিতে চাকরি         হাঁস-মুরগি লালন-পালন

১০.         সামাজিক পরিবর্তনের বিশেষ উপাদান কোনটি?

                ক সংস্কৃতি           খ যোগাযোগ      গ প্রযুক্তি               শিক্ষা

১১.         সমাজ পরিবর্তনের প্রাকৃতিক উপাদান কোনটি?

                ক মোটরগাড়ি   খ বেতার              গ টেলিভিশন      নদীভাঙন

১২.         কোনটি ব্যতীত আর্থসামাজিক উন্নয়ন সম্ভব নয়?

                ক যোগাযোগ     খ স্বাস্থ্য  গ শহরায়ন           শিল্পায়ন

১৩.         “সামাজিক পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক সংগঠনের মধ্যকার পরিবর্তন।” উক্তিটি কার?

                ক ম্যাকাইভার   খ গার্নার                কিংসলে ডেভিস           ঘ গেটেল

১৪.         রমিজা বেগম গত বছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়। গতমাসে সে একটি স্কুলে পিওনের চাকরিতে যোগদান করেছে। রমিজার এই পরিবর্তনকে বলা হয়

                ক শিক্ষার প্রসার                                খ শিক্ষার উন্নতি

                গ অজ্ঞতার অবসান        নারীর ক্ষমতায়ন

১৫.        নগরায়ণ হচ্ছে

                ক নতুন নতুন বাজার সৃষ্টি

                খ যৌথ পরিবার থেকে একক পরিবারের বিস্তার

                 শিল্পায়নের ফলে গ্রামীণ জীবন ছেড়ে নগর জীবন পদ্ধতি গ্রহণ

                ঘ শিল্পায়নের ফলে কলকারখানার সৃষ্টি

১৬.        “মানবীয় সম্পর্কে পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক পরিবর্তন”- উক্তিটি কার?

                ক ম্যাকাইভার                    কিংসলে ডেভিস

                গ অগস্ট কোৎ                  ঘ এরিস্টটল

১৭.         শহরাঞ্চলে বস্তি সৃষ্টির একটি অন্যতম কারণ হলো

                ক অনাবৃষ্টি          খ বন্যা  গ খরা     নদীভাঙন

১৮.         কোনটি শিল্পায়নের ফল?

                 নগরায়ণ           খ সংস্কৃতি            গ শিক্ষা ঘ প্রযুক্তি

১৯.         “মানবীয় সম্পর্কে পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক পরিবর্তন”  কে বলেছেন?

                ক কিংসলে ডেভিস           ম্যাকাইভার

                গ মার্কস              ঘ ম্যাকাইভার ও পেজ

২০.        উপবৃত্তি প্রকল্প চালু করার কারণ কী?

                 নারী শিক্ষার সম্প্রসারণ              খ সামাজিক উন্নয়ন বৃদ্ধি

                গ দারিদ্র্যতা দূরীকরণ     ঘ মহিলাদের সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি

২১.         সামাজিক পরিবর্তনের অন্যতম উপাদান কোনটি?

                ক প্রাকৃতিক উপাদান     খ সাংস্কৃতিক উপাদান

                গ জৈবিক উপাদান           যোগাযোগ

২২.        সামাজিক পরিবর্তনের বিশেষ উপাদান কী?

                 শিক্ষা খ যোগাযোগ      গ প্রযুক্তি              ঘ নগরায়ণ

২৩.        নিচের কোনটি বাংলাদেশের সমাজের বৈশিষ্ট্য?   

                ক স্থিতিশীল         পরিবর্তনশীল গ গতিশীল          ঘ অপরিবর্তনীয়

২৪.        কোন সময় থেকে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক, সামাজিক ও রাজনৈতিক ক্ষেত্রে ব্যাপক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে?

                 স্বাধীনতা উত্তরকালীন খ পাকিস্তান আমলে

                গ মুঘল আমলে ঘ ব্রিটিশ আমলে

২৫.        “সামাজিক পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক সংগঠনের মধ্যকার পরিবর্তন”- কে বলেছেন?

                 কিংসলে ডেভিস           খ ম্যাকাইভার

                গ লাস্কি ঘ হোয়াইট

২৬.       “মানবীয় সম্পর্কের পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক পরিবর্তন কে বলেছেন?

                 ম্যাকাইভার     খ কিংসলে ডেভিস

                গ অগবার্ন           ঘ নিমকফ

২৭.        সামাজিক পরিবর্তনের গতি কিরূপ?

                ক দ্রুত খ মন্থর গ মধ্যম                 দ্রুত ও মন্থর

২৮.        সামাজিক পরিবর্তনের ফলে সমাজের কোন উপাদানসমূহ নতুন গতিলাভ করে?

                ক ধর্মীয়               খ অর্থনৈতিক     সৃজনশীল        ঘ গণতান্ত্রিক

২৯.        বাংলাদেশের সমাজ পরিবর্তনের উপাদান কয়টি?

                ক ৫       খ ৬         ৭         ঘ ৮

৩০.        নিচের কোনটি প্রাকৃতিক দুর্যোগ?

                 অনাবৃষ্টি            খ যুদ্ধ

                গ মূল্যবোধের অবক্ষায় ঘ বেকারত্ব

৩১.        বাংলাদেশের শহরাঞ্চলে বস্তি সৃষ্টির অন্যতম কারণ কোনটি?         

                ক বন্যা খ জলোচ্ছ্বাস      গ মঙ্গা   নদীভাঙন

৩২.        সামাজিক পরিবর্তনের জৈবিক উপাদান কোনটি?              

                ক নদীভাঙন      খ শিক্ষা

                 জনসংখ্যার ঘনত্ব          ঘ মূল্যবোধ

৩৩.       প্রযুক্তি কী?

                 বিজ্ঞানের প্রায়োগিক দিক         খ বিজ্ঞানের আনুষঙ্গিক দিক

                গ বিজ্ঞানের বর্ধিত দিক ঘ বিজ্ঞানের তত্ত্বীয় দিক

৩৪.        নিচের কোনটি প্রযুক্তি পরিবর্তনের প্রত্যক্ষ ফল?

                ক বেকারত্ব         খ জনসংখ্যা বৃদ্ধি

                গ রাজনৈতিক সংঘর্ষ       কাজের দক্ষতা বৃদ্ধি

৩৫.       প্রযুক্তির ক্রমোন্নতিতে আমাদের সমাজ ব্যবস্থার পরোক্ষ ফলাফল কোনটি?

                ক শ্রমিকদের বিশেষ কাজে বিশেষ দক্ষতা অর্জন

                খ কৃষিক্ষেত্রে উৎপাদন বহুগুণে বেড়ে যাওয়া

                 দেশের জনগণের মধ্যে বেকারত্ব বৃদ্ধি পাওয়া

                ঘ সড়ক দুর্ঘটনা বেড়ে যাওয়া

৩৬.       শিল্পায়নের ফলে কী হয়?

                 নগরায়ণ           খ স্থানান্তর           গ পরিবর্তন         ঘ অবস্থার স্থিতিকরণ

৩৭.        শিল্পায়নের ফলে কয়টি শ্রেণির উদ্ভব হয়েছে?

                ক ২        ৩         গ ৪        ঘ ৫

৩৮.       নিচের কোনটি শিল্পনগরী হিসেবে পরিচিত?

                ক সাভার              খ গাজীপুর          গ মংলা                  সিলেটের ছাতক

৩৯.        শিল্পায়ন ও নগরায়ণের ফলে যাতায়াত ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের কারণে ভৌগোলিক দূরত্ব কমে গেলেও বেড়ে গেছে কোনটি?     

                ক রাজনৈতিক দূরত্ব         সামাজিক দূরত্ব

                গ পারিবারিক দূরত্ব          ঘ ধর্মীয় দূরত্ব

৪০.        কোনটি নারীকে গৃহের বন্দিত্ব থেকে মুক্তি দিয়েছে?           

                 শিল্পায়ন            খ শিক্ষা

                গ পারিবারিক ভাঙন        ঘ নেতৃত্ব

৪১.         চতুর্থ বিশ্ব নারী সম্মেলন কোথায় অনুষ্ঠিত হয়?    

                ক সিঙ্গাপুর         খ সিউল                বেইজিং            ঘ টোকিও

৪২.        চতুর্থ বিশ্বনারী সম্মেলনে বাংলাদেশ প্রণীত প্রতিবেদন অনুযায়ী মেডিকেল কলেজসমূহে পড়ুয়া শিক্ষার্থীর শতকরা কত ভাগ নারী?                  

                ক ২৭    খ ২৮      ২৯      ঘ ৩০

৪৩.        প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে কত ভাগ নারী শিক্ষার্থী রয়েছে? 

                ক ৮        ৯         গ ১৯     ঘ ২৯

৪৪.        গ্রাম পর্যায়ে নারীরা কোন সংস্থা থেকে ঋণ নিয়ে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে?

                ক সরকারি সংস্থা              খ বেসরকারি সংস্থা

                গ ব্র্যাক ব্যাংক    সরকারি কিংবা বেসরকারি সংস্থা

বহুপদী সমাপ্তিসূচক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

৪৫.        সামাজিক পরিবর্তন হচ্ছে

                র.  সমাজ            রর. সামাজিক কাঠামো

                ররর. পুরুষ ও নারী

                নিচের কোনটি সঠিক?

                ক র         রর      গ ররর  ঘ র, রর ও ররর

৪৬.       শিল্পায়নের ফলে

                র.  কাজের সুযোগ বৃদ্ধি পায়        রর. যৌথ পরিবার ভেঙে যায়

                ররর. বস্তির সংখ্যা বেড়ে যায়

                নিচের কোনটি সঠিক?

                ক র        খ র ও রর             গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

৪৭.        বাংলাদেশের শিল্পের ক্রমোন্নতির ফলে

                র. নারী শিক্ষার হার বৃদ্ধি পেয়েছে

                রর. নারীদের কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পেয়েছে

                ররর. সামাজিকভাবে নারীর অবমূল্যায়ন হয়েছে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

৪৮.        শিল্পায়নের ফলে আমাদের সমাজে উদ্ভব হয়েছে

                র. নিম্নবিত্ত শ্রেণির            রর. উচ্চবিত্ত শ্রেণির

                ররর. মধ্যবিত্ত শ্রেণির

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

অভিন্ন তথ্যভিত্তিক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ৪৯ ৫০ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

ফিরোজা বেগম গাজীপুরের নিকট একটি শহরের বস্তিতে বাস করে। সে খুব দরিদ্র। গৃহস্থালি কাজকর্ম ছাড়াও সে গার্মেন্টস কারখানায় কাজ করে। যদিও সে গরিব ও অশিক্ষিত সে তার সন্তানদের লেখাপড়ায় অত্যন্ত যত্নশীল।

৪৯.        ফিরোজা বেগমকে সামাজিক পরিবর্তনের কোন উপাদানটি সাহায্য করেছে?

                ক শিক্ষা                শিল্পায়ন            গ প্রযুক্তি              ঘ যোগাযোগ

৫০.        ফিরোজা বেগম কীভাবে সামাজিক পরিবর্তনে অংশ গ্রহণ করে?

                র.  গৃহস্থালি কাজকর্ম করে            রর. শিল্প কারখানায় কাজ করে

                ররর. সন্তানদের লেখাপড়ায় যত্নশীলতার মাধ্যমে

                নিচের কোনটি সঠিক?

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ৫১ ৫২ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

আলিপুর গ্রামের মানুষ আগে নানা রকম কুসংস্কারে জর্জরিত ছিল। এ থেকে তাদের বের করে আনার জন্য গ্রামের মসজিদের ইমাম পদক্ষেপ নেন। তিনি কুসংস্কারের প্রকৃত কারণ তাদের সামনে তুলে ধরেন। তিনি সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান করেন। এভাবে ধীরে ধীরে তার আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে গ্রামের মানুষ আজ সচেতন হয়েছেন।

৫১.        অনুচ্ছেদের গ্রামটিতে সামাজিক পরিবর্তনে কোন উপাদানটির সাদৃশ্য পাওয়া যায়?                           

                ক প্রাকৃতিক        সাংস্কৃতিক       গ জৈবিক            ঘ প্রযুক্তি

৫২.        ইমাম সাহেব গ্রামের মানুষের মাঝে পরিবর্তন সাধন করেছেন     

                র. নতুন দৃষ্টিভঙ্গি সৃষ্টির মাধ্যমে  রর. নতুন মূল্যবোধ সৃষ্টির মাধ্যমে

                ররর. নতুন আদর্শ সৃষ্টির মাধ্যমে

                নিচের কোনটি সঠিক?

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

অতিরিক্ত বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

 ভূমিকা

সাধারণ বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

৫৩.       শিক্ষা, প্রযুক্তি ও যোগাযোগের পরিবর্তন বাংলাদেশের কোন ক্ষেত্রের উন্নয়ন তরান্বিত করেছে?         (অনুধাবন)

                 সামাজিক ও অর্থনৈতিক            খ সামাজিক ও সাংস্কৃতিক

                গ সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক         ঘ অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক

৫৪.        ব্যাপক শিল্পায়ন ও নগরায়ণ কাদের ভূমিকায় পরিবর্তন এনেছে?   (জ্ঞান)

                 নারীদের           খ বৃদ্ধদের            গ ছাত্রছাত্রীদের ঘ পুরুষদের

বহুপদী সমাপ্তিসূচক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

৫৫.       বাংলাদেশের সমাজ ও অর্থনীতিকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়েছে-

                র. যোগাযোগ ব্যবস্থার পরিবর্তন রর. শিক্ষার পরিবর্তন

                ররর. প্রযুক্তির পরিবর্তন

                নিচের কোনটি সঠিক?   (অনুধাবন)

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

 সামাজিক পরিবর্তনের ধারণা

  • সমাজের মৌল ও উপরি কাঠামোর পরিবর্তনই সামাজিক পরিবর্তন।       
  • সমাজের উৎপাদন ব্যবস্থা এবং উক্ত ব্যবস্থার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত বিভিন্ন পেশার মানুষের সম্পর্কের মাধ্যমে গড়ে ওঠে প্রতিটি সমাজের মৌল কাঠামো।
  • সমাজের উপরি কাঠামো আইন-কানুন, রাজনীতি, সংস্কৃতি প্রভৃতি।
  • সমাজ পরিবর্তনশীল।
  • সমাজের মৌল ও উপরি কাঠামোর পরিবর্তনই সামাজিক পরিবর্তন।
  • ‘সামাজিক পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক সংগঠনের মধ্যকার পরিবর্তন” সমাজবিজ্ঞানী কিংসলে ডেভিস এর মত।
  • সামাজিক পরিবর্তন সম্পর্কে ম্যাকাইভার বলেন ‘মানবীয় সম্পর্কের পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক পরিবর্তন।’
  • সমাজে বসবাসকারী ব্যক্তি, গোষ্ঠী ও প্রতিষ্ঠানের আচার-আচরণের পরিবর্তন হলো সামাজিক পরিবর্তন।
  • সামাজিক পরিবর্তন সংঘটিত হয় কখনো মন্থর আবার কখনো দ্রুতগতিতে।
  • সামাজিক পরিবর্তনের ফলে সমাজের সৃজনশীল কর্মকাÊ লাভ করে নতুন গতি।

সাধারণ বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

৫৬.       সমাজ কাঠামো ও এর কার্যাবলির পরিবর্তন কোনটিকে বোঝায়?   (জ্ঞান)

                 সামাজিক পরিবর্তন     খ সামাজিক প্রগতি

                গ সামাজিক বিবর্তন        ঘ সামাজিক স্থিতিশীলতা

৫৭.        সমাজের মৌল ও উপরি কাঠামোর পরিবর্তনকে কী বলে? (জ্ঞান)

                ক অর্থনৈতিক পরিবর্তন                খ রাজনৈতিক পরিবর্তন

                 সামাজিক পরিবর্তন     ঘ পারিবারিক পরিবর্তন

৫৮.       কোনো জাতির জীবনব্যবস্থার সামগ্রিক পরিবর্তনকে কী বলে?       (জ্ঞান)

                 সামাজিক পরিবর্তন     খ অর্থনৈতিক পরিবর্তন

                গ রাজনৈতিক পরিবর্তন ঘ সাংস্কৃতিক পরিবর্তন

৫৯.        আইনকানুন কোন ধরনের কাঠামো?       (জ্ঞান)

                ক মৌল                খ গৌণ  গ সাধারণ             উপরি

বহুপদী সমাপ্তিসূচক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

৬০.       সামাজিক পরিবর্তন হলো-            (অনুধাবন)

                র. সমাজের যৌগ কাঠামোর পরিবর্তন

                রর. সমাজের মৌল কাঠামোর পরিবর্তন

                ররর. সমাজের উপরি কাঠামোর পরিবর্তন

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

৬১.        মৌল কাঠামোর সাথে গড়ে ওঠে যেসব উপরি কাঠামো   (অনুধাবন)

                র. রাজনীতি                        রর. পরিবার

                ররর. সংস্কৃতি

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর             র ও ররর           গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

৬২.       প্রতিটি সমাজে মৌল কাঠামো গড়ে ওঠে              (অনুধাবন)

                র. প্রযুক্তিগত পরিবর্তনের মাধ্যমে

                রর. সমাজের উৎপাদন ব্যবস্থার মাধ্যমে

                ররর. বিভিন্ন পেশার মানুষের সম্পর্কের মাধ্যমে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

৬৩.       সামাজিক পরিবর্তনের প্রভাব গভীরভাবে স্পর্শ করে        (উচ্চতর দক্ষতা)

                র. আধুনিক জীবনব্যবস্থাকে         রর. সনাতন জীবনব্যবস্থাকে

                ররর. ধর্মীয় মূল্যবোধকে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও রর              রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

অভিন্ন তথ্যভিত্তিক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ৬৪ ৬৫ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

তাসনিম মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলে। তার সমাজে উৎপাদনব্যবস্থা পরিচালিত হয় কৃষিভিত্তিক। তার সমাজে অন্যান্য পেশার লোকও সম্পর্কযুক্ত। এরূপ সমাজকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে আইনকানুন, রাজনীতি, সংস্কৃতি।

৬৪.       তাসনিমের সমাজের মৌল কাঠামো-        (প্রয়োগ)

                র. কৃষি

                রর. কৃষির সাথে সম্পর্কিত মানুষের মধ্যকার সম্পর্ক

                ররর. সংস্কৃতি

                নিচের কোনটি সঠিক?

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

৬৫.       তাসনিমের সমাজের পরিবর্তন হতে পারে কীভাবে?           (উচ্চতর দক্ষতা)

                ক আইনের সফল প্রয়োগের মাধ্যমে

                খ সুস্থ রাজনৈতিক চর্চার মাধ্যমে

                গ মানুষে মানুষে ঘনিষ্ঠতা অ¶ুণ্ণ রেখে

                 মৌল কাঠামোর পরিবর্তনের মাধ্যমে

 বাংলাদেশের সমাজ পরিবর্তনের উপাদান এবং এর প্রভাব   

  • বাংলাদেশের সামাজিক পরিবর্তন দেশের সামাজিক, রাজনৈতিক, শিক্ষা, ধর্ম, সংস্কৃতি প্রভৃতি ক্ষেত্রে প্রতিভাত হয়।
  • বাংলাদেশের শহরাঞ্চলে বস্তি সৃষ্টির একটি অন্যতম কারণ নদী ভাঙন।
  • নতুন নতুন সমস্যার সৃষ্টি করে বৈশ্বিক উষ্ণায়ন এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগ।
  • বেকারত্ব, শিশুশ্রম ও কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে তীব্র প্রতিযোগিতার মতো নানামুখী সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে জনসংখ্যা বৃদ্ধির ফলে।
  • সামাজিক পরিবর্তনের ন্যূনতম একটি উপাদান যোগাযোগ।
  • সামাজিক পরিবর্তনের সূচনা করে সংস্কৃতি।
  • এক ধরনের সংস্কার সাধন এবং বিরামহীন প্রক্রিয়া হলো শিক্ষা।
  • বিজ্ঞানের প্রায়োগিক দিক হলো প্রযুক্তি।
  • আমাদের সমাজজীবনে উচ্চবিত্ত, মধ্যবিত্ত এবং নিম্নবিত্ত শ্রেণির উদ্ভব হয়েছে শিল্পায়নের ফলে।
  • শিল্পায়ন ও নগরায়নের ফলে উন্নয়ন ঘটেছে যোগাযোগ ও যাতায়াত ব্যবস্থার।

সাধারণ বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

৬৬.       সামাজিক পরিবর্তনের উল্লেখযোগ্য কারণ কোনটি?           (জ্ঞান)

                ক জৈবিক উপাদান         খ শিক্ষা

                গ সংস্কৃতি             ভূপ্রকৃতিগত অবস্থান

৬৭.       কোন কারণে বাংলাদেশের মানুষের মধ্যে সামাজিক সম্পর্কে পরিবর্তন ঘটে?          (অনুধাবন)

                ক শিক্ষার প্রসার                খ প্রযুক্তির প্রসার

                 প্রাকৃতিক দুর্যোগ           ঘ জনসংখ্যা বৃদ্ধি

৬৮.       যমুনা পাড়ের জেলে পরিবার স্থায়ী বসবাস ছেড়ে সিরাজগঞ্জ শহরে আসে। কোন কারণে জেলে পরিবারটি শহরে আসে? (প্রয়োগ)

                ক খরা   খ অতিবৃষ্টি          গ অনাবৃষ্টি           নদীভাঙন

৬৯.       শহরাঞ্চলের কোন সমস্যা নানামুখী সমস্যার জন্ম দিয়েছে?             (জ্ঞান)

                 বস্তি    খ যানজট            গ পানি ঘ লোডশেডিং

৭০.        মুহিনদের বসতভিটা ও জমি মহানন্দা নদীতে তলিয়ে যাওয়ায় তারা ঢাকা চলে আসল। এর কারণে কোন সমস্যা সৃষ্টি হবে?             (প্রয়োগ)

                 বস্তি    খ প্রাকৃতিক        গ অর্থনৈতিক    ঘ রাজনৈতিক

৭১.         কোনটি সামাজিক পরিবর্তনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হিসেবে চিহ্নিত?              (অনুধাবন)

                ক প্রাকৃতিক       খ শিক্ষা  জৈবিক             ঘ সাংস্কৃতিক

৭২.        জনসংখ্যার ঘনত্ব, জন্ম ও মৃত্যুহার, জনসংখ্যার প্রকৃতি ও জীবনযাত্রার মানগুলো সামাজিক পরিবর্তনের কোন উপাদানের অন্তর্ভুক্ত?     (জ্ঞান)

                 জৈবিক             খ শিক্ষা গ প্রাকৃতিক        ঘ সাংস্কৃতিক

৭৩.        বর্তমানে বাংলাদেশের জনসংখ্যা বৃদ্ধি প্রতিরোধের জন্য কোন পদ্ধতি প্রয়োগ করা হয়েছে?               (জ্ঞান)

                ক প্রাকৃতিক নিরোধ         খ দেরিতে বিবাহ

                 জন্মনিয়ন্ত্রণ     ঘ কর্মসংস্থান সৃষ্টি

৭৪.        বাংলাদেশের সমাজ কাঠামো পরিবর্তনে অবদান রাখছে কোনটি? (জ্ঞান)

                ক আইনকানুন  খ যানজট

                 জন্ম ও মৃত্যুহার হ্রাস    ঘ বিদেশি সংস্কৃতি

৭৫.        কুসংস্কার থেকে মুক্তির উপায় কোনটি?   (অনুধাবন)

                ক প্রযুক্তি              শিক্ষা গ খেলাধুলা         ঘ ভ্রমণ

৭৬.       বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতি, মূল্যবোধ, উদ্দেশ্য ও আদর্শের ওপর ভিত্তি করে কিসের সৃষ্টি হয়?          (জ্ঞান)

                ক শিল্পপ্রতিষ্ঠান খ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান

                 সংস্কৃতি লালিত প্রতিষ্ঠান            খ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

৭৭.        কোন সময়ে বাংলার সমাজব্যবস্থার ওপর বিদেশি সংস্কৃতির প্রভাব দেখা যায়?          (জ্ঞান)

                ক পাল আমলে খ সেন আমলে  গ মুঘল আমলে  ব্রিটিশ আমলে

৭৮.        সামাজিক পরিবর্তনের বিশেষ উপাদান কোনটি? (জ্ঞান)

                ক জৈবিক            শিক্ষা গ সাংস্কৃতিক      ঘ প্রযুক্তি

৭৯.        শিক্ষা কোন ধরনের প্রক্রিয়া?       (জ্ঞান)

                ক সামাজিক      খ রাজনৈতিক    গ গতিহীন            বিরামহীন

৮০.        সমাজের সদস্যদের মধ্যে কোনটি আত্মবিশ্বাস ও বিচার বিবেচনার ক্ষমতা জাগ্রত করে?     (জ্ঞান)

                ক প্রযুক্তির বিকাশ             শিক্ষার প্রসার

                গ যোগাযোগের উন্নতি   ঘ সংস্কৃতির সূচনা

৮১.        কুসংস্কার থেকে মুক্তির উপায় কোনটি?   (অনুধাবন)

                ক প্রযুক্তি              শিক্ষা গ খেলাধুলা         ঘ ভ্রমণ

৮২.        বাংলাদেশে কোন শিক্ষার প্রসার জনগণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করেছে?  (জ্ঞান)

                ক কর্মমুখী          খ প্রাথমিক           নারী   ঘ বয়স্ক

৮৩.       কোনটি নারীকে কর্মমুখী করেছে?             (জ্ঞান)

                ক কর্মসংস্থান     নারীশিক্ষা        গ বাল্য বিবাহরোধ            ঘ মূল্যবোধ

৮৪.        জব্বার চাঁদপুর থেকে মাছ এনে ঢাকায় বিক্রি করে। এক্ষেত্রে সামাজিক পরিবর্তনের কোন উপাদানটি ভূমিকা পালন করে?       (প্রয়োগ)

                ক শিল্পায়ন          খ প্রযুক্তির কল্যাণ

                 উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা             ঘ নগরায়ণ

৮৫.       বিশ্বের শ্রেষ্ঠ পাঠাগার থেকে গ্রন্থ নির্বাচন করে ঘরে বসে পাঠ করা যায়। এটি কীভাবে সম্ভব হয়েছে?                 (প্রয়োগ)

                ক টেলিভিশন দেখার মাধ্যমে       প্রযুক্তির ফলে

                গ উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থার কারণে           ঘ পত্রপত্রিকা পাঠের ফলে

৮৬.       কোনটি সামাজিক সম্পর্কের পরিধিকে বিস্তৃত করেছে? (জ্ঞান)

                ক টেলিভিশন    খ ফ্রিজ

                 মোটরগাড়ি     ঘ রেলগাড়ি

৮৭.        প্রযুক্তির ক্রমোন্নতিতে আমাদের সমাজ ব্যবস্থায় কয় ধরনের ফলাফল দেখা যায়? (জ্ঞান)

                 ২         খ ৩        গ ৪        ঘ ৫

৮৮.       শিল্পায়নের ফল কী?         (অনুধাবন)

                 নগরায়ণ           খ দক্ষ শ্রমিক

                গ প্রযুক্তি বিকাশ               ঘ উন্নত যোগাযোগ

৮৯.        কৃষিক্ষেত্রে উন্নত জাতের বীজ, সার, সেচ ইত্যাদিতে কোনটির অবদান বেশি?         (জ্ঞান)

                 প্রযুক্তির            খ শিক্ষার             গ যোগাযোগ     ঘ সংস্কৃতির

৯০.        রিয়াদ চৌধুরীর চাষকৃত চিংড়ি দেশের চাহিদা পূরণের পাশাপাশি বিদেশেও রপ্তানি হচ্ছে। এক্ষেত্রে সমাজ পরিবর্তনের কোন উপাদানটি মুখ্য ভূমিকা পালন করেছে?              (প্রয়োগ)

                ক শিক্ষা                 প্রযুক্তি

                গ জৈবিক উপাদান          ঘ প্রাকৃতিক উপাদান

৯১.         বিভিন্ন পল্লি উন্নয়ন সংস্থা গড়ে উঠেছে কেন?        (অনুধাবন)

                ক শিল্প ক্ষেত্রে উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে

                খ বাণিজ্য ক্ষেত্রে উন্নয়নের লক্ষ্যে

                 কৃষি ক্ষেত্রে উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে

                ঘ শ্রমিকের নতুন নতুন সংগঠন সৃষ্টির লক্ষ্যে

৯২.        কোনো দেশের যোগাযোগ মাধ্যম উন্নত হলে সে দেশের কোনটি উন্নত হয়?              (জ্ঞান)

                ক রাজনীতি        খ সমাজব্যবস্থা  গ শিক্ষাব্যবস্থা     অর্থনীতি

৯৩.        বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা বিশ্বের উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার জন্য বিদেশ যাচ্ছে কোনটির অভাবনীয় পরিবর্তনের ফলে?           (জ্ঞান)

                ক শিক্ষা                 যোগাযোগ

                গ সাংস্কৃতিক উপাদান     ঘ শিল্পায়ন ও নগরায়ণ

৯৪.        কোন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে শিল্পায়নের ফলে নগরায়ণের সৃষ্টি হয়?       (জ্ঞান)

                 শিল্পের স্থানীয়করণ       খ শিল্পের জাতীয়করণ

                গ শিল্পের আয়তন বৃদ্ধি   ঘ শিল্পের প্রতি সচেতনতা বৃদ্ধি

৯৫.        শিল্প শ্রমিকেরা অধিকাংশ সময় কাটায় কার সাথে?             (জ্ঞান)

                ক পরিবারের সদস্যদের খ বন্ধুবান্ধবের

                গ আত্মীয় স্বজনের            সহকর্মীদের

৯৬.       যৌথ পরিবার ভেঙে একক পরিবারের সৃষ্টি হচ্ছে কেন?     (অনুধাবন)

                 শিল্পায়নের কারণে        খ খরচ কমানোর জন্য

                গ পারিবারিক বিশৃঙ্খলার কারণে                 ঘ সম্পর্কের অবনতির কারণে

৯৭.        কোন সমস্যা দূর করতে শিল্পের প্রসারের সাথে সাথে গ্রামের অনেক দক্ষ অদক্ষ শ্রমিক শহরমুখী হচ্ছে?                (জ্ঞান)

                ক তথ্যপ্রযুক্তির অপ্রতুলতা            বেকারত্ব

                গ অনুন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা        ঘ অনুন্নত চিকিৎসা

বহুপদী সমাপ্তিসূচক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

৯৮.        শিক্ষা হলো       (অনুধাবন)

                র. এক ধরনের সংস্কার সাধন প্রক্রিয়া

                রর. মন্থর প্রক্রিয়া

                ররর. একটি বিরামহীন প্রক্রিয়া

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর             র ও ররর           গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

৯৯.        প্রত্যেক সমাজেই দেখা যায়       (অনুধাবন)

                র. আদর্শের ভিন্নতা          রর. বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতি

                ররর. মানুষের মূল্যবোধের পার্থক্য

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

১০০.     জনসংখ্যা বৃদ্ধির ফলে যে সমস্যার সৃষ্টি হয়         (অনুধাবন)

                র. নগরায়ণ         রর. বেকারত্ব

                ররর. শিশুশ্রম

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

১০১.      শহরে বস্তি সৃষ্টির কারণ                (অনুধাবন)

                র. নদীভাঙন      রর. শিল্পায়ন

                ররর. জলবায়ু

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          খ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১০২.     শিক্ষা দূর করে-  (অনুধাবন)

                র. কুসংস্কার        রর. প্রাকৃতিক দুর্যোগ

                ররর. যাবতীয় অজ্ঞতা

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর             র ও ররর           খ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১০৩.     সমাজের সদস্যদের মধ্যে শিক্ষা               (অনুধাবন)

                র. আত্মবিশ্বাস জাগ্রত করে

                রর. বিচার-বিবেচনার ক্ষমতা জাগ্রত করে

                ররর. ইতিবাচক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

১০৪.     প্রযুক্তির প্রত্যক্ষ ফসল (অনুধাবন)

                র. সমন্বিত মাছ চাষ          রর. প্রতিযোগিতার তীব্রতা বৃদ্ধি

                ররর. গবাদিপশুর প্রজš§

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর             র ও ররর           গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১০৫.     সামাজিক পরিবর্তনের ক্ষেত্রে যেসব উপাদানের প্রভাব পরিবর্তনের ধারাকে গতিশীল করে              (অনুধাবন)

                র. ধর্মীয় মূল্যবোধ            রর. প্রাকৃতিক উপাদান

                ররর. জৈবিক উপাদান

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

১০৬.     শিল্পনগরী হিসেবে পরিচিত           (অনুধাবন)

                র. চট্টগ্রামের হালিশহর   রর. চট্টগ্রামের বাড়বকুÊ

                ররর. খুলনার খালিশপুর

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

১০৭.     যেসব শিল্পস্থানে বস্তির উদ্ভব হয়েছে         (অনুধাবন)

                র. চুড়ি শিল্প         রর. তামাক শিল্প

                ররর. পোশাক শিল্প

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

১০৮.     শিল্পায়ন ভূমিকা রাখে-    (উচ্চতর দক্ষতা)

                র. যাতায়াত ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে

                রর. মাথাপিছু ও জাতীয় আয় বৃদ্ধিতে

                ররর. কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

১০৯.     সামাজিক পরিবর্তনের প্রাকৃতিক উপাদানের যে বিষয় নতুন নতুন সমস্যার সৃষ্টি করে তা হলো-        (অনুধাবন)

                র. বৈশ্বিক উষ্ণায়ন          রর. প্রাকৃতিক বিপর্যয়

                ররর. অতিরিক্ত জš§হার

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১১০.      সামাজিক সচেতনতার ফসল হলো-          (অনুধাবন)

                র. কর্মক্ষেত্রে প্রতিযোগিতা বৃদ্ধি

                রর. ভৌগোলিক পরিবর্তন

                ররর. নারী উন্নয়ন নীতি

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

১১১.       শিল্পনগরীতে শ্রমিকদের পরিবারের সব সদস্যদের নিয়ে এক সাথে বসবাস করা সম্ভব করে না কারণ                (অনুধাবন)

                র. অনুন্নত পরিবেশ

                রর. স্বল্প মজুরি

                ররর. বাসস্থানের স্বল্পতা

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

অভিন্ন তথ্যভিত্তিক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ১১২-১১৪ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

শোয়েব চাকরি করার ফলে ঢাকায় থাকে। সে আগের তুলনায় বর্তমানে সার্বিক উন্নয়ন ও সামগ্রিক পরিবর্তন দেখতে পায়। সে বুঝতে পারে, আধুনিক জ্ঞান-বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিগত যোগাযোগ ব্যবস্থার প্রয়োগের মাধ্যমেই সামাজিক পরিবর্তন সুফল বয়ে এনেছে।

১১২.      শোয়েবের চাকরির স্থানটিতে কী ধরনের পরিবর্তন হয়েছে?              (প্রয়োগ)

                ক গ্রামীণ অবস্থার পরিবর্তন         খ গ্রামীণ দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন

                 শহুরে সমাজের পরিবর্তন          ঘ গ্রামীণ সমাজের পরিবর্তন

১১৩.      অনুচ্ছেদে বর্ণিত শোয়েবের সামগ্রিক উন্নয়ন নির্দেশ করা হয়েছে

(উচ্চতর দক্ষতা)

                র. আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন

                রর. রাজনৈতিক উন্নয়ন

                ররর. সাংস্কৃতিক উন্নয়ন

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর             র ও ররর           গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১১৪.      অনুচ্ছেদে বর্ণিত ব্যবস্থাসমূহের যথাযথ প্রয়োগের মাধ্যমেই সমাজ ব্যবস্থায় সামাজিক পরিবর্তনের সুফল এসেছে               (উচ্চতর দক্ষতা)

                র. শহুরে সমাজে

                রর. গ্রামীণ সমাজে

                ররর. বৈজ্ঞানিক সমাজে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর             র ও ররর           গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

 সামাজিক পরিবর্তন এবং নারীর ভূমিকা        

  • নারীকে গৃহের সীমিত পরিবেশ থেকে বাইরের কর্মমুখর জগতে টেনে এনেছে শিল্পের প্রসার।
  • নারীরা আগের তুলনায় অনেক অগ্রসর হয়েছে শিক্ষাক্ষেত্রে।
  • চতুর্থ বিশ্ব নারী সম্মেলন বেইজিং, ১৯৯৫।
  • বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে নারী শিক্ষার্থীর সংখ্যা মোট শিক্ষার্থীর ২৩%।
  • মেডিকেল কলেজসমূহ এবং প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের যথাক্রমে হার ২৯% এবং ৯% নারী শিক্ষার্থী।
  • বর্তমানে নারীরা আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে ঋণ নিয়ে।
  • নারী শিক্ষা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে সরকার চালু করেছে উপবৃত্তি প্রকল্প।
  • নারী এখন শিক্ষার পাশাপাশি নিয়োজিত হচ্ছে বিভিন্ন কর্মক্ষেত্রে।
  • নারীদের বিরাট একটা অংশ চাকরি করছে প্রশাসন, পুলিশ, ডাক, সমবায়, আনসারসহ প্রায় সবগুলো ক্যাডারে।
  • নারীর ভূমিকার পরিবর্তন ঘটছে সামাজিক পরিবর্তনের পথে।

সাধারণ বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

১১৫.      কোন ক্ষেত্রে নারীরা পূর্বের তুলনায় বেশি অগ্রসর হয়েছে?                (জ্ঞান)

                 শিক্ষা খ শিল্প   গ কৃষি  ঘ সংস্কৃতি

১১৬.     কখন ‘চতুর্থ বিশ্ব নারী সম্মেলন’ হয়?         (জ্ঞান)

                ক ১৯৯০ সালে                   ১৯৯৫ সালে

                গ ২০০০ সালে                   ঘ ২০০৫ সালে

১১৭.      বিশ্ববিদ্যালয়ে নারী শিক্ষার হার কত?        (জ্ঞান)

                 ২৩%  খ ৩৩% গ ৪০% ঘ ৪৫%

১১৮.      বর্তমানে শিক্ষাক্ষেত্রে কারা বেশি এগিয়ে আছে?   (জ্ঞান)

                ক ধনীরা                               খ পুরুষেরা

                গ ছেলেরা                             নারীরা

১১৯.      কোন সমাজে নারী শিশুকে বোঝা মনে করা হয়?                (জ্ঞান)

                ক শিক্ষিত                           খ নগর

                গ কৃষিভিত্তিক                    গ্রামীণ

১২০.     একসময় নারী কোন কাজের মধ্যেই শুধু সীমাবদ্ধ ছিল?   (জ্ঞান)

                ক শিক্ষকতা        গৃহস্থালি কাজ

                গ হাঁস-মুরগি পালন         ঘ টেইলারিং

১২১.      কোথায় নারীরা আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে?      (জ্ঞান)

                ক পরিবারে          গ্রামে গ শহরে                ঘ ঘরে

১২২.     কোনটি গ্রামীণ নারীদের কর্মসংস্থানের আওতায় পড়ে?     (জ্ঞান)

                ক ডাক্তারি            টেইলারিং

                গ শিক্ষকতা        ঘ পোশাক শিল্পকারখানায় চাকরি

১২৩.     মেয়েদের আর্থসামাজিক অবস্থার উন্নয়নে সামাজিক পরিবর্তনের কোন উপাদানটি অধিক গুরুত্বপূর্ণ?        (অনুধাবন)

                ক নগরায়ণ                         খ শিল্পায়ন

                 শিক্ষা                 ঘ প্রযুক্তিবিদ্যা

বহুপদী সমাপ্তিসূচক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

১২৪.     নারীদের পূর্বের তুলনায় সামাজিক ক্ষেত্রে এগিয়ে থাকার কারণ  

(অনুধাবন)

                র. নারীশিক্ষার প্রসার      

                রর. কর্মমুখী শিক্ষার প্রসার

                ররর. মূল্যবোধ সৃষ্টি

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১২৫.     নারীরা এখন পড়াশোনা করছে (অনুধাবন)

                র. কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে

                রর. প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে

                ররর. মেডিকেল কলেজে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 ক র ও রর           খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

১২৬.     নারী শিক্ষার সম্প্রসারণ               (উচ্চতর দক্ষতা)

                র. গ্রামীণ নারীদের চাকরির সুযোগ দিয়েছে

                রর. নারীর ক্ষমতায়নের পথকে সুগম করেছে

                ররর. নারীকে মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করেছে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

অভিন্ন তথ্যভিত্তিক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ১২৭ ১২৮ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

গোপালপুর গ্রামে পূর্বে নারীরা অবহেলিত ছিল। এখন সে অবস্থার পরিবর্তন ঘটেছে। এখন তারা সচেতন। তাই বর্তমানে ছেলেদের চেয়ে মেয়েরা একটি বিশেষ ক্ষেত্রে অনেক দূর অগ্রসর হয়েছে।

১২৭.      গোপালপুর গ্রামে ছেলেদের চেয়ে মেয়েরা কোন বিশেষ ক্ষেত্রে অগ্রসর হয়েছে?     (প্রয়োগ)

                ক অর্থনৈতিক    শিক্ষা গ রাজনৈতিক   ঘ কর্ম

১২৮.     উক্ত ক্ষেত্রটি সম্প্রসারণের ফলে গোপালপুর গ্রামের নারীদের

(উচ্চতর দক্ষতা)

                র. আত্মকর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হয়েছে

                রর. ক্ষমতায়নের পথ সুষম হয়েছে

                ররর. মর্যাদার ঘাটতি হয়েছে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

গুরুত্বপূর্ণ সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন- ১  প্রযুক্তির প্রভাব 

রিয়ানা ও রাব্বির কথোপকথন :

রাব্বি : এই দুপুর বেলা ঘরে বসে কী করছিস?

রিয়ানা : আগামী সপ্তাহ থেকে টেস্ট পরীক্ষা। ইন্টারনেট থেকে ডাউন লোড করে বই নামিয়ে পড়ছি।

রাব্বি : তাহলে তো তোর এবার পরীক্ষার রেজাল্ট অনেক ভালো হবে।

রিয়ানা : ইন্টারনেট সুবিধার জন্য শুধু আমরা পাঠ্যবইয়ের উপকারই পাচ্ছি না। বিভিন্ন দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা, আধুনিক জ্ঞান বিজ্ঞান সম্পর্কেও জানতে পারছি।

 ক.সামাজিক পরিবর্তন কী?         ১

খ.‘নগরায়ণ হলো শিল্পায়নের ফল’ উক্তিটি ব্যাখ্যা কর।       ২

গ.রিয়ানার ব্যবহৃত বিষয়টির সাথে সামাজিক পরিবর্তনের যে উপাদানটির সাদৃশ্য রয়েছে তা ব্যাখ্যা কর।      ৩

ঘ.উক্ত উপাদানটি আমাদের দেশের শিক্ষার অগ্রগতির ক্ষেত্রে অনেক বেশি সহায়ক। উক্তিটির যথার্থতা বিশ্লেষণ কর।                ৪

 ক          সামাজিক পরিবর্তন হলো সমাজকাঠামো এবং এর কার্যাবলির পরিবর্তন।

 খ  শিল্পায়ন হলো এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে কৃষিভিত্তিক অর্থনীতি ও সমাজব্যবস্থা, শিল্পভিত্তিক ও উৎপাদনমুখী অর্থনীতি ও সমাজে রূপান্তরিত হয়। শিল্প প্রসারের ফলে বেকারত্ব ঘুচাতে গ্রামের অনেক দক্ষ অদক্ষ শ্রমিক নগরমুখী হচ্ছে এবং নগর জীবন গ্রহণ করছে। আর নগর জীবন পদ্ধতি গ্রহণের এ প্রক্রিয়াই হচ্ছে নগরায়ণ। সুতরাং বলা যায় যে, নগরায়ণ হলো শিল্পায়নের ফল।

 গ  উদ্দীপকে রিয়ানার ব্যবহৃত বিষয়টির সাথে সামাজিক পরিবর্তনের যে উপাদানটির সাদৃশ্য রয়েছে তা হলো প্রযুক্তি। প্রযুক্তি হলো বিজ্ঞানের প্রায়োগিক দিক। প্রযুক্তির প্রচলন ও প্রসারের মাধ্যমে সমাজ ব্যবস্থার অন্তর্ভুক্ত ব্যক্তিবর্গের মানসিক গঠন এবং সামাজিক কাঠামোর পরিবর্তন সাধিত হয়। প্রযুক্তির ক্রমোন্নতিতে আমাদের সমাজ ব্যবস্থায় দু’ধরনের ফলাফল দেখা যায়। একটি প্রত্যক্ষ এবং আরেকটি পরোক্ষ। কতগুলো সামাজিক পরিবর্তন প্রযুক্তিগত পরিবর্তনের অবশ্যম্ভাবী পরিমাণ যেমন- গ্রামীণ জীবনের ওপর নগর জীবনের প্রভাব এবং যোগাযোগ ব্যবস্থার বিস্তৃতি এবং শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নতি; যেমনটি উদ্দীপকের মেধাবী ছাত্রী  রিয়ানার ক্ষেত্রে দেখা যায়। সে ইন্টারনেট থেকে বই ডাউনলোড করে  পড়ছে; যা সামাজিক পরিবর্তনের গুরুত্বপূর্ণ উপাদান প্রযুক্তির প্রতিচ্ছবি তুলে ধরে।

 ঘ  উক্ত উপাদানটি অর্থাৎ প্রযুক্তি আমাদের দেশের শিক্ষার অগ্রগতির ক্ষেত্রে অনেক বেশি সহায়ক। মূলত শিক্ষা হলো এক ধরনের সংস্কার সাধন এবং বিরামহীন প্রক্রিয়া। সমাজের সদস্যদের মধ্যে শিক্ষার প্রসার, আত্মবিশ্বাস এবং বিচার বিবেচনার ক্ষমতা জাগ্রত করে। শিক্ষা যাবতীয় অন্ধত্ব, অসত্যতা এবং কুসংস্কার প্রভৃতি থেকে মুক্তি দেয়। আর এক্ষেত্রে সামাজিক পরিবর্তনের উপাদান প্রযুক্তির ভূমিকা অনস্বীকার্য। প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা উন্নত বিশ্বের শিক্ষা পদ্ধতি, সমাজ  সংস্কৃতি এবং বিজ্ঞানের নব নব আবিষ্কার ও সভ্যতার অগ্রগতি সম্পর্কে খুব সহজেই জানতে পারে। এতে করে একদিকে শিক্ষার্থীরা যেমন নিজেদেরকে সচেতন ও যোগ্য নাগরিক সমৃদ্ধ ও উন্নয়নে তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। আর এ প্রেক্ষিতে বলা যায় যে, প্রযুক্তি আমাদের দেশের শিক্ষার অগ্রগতির ক্ষেত্র অনেক বেশি সহায়ক।

প্রশ্ন- ২  শিক্ষা প্রযুক্তি শিল্পায়ন নারীর ক্ষমতায়ন 

নবগঙ্গা নামক প্রত্যন্ত গ্রামে একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং একটি কলেজ প্রতিষ্ঠিত হবার ফলে ঐ অঞ্চলের নারীরা দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখছে। এ চিত্র শুধু নবগঙ্গা গ্রামের নয়, সারা বাংলাদেশের। এদেশের নারীরা আজ তৃণমূল পর্যায় থেকে দেশের কর্ণধার পর্যায় পর্যন্ত নিজেদের সম্পৃক্ত করে স্ব-স্ব কর্মক্ষেত্রকে উজ্জ্বল আলোয় আলোকিত করেছে। শিক্ষা, প্রযুক্তি, শিল্পায়নের মতো নানা উপাদান নারীর সামাজিক জীবন ও মর্যাদার ক্ষেত্রে প্রভূত পরিবর্তন সাধন করেছে?

 ক.সমাজের মূল উদ্দেশ্য কী?     ১

খ.তোমার পাঠ্যবই অনুসারে সামাজিক পরিবর্তনের প্রথম উপাদানটি ব্যাখ্যা কর।  ২

গ.নবগঙ্গা গ্রামে সামাজিক পরিবর্তনে যে উপাদানগুলোর প্রভাব কার্যকর তা ব্যাখ্যা কর।    ৩

ঘ.‘সামাজিক পরিবর্তনে সর্বত্র নারীর ক্ষমতায়ন এবং মর্যাদা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে’- উদ্দীপকের আলোকে তোমার উত্তরের পক্ষে যুক্তি দেখাও।          ৪

 ক          সমাজের মূল উদ্দেশ্য হলো মানুষের সার্বিক কল্যাণ সাধন করা।

 খ           আমার পাঠ্য বই অনুসারে সামাজিক পরিবর্তনের প্রথম উপাদানটি হলো প্রাকৃতিক উপাদান। বাংলাদেশের ভূপ্রাকৃতিক অবস্থান সামাজিক পরিবর্তনের একটি উল্লেখযোগ্য কারণ। ধীর এবং আকস্মিক ভৌগোলিক পরিবর্তন, জলবায়ু সংক্রান্ত পরিবর্তন, বৈশ্বিক  উষ্ণায়ন প্রভৃতি বাংলাদেশের মানুষের জীবনযাত্রার ওপর প্রভাব ফেলে এবং সমাজের ব্যাপক পরিবর্তন সাধন করে।

 গ  নবগঙ্গা গ্রামে সামাজিক পরিবর্তনের যে উপাদানগুলোর প্রভাব কার্যকর তা হলো শিক্ষা, প্রযুক্তি এবং শিল্পায়ন। সামাজিক পরিবর্তনের একটি বিশেষ উপাদান হলো শিক্ষা। নবগঙ্গা গ্রামে নারী শিক্ষার প্রসার জনগণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করেছে যা তাদেরকে বিভিন্ন কর্মকাÊ পরিচালনায় উদ্ধুদ্ধ করেছে। নারী শিক্ষা নারীদেরকে কর্মমুখী করছে, ফলে নারীর ক্ষমতায়ন ঘটছে। বর্তমানে তারা বিভিন্ন ধরনের আয়বর্ধক কর্মকাÊে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। প্রযুক্তি এবং শিল্পায়ন নারীদেরকে আরও একধাপ সামনের দিকে এগিয়ে নিয়েছে। ফলে নারীরা আজ তৃণমূল পর্যায় থেকে দেশের কর্ণধর পর্যায় পর্যন্ত নিজেদেরকে সম্পৃক্ত করে স্ব স্ব কর্মক্ষেত্রকে উজ্জ্বল আলোয় আলোকিত করছে। যার প্রতিচ্ছবি উদ্দীপকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। সুতরাং বলা যায়, নবগঙ্গা গ্রামে সামাজিক পরিবর্তনের উপাদান শিক্ষা ও প্রযুক্তি এবং শিল্পয়ন কার্যকর।

 ঘ  সামাজিক পরিবর্তনে সর্বত্র নারীর ক্ষমতায়ন এবং মর্যাদা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। প্রশ্নোক্ত এ উক্তিটি যথার্থ। বাংলাদেশে শিল্পের ক্রমোন্নতি নারীর সামাজিক জীবন এবং মর্যাদার ক্ষেত্রকে প্রভূত পরিবর্তন সাধন করেছে। শিল্পের প্রসার আজ নারীকে গৃহের সীমিত পরিবেশে থেকে বাইরের কর্মমুখর জগতে টেনে এনেছে। তাছাড়া নারী সমাজের চাকরি, বাড়তি অর্থোপার্জনের সুযোগ সম্প্রসারিত করেছে। শিক্ষাক্ষেত্রে নারী আগের তুলনায় অনেক অগ্রসর হয়েছে। যার চিত্র উদ্দীপকে নবগঙ্গা গ্রামের মধ্য দিয়ে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। শিক্ষার পাশাপাশি নারীরা এখন বিভিন্ন কর্মক্ষেত্রে নিয়োজিত হচ্ছে। গ্রাম পর্যায়ে নারীরা সরকারি সংস্থা কিংবা বেসরকারি সংস্থা থেকে ঋণ নিয়ে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করছে। বর্তমানে নারীরা তৃণমূল থেকে সর্বোচ্চ পর্যায় পর্যন্ত পুরুষের পাশাপাশি বহু সামাজিক দায়িত্বও পালন করছে; যার সুস্পষ্ট প্রমাণ উদ্দীপকে তুলে ধরা হয়েছে। সামাজিক পরিবর্তনের সাথে সাথে বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীর ভূমিকারও পরিবর্তন ঘটছে। নারীর ভূমিকার এই পরিবর্তন নারীর ক্ষমতায়নের পথকে সুষম করেছে এবং নারীকে মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করেছে। উপর্যুক্ত আলোচনায় প্রতীয়মান হয় যে, সামাজিক পরিবর্তনের ফলে সর্বত্র নারীর ক্ষমতায়ন এবং মর্যাদা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

প্রশ্ন- সামাজিক পরিবর্তনে প্রযুক্তির প্রভাব  

ভূষিরবন্দর গ্রামের শামীম ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম. এজি পাস করে চাকরির চেষ্টা না করে গ্রামে এসে তার বাবার কয়েক বিঘা জমি চাষাবাদ শুরু করে। তার বাবা বেশ চিন্তিত ছেলের ভবিষ্যৎ নিয়ে। কিন্তু শামীম-এর উন্নত জাতের বীজ, সেচ, সার ও সঠিক নিয়মে কীটনাশক প্রয়োগের ফলে কৃষি উৎপাদন বহুগণ বেড়ে গেছে। এর ফলে এই গ্রামে সৃষ্টি হয় নতুন সৃষ্টির উন্মাদনা এবং নতুন সমাজ গঠনের প্রক্রিয়া।

 ক.কিংসলে ডেভিস প্রদত্ত সামাজিক পরিবর্তনের সংজ্ঞাটি লিখ।  ১

খ.যোগাযোগ সামাজিক পরিবর্তনের অন্যতম উপাদানব্যাখ্যা কর।           ২

গ.শামীম কোন কোন উপাদানের মাধ্যমে তার গ্রামের সামাজিক পরিবর্তন এনেছে ব্যাখ্যা কর।        ৩

ঘ.তুমি কি মনে কর উদ্দীপকে উল্লিখিত উপাদানগুলোই শুধুমাত্র দেশের সার্বিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে? তোমার মতামত দাও।    ৪

 ক          সামাজিক পরিবর্তনের সংজ্ঞায় কিংসলে ডেভিস বলেন, সামাজিক পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক সংগঠনের মধ্যকার পরিবর্তন।

 খ           যোগাযোগ সামাজিক পরিবর্তনের একটি অন্যতম উপাদান। জল, স্থল ও আকাশ পথে যোগাযোগ, টেলিফোন, ফ্যাক্স, ইন্টারনেট, ই-মেইল, ডিশ এন্টেনা, মোবাইল ফোন, রেডিও, টেলিভিশন, বিভিন্ন ধরনের পত্র-পত্রিকা প্রভৃতি সামাজিক পরিবর্তনে ভূমিকা রাখে। যোগাযোগের এ অভাবনীয় পরিবর্তনে আজকাল ঘরে বসে এ দেশের শিক্ষার্থীরা বিশ্বের উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগাযোগ করছে ও পড়াশোনার জন্য বিদেশ যাচ্ছে। 

 গ   উদ্দীপকের শামীম সামাজিক পরিবর্তনের উপাদান প্রযুক্তির মাধ্যমে তার গ্রামের সামাজিক পরিবর্তন এনেছে। বস্তুত প্রযুক্তি হলো বিজ্ঞানের প্রয়োগিক দিক। প্রযুক্তির প্রচলন প্রসারের মাধ্যমে সমাজব্যবস্থার অন্তর্ভুক্ত ব্যক্তিবর্গের মানসিক গঠন এবং সামাজিক কাঠামোর পরিবর্তন সাধিত হয়। প্রযুক্তির ক্রমোন্নতিতে আমাদের সমাজব্যবস্থায় দু’ধরনের ফলাফল দেখা যায়। একটি প্রত্যক্ষ এবং অপরটি পরোক্ষ। কতগুলো সামাজিক পরিবর্তনে প্রযুক্তিগত পরিবর্তনের অবশ্যম্ভাবী পরিণাম। যেমন কৃষিক্ষেত্রে প্রযুক্তিবিদ্যার কল্যাণে উন্নত জাতের বীজ, সেচ, সার প্রয়োগের ফলে উৎপাদন বহুগুণে বেড়ে যায়। ফলে গ্রামে সৃষ্টি হয় নতুন সৃষ্টির উন্মাদনা এবং নতুন সমাজ গঠনের প্রক্রিয়া; যার প্রতিচ্ছবি উদ্দীপকে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। সুতরাং বলা যায় যে, শামীম প্রযুক্তিগত উপাদানের মাধ্যমে তার গ্রামের পরিবর্তন এনেছে। 

 ঘ   না, আমি মনে করি উদ্দীপকে উল্লিখিত উপাদানগুলোই শুধুমাত্র দেশের সার্বিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে না। বরং এসব উপাদান ছাড়া আরও বিভিন্ন ধরনের উপাদান বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়নে ভূমিকা পালন করেছে। মূলত বাংলাদেশের সামাজিক পরিবর্তন দেশের আর্থসামাজিক রাজনৈতিক, শিক্ষা, ধর্ম ও সংস্কৃতি প্রভৃতি ক্ষেত্রে প্রতিভাত হয়। সমাজের এ ক্ষেত্রসমূহে পরিবর্তনের মূলে রয়েছে সুনির্দিষ্ট কতকগুলো উপাদান। যেমন : প্রাকৃতিক উপাদান, জৈবিক উপাদান, সাংস্কৃতিক উপাদান, শিক্ষা, যোগাযোগ, শিল্পায়ন ও নগরায়ন। এসব উপাদান বাংলাদেশের সামাজিক পরিবর্তন তথা আর্থসামাজিক উন্নয়নে তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। সুতরাং উপর্যুক্ত আলোচনায় স্পষ্ট প্রতীয়মান হয় যে, উদ্দীপকে উল্লিখিত উপাদানগুলোই শুধুমাত্র দেশের সার্বিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখছে না।

প্রশ্ন- ৪  সামাজিক পরিবর্তনের ক্ষেত্রে যোগাযোগের ভূমিকা  

কাসেম সাহেব দীর্ঘদিন ঢাকায় বসবাস করেন। বহু বছর তার গ্রামের বাড়ি যাওয়া হয়নি। এবার ভাতিজার বিয়েতে গ্রামের বাড়িতে গিয়ে দেখেন প্রতিটি ঘরে টেলিভিশন। সহজে দেশ-বিদেশের খবর সেখানে পাওয়া যাচ্ছে। বিদ্যালয়ে আইসিটির (ওঈঞ) মাধ্যমে শিক্ষাদান চলছে। বর্তমানে তার গ্রামের মেয়েরা শহরে গিয়ে চাকরি করছে।

 ক.সিংসলে ডেভিস-এর মতে সামাজিক পরিবর্তন কী?     ১

খ.নারীর ক্ষমতায়ন বলতে কী বোঝায়?    ২

গ.কাসেম সাহেবের গ্রামে সামাজিক পরিবর্তনে যে উপাদানটির কার্যকারিতা পরিলক্ষিত হয় তা ব্যাখ্যা কর। ৩

ঘ.তুমি কি মনে কর উক্ত উপাদানটি সামাজিক পরিবর্তনের একমাত্র কারণ? বিশ্লেষণ কর। ৪

 ক          কিংসলে ডেভিস বলেন, ‘সামাজিক পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক সংগঠনের মধ্যকার পরিবর্তন।

 খ           নারীর ক্ষমতায়ন বলতে নারীর সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতাকে বুঝায়। শিক্ষা ও শিল্পের প্রসারের কারণে নারীরা আজকাল নানাবিধ কর্মকাÊে যেমন অংশগ্রহণ করে তেমনি পারিবারিক পর্যায়ে তাদের অবস্থান হয়েছে সুদৃঢ়। নারীরা আজকাল শিক্ষা গ্রহণ করে কুসংস্কারমুক্ত হয়ে সমাজে বিভিন্ন ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখছে। নারীরা বিভিন্ন ক্ষেত্রে নিজেদের সিদ্ধান্ত যেমন প্রতিষ্ঠা করছে তেমনি পারিবারিক, সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় পর্যায়েও তাদের মতামত প্রতিষ্ঠা করতে পারছে যা মূলত নারীর ক্ষমতায়নকেই নির্দেশ করে।

 গ           কাসেম সাহেবের গ্রামে সামাজিক পরিবর্তনে যোগাযোগ উপাদানটি পরিলক্ষিত হয়।            জল, স্থল ও আকাশ পথে যোগাযোগ, টেলিফোন, ফ্যাক্স, ইন্টারনেট, ই-মেইল, ডিস এন্টেনা, মোবাইল ফোন, রেডিও, টেলিভিশন, বিভিন্ন ধরনের পত্র-পত্রিকা প্রভৃতি সামাজিক পরিবর্তনে ভূমিকা রাখে। আজকাল ঘরে বসে বিশ্বের সকল দেশের সাথে যোগাযোগ করা যায়। বিশ্বের শ্রেষ্ঠ পাঠাগার ঘরে বসে ব্যবহার করে প্রয়োজনীয় গ্রন্থ নির্বাচন করে পড়াশুনা করা যায়। যোগাযোগের এ অভাবনীয় পরিবর্তনে ঘরে বসে এদেশের শিক্ষার্থীরা বিশ্বের উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগাযোগ করছে এবং পড়াশুনার জন্য বিদেশে যাচ্ছে। উদ্দীপকে কাসেম সাহেবের গ্রামের মানুষ ঘরে বসে দেশ-বিদেশের নানা অনুষ্ঠান দেখে ও খবর জানতে পারে। তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে আইসিটির (ওঈঞ) মাধ্যমে শিক্ষাদান চলছে। এ থেকে বুঝা যায় যে, কাসেম সাহেবের গ্রামে সামাজিক পরিবর্তনে যোগাযোগ উপাদানটি বিদ্যমান।

 ঘ            উক্ত উপাদানটি হলো যোগাযোগ। এটি সামাজিক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কিন্তু আমি মনে করি, যোগাযোগই সামাজিক পরিবর্তনের একমাত্র উপাদান নয়। কারণ সামাজিক পরিবর্তন দেশের আর্থসামাজিক, রাজনৈতিক, শিক্ষা, ধর্ম, সংস্কৃতি প্রভৃতি ক্ষেত্রে প্রতিভাত হয়, তাই সামাজিক পরিবর্তনের মূলে রয়েছে সুনির্দিষ্ট কতকগুলো উপাদান। যেমন : প্রাকৃতিক উপাদান, জৈবিক উপাদান, সাংস্কৃতিক উপাদান শিক্ষা, প্রযুক্তি ও যোগাযোগ। অর্থাৎ যোগাযোগ সামাজিক পরিবর্তনের একটি অন্যতম উপাদান। যোগাযোগের মতো আরও যেসব উপাদান সামাজিক পরিবর্তনের মূলে রয়েছে সেগুলোও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

প্রাকৃতিক উপাদান : বাংলাদেশের ভূপ্রকৃতিগত অবস্থান সামাজিক পরিবর্তনের একটি উল্লেখযোগ্য কারণ। ধীর এবং আকস্মিক ভৌগোলিক পরিবর্তন, জলবায়ু সংক্রান্ত পরিবর্তন, বৈশ্বিক উষ্ণায়ন প্রভৃতি বাংলাদেশের মানুষের জীবনযাত্রার ওপর প্রভাব ফেলে এবং সমাজের ব্যাপক পরিবর্তন সাধন করে।

জৈবিক উপাদান : মানুষের জৈবিক অবস্থার পরিবর্তন যেমন : জনসংখ্যা বৃদ্ধি বা হ্রাস, স্থানান্তর অথবা ঘনত্বের পরিবর্তন সামাজিক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

সাংস্কৃতিক উপাদান : যেকোনো সমাজের বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতি, মানুষের মূল্যবোধের পার্থক্য প্রভৃতির ফলে সৃষ্টি হয়েছে বিভিন্ন সংস্কৃতি লালিত প্রতিষ্ঠান, যা সমাজের মধ্যে নানা রকমের পরিবর্তন সৃষ্টি করে।

শিক্ষা : সমাজের সদস্যদের মধ্যে শিক্ষার প্রসার আত্মবিশ্বাস ও বিচার-বিবেচনার ক্ষমতা জাগ্রত করে। নারী শিক্ষা নারীকে কর্মমুখী করেছে। এভাবে বিজ্ঞান শিক্ষা, বাণিজ্য শিক্ষা প্রভৃতি সমাজে পরিবর্তন এনেছে।

শিল্পায়ন নগরায়ন : শিল্পায়ন ও নগরায়ন সামাজিক পরিবর্তনে ব্যাপক প্রভাব ফেলে। গোটা সমাজব্যবস্থা যেমন : সামাজিক, অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, পারিবারিক ও ধর্মীয় জীবনে এর সুদূরপ্রসারী প্রভাব পরিলক্ষিত হয়।

প্রশ্ন- সামাজিক পরিবর্তনে জৈবিক উপাদান 

কায়সার সাহেব দীর্ঘদিন পর দেশে ফিরে লক্ষ করেন তাদের গ্রামে আগের চেয়ে জনসংখ্যা বেড়েছে। বেড়েছে নানা ধরনের কাজের সুযোগ। গ্রামের অনেক ছেলেমেয়ে নানা জায়গায় চাকরি করছে। ফলে অনেক পরিবারে বৃদ্ধ মা-বাবাকে একাকি বসবাস করতে হচ্ছে।

 ক.সামাজিক পরিবর্তন সম্পর্কে ম্যাকাইভারের সংজ্ঞাটি লেখ।     ১

খ.শিক্ষা হলো এক ধরনের সংস্কার সাধন ও বিরামহীন প্রক্রিয়া”   বক্তব্যটি বুঝিয়ে লেখ।        ২

গ.কায়সার সাহেবের গ্রামের সামাজিক পরিবর্তনের কোন উপাদানটি কাজ করেছে? ব্যাখ্যা কর।     ৩

ঘ.উক্ত উপাদানটি সামাজিক পরিবর্তনের প্রধান কারণ।”   উক্তিটি মূল্যায়ন কর।     ৪

 ক          সামাজিক পরিবর্তন সম্পর্কে ম্যাকাইভার বলেন, ‘মানবীয় সম্পর্কের পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক পরিবর্তন।’

 খ           সামাজিক পরিবর্তনের একটি বিশেষ উপাদান হলো শিক্ষা। শিক্ষা হলো এক ধরনের সংস্কার সাধন এবং বিরামহীন প্রক্রিয়া। সমাজের সদস্যদের মধ্যে শিক্ষার প্রসার আত্মবিশ্বাস ও বিচার-বিবেচনার ক্ষমতা জাগ্রত করে। শিক্ষা যাবতীয় অন্ধত্ব, অজ্ঞতা, কুসংস্কার প্রভৃতি থেকে মুক্তি দেয়। যেমন  বাংলাদেশের সমাজে নারী শিক্ষার প্রসার জনগণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করেছে যা তাদেরকে বিভিন্ন সামাজিক আন্দোলন পরিচালনায় উদ্বুদ্ধ করেছে। যৌতুক আইন, পারিবারিক, আইন, নারী উন্নয়ন নীতি প্রভৃতি সামাজিক সচেতনতার ফসল। নারী শিক্ষা নারীকে কর্মমুখী করেছে। এতে নারীর ক্ষমতায়ন ঘটেছে। এভাবে বিজ্ঞান শিক্ষা, বাণিজ্য শিক্ষা প্রভৃতি সমাজে পরিবর্তন এনেছে। এই পরিবর্তন হচ্ছে সংস্কার সাধন যা বিরামহীন এক প্রক্রিয়া।

 গ           কায়সার সাহেবের গ্রামে সামাজিক পরিবর্তনে জৈবিক উপাদানটি কাজ করেছে।  জন্ম ও মৃত্যুহার, গড় আয়ু, জনসংখ্যার ঘনত্ব, জনসংখ্যার প্রকৃতি ও জীবনযাত্রার মান নিয়েই জৈবিক উপাদান। মানুষের জৈবিক অবস্থার পরিবর্তন যেমন  জনসংখ্যা বৃদ্ধি বা হ্রাস, স্থানান্তর অথবা ঘনত্বের পরিবর্তন সামাজিক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আমাদের দেশের জনসংখ্যা বৃদ্ধি প্রতিরোধে জন্ম নিয়ন্ত্রণের বিভিন্ন পদ্ধতি প্রয়োগ করা হচ্ছে। জন্ম ও মৃত্যুহার হ্রাস সমাজকাঠামো পরিবর্তনে অবদান রাখছে। গ্রামের অনেক ছেলেমেয়ে বিভিন্ন ধরনের শিক্ষা অর্জন করে নানা জায়গায় চাকরি করছে যার কারণে সামাজিক পরিবর্তন ঘটছে। উদ্দীপকে কায়সার সাহেবের গ্রামের মানুষ দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং বিভিন্ন জায়গায় চাকরি করছে। এ থেকে বুঝা যায় কায়সার সাহেবের গ্রামে জৈবিক উপাদানটি পরিলক্ষিত হয়।

 ঘ            উদ্দীপকে নির্দেশিত জৈবিক উপাদানটিকে সামাজিক পরিবর্তনের প্রধান কারণ হিসেবে ধরা হয়। কেননা জনসংখ্যা বৃদ্ধি হওয়ায় নানা ধরনের লোকজন নানা পেশায় নিয়োজিত থাকে। যথা  শিক্ষা, প্রযুক্তি ও বিভিন্ন সংস্কৃতিতে জড়িয়ে থেকে সামাজিক পরিবর্তন ঘটায়। জন্ম ও মৃত্যুহার, গড় আয়ু, জনসংখ্যার ঘনত্ব, জনসংখ্যার প্রকৃতি ও জীবনযাত্রার মান নিয়েই জৈবিক উপাদান। মানুষের জৈবিক অবস্থার পরিবর্তন যেমন  জনসংখ্যার বৃদ্ধি বা হ্রাস, স্থানান্তর অথবা ঘনত্বের পরিবর্তন সামাজিক পরিবর্তনের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। উদ্দীপকের কায়সার সাহেবের গ্রামে অনেক ধরনের কর্মসংস্থান ও অনেক ছেলেমেয়ে নানা জায়গায় চাকরি করছে। ফলে অনেক পরিবারে বৃদ্ধ মা-বাবাকে একাকী বসবাস করতে হচ্ছে। জৈবিক উপাদানটি সমাজের চিত্রকে পাল্টিয়ে দিয়েছে। তাই বলা যায় যে, জৈবিক উপাদানটি সামাজিক পরিবর্তনের প্রধান কারণ।

প্রশ্ন- সামাজিক পরিবর্তনের উপাদান  

রায়হান সাহেব সৌদি আরবে চাকরি করেন। আট বছর পর বড় ভাইয়ের মেয়ের বিয়ে উপলক্ষে দেশে এসে নিজ গ্রামে যান। তিনি লক্ষ করেন তার গ্রামের মানুষ গৃহস্থালির নানা কাজে বিদ্যুৎ চালিত বিভিন্ন সামগ্রী ব্যবহার করছে। তারা ঘরে বসেই দেশ-বিদেশের নানা অনুষ্ঠান দেখছে ও খবর জানতে পারছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ছাত্রছাত্রীদের কম্পিউটারের ব্যবহার শেখানো হচ্ছে।

 ক.সমাজবিজ্ঞানী কিংসলে ডেভিসের দেওয়া সামাজিক পরিবর্তনের সংজ্ঞাটি লেখ।            ১

খ.দেশের নারী শিক্ষার সম্প্রসারণে সরকারের দুটি পদক্ষেপ উল্লেখ কর।    ২

গ.রায়হান সাহেবের গ্রামে সামাজিক পরিবর্তনের উপাদানটি ব্যাখ্যা কর।   ৩

ঘ.তুমি কি মনে কর উক্ত উপাদানটিই সামাজিক পরিবর্তনের একমাত্র উপাদান? তোমার উত্তরের পক্ষে যুক্তি দেখাও।                ৪

 ক          সমাজবিজ্ঞানী কিংসলে ডেভিসের সংজ্ঞাটি হলো-“সামাজিক পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক সংগঠনের মধ্যকার পরিবর্তন।”

 খ           দেশে নারী শিক্ষা সম্প্রসারণে সরকারের দুটি উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ হলো : ১. উপবৃত্তি প্রকল্প ও ২. অবৈতনিক নারী শিক্ষা। দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সুবিধার্থে সরকার নারী শিক্ষা উচ্চ মাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত অবৈতনিক ঘোষণা করে এবং শিক্ষার পাশাপাশি তাদের উপবৃত্তি প্রদান করে। এর ফলে গ্রামীণ মেয়েরা আগের চেয়ে পড়াশোনার সুযোগ বেশি পাচ্ছে এবং সমাজের মানুষ নারী শিক্ষাকে সমানভাবে গুরুত্ব দিচ্ছে।

 গ           রায়হান সাহেবের গ্রামের সামাজিক পরিবর্তনে যোগাযোগ উপাদানটি পরিলক্ষিত হয়। জল, স্থল ও আকাশ পথে যোগাযোগ, টেলিফোন, ফ্যাক্স, ইন্টারনেট, ই-মেইল ডিশ এন্টেনা, মোবাইল ফোন, রেডিও, টেলিভিশন, বিভিন্ন ধরনের পত্র-পত্রিকা প্রভৃতি সামাজিক পরিবর্তনে ভূমিকা রাখে। আজকাল ঘরে বসে বিশ্বের সকল দেশের সাথে যোগাযোগ করা যায় ও বিশ্বের শ্রেষ্ঠ পাঠাগার থেকে প্রয়োজনীয় গ্রন্থ নির্বাচন করে পড়াশোনা করা যায়। এমনকি যোগাযোগের এ অভাবনীয় পরিবর্তনে ঘরে বসে এদেশের শিক্ষার্থীরা বিশ্বের উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে পারে। উদ্দীপকে রায়হান সাহেবের গ্রামের মানুষ গৃহস্থালির নানা কাজে বিদ্যুৎ চালিত বিভিন্ন সামগ্রী ব্যবহার করে। তারা ঘরে বসে দেশ-বিদেশের নানা অনুষ্ঠান দেখে ও খবর জানতে পারে। তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ছাত্রছাত্রীদের কম্পিউটারের ব্যবহার শেখানো হয়। এ থেকে বোঝা যায়, রায়হান সাহেবের গ্রামে সামাজিক পরিবর্তনের যোগাযোগ উপাদানটির প্রভাব বিদ্যমান।

 ঘ            উক্ত উপাদানটি হলো যোগাযোগ। এটি সামাজিক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কিন্তু আমি মনে করি, যোগাযোগই সামাজিক পরিবর্তনের একমাত্র উপাদান নয়। কারণ সামাজিক পরিবর্তন দেশের আর্থসামাজিক, রাজনৈতিক, শিক্ষা, ধর্ম, সংস্কৃতি প্রভৃতি ক্ষেত্রে প্রতিভাত হয়, তাই সামাজিক পরিবর্তনের মূলে রয়েছে সুনির্দিষ্ট কতকগুলো উপাদান। যেমন : প্রাকৃতিক উপাদান, জৈবিক উপাদান- সাংস্কৃতিক উপাদান। শিক্ষা, প্রযুক্তি ও যোগাযোগ। অর্থাৎ যোগাযোগ সামাজিক পরিবর্তনের একটি অন্যতম উপাদান। যোগাযোগের মতো আরও যেসব উপাদান সামাজিক পরিবর্তনের মূলে রয়েছে সেগুলোও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

১.প্রাকৃতিক উপাদান : বাংলাদেশের ভূপ্রকৃতিগত অবস্থান সামাজিক পরিবর্তনের একটি উল্লেখযোগ্য কারণ। ধীর এবং আকস্মিক ভৌগোলিক পরিবর্তন, জলবায়ু সংক্রান্ত পরিবর্তন, বৈশ্বিক উষ্ণায়ন প্রভৃতি বাংলাদেশের মানুষের জীবনযাত্রার ওপর প্রভাব ফেলে এবং সমাজের ব্যাপক পরিবর্তন সাধন করে।

২.জৈবিক উপাদান : মানুষের জৈবিক অবস্থার পরিবর্তন যেমন : জনসংখ্যা বৃদ্ধি বা হ্রাস, স্থানান্তর অথবা ঘনত্বের পরিবর্তন সামাজিক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

৩.সাংস্কৃতিক উপাদান : যেকোনো সমাজের বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতি, মানুষের মূল্যবোধের পার্থক্য প্রভৃতির ফলে সৃষ্টি হয়েছে বিভিন্ন সংস্কৃতি লালিত প্রতিষ্ঠান, যা সমাজের মধ্যে নানা রকমের পরিবর্তন সৃষ্টি করে।

৪.শিক্ষা : সমাজের সদস্যদের মধ্যে শিক্ষার প্রসার আত্মবিশ্বাস ও বিচার-বিবেচনার ক্ষমতা জাগ্রত করে। নারী শিক্ষা নারীকে কর্মমুখী করেছে। এভাবে বিজ্ঞান শিক্ষা, বাণিজ্য শিক্ষা প্রভৃতি সমাজে পরিবর্তন এনেছে।

৫.শিল্পায়ন নগরায়ণ : শিল্পায়ন ও নগরায়ণ সামাজিক পরিবর্তনে ব্যাপক প্রভাব ফেলে। গোটা সমাজব্যবস্থা যেমন : সামাজিক, অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, পারিবারিক ও ধর্মীয় জীবনে এর সুদূরপ্রসারী প্রভাব পরিলক্ষিত হয়।

অতিরিক্ত সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন- ৭  সামাজিক পরিবর্তনে প্রাকৃতিক উপাদান  

আমানদের গ্রাম মেঘনা নদীর তীরে। নদীভাঙনের ফলে তাদের গ্রামের বাড়ি, জমিজমা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ায় তারা শহরে চলে এসেছে। সেখানে তারা বস্তিতে মানবেতর জীবনযাপন করছে।

ক.কোনটি সামাজিক পরিবর্তন সূচনা করে?          ১

খ.সামাজিক পরিবর্তনে শিল্পায়নের প্রভাব কেমন?              ২

গ.আমানদের এলাকায় সামাজিক পরিবর্তনের কোন উপাদান কার্যকর? ব্যাখ্যা কর।             ৩

ঘ.উক্ত উপাদানের ফলে সৃষ্ট সমস্যা সামাজিক জীবনে নানামুখী সমস্যার সৃষ্টি করে- তুমি কি বক্তব্যটি সমর্থন কর? উত্তরের পক্ষে যুক্তি দাও।               ৪

 ক          সংস্কৃতি সামাজিক পরিবর্তন সূচনা করে।

 খ           বর্তমান সমাজব্যবস্থায় শিল্পায়ন নানাবিধ প্রভাব বিস্তার করছে। শিল্পায়নের প্রভাবে নগরায়ণ সৃষ্টি হয়েছে। ব্যাপক শিল্পায়নের ফলে মানুষ এখন গ্রামীণ জীবন ছেড়ে নগরজীবন গ্রহণ করছে। যার ফলে গ্রামের অনেক দক্ষ-অদক্ষ শ্রমিক নগরমুখী হচ্ছে। শিল্পায়নের ফলে যাতায়াত ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন ঘটেছে। তাই বলা যায় যে, সমাজের ওপর শিল্পায়নের প্রভাব সুদূরপ্রসারী।

 গ           আমানদের এলাকায় সামাজিক পরিবর্তনের প্রাকৃতিক উপাদান কার্যকর। বাংলাদেশে নদীভাঙন, জলোচ্ছ্বাস, বন্যা, টর্নেডো, অনাবৃষ্টি প্রভৃতি প্রাকৃতিক দুর্যোগ যেন প্রাত্যহিক ঘটনা। এসব প্রাকৃতিক দুর্যোগ পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট করে। নদীভাঙন এদেশের শহরাঞ্চলে বস্তি সৃষ্টির একটি অন্যতম কারণ। কেননা নদী ভাঙনের ফলে নদীপাড়ের লোকজন সর্বস্ব হারিয়ে শহরমুখী হয়। বস্তিতে বসবাস করে, আর এই বস্তি সমস্যা শহরাঞ্চলে নানামুখী সমস্যার জন্ম দেয়। যেমনটি ঘটেছে উদ্দীপকে উল্লিখিত আমানদের। আমানদের এলাকায় নদীভাঙনের ফলে তাদের গ্রামের বাড়ি, জমিজমা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যায়। ফলে তারা শহরে আশ্রয় নেয়। সেখানে আমানের পরিবার বস্তিতে মানবেতর জীবনযাপন করে। প্রাকৃতিক দুর্যোগে পরিবেশের সাথে সামঞ্জস্য বিধানের জন্য নতুন পদ্ধতি অবলম্বনের প্রয়োজন দেখা দেয়। এর ফলে মানুষের মধ্যে সামাজিক সম্পর্কের পরিবর্তন ঘটে থাকে।

 ঘ            উদ্দীপকে নদীভাঙন তথা প্রাকৃতিক উপাদানের কথা বলা হয়েছে। এই নদীভাঙন শহরাঞ্চলে বস্তি সমস্যা সৃষ্টির অন্যতম কারণ। এই বস্তি সমস্যা সামাজিক জীবনে নানামুখী সমস্যার সৃষ্টি করে। আমি বক্তব্যটি সমর্থন করি। শহরাঞ্চলে বস্তি সমস্যা নানামুখী সমস্যার জন্ম দিয়েছে। যেসব স্থানে পোশাক শিল্প, চামড়া শিল্প, চুড়ি শিল্প, তামাক বিড়ি শিল্প গড়ে উঠেছে যেসব স্থানে বস্তির উদ্ভব হয়েছে, বস্তিগুলো সামাজিক জীবনে দ্বন্দ্ব-সংঘাত, অপরাধ, কিশোর অপরাধের মতো বহু সামাজিক সমস্যার সৃষ্টি করে। এসব সমস্যা আবার অন্যান্য সমস্যার সৃষ্টি করেছে, যা নগর জীবনকে বিষিয়ে তুলেছে। এ সমস্যা সমাধানে সরকারি ও বেসরকারি বহু কার্যক্রম গ্রহণ করায় শহুরে সমাজে নানা পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। এছাড়া ধীর এবং আকস্মিক ভৌগোলিক পরিবর্তন, জলবায়ু সংক্রান্ত পরিবর্তন, বৈশ্বিক উষ্ণায়ন এবং প্রাকৃতিক বিপর্যয় নতুন নতুন সমস্যার সৃষ্টি করে। সুতরাং বলা যায়, প্রাকৃতিক উপাদানের ফলে সৃষ্ট সমস্যা সামাজিক জীবনে নানামুখী সমস্যার সৃষ্টি করে- বক্তব্যটি সঠিক।

প্রশ্ন- সামাজিক পরিবর্তনে প্রযুক্তির প্রভাব  

পলাশপুরে এক সময় এক একর জমিতে যে পরিমাণ ফসল উৎপাদিত হতো এখন তার চেয়ে তিনগুণ বেশি উৎপাদিত হয়। তার কারণ আধুনিক যন্ত্রপাতি, সেচব্যবস্থা, সার প্রয়োগ ও কীটনাশক প্রয়োগের ফলে ফসলের উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়া এলাকায় উৎপাদিত ফসলের সঠিক মূল্য পাচ্ছে কৃষকরা। তার কারণ পলাশপুরের সাথে এখন বিভিন্ন শহরের যাতায়াতের উন্নত ব্যবস্থা রয়েছে।

 ক.শিল্পায়ন কী? ১

খ.প্রাকৃতিক কারণে সামাজিক পরিবর্তন সাধিত হয়”-কথাটি বুঝিয়ে বল।    ২

গ.বর্তমানে পলাশপুরের চাষাবাদ পদ্ধতিতে সমাজ পরিবর্তনের যে উপাদানের প্রতিচ্ছবি প্রকাশিত হয়েছে তা ব্যাখ্যা কর।                ৩

ঘ.পলাশপুরের উন্নয়নে যোগাযোগ ব্যবস্থা মুখ্য ভূমিকা পালন করেছে। বক্তব্যটি বিশ্লেষণ কর।          ৪

 ক          কৃষিভিত্তিক অর্থনীতি ও সমাজব্যবস্থা, শিল্পভিত্তিক ও উৎপাদনমুখী অর্থনীতি ও সমাজব্যবস্থায় রূপান্তরিত হওয়ার প্রক্রিয়াই হলো শিল্পায়ন।

 খ           প্রাকৃতিক কারণে সামাজিক পরিবর্তন সাধিত হয়। প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রাকৃতিক পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট করে এবং পরিবেশের সঙ্গে সামঞ্জস্যবিধানের জন্য নতুন পদ্ধতি অবলম্বনের প্রয়োজন দেখা দেয়। তাই প্রাকৃতিক কারণে সৃষ্ট দুর্যোগ মোকাবিলা, প্রতিরোধ, প্রতিকারের জন্য মানুষ নানামুখী কার্যক্রম গ্রহণ করে সমাজের পরিবর্তন সাধন করে।

 গ           বর্তমানে পলাশপুরের চাষাবাদ পদ্ধতিতে সমাজ পরিবর্তনের প্রযুক্তি উপাদানটির প্রতিচ্ছবি প্রকাশিত হয়েছে। প্রযুক্তি হলো বিজ্ঞানের প্রায়োগিক দিক। প্রযুক্তির প্রচলন ও প্রসারের মাধ্যমে সমাজব্যবস্থার অন্তর্ভুক্ত ব্যক্তিবর্গের মানসিক গঠন এবং সামাজিক কাঠামোর পরিবর্তন সাধিত হয়। যেমন : বেতারের আবিষ্কার সামাজিক জীবনে আমোদ-প্রমোদের ব্যবস্থা, শিক্ষাব্যবস্থা, রাজনীতি এবং অন্যান্য আরও বহু ধরনের সামাজিক কাজকে প্রভাবিত করেছে। গ্রাম্যজীবনের ওপর প্রযুক্তির ব্যাপক প্রভাব রয়েছে। কৃষিক্ষেত্রে প্রযুক্তির কল্যাণে উন্নতজাতের বীজ, সেচ, সার প্রয়োগের ফলে কৃষি উৎপাদন বহুগুণে বেড়ে গেছে। পলাশপুরে বর্তমানে প্রযুক্তি নির্ভর আধুনিক চাষাবাদ পদ্ধতি তথা যন্ত্রচালিত সেচব্যবস্থা প্রচলিত রয়েছে। সার প্রয়োগ এবং কীটনাশক প্রয়োগেও আগের তুলনায় তিনগুণ ফসল উৎপাদিত হচ্ছে। কৃষিক্ষেত্রে এ ধরনের পরিবর্তন সমাজ পরিবর্তনে ব্যাপক ভূমিকা পালন করছে।

 ঘ            পলাশপুরের উন্নয়নে যোগাযোগ ব্যবস্থা মুখ্য ভূমিকা পালন করছে। যেদেশের যোগাযোগ মাধ্যম যত উন্নত সেদেশের অর্থনীতিও তত উন্নত। যোগাযোগ সামাজিক পরিবর্তনের একটি অন্যতম উপাদান। জল, স্থল ও আকাশ পথে যোগাযোগ, টেলিফোন, ফ্যাক্স, ইন্টারনেট, ই-মেইল, ডিশ এন্টেনা, মোবাইল ফোন, রেডিও, টেলিভিশন, বিভিন্ন ধরনের পত্রপত্রিকা প্রভৃতি সামাজিক পরিবর্তনে ভূমিকা রাখে। আজকাল ঘরে বসেই বিশ্বের সকল দেশের সাথে যোগাযোগ করা যায়। যোগাযোগের অভাবনীয় পরিবর্তনে ঘরে বসে এদেশের শিক্ষার্থীরা বিশ্বের উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগাযোগ করছে এবং পড়াশোনার জন্য বিদেশে যাচ্ছে। পলাশপুরের কৃষকরাও তাদের উৎপাদিত দ্রব্য শহরে নিয়ে গিয়ে বিক্রি করে সঠিক মূল্য পাচ্ছে। এছাড়া পত্র-পত্রিকা, রেডিও, টেলিভিশনের মাধ্যমে তারা বাজার সম্পর্কে সঠিক তথ্য পাচ্ছে। ফলে তারা এখন আরও বেশি সচেতন হয়ে উঠেছে। এর ফলে তাদের জীবনের মানও উন্নত হচ্ছে। চাষাবাদ পদ্ধতিতে প্রযুক্তি ব্যবহার করে উৎপাদন বৃদ্ধি পাওয়ার পরও যদি পলাশপুরের সাথে বিভিন্ন শহরের যাতায়াতের উন্নত ব্যবস্থা না থাকত তাহলে কৃষক সঠিক মূল্য পেত না। তাই বলা যায়, পলাশপুরের উন্নয়নে যোগাযোগ ব্যবস্থা মুখ্য ভূমিকা পালন করেছে।

প্রশ্ন- সামাজিক পরিবর্তন এবং নারীর ভূমিকা  

নাসরিন বেগম দরিদ্র পরিবারের সন্তান হওয়ায় শিক্ষিত হতে পারেননি। তিনি দরিদ্র হওয়া সত্ত্বেও তার মেয়ে সাবিহাকে পড়াশোনা করাচ্ছেন। কারণ বিদ্যালয়ে সাবিহাকে কোনো বেতন দিতে হয় না এবং সে পড়াশোনার জন্য টাকা পায়। বর্তমানে নাসরিন বেগম একটি সরকারি সংস্থা থেকে ঋণ নিয়ে হাঁস-মুরগির খামার দিয়ে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছেন।

 ক.কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগটি শহরাঞ্চলে বস্তি সমস্যা সৃষ্টির অন্যতম কারণ?             ১

খ.প্রযুক্তির প্রত্যক্ষ ফলাফল সম্পর্কে লেখ।            ২

গ.সাবিহার পড়াশোনা করার পেছনে কোন উদ্যোগটির ভূমিকা রয়েছে? ব্যাখ্যা কর।              ৩

ঘ.সামাজিক পরিবর্তনে নাসরিন বেগমের অবদান মূল্যায়ন কর।   ৪

 ক          নদীভাঙন শহরাঞ্চলে বস্তি সমস্যা সৃষ্টির অন্যতম কারণ।

 খ           প্রযুক্তির ক্রমোন্নতিতে আমাদের সমাজব্যবস্থায় কিছু প্রত্যক্ষ ফলাফল দেখা যায়। যেমন : শ্রমিকের নতুন নতুন সংগঠন, সামাজিক যোগাযোগ পরিধির বিস্তৃতি, বিশেষ কার্যে বিশেষ দক্ষতা অর্জন এবং গ্রাম্য জীবনের ওপর নাগরিক জীবনের প্রভাব প্রভৃতি। তাছাড়া প্রযুক্তি কৃষিক্ষেত্রে অভাবনীয় পরিবর্তন এনে দিয়েছে। যেমন : চিংড়ি চাষে অভাবনীয় পরিবর্তন, সমন্বিত মাছ চাষ, গবাদিপশুর প্রজনন, গরু মোটাতাজাকরণ প্রভৃতি প্রযুক্তির প্রত্যক্ষ ফসল।

 গ           সাবিহার পড়াশোনা করার পেছনে সরকারি উদ্যোগ ভূমিকা রেখেছে। সরকার নারী শিক্ষা অবৈতনিক ঘোষণা করেছে। নারী শিক্ষা অবৈতনিক হওয়ায় গ্রামীণ মেয়েরা আগের চেয়ে পড়াশোনার সুযোগ বেশি পাচ্ছে। তাছাড়া নারী শিক্ষার সম্প্রসারণের লক্ষ্যে সরকার উপবৃত্তি প্রকল্প চালু করেছে, যা গ্রামীণ নারী শিক্ষাকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়েছে। এখন গ্রামীণ সমাজের মানুষ ছেলে শিক্ষার্থীর পাশাপাশি কন্যা শিশুর শিক্ষাকেও সমানভাবে গুরুত্ব দিচ্ছে। উদ্দীপকে, নাসরিন দরিদ্র হওয়া সত্ত্বেও তার মেয়ে সাবিহাকে পড়াশোনা করাচ্ছেন। কারণ বিদ্যালয়ে সাবিহাকে কোনো বেতন দিতে হয় না। সে উপবৃত্তি পায়। তাই সাবিহা পড়াশোনা করতে পারছে।

 ঘ            সামাজিক পরিবর্তনে নাসরিন বেগমের অবদান অপরিসীম। একসময় নারী শুধু গৃহস্থালি কাজের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল। কিন্তু বর্তমানে বাংলাদেশের শিল্পের ক্রমোন্নতি নারীর সামাজিক জীবন ও মর্যাদার ক্ষেত্রে প্রভূত পরিবর্তন সাধন করেছে। শিল্পের প্রসার আজ নারীকে গৃহের সীমিত পরিবেশ থেকে বাইরের কর্মমুখর জগতে টেনে এনেছে। তাছাড়া নারী সমাজের চাকরি, বাড়তি অর্থোপার্জনের সুযোগ সম্প্রসারিত করেছে। উদ্দীপকে যার বাস্তব প্রতিফলন দেখা যায়। আমাদের গ্রাম পর্যায়ে নারীরা সরকারি সংস্থা কিংবা বেসরকারি সংস্থা থেকে ঋণ নিয়ে আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে। এ কর্মসংস্থানগুলোর মধ্যে রয়েছে বৃক্ষরোপণ নার্সারি, গরু মোটাতাজাকরণ, ছাগল পালন, মৎস্য চাষ, মধু চাষ, হাঁস-মুরগি পালন, টেইলারিং, ফলমূলের ব্যবসা প্রভৃতি। তাদের আয়ে সংসার চলছে, সন্তান পড়াশোনা করছে, পরিবারের সদস্যরা স্বাস্থ্য সেবা পাচ্ছে। আবার এসব নারী-পুরুষের পাশাপাশি বহু সামাজিক দায়িত্বও পালন করছে। সামাজিক পরিবর্তনের সাথে সাথে বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীর ভূমিকারও পরিবর্তন ঘটেছে। নারীর ভূমিকার এই পরিবর্তন নারীর ক্ষমতায়নের পথকে সুগম করেছে এবং নারীকে মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করেছে। উদ্দীপকে নাসরিন বেগম দরিদ্র পরিবারের সন্তান হওয়ায় পড়াশোনা থেকে বঞ্চিত হয়। কিন্তু তিনি একটি সরকারি সংস্থা থেকে ঋণ গ্রহণ করে হাঁস-মুরগির খামার দেন। তিনি আত্মকর্মসংস্থানের মধ্য দিয়ে পরিবারের ও সমাজের প্রভূত পরিবর্তনে ভূমিকা রাখেন।

প্রশ্ন- ১০  শিল্পায়ন নগরায়ন 

আজিজ মিয়া খুলনা বিভাগের একটি জেলা শহরের পাশেই বসবাস করেন। সাম্প্রতিককালে তার বাড়ির চারপাশে অনেক কলকারখানা গড়ে উঠেছে। মানুষ এখন আর ঐ এলাকায় ক্ষেত খামারে কাজ করে না। এলাকার ঘরবাড়িগুলোর চিত্রও গত পাঁচ বছরের তুলনায় ভিন্ন। প্রায় বাড়িঘর ইটের দ্বারা সৃষ্ট। এলাকায় জীবনযাত্রার মান বৃদ্ধি পেলেও সুযোগ কমে গিয়েছে বলে মনে করে আজিজ মিয়া ও তার পরিবারের লোকজন।

 ক.প্রযুক্তির ক্রমোন্নতিতে আমাদের সমাজব্যবস্থায় কয় ধরনের ফলাফল দেখতে পাওয়া যায়?         ১

খ.জৈবিক উপাদান সামাজিক পরিবর্তনের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান’ ব্যাখ্যা কর।              ২

গ.আজিজ মিয়ার এলাকায় সামাজিক পরিবর্তনের যে উপাদানটি লক্ষ করা যায় তার ব্যাখ্যা দাও।    ৩

ঘ.আজিজ মিয়ার এলাকার কলকারখানা ও ইটের তৈরি ঘরবাড়ি জনজীবনে ব্যাপক প্রভাব বিস্তারে সক্ষম বিশ্লেষণ কর।                ৪

 ক          প্রযুক্তির ক্রমোন্নতিতে আমাদের সমাজব্যবস্থায় দুই ধরনের ফলাফল দেখতে পাওয়া যায়।

 খ           জৈবিক উপাদান সামাজিক পরিবর্তনের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। তার কারণ জনসংখ্যা বৃদ্ধি বা হ্রাস, স্থানান্তর অথবা ঘনত্বের পরিবর্তন সামাজিক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। প্রতিনিয়ত জনসংখ্যা বৃদ্ধির ফলে বেকারত্ব, শিশুশ্রম ও কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে তীব্র প্রতিযোগিতার মতো নানামুখী সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে।

 গ           উদ্দীপকে আজিজ মিয়ার এলাকায় সামাজিক পরিবর্তনের যে উপাদানটি লক্ষ করা যায় তা হলো শিল্পায়নের প্রভাব। উদ্দীপকে আজিজ মিয়ার এলাকায় বর্তমানে অনেক কলকারখানা গড়ে উঠেছে। মানুষ ঐ কলকারখানাগুলোতে কাজ করে বিধায় খেত খামারে আর কাজ করে না। এতে বোঝা যাচ্ছে সামাজিক পরিবর্তনে শিল্পায়নের প্রভাব পড়েছে। এছাড়া উদ্দীপকে লক্ষ করা যাচ্ছে এলাকার বাড়িঘরগুলো পাঁচ বছর আগের তুলনায় ভিন্ন এবং প্রায় বাড়ি ইটের তৈরি। এতে প্রমাণিত হয় এলাকার নগরায়ণের চিত্র। শিল্পায়ন হলো এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে কৃষিভিত্তিক অর্থনীতি ও সমাজব্যবস্থা, শিল্পভিত্তিক ও উৎপাদনমুখী অর্থনীতিও সমাজে রূপান্তরিত হয়। নগরায়ণ হলো শিল্পায়নের ফল। ব্যাপক শিল্পায়নের ফলে গ্রামীণ জীবন ছেড়ে নগর জীবন পদ্ধতি গ্রহণের প্রক্রিয়াই নগরায়ণ। বাংলাদেশে স্বাধীনতা-উত্তরকাল থেকে সাম্প্রতিক সময় পর্যন্ত বিভিন্ন শিল্পের প্রসার ঘটেছে। শিল্প প্রসারে বেকারত্ব ঘুচাতে গ্রামের অনেক দক্ষ-অদক্ষ শ্রমিক নগরমুখী হচ্ছে এবং নগরজীবন গ্রহণ করছে।

 ঘ            আজিজ মিয়ার এলাকা সামাজিক পরিবর্তনে কলকারখানা ও ইটের তৈরি ঘরবাড়ি জনজীবনে ব্যাপক প্রভাব বিস্তারে সক্ষম। তার কারণ কলকারখানা গড়ে ওঠার ফলে এলাকাটিতে শিল্পায়নের চিত্র ফুটে উঠেছে এবং ইটের তৈরি বাড়িঘর ও কলকারখানায় কাজ করা নগরায়ণের অন্যতম উপাদান হিসেবে বিবেচিত। তাই বলা যায়, আজিজ মিয়ার এলাকায় শিল্পায়ন ও নগরায়ণ হয়েছে এবং তা জনজীবনে ব্যাপক প্রভাব বিস্তারে সক্ষম। নিচে এ সম্পর্কে আলোচনা করা হলো। শিল্পায়ন ও নগরায়ণের ফলে বাংলাদেশ তথা সারাবিশ্বে যাতায়াত ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন ঘটেছে। এতে ভৌগোলিক দূরত্ব কমে গেলেও সামাজিক দূরত্ব বাড়িয়ে দিয়েছে। উদ্দীপকে দেখা যাচ্ছে আজিজ মিয়ার এলাকায় জীবনযাত্রার মান বৃদ্ধি পেয়েছে কিন্তু নিরাপত্তা কমে গিয়েছে। আমাদের দেশের শহরে বস্তির উদ্ভব এ শিল্পায়নের ফসল। যেসব স্থানে পোশাক শিল্প, চামড়া শিল্প, চুড়ি শিল্প, তামাক শিল্প গড়ে উঠেছে সেসব স্থানে বস্তির উদ্ভব হয়েছে, যা সামাজিক জীবনে দ্বন্দ্ব, সংঘাত, রাহাজানি, অপরাধ, কিশোর অপরাধের মতো বহু সামাজিক সমস্যার জন্ম দিয়েছে। এসব সমস্যা আবার শৃঙ্খলিত সমস্যার সৃষ্টি করেছে। যা নগর জীবনকে ভাবিয়ে তুলেছে।

প্রশ্ন- ১১  সামাজিক পরিবর্তন  

বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া শেষ করে স্কলারশিপ নিয়ে বিদেশে যায় জনাব তাহসান। অনেক বছর পর তিনি তার গ্রামে গিয়ে লক্ষ করলেন মানুষ এখন কৃষির পাশাপাশি অন্যান্য পেশার সাথে জড়িত। সামাজিক মূল্যবোধ কিছুটা কমলেও রাজনৈতিক ধ্যান-ধারণা, বিভিন্ন ধর্মীয় ও সামাজিক অনুষ্ঠান পালনে গ্রামের লোকজন পূর্বের তুলনায় অনেক বেশি সচেতন। ছেলে সন্তানের মতো মেয়েদের শিক্ষার প্রতি অভিভাবকের আগ্রহও তাকে মুগ্ধ করে।

 ক.চতুর্থ বিশ্ব নারী সম্মেলন কোথায় অনুষ্ঠিত হয়?               ১

খ.সামাজিক পরিবর্তনের উপাদান হিসেবে যোগাযোগের ধারণা দাও।          ২

গ.জনাব তাহসান গ্রামে যা লক্ষ করেছেন তা সমাজ বিজ্ঞানের দৃষ্টিতে কী? ব্যাখ্যা কর।        ৩

ঘ.উদ্দীপকের বিষয়টি সম্পর্কে সবার জ্ঞান লাভের প্রয়োজন কতটুকু? যুক্তিসহ উত্তর দাও।               ৪

 ক          চতুর্থ বিশ্বনারী সম্মেলন বেইজিং-এ অনুষ্ঠিত হয়।

 খ           যোগাযোগ সামাজিক পরিবর্তনের একটি অন্যতম উপাদান। জল, স্থল ও আকাশ পথে যোগাযোগ, টেলিফোন, ফ্যাক্স, ইন্টারনেট, ই-মেইল, ডিশ এন্টেনা, মোবাইল ফোন, রেডিও, টেলিভিশন, বিভিন্ন ধরনের পত্র-পত্রিকা প্রভৃতি সামাজিক পরিবর্তনে ভূমিকা রাখে। যোগাযোগের এ অভাবনীয় পরিবর্তনে আজকাল ঘরে বসে এ দেশের শিক্ষার্থীরা বিশ্বের উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগাযোগ করছে ও পড়াশোনার জন্য বিদেশ যাচ্ছে।

 গ           জনাব তাহসান গ্রামে যে বিষয়টি লক্ষ করেছেন তা সমাজবিজ্ঞানের দৃষ্টিতে সামাজিক পরিবর্তন। সামাজিক পরিবর্তন বলতে সমাজকাঠামো ও এর কার্যাবলির পরিবর্তনকে বোঝায়। প্রতিটি সমাজের মৌল কাঠামো গড়ে ওঠে সে সমাজের উৎপাদন ব্যবস্থা এবং উক্ত ব্যবস্থার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত বিভিন্ন পেশার মানুষের সম্পর্কের মাধ্যমে। আবার এই কাঠামোর সাথে গড়ে ওঠে কতকগুলো উপরি কাঠামো। যেমন : আইনকানুন, রাজনীতি, সংস্কৃতি প্রভৃতি। সুতরাং সমাজের মৌল ও উপরি কাঠামোর পরিবর্তনই সামাজিক পরিবর্তন। সামাজিক পরিবর্তন হলো সমাজে বসবাসকারী ব্যক্তি, গোষ্ঠী ও প্রতিষ্ঠানের আচার-আচরণের পরিবর্তন। বস্তুত সামাজিক পরিবর্তন হচ্ছে কোনো জাতির জীবনব্যবস্থার সামগ্রিক পরিবর্তন। উদ্দীপকে জনাব তাহসান অনেক বছর পর বিদেশ থেকে তার গ্রামে ফিরে লক্ষ করেন মানুষ কৃষির পাশাপাশি অন্যান্য পেশার সাথে জড়িত। রাজনৈতিক, ধর্মীয়, সামাজিক অনুষ্ঠান পালনে এবং ছেলে সন্তানের মতো মেয়েদের শিক্ষার প্রতি অভিভাবকের আগ্রহ তাকে মুগ্ধ করে। এ সবই সামাজিক পরিবর্তন।

 ঘ            উদ্দীপকে উল্লিখিত বিষয়টি হলো সামাজিক পরিবর্তন। এ সম্পর্কে জ্ঞান লাভ করা সবারই প্রয়োজন। তার কারণ সমাজ পরিবর্তনশীল আর পরিবর্তনশীল সমাজে বসবাস করতে হলে সবাইকে এই পরিবর্তন সম্পর্কে জ্ঞান লাভ করতে হবে। পরিবর্তনশীল সমাজে ব্যক্তির পরবর্তী কার্যক্রম কেমন হবে, কী ধরনের উৎপাদন ব্যবস্থা তাকে গ্রহণ করতে হবে, কী ধরনের রাজনৈতিক পরিবর্তন সাধিত হলে সমাজের উন্নতি হবে, এমনকি শিক্ষা, সংস্কৃতি ধর্মীয় ক্ষেত্রে পরিবর্তনের ধারা কিরূপ, এর সাথে ব্যক্তি, সমাজ, রাষ্ট্রের উন্নয়ন কতটা জড়িত সবই সামাজিক পরিবর্তনের সঠিক জ্ঞান থাকলে নিরূপণ করা সম্ভব। শিক্ষা, প্রযুক্তি ও যোগাযোগের পরিবর্তন এদেশের সমাজ ও অর্থনীতিকে আরও একধাপ এগিয়ে নেয়। সুতরাং, এসব বিষয়ে পরিবর্তনের কারণ এবং পরিবর্তনের গতি, প্রকৃতি সম্পর্কে প্রত্যেকেরই সম্যক জ্ঞান থাকা দরকার। কারণ সামাজিক পরিবর্তন কখনো মন্থর আবার কখনো দ্রুতগতিতে সংঘটিত হয়। এই পরিবর্তনের প্রভাব অর্থনীতি, রাজনীতি, সমাজনীতি, ধর্মীয় মূল্যবোধ এমনকি সনাতন জীবন ব্যবস্থাকেও গভীরভাবে স্পর্শ করে। সমাজের সৃজনশীল কর্মকাÊ নতুন গতি লাভ করে। উন্মুক্ত হয় জ্ঞান-বিজ্ঞানের নতুন নতুন শাখা ও কলাকৌশল। এর ফলে সমাজ গঠনের প্রক্রিয়া শুরু হয়। এজন্য উদ্দীপকে উল্লিখিত সামাজিক পরিবর্তন বিষয়টি সম্পর্কে সবার জ্ঞান লাভের প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম।

 অনুশীলনমূলক কাজের আলোকে সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন- ১২ সামাজিক পরিবর্তন এবং নারীর ভূমিকা  

গ্রামের এক অবহেলিত নারী ছিল সাবিহা। দরিদ্র সাবিহা তার মেয়েকে অবহেলার শিকার হতে দেয় নি। তার মেয়ে মালিয়া আজ সরকারের প্রদত্ত উপবৃত্তির সুযোগ নিয়ে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের গÊি ছাড়িয়ে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছে। পাশাপাশি মালিয়া ভাষা ও সাহিত্য, আইন, সামাজিক রীতিনীতি গভীরভাবে রপ্ত করেছে।

 ক.শহরের অর্থনীতিতে কোন উপাদানটি একই সাথে আশীর্বাদ আবার অভিশাপ? ১

খ.সামাজিক পরিবর্তনে কৃষিপ্রযুক্তির ভূমিকা চিহ্নিত কর। ২

গ.মালিয়ার জীবনে উদ্দীপকে উল্লিখিত সাংস্কৃতিক উপাদান কীরূপ পরিবর্তন ঘটাবে? ব্যাখ্যা কর।   ৩

ঘ.সাবিহা ও মালিয়ার জীবনের মধ্য দিয়ে শিক্ষাক্ষেত্রে গ্রামীণ নারীর ভূমিকার পরিবর্তন ব্যাখ্যা কর। ৪

 ক          শহরের অর্থনীতিতে শিল্পায়ন একই সাথে আশীর্বাদ আবার অভিশাপ।

 খ           কৃষিক্ষেত্রে প্রযুক্তিবিদ্যার কল্যাণে উন্নত জাতের সার, বীজ, সেচ ব্যবস্থার কারণে উৎপাদন অনেক গুণ বেড়ে গেছে। গবাদিপশুর প্রজনন, গরু মোটাতাজাকরণ ও বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে মৎস্য চাষ প্রভৃতিতে প্রযুক্তির সাহায্য নেওয়ার কারণে এসব ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। এছাড়া কৃষিক্ষেত্রে উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিভিন্ন পল্লি উন্নয়ন সংস্থা গড়ে উঠেছে। এসব সংস্থা গ্রামীণ কৃষির পরিবর্তনের পাশাপাশি মানুষের সম্পর্কের পরিবর্তন সাধন করে।

 গ           মালিয়ার জীবনে উদ্দীপকে উল্লিখিত সাংস্কৃতিক উপাদান তথা ভাষা ও সাহিত্য, আইন, সামাজিক রীতিনীতি ইতিবাচক পরিবর্তন আনবে। উচ্চশিক্ষিত মালিয়া বিভিন্ন সাহিত্য পাঠ করে দেশ বিদেশের তথ্য জানতে পারবে, যা তার জ্ঞানে পরিধিকে বৃদ্ধি করবে। আবার বিভিন্ন প্রয়োজনীয় আইন সম্পর্কে তার অবহিতি তার সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে। সামাজিক রীতিনীতিগুলো তার মধ্যে সামাজিক গুণাবলির বিকাশ ঘটাবে। তাকে সমাজের অনুগামী ও সঠিক আচরণ করতে শিখাবে।

 ঘ  সাবিহা ও মালিয়ার জীবনের মধ্য দিয়ে শিক্ষাক্ষেত্রে গ্রামীণ নারীর ভূমিকার পরিবর্তনের চিত্র ধরা পড়েছে। উদ্দীপকে গ্রামের নারী সাবিহা শিক্ষা লাভ করতে না পারায় অবহেলিত থেকে অথচ তার মেয়ে মালিয়া গ্রামের মেয়ে হয়েও উচ্চশিক্ষার সুযোগ পাচ্ছে। এখানে শিক্ষাক্ষেত্রে গ্রামীণ নারীর ভূমিকার পরিবর্তন লক্ষ করা যায়। বস্তুত নারীশিক্ষা অবৈতনিক হওয়ায় গ্রামীণ মেয়েরা আগের চেয়ে পড়াশোনার সুযোগ বেশি পাচ্ছে। তাছাড়া নারী শিক্ষার সম্প্রসারণের লক্ষ্যে সরকার উপবৃত্তি প্রকল্প চালু করছে। এর ফলে গ্রামীণ সমাজের মানুষ ছেলে শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি কন্যা শিশুর শিক্ষাকে সমভাবে গুরুত্ব দিচ্ছে। এর ফলস্বরূপ বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ডের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় নারী শিক্ষার্থীরা ফলাফলে অনেক এগিয়ে রয়েছে। এছাড়াও গ্রামীণ নারীরা প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের গÊি ছেড়ে মেডিকেল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় ও অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে পড়াশোনা করছে। উদ্দীপকে উপবৃত্তির সুযোগ নিয়ে বর্তমানে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া গ্রামীণ অবহেলিত নারী সাবিহার মেয়ে মালিয়াও গ্রামীণ নারীর ভূমিকার পরিবর্তনের এক উদাহরণ।

অনুশীলনের জন্য সৃজনশীল প্রশ্নব্যাংক (উত্তরসংকেতসহ)

প্রশ্ন- ১৩ বাংলাদেশের সমাজ পরিবর্তনের উপাদান এবং এর প্রভাব 

সোহেলের দেশ একটি জনবহুল দেশ। কিন্তু তার দেশের সকল এলাকার জনসংখ্যা সমান নয়। তবে দেশটির রাজধানীতে জনসংখ্যার ঘনত্ব বেশি হলেও শহর অঞ্চলের বাইরে জনসংখ্যার ঘনত্ব কম। অন্যদিকে তার বন্ধু রাসেল মন্তব্য করেন, রাজধানীতে জনসংখ্যার ঘনত্ব বেশি হওয়ার ফলে অপরাধ, কিশোর অপরাধসহ নানা অপরাধ দিন দিন বৃদ্ধি পাছে।

ক.বিজ্ঞানের প্রায়োগিক দিককে কী বলে?               ১

খ.বাংলাদেশের সমাজব্যবস্থা পরিবর্তনশীল  ব্যাখ্যা কর।   ২

গ.উদ্দীপকে সোহেলের দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের জনসংখ্যার তারতম্য সামাজিক পরিবর্তনের কোন উপাদানটিকে ইঙ্গিত করে? ব্যাখ্যা কর।             ৩

ঘ.রাসেলের মন্তব্যের ক্ষেত্রে সামাজিক পরিবর্তনের কোন উপাদানটির প্রভাব অধিক ক্রিয়াশীল? বিশ্লেষণ কর।        ৪

 ক          বিজ্ঞানের প্রয়োগিক দিককে বলে প্রযুক্তি।

 খ           বাংলাদেশের সমাজব্যবস্থা পরিবর্তনশীল। স্বাধীনতা উত্তরকালীন সময় হতে এদেশের অর্থনীতি, সামাজিক ও রাজনৈতিক ক্ষেত্রে ব্যাপক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। শিক্ষা, প্রযুক্তি ও যোগাযোগের পরিবর্তন এদেশের সমাজ ও অর্থনীতিকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়েছে। ব্যাপক শিল্পায়ন ও নগরায়ণ নারীর ভূমিকায় পরিবর্তন এনে দিয়েছে।

 গ           সামাজিক পরিবর্তনের জৈবিক উপাদান সম্পর্কে ব্যাখ্যা কর।

 ঘ            সামাজিক পরিবর্তনের উপাদানগুলো বিশ্লেষণ কর।

প্রশ্ন- ১৪  বাংলাদেশের সমাজ পরিবর্তনের উপাদান এবং এর প্রভাব 

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার কুলপালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রইচউদ্দিন। বয়স হলে লোকে একটু আরাম আয়েশ করে। কিন্তু রইচউদ্দিন ব্যতিক্রম। ৫৬ বছর বয়সেও নিষ্ঠাবান ছাত্রের মতো রাত জেগে বইয়ের পাতা উল্টান। নিজের ছাত্রদের সঙ্গে বসে পরীক্ষা দেন। কঠোর পরিশ্রম আর অধ্যবসায় দ্বারা এবার এইচএসসি পাস করেছেন তিনি।

ক.সমাজের মৌল ও উপরি কাঠামোর পরিবর্তনকে কী বলে?          ১

খ.বর্তমানে নারী শিক্ষার সম্প্রসারণে বাংলাদেশ সরকারের পদক্ষেপ উল্লেখ কর।    ২

গ.রইচউদ্দিনের ক্ষেত্রে সমাজ পরিবর্তনের কোন উপাদানটি প্রতিফলিত হয়েছে? ব্যাখ্যা কর।          ৩

ঘ.উক্ত উপাদানটিকে সামাজিক পরিবর্তনের একমাত্র উপাদান বলে কি তুমি মনে কর? উত্তরের পক্ষে যুক্তি দাও।     ৪

 ক  সমাজের মৌল ও উপরি কাঠামোর পরিবর্তনকে বলে সামাজিক পরিবর্তন।

 খ  বর্তমানে বাংলাদেশ সরকার নারী শিক্ষা সম্প্রসারণে নারী শিক্ষাকে অবৈতনিক করেছে। তাছাড়া নারী শিক্ষা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে সরকার উপবৃত্তি চালু করেছে, যা নারী শিক্ষাকে আরও একধাপ এগিয়ে নিয়েছে।

 গ  সামাজিক পরিবর্তনের উপাদান হিসেবে শিক্ষার ভূমিকা ব্যাখ্যা কর।

 ঘ  সামাজিক পরিবর্তনের উপাদানগুলো বিশ্লেষণ কর।

প্রশ্ন- ১৫ বাংলাদেশের সমাজ পরিবর্তনের উপাদান এবং এর প্রভাব 

বরিশাল জেলার অন্তর্গত উজিরপুর উপজেলা। এখানে গত কয়েক বছরের তুলনায় এখন বেশ উন্নতি পরিলক্ষিত হয়। কলকারখানা, মিল স্থাপনের পাশাপাশি অন্যান্য অঞ্চলের মানুষেরাও বসতি স্থাপন করছে এ উপজেলাতে। অধিক জনসংখ্যার জন্য এখানে ঘর ভাড়াও বেশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

ক.সামাজিক পরিবর্তনের সূচনা হয় কোনটির মাধ্যমে?     ১

খ.সামাজিক মূল্যবোধ অবক্ষয়ের কারণ ব্যাখ্যা কর।          ২

গ.উদ্দীপকে সামাজিক পরিবর্তনের যে দিকটি ফুটে উঠেছে? তার পরিচয় দাও।      ৩

ঘ.কলকারখানা উজিরপুর উপজেলার মানুষদের জনজীবনকে প্রভাবিত করেছে  বিশ্লেষণ কর।       ৪

 ক          সামাজিক পরিবর্তনের সূচনা হয় সংস্কৃতির মাধ্যমে।

 খ           সামাজিক মূল্যবোধের অবক্ষয় ঘটে নানাবিধ কারণে। সামাজিক পরিবর্তন, ন্যায়বিচারের অভাব, আইন প্রয়োগে দুর্বলতা, মানুষের সহনশীলতার অভাব, বেকারত্ব, রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা ইত্যাদি নানাবিধ কারণে সামাজিক মূল্যবোধের অবক্ষয় ঘটে। এছাড়াও অপসংস্কৃতির প্রভাব, শিক্ষাব্যবস্থার ত্রুটি, অপরাধপ্রবণতা, আইনের শাসনের অনুপস্থিতি, বঞ্চনা, শোষণ ইত্যাদি থেকেও সামাজিক মূল্যবোধের অবক্ষয় ঘটে।

  গ          সামাজিক পরিবর্তনের প্রাকৃতিক উপাদান ব্যাখ্যা কর।

 ঘ            বাংলাদেশের সমাজ পরিবর্তনে সামাজিক পরিবর্তনের উপাদানসমূহের প্রভাব ব্যাখ্যা কর।

প্রশ্ন- ১৬  বাংলাদেশের সমাজ পরিবর্তনের উপাদান এবং এর প্রভাব 

বিদেশ থেকে ফিরে আসার পর রিনা তার বান্ধবীর ব্যাপক পরিবর্তনে খুব বিস্মিত হয়। যদিও সালমা রিনার মতো উচ্চ শিক্ষিত ছিল না তবুও সে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান হতে প্রশিক্ষণ নেয় যা তাকে আত্মনির্ভরশীল হতে সাহায্য করে। পরবর্তীতে সে একজন সফল ব্যবসায়ী হয়। তার এ সাফল্যের পেছনে কিছু সামাজিক পরিবর্তনের উপাদান কাজ করেছে।

ক.সামাজিক পরিবর্তন বলতে কী বোঝ?  ১

খ.সামাজিক পরিবর্তনে প্রযুক্তির প্রভাব ব্যাখ্যা কর।            ২

গ.সালমার এ পরিবর্তনে শহরায়ন ও শিল্পায়নের প্রভাব কী? বর্ণনা কর।        ৩

ঘ.সামাজিক পরিবর্তনে নারীর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব আছে- ব্যাখ্যা কর।               ৪

 ক          সামাজিক পরিবর্তন হলো সমাজে বসবাসকারী ব্যক্তি, গোষ্ঠী ও প্রতিষ্ঠানের আচার-আচরণের পরিবর্তন।

 খ           প্রযুক্তি হলো বিজ্ঞানের প্রায়োগিক দিক। প্রযুক্তির প্রচলন ও প্রসারের মাধ্যমে সমাজব্যবস্থার অন্তর্ভুক্ত ব্যক্তিবর্গের মানসিক গঠন এবং সামাজিক কাঠামোর পরিবর্তন সাধিত হয়। প্রযুক্তির ক্রমোন্নতিতে আমাদের সমাজব্যবস্থায় দু ধরনের ফলাফল দেখতে পাই। একটি প্রত্যক্ষ এবং অপরটি পরোক্ষ। কতকগুলো সামাজিক পরিবর্তন প্রযুক্তিগত পরিবর্তনের অবশ্যম্ভাবী পরিণাম।

 গ           সামাজিক পরিবর্তনের শিল্পায়ন ও নগরায়নের প্রভাব ব্যাখ্যা কর।

 ঘ            সামাজিক পরিবর্তনের নারীর ভূমিকা বিশ্লেষণ কর।

প্রশ্ন- ১৭  বাংলাদেশের সমাজ পরিবর্তনের উপাদান এবং এর প্রভাব 

ভাঙছে পাড়, বিলীন হচ্ছে বসতি, বুকচাপা কষ্ট নিয়ে বসে আছে কয়েক নারী। নদী নিয়ে গেছে বাস্তুভিটা, তিস্তার ভাঙনের শিকার আমেনা বেগম এখন ঢাকায় বস্তিতে আশ্রয় নিয়েছে। অন্যদিকে মজিদ মিয়া ভাঙনের ভয়াবহতার হাত থেকে রক্ষা পাবার জন্য সবকিছু অন্যত্র সরিয়ে নিয়েছে। পল্লি উন্নয়ন সংস্থা থেকে সাহায্য নিয়ে গড়ে তোলা কৃষি খামার তাকে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি এনে দিয়েছে।

ক.নগরায়ণ কী? ১

খ.সামাজিক পরিবর্তনে শিল্পায়নের প্রভাব ব্যাখ্যা কর।       ২

গ.উদ্দীপকে আমেনা বেগম কেন বস্তিতে আশ্রয় নিয়েছে? ব্যাখ্যা কর।       ৩

ঘ.মজিদ মিয়া যেভাবে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জন করেছে তার গুরুত্ব বিশ্লেষণ কর।              ৪

 ক          ব্যাপক শিল্পায়নের ফলে গ্রামীণ জীবন ছেড়ে নগরজীবন পদ্ধতি গ্রহণের প্রক্রিয়াই নগরায়ণ।

 খ           শিল্পায়ন হলো এমন একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে কৃষি ও হস্তশিল্পভিত্তিক অর্থনীতি ও সমাজব্যবস্থা যান্ত্রিক শিল্পভিত্তিক ও উৎপাদনমুখী অর্থনীতিও সমাজে রূপান্তরিত হয়। ব্যাপক শিল্পায়নের ফলে মানুষ গ্রামীণ জীবন ছেড়ে নগরের দিকে ছুটেছে। শিল্পায়নের কারণে আমাদের সমাজ জীবনে উচ্চবিত্ত, মধ্যবিত্ত এবং নিম্নবিত্ত শ্রেণির উদ্ভব হয়েছে। এসব ছাড়াও নানাভাবে শিল্পায়ন সামাজিক পরিবর্তনের গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব বিস্তার করে।

 গ           সামাজিক পরিবর্তনের প্রাকৃতিক উপাদান বর্ণনা কর।

 ঘ            সামাজিক পরিবর্তনে প্রযুক্তির ব্যবহার বিশ্লেষণ কর।

প্রশ্ন- ১৮ সামাজিক পরিবর্তন এবং নারীর ভূমিকা 

মিরপুরের নারীরা একসময় ঘরের বাইরে যেতে পারত না। তখন শুধু পুরুষরাই বাইরে কাজ করত। এতে এলাকার আর্থিক অবস্থার মান খুবই নিচে নেমে আসে। এখন সে এলাকার নারীরা ভালো লেখাপড়া শিখে ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, উকিল ও বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত। এলাকার রাজনৈতিক, সামাজিক, আর্থিক সকল ক্ষেত্রেই এখন তারা অগ্রগামী।

ক.প্রযুক্তি কী?    ১

খ.সামাজিক পরিবর্তনে শিক্ষার ভূমিকা ব্যাখ্যা কর।            ২

গ.মিরপুরের সকল ক্ষেত্রে অগ্রগতির জন্য নারীরা যে ভূমিকা রেখেছে তার ব্যাখ্যা দাও।       ৩

ঘ.মিরপুরের নারীদের মতো সব এলাকার নারীরা তাদের সমাজ পরিবর্তনে ভূমিকা রাখতে পারে বলে মনে কর কি? তোমার মতামতের পক্ষে যুক্তি দাও।          ৪

 ক          প্রযুক্তি হলো বিজ্ঞানের প্রয়োগিক দিক।

 খ           সামাজিক পরিবর্তনের একটি শক্তিশালী ও কার্যকরী উপাদান হলো শিক্ষা। শিক্ষা মানুষের সুপ্ত প্রতিভার বিকাশ ঘটায়, বিচার বিবেচনার ক্ষমতাকে জাগ্রত করে, সচেতনতা বৃদ্ধি করে। এর ফলে একজন শিক্ষিত ব্যক্তি সামাজিক বিভিন্ন অসংগতি বুঝতে পারেন, নিজে তা সংশোধন করে অন্যকে উৎসাহিত করতে পারেন। ফলে সামাজিক পরিবর্তন সাধিত হয়।

  গ          সামাজিক পরিবর্তনে নারীর ভূমিকা ব্যাখ্যা কর।

 ঘ            সামাজিক পরিবর্তনের সাথে নারীর সম্পর্ক বিশ্লেষণ কর।

অধ্যায় সমন্বিত সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন- ১৯ বিদ্যালয় সহপাঠী এবং শিল্পায়ন নগরায়ন  

গ্রাম থেকে শহরে এসে রেহানা বেগম অবাক হয়ে গেল। এই প্রথম তার শহরে আসা। শহরে আলোর ঝলকানি, ইট-কংক্রিটের দালান রাস্তার ধারে শোভা পাচ্ছে সোডিয়াম লাইট রিকশাগুলোতেও ইঞ্জিন। কলকারখানায় কতলোক কাজ করছে।

 ক.চতুর্থ বিশ্ব নারী সম্মেলন কোথায় অনুষ্ঠিত হয়?               ১

খ.সামাজিক পরিবর্তনের জৈবিক উপাদানের ধারণা দাও। ২

গ.উদ্দীপকে রেহানা বেগমের অবাক হওয়ার ঘটনায় বাংলাদেশের সমাজ পরিবর্তনের যে উপাদানটি প্রতিফলিত হয়েছে সেটির ব্যাখ্যা দাও।           ৩

ঘ.রেহানা বেগম নতুন স্থানে এসে সামাজিকীকরণের ক্ষেত্রে প্রতিবেশীদল এবং বন্ধুদলের ভূমিকায় বৈসাদৃশ্য দেখতে পাবে- বিশ্লেষণ কর।         ৪

 ক          চতুর্থ বিশ্ব নারী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় চীনের বেইজিং-এ।

 খ           জৈবিক উপাদান সামাজিক পরিবর্তনের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। জন্ম ও মৃত্যুহার, জনসংখ্যার ঘনত্ব, জনসংখ্যার প্রকৃতি ও জীবনযাত্রার মান নিয়েই জৈব উপাদান। সমাজস্থ মানুষের জৈবিক অবস্থার পরিবর্তন যেমন জনসংখ্যা বৃদ্ধি বা হ্রাস, স্থানান্তর অথবা ঘনত্বের পরিবর্তন সামাজিক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

 গ  উদ্দীপকে রেহানা বেগম শহরে এসে এর দালানকোঠা, কল-কারখানা, বিশাল কর্মব্যস্ততা দেখে অবাক হন। এ ঘটনায় বাংলাদেশের সমাজ পরিবর্তনের যে উপাদানটি প্রতিফলিত হয়েছে তা হলো শিল্পায়ন ও নগরায়ণ। শিল্পায়ন হলো এমন একটি প্রক্রিয়া-যার মাধ্যমে কৃষি ও হস্তশিল্পভিত্তিক অর্থনীতি ও সমাজব্যবস্থা, যান্ত্রিক শিল্পভিত্তিক ও উৎপাদনমুখী অর্থনীতিও সমাজে রূপান্তরিত হয়। নগরায়ন হলো শিল্পায়নের ফল। ব্যাপক শিল্পায়নের ফলে গ্রামীণ জীবন ছেড়ে নগর জীবন পদ্ধতি গ্রহণের প্রক্রিয়াই নগরায়ন। বাংলাদেশে স্বাধীনতা উত্তরকাল থেকে সাম্প্রতিক সময় পর্যন্ত বিভিন্ন শিল্পের প্রসার ঘটছে। এর মধ্যে পোশাক, চা, চিনি, কাগজ, তামাক, সাবান শিল্প প্রধান। এসব শিল্পের প্রসারে বেকারত্ব ঘুচাতে গ্রামের অনেক দক্ষ-অদক্ষ শ্রমিক নগরমুখী হচ্ছে এবং নগর জীবন গ্রহণ করছে। তাই বলা যায় যে, বাংলাদেশের সমাজ পরিবর্তনে শিল্পায়ন ও নগরায়ন উপাদানটি স্পষ্টভাবে উদ্দীপকে প্রতিফলিত হয়েছে।

 ঘ            উদ্দীপকের রেহানা বেগম গ্রাম থেকে শহরে আসে। গ্রাম ও শহর সমাজে সামাজিকীকরণের ক্ষেত্রে প্রতিবেশীদল এবং বন্ধুদলের ভূমিকা বৈসাদৃশ্য রয়েছে। বাংলাদেশের গ্রাম ও শহর উভয় পরিবেশেই প্রতিবেশী এবং প্রতিবেশীদল রয়েছে। গ্রামের শিশু-কিশোর-বয়োজ্যেষ্ঠ প্রতিবেশীদের সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বন্ধনে আবদ্ধ থাকে, যা সামাজিকীকরণে বিশেষ প্রভাব ফেলে। তবে শহর পরিবেশে প্রতিবেশীর সাথে এরূপ সম্পর্ক দেখা যায় না। সাথে সম্পর্ক শহরের তুলনায় গ্রামে বেশি। সহপাঠী এবং অন্তরঙ্গ বন্ধুদের সাথে সম্পর্ক শহরের তুলনায় গ্রামে স্বতঃস্ফূর্ত ও আন্তরিক। এ অন্তরঙ্গ বন্ধু দলের মাধ্যমে শিশু সহযোগিতা, মানসিক দ্বন্দ্ব নিরসন কৌশল ও নীতিজ্ঞান লাভ করে থাকে। তাছাড়া সাংস্কৃতিক জীবনের বিভিন্ন বিষয়ের জ্ঞান শিশু-কিশোরেরা অন্তরঙ্গ বন্ধু দলের মধ্য থেকে অর্জন করে।

 জ্ঞানমূলক প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন ম্যাকাইভার প্রদত্ত সামাজিক পরিবর্তনের সংজ্ঞাটি উল্লেখ কর।

উত্তর : সামাজিক পরিবর্তন সম্পর্কে ম্যাকাইভার বলেন, “মানবীয় সম্পর্কের পরিবর্তন হচ্ছে সামাজিক পরিবর্তন।

প্রশ্ন শিক্ষা কী?

উত্তর : শিক্ষা হলো এক ধরনের সংস্কার সাধন এবং বিরামহীন প্রক্রিয়া।

প্রশ্ন প্রযুক্তি কী?

উত্তর : প্রযুক্তি হলো বিজ্ঞানের প্রায়োগিক দিক।

প্রশ্ন এদেশের শহর অঞ্চলে বস্তি সৃষ্টির কারণ কী?

উত্তর : এদেশের শহর অঞ্চলে বস্তি সৃষ্টির কারণ নদীভাঙন।

প্রশ্ন নগরায়ণ কী?

উত্তর : নগরায়ণ হলো শিল্পায়নের ফল।

প্রশ্ন খালিশপুর শিল্পনগরী কোথায়?

উত্তর : খালিশপুর শিল্পনগরী খুলনায়।

প্রশ্ন বাড়বকুÊ শিল্পনগরী কোথায় অবস্থিত?

উত্তর : বাড়বকু শিল্পনগরী চট্টগ্রামে অবস্থিত।

প্রশ্ন যৌতুক, পারিবারিক আইন কিসের ফসল?

উত্তর : যৌতুক, পারিবারিক আইন সামাজিক সচেতনতার ফসল।

প্রশ্ন কোনটি নারীকে বহির্মুখী কর্ম গ্রহণে সহায়তা করেছে?

উত্তর : শিক্ষা নারীকে বহির্মুখী কর্ম গ্রহণে সহায়তা করেছে।

প্রশ্ন ১০ এদেশে জাতীয় আয় বৃদ্ধির কারণ কোনটি?

উত্তর : এদেশে জাতীয় আয় বৃদ্ধির কারণ হলো শিল্পায়ন।

প্রশ্ন ১১ কৃষিক্ষেত্রে উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কোনটি গড়ে উঠেছে?

উত্তর : কৃষিক্ষেত্রে উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিভিন্ন পল্লিউন্নয়ন সংস্থা গড়ে উঠেছে।

প্রশ্ন ১২ সামাজিক পরিবর্তনের সূচনা হয় কোনটির মাধ্যমে?

উত্তর : সামাজিক পরিবর্তনের সূচনা হয় সংস্কৃতির মাধ্যমে।

অনুধাবনমূলক প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন ॥ “নারী শিক্ষার প্রসার জনগণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করেছে”- বুঝিয়ে লেখ।

উত্তর : সমাজের সদস্যদের মধ্যে শিক্ষার প্রসার আত্মবিশ্বাস ও বিচার-বিবেচনার ক্ষমতা জাগ্রত করে। বাংলাদেশের সমাজে নারীশিক্ষার প্রসার

জনগণের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করেছে যা তাদেরকে বিভিন্ন সামাজিক আন্দোলন পরিচালনায় উদ্বুদ্ধ করেছে। এর ফলে দেশে নারী অধিকার প্রতিষ্ঠায় সৃষ্টি হয়েছে বহু সামাজিক নীতি ও আইন। যৌতুক আইন, পারিবারিক আইন, নারী উন্নয়ন নীতি প্রভৃতি সামাজিক সচেতনতার ফসল।

প্রশ্ন বর্তমানে নারীশিক্ষা সম্প্রসারণে বাংলাদেশ সরকারের পদক্ষেপগুলো উল্লেখ কর।

উত্তর : বর্তমানে বাংলাদেশ সরকার নারীশিক্ষা সম্প্রসারণে নারীশিক্ষাকে অবৈতনিক করেছে। তাছাড়া নারীশিক্ষা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে সরকার উপবৃত্তি চালু করেছে, যা নারীশিক্ষাকে আরও একধাপ এগিয়ে নিয়েছে।

প্রশ্ন বাংলাদেশের সমাজব্যবস্থা পরিবর্তনশীল-ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : বাংলাদেশের সমাজব্যবস্থা পরিবর্তনশীল। স্বাধীনতা উত্তরকালীন সময় হতে এদেশের অর্থনীতি, সামাজিক ও রাজনৈতিক ক্ষেত্রে ব্যাপক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। শিক্ষা, প্রযুক্তি ও যোগাযোগের পরিবর্তন এদেশের সমাজ ও অর্থনীতিকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়েছে। ব্যাপক শিল্পায়ন ও নগরায়ণ নারীর ভূমিকায় পরিবর্তন এনে দিয়েছে। সমাজজীবনের এ পরিবর্তনে একদিকে যেমন পুরাতন সমস্যাগুলো জটিল রূপ ধারণ করছে, অন্যদিকে তেমনি নতুন নতুন সমস্যার উদ্ভব ঘটেছে।

প্রশ্ন ॥ “জৈবিক উপাদান সামাজিক পরিবর্তনের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান” –ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : জৈবিক উপাদান সামাজিক পরিবর্তনের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। তার কারণ জনসংখ্যা বৃদ্ধি বা হ্রাস, স্থানান্তর অথবা ঘনত্বের পরিবর্তন সামাজিক পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। জনসংখ্যা বৃদ্ধির ফলে বেকারত্ব, শিশুশ্রম ও কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে তীব্র প্রতিযোগিতার মতো নানামুখী সমস্যার সৃষ্টি হয়। জন্ম ও মৃত্যু হার হ্রাস সমাজকাঠামো পরিবর্তনে অবদান রাখে। তাই বলা যায় জৈবিক উপাদান সামাজিক পরিবর্তনের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.