৯ম-১০ম শ্রেণী BGS ত্রয়োদশ অধ্যায়ঃবাংলাদেশ পরিবার কাঠামো ও সামাজিকীকরন

অধ্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো সংক্ষেপে জেনে রাখি

  • পরিবারের ধারণা : পরিবার হলো সমাজকাঠামোর মৌল সংগঠন। গোষ্ঠী জীবনের প্রথম ধাপ হচ্ছে পরিবার। পরিবার হচ্ছে মোটামুটিভাবে স্বামী-স্ত্রীর একটি স্থায়ী সংঘ বা প্রতিষ্ঠান, যেখানে সন্তান-সন্ততি থাকতে পারে আবার নাও থাকতে পারে।
  • পরিবারের প্রকারভেদ : সমাজ-ভেদে বা দেশ-ভেদে বিভিন্ন প্রকারের পরিবার রয়েছে। বিভিন্ন মাপকাঠির ভিত্তিতে পরিবারকে বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত করা হয়ে  থাকে। স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যা, কর্তৃত্ব, পরিবারের আকার, বংশ মর্যাদা, বসবাস এবং পাত্র-পাত্রী নির্বাচনের মাপকাঠির ভিত্তিতে পরিবার বিভিন্ন প্রকারের হয়ে থাকে। যথাÑ ১. স্বামী-স্ত্রী সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবার, ২. কর্তৃত্বের ভিত্তিতে পরিবার, ৩. আকারের ভিত্তিতে পরিবার, ৪. বংশ মর্যাদা এবং সম্পত্তির উত্তরাধিকারের ভিত্তিতে পরিবার, ৫. বিবাহোত্তর স্বামী-স্ত্রীর বসবাসের স্থানের উপর ভিত্তি করে পরিবার, ৬. পাত্র-পাত্রী নির্বাচনের ভিত্তিতে পরিবার।
  • পরিবারের সাধারণ কার্যাবলি : মানব সমাজে পরিবারের ভূমিকার পরিধি ব্যাপক এবং এর কার্যাবলি বহুমাত্রিক। সন্তান প্রজনন থেকে শুরু করে লালন-পালন এবং তার সুষ্ঠু বিকাশে পরিবারের রয়েছে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। পৃথিবীর সকল দেশের পরিবার কাঠামোতেই এ ধরনের ভূমিকা পালন করতে দেখা যায়। সামাজিক পরিবর্তনের সাথে পরিবারের ভূমিকারও পরিবর্তন ঘটছে। তবে পরিবারের কতগুলো মূল কাজ রয়েছে, যা বিশ্বের সব সমাজের পরিবার পালন করে থাকে।
  • বাংলাদেশে গ্রাম শহরের পরিবারের ভূমিকা : বাংলাদেশের গ্রাম ও শহরে পরিবারের ধরন ও ভূমিকায় পার্থক্য রয়েছে। এক সময় ছিল যখন আমাদের গ্রামীণ সমাজে যৌথ পরিবারের সংখ্যাই ছিল বেশি। কিন্তু বর্তমানে শিল্পায়ন, নগরায়ণ, জনসংখ্যাবৃদ্ধি, দরিদ্রতা, ভোগবাদী মানসিকতাসহ নানা কারণে যৌথ পরিবার ব্যবস্থা ভেঙে যাচ্ছে। সাম্প্রতিক সময়ের সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থার ¶ুদ্র ঋণদান কর্মসূচির বিভিন্ন সুবিধা গ্রহণও পরিবারের এ পরিবর্তনে ভূমিকা রাখছে। গ্রামে বর্ধিত পরিবার দেখা গেলেও শহরে এ ধরনের পরিবার নেই বললেই চলে। পিতৃপ্রধান ও পিতৃবাস পরিবার ব্যবস্থা উভয় স্থানেই অধিক দেখা যায়। তবে নয়াবাস পরিবার শহরে সর্বাধিক।
  • সামাজিকীকরণের ধারণা : সামাজিকীকরণ একটি জীবনব্যাপী প্রক্রিয়া। শিশুর জন্মের পর হতে মৃত্যু পর্যন্ত বিভিন্ন মাধ্যমে অভিজ্ঞতা অর্জন ও খাপখাওয়ানোর প্রক্রিয়াই সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়া। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ব্যক্তি যখন একপর্যায় হতে আরেক পর্যায়ে প্রবেশ করে তখন তাকে নতুন পরিবেশ ও পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ-খাইয়ে চলতে হয়। এই খাপ-খাওয়ানো প্রক্রিয়ার ফলে তার আচরণে পরিবর্তন আসে। নতুন নিয়মকানুন রীতিনীতি এবং নতুন পরিবেশ পরিস্থিতির সঙ্গে নিজেকে খাপ-খাইয়ে চলার প্রক্রিয়ার নাম সামাজিকীকরণ।
  • সামাজিকীকরণের উপাদান : তোমার শ্রেণির একজন সহপাঠী বন্ধুর আচরণ মূলত অন্যদের আচরণকে প্রভাবিত করে এবং অন্যান্যদের ব্যবহার দ্বারা তুমি নিজেও প্রভাবিত হও। আচরণগত এই পারস্পরিক প্রভাবে প্রতিক্রিয়াকে বলে মিথস্ক্রিয়া (রহঃবৎধপঃরড়হ)। তাই মানুষের ব্যক্তিত্বের গঠন ও বিকাশে এ উপাদান তিনটির প্রভাব লক্ষ করা যায়। যথাÑ ১. সামাজিক পরিবেশ, ২. সমাজ জীবন, ৩. সামাজিক মূল্যবোধ।
  • সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়ায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা : মানব জীবনে সামাজিকীকরণ একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। শিশু সামাজিকীকরণের মাধ্যমেই সামাজিক ক্ষেত্রে পূর্ণতা অর্জন করে এবং সমাজের একজন দায়িত্বশীল সদস্যে পরিণত হয়। সমাজ জীবনে আমরা প্রতিনিয়তই কর্তৃত্ববান ব্যক্তিবর্গ; যেমনÑ বাবা, মা, বড় ভাই-বোন, শিক্ষক দ্বারা প্রভাবিত হই। আবার সমপর্যায়ের বন্ধু-বান্ধব, সহপাঠী ও খেলার সাথি দ্বারাও প্রভাবিত হই। যথা- পরিবার ও পরিবারের সদস্যদের ভূমিকা, জাতি-গোষ্ঠী ও প্রতিবেশী, বিদ্যালয় এবং সহপাঠী, স্থানীয় সমাজ বা সম্প্রদায়, স্থানীয় গোষ্ঠী, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও গণমাধ্যম।
  • গ্রাম শহর সমাজে ব্যক্তির সামাজিকীকরণের সাদৃশ্য বৈসাদৃশ্য : বাংলাদেশের গ্রাম ও শহর উভয় সমাজে ব্যক্তির সামাজিকীকরণে কতকগুলো সাদৃশ্যপূর্ণ উপাদান প্রভাব বিস্তার করে। এ উপাদানগুলোর মধ্যে রয়েছে পরিবার, প্রতিবেশী, অন্তরঙ্গগোষ্ঠী, আত্মীয়-স্বজন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, বিনোদন ও খেলাধুলার সংঘ প্রভৃতি।
  • বৈসাদৃশ্য দিকগুলো : বাংলাদেশে শহরে কিন্ডারগার্টেন, আন্তর্জাতিক স্কুল, প্রি-ক্যাডেটসহ বিভিন্ন বৈশিষ্ট্যের স্কুল রয়েছে, যা গ্রামের শিশুর সামাজিকীকরণের তুলনায় ব্যতিক্রম। এসব স্কুলের অধিকাংশই সহশিক্ষাক্রমিক কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয় না। নেই খেলার মাঠ, বাগান, পুকুরসহ অন্যান্য অনেক উপাদান। উদ্যাপিত হয় না বিদ্যালয় বিতর্ক এবং বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক দিবস। এসব কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করতে না পারায় শিক্ষার্থী আচরণিক পরিবর্তন ব্যাহত হয়।

বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

১.            স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবারের ধরন কয়টি?

                ক ২        ৩         গ ৬       ঘ ৭

২.           বাংলাদেশে যৌথ পরিবার ব্যবস্থা ভেঙে যাওয়ার কারণ হলোÑ

                র. দারিদ্র্য ও জনসংখ্যা বৃদ্ধি        

                রর. শিল্পায়ন ও নগরায়ণ

                ররর. নিরক্ষরতা ও অজ্ঞতা

                নিচের কোনটি সঠিক?

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

৩.           কর্তৃত্বের ভিত্তিতে পরিবারের ধরন নিচের কোনটি?

                ক ১         ২         গ ২ ও ৩               ঘ ৩ ও ৪

নিচের অনুচ্ছেদটি পড় এবং নম্বর প্রশ্নের উত্তর দাও :

আঁচল ও অঙ্কনদের পরিবারে পাঁচজন সদস্য। আঁচলই তার পরিবারের সকল কাজের সিদ্ধান্তে অংশগ্রহণ ও মতামত প্রদান করেন। অন্যদিকে মংপ্রু ও ইদংপ্রুর পরিবারে পাঁচজন সদস্য। ইদংপ্রুই তার পরিবারের সকল সিদ্ধান্ত নেন।

৪.           আঁচল ও অঙ্কনদের পরিবারটি কোন ধরনের পরিবার?

                ক পিতৃসূত্রীয়                     খ পিতৃপ্রধান

                 একক                ঘ বর্ধিত

৫.           আঁচলের পরিবারের সাথে মংপ্রু ও ইদংপ্রুর পরিবারের ধরনের বৈশিষ্ট্যগত মিল কোথায়?

                 আকারগত                      খ বংশমর্যাদাগত

                গ ক্ষমতা ও কর্তৃত্বে          ঘ উত্তরাধিকার সম্পর্কিত

সৃজনশীল প্রশ্ন ও উত্তর

প্রশ্ন- ১  সামাজিকীকরণের উপাদান  

রিপা বিদিতার পাশের ফ্লাটে থাকে। রিপা বিদিতার বাসায় আত্মীয়-স্বজনসহ বেড়াতে এলে সে তাদের যত্নসহকারে আপ্যায়ন করে। একদিন রিপা হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ে। রিপার বাবা-মা তখন বাসায় ছিলেন না। বিদিতার বাবা-মা রিপাকে হাসপাতালে নিয়ে যান। রিকশা দুর্ঘটনায় বিদিতার পা ভেঙে গেলে রিপা হাসপাতালে এক সপ্তাহ অবস্থান করে তাকে সেবা দিয়ে সুস্থ করে তুলে বিদিতার জন্মদিনে রিপার পরিবার উপহারসহ বিদিতার বাসায় আসে।

 ক.কর্তৃত্বের ভিত্তিতে পরিবার কয় ধরনের?            

খ.পরিবারকে আয়ের একক বলা হয় কেন? ব্যাখ্যা কর।    

গ.বিদিতার আচরণে সামাজিকীকরণের কোন উপাদানের প্রভাব লক্ষ করা যায়? ব্যাখ্যা কর।             

ঘ.শহুরে জীবনে প্রতিবেশীরাই ঘনিষ্ঠজনÑ তুমি কী এই বক্তব্যের সাথে একমত? উদ্দীপকের আলোকে ব্যাখ্যা কর। 

 ক          কর্তৃত্বের ভিত্তিতে পরিবার দুই ধরনের।

 খ           পরিবারের সদস্যদের আর্থিক নিরাপত্তা প্রদান পরিবারের অন্যতম কাজ। এজন্য পরিবারের সদস্যগণ বিভিন্ন অর্থনৈতিক কাজে নিয়োজিত থাকেন। পরিবারের অনেক সময় বাবা-মা দুজনেই বিভিন্ন আয়মূলক কাজ করেন। তাদের এসব কাজের অন্যতম উদ্দেশ্য পরিবারের বিভিন্ন আর্থিক চাহিদা পূরণ। এজন্য পরিবারকে আয়ের  একক বলা হয়।

 গ           বিদিতার আচরণে সামাজিকীকরণের যে উপাদানের প্রভাব লক্ষ করা যায় তা হলো সামাজিক মূল্যবোধ। মূল্যবোধ আমাদের সমাজবদ্ধ জীবনের বৈশিষ্ট্য। মানুষের জীবনধারার পরিমাপ করা যায় এই মূল্যবোধের মাধ্যমে। কেননা, মূল্যবোধ অনুশীলনের মাধ্যমেই সামাজিক বিধি- ব্যবস্থা, আচার- ব্যবহার ও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ ব্যক্তি আচরণে স্পষ্ট হয়ে ওঠে। সামাজিক মূল্যবোধ হলো সাধারণ সাংস্কৃতিক আদর্শ। বড়দের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন, ছোটদের প্রতি  স্নেহ-ভালোবাসা, সত্যবাদিতা, ন্যায়বোধ প্রভৃতি মূল্যবোধ সব সমাজেই রয়েছে। সামাজিক মূল্যবোধ ব্যক্তির ব্যক্তিত্বকে প্রভাবিত করে, যা ব্যক্তি চিন্তা-চেতনা ও আচার-ব্যবহারের মধ্য দিয়ে প্রতিভাত হয়। উদ্দীপকে বিদিতার আচরণেও এর প্রভাব প্রতিভাত হয়েছে। রিপা বিদিতার পাশের ফ্লাটে থাকে। রিপা বিদিতার বাসায় আত্মীয়স্বজনসহ বেড়াতে এলে সে তাদের যত্নসহকারে আপ্যায়ন করে।

উপর্যুক্ত আলোচনার পরিপেক্ষিতে বলা যায়, বিদিতার আচরণে সামাজিক মূল্যবোধের প্রভাব লক্ষ করা যায়।

 ঘ            শহুরে জীবনে প্রতিবেশীরাই ঘনিষ্ঠজনÑ এই বক্তব্যের সাথে আমি একমত। যারা বাড়ির আশপাশে বসবাস করেন তারাই প্রতিবেশী। বর্তমান যৌথ পরিবার ভেঙে একক পরিবার সৃষ্টির পরিমাণ বেশি। প্রত্যেকে নিজের প্রয়োজনের তাগিদে গ্রাম ছেড়ে এমনকি নিজেদের আত্মীয়স্বজন ছেড়ে শহরে পাড়ি জমায় জীবিকার তাগিদে। শহরে তখন প্রতিবেশীরাই আপনজন হয়। কেননা, কেউ অসুস্থ হলে, বিপদে পড়লে নিকট আত্মীয়ের চেয়ে প্রতিবেশীরাই বেশি ভূমিকা পালন করে থাকে। গ্রামীণ সমাজে প্রতিবেশীর সম্পর্ক অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ হয়। এ সম্পর্কের মধ্যে তেমন কৃত্রিমতা থাকে না। তবে শহরে প্রতিবেশীর সম্পর্ক এতটা ঘনিষ্ঠ না হলেও তারাই প্রয়োজনের সময় এগিয়ে আসে। প্রতিবেশীর যেকোনো অনুষ্ঠানে পরিবারের সকল সদস্য অংশগ্রহণ করে। যেমন : জন্মদিন, বিয়ে, বিবাহবার্ষিকী প্রভৃতি। উদ্দীপকেও দেখা যায়, রিপা ও বিদিতা সুখে-দুঃখে একে অপরের অংশীদার। সুতরাং বলা যায়, শহুরে জীবনে প্রতিবেশীরাই ঘনিষ্ঠজন। এই বক্তব্যের সাথে আমি একমত।

প্রশ্ন- সামাজিকীকরণে পরিবার পরিবারের সদস্যদের ভূমিকা  

তাহসান ও মাহি একটি বেসরকারি  ব্যাংকে কর্মরত। বিয়ে করে তারা একসাথে একটি ফ্ল্যাটে বসবাস করছেন। তাহসান ও মাহির একমাত্র সন্তান মুনা গৃহপরিচারিকার সাথেই সময় কাটায়। মাহি ও তাহসান কাজ শেষে যখন বাসায় ফেরেন, মুনা তখন ঘুমিয়ে থাকে। আবার তারা যখন কর্মস্থলে যান মুনা তখনও ঘুমিয়ে থাকে। বাবা-মা কেউ মুনাকে সময় দিতে পারেন না। কিছুদিন পর তাহসান ও মাহি লক্ষ করেন মুনার কথা ও আচরণ অনেকটা গৃহপরিচারিকার মতো। এই নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই দ্বন্দ্ব হয়। একে অপরকে দোষারোপ করেন। তাহসান বলেন, ‘মা-ই সকল শিশুর জীবনাদর্শ’। উত্তরে মাহি বলেন, ‘সন্তানের ক্ষেত্রে পিতা-মাতা উভয়েরই দায়িত্ব সমান’। 

 ক.গণমাধ্যম কী?            

খ.‘সামাজিকীকরণ একটি জীবনব্যাপী প্রক্রিয়া’-ব্যাখ্যা কর।           

গ.মুনার আচরণ পরিবর্তনের ক্ষেত্রে ঘটনায় বর্ণিত পরিবারটির প্রভাব ব্যাখ্যা কর। 

ঘ.মাহির উক্তিটি অনুচ্ছেদের আলোকে বিশ্লেষণ কর।       

 ক          বৃহৎ জনগোষ্ঠীর কাছে সংবাদ, দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতির বিষয়বস্তু, বিশেষ ধ্যানধারণা, বিনোদন প্রভৃতি পরিবেশন করার মাধ্যমই হলো গণমাধ্যম।

 খ           সামাজিকীকরণ একটি জীবনব্যাপী প্রক্রিয়া। শিশুর জন্মের পর হতে মৃত্যু পর্যন্ত বিভিন্ন মাধ্যমে অভিজ্ঞতা অর্জন ও খাপখাওয়ানোর প্রক্রিয়াই সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়া। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ব্যক্তি যখন একপর্যায় হতে আরেক পর্যায়ে প্রবেশ করে তখন তাকে নতুন পরিবেশ ও পরিস্থিতির সঙ্গে খাপখাইয়ে চলতে হয়। নতুন নিয়মকানুন, রীতিনীতি এবং নতুন পরিবেশ-পরিস্থিতির সঙ্গে নিজেকে খাপখাইয়ে চলার প্রক্রিয়ার নাম সামাজিকীকরণ।

 গ           মুনার আচরণ পরিবর্তনের ক্ষেত্রে ঘটনার বর্ণিত পরিবারটির প্রভাব ব্যাপক। পারিবারিক জীবনের মধ্যেই প্রত্যেকের শৈশব কাটে। মুনাও এর ব্যতিক্রম নয়। আমরা যে ধরনের পরিবারেই বেড়ে উঠি না কেন, পারিবারিক জীবনের মধ্যেই আমাদের শৈশব কাটে। আমাদের আচরণকে প্রভাবিত করছে। পরিবারের মধ্যেই সামাজিক নীতিবোধ ও নাগরিক চেতনার সূচনা হয়। আমরা সহযোগিতা, সহিষ্ণুতা, সম্প্রীতি, ভ্রাতৃত্ববোধ, ত্যাগ, ভালোবাসা প্রভৃতি গুণগুলো পরিবারের মধ্য থেকেই অর্জন করি। পরিবারের মধ্যে প্রধান যে বিষয়টি শিশুর সামাজিকীকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে তা হলো মা-বাবার মধ্যকার সম্পর্ক। মা-বাবার মধ্যে সুসম্পর্ক শিশুর ব্যক্তিত্বের সুষ্ঠু বিকাশের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। আবার মা-বাবার মধ্যকার দ্বন্দ্ব তাদের মধ্যেও দ্বদ্বের সৃষ্টি করে। উদ্দীপকে দেখা যায়, মুনার পরিবারে সে কেবল তার গৃহ পরিচারিকাকেই কাছে পায়। ফলে মুনার জীবনে গৃহপরিচারিকার অনেক আচরণিক প্রভাব রেখাপাত করে। অর্থাৎ মুনার কথা ও আচরণ অনেকটা গৃহপরিচারিকার মতো হয়ে যায়। যদি মুনার মা বাবা মুনাকে সময় দিতেন তাহলে এই সমস্যা সৃষ্টি হতো না।

 ঘ            ‘সন্তানের ক্ষেত্রে পিতা-মাতা উভয়েরই দায়িত্ব সমান’- মাহির উক্তিটি যথার্থ। পরিবারের মধ্যে প্রধান যে বিষয়টি শিশুর সামাজিকীকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে তা হলো পিতা-মাতার মধ্যকার সম্পর্ক। পিতা-মাতার মধ্যে সুসম্পর্ক শিশুর ব্যক্তিত্বের সুষ্ঠু বিকাশের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। আবার পিতা-মাতার  মধ্যকার দ্বন্দ্ব তাদের মধ্যেও দ্বন্দ্বের সৃষ্টি করে। শিশুর সবচেয়ে কাছের মানুষ মাতা-পিতা। আবার মাতা-পিতা এ দুজনার মধ্যে অধিকতর হলেন ‘মা’। স্বভাবতই সামাজিকীকরণের সূত্রপাত ঘটে মায়ের কাছ থেকেই। মা শিশুর খাদ্যাভ্যাস গঠন ও ভাষা শিক্ষার প্রথম মাধ্যম। মা শৈশবে শিশুকে যেসব খাদ্যের প্রতি ঝোঁক সৃষ্টি করবেন, শিশুর পরবর্তী জীবনের  আচরণে এর প্রভাব লক্ষ করা যাবে। মায়ের ঘুমপাড়ানি গান, বর্ণ শিক্ষার কৌশল, ছড়া শিক্ষা অনেক বিষয়ই আমরা অতীত অভিজ্ঞতা ও শিখনের ফল থেকে নিজ পরিবারে প্রয়োগ করে থাকি। কিন্তু মায়ের পাশাপাশি যদি বাবাও সন্তানের খেয়াল রাখেন, তাহলে শিশুটির আত্মধারণাকে সমৃদ্ধ ও ব্যক্তিত্বকে সুন্দর করে তোলে।  আলোচনার প্রেক্ষিতে বলা যায় যে, মাহির উক্তিটি যথার্থ।

সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর

প্রশ্ন পরিবার ধারণাটি তুমি কীভাবে সংজ্ঞায়িত করবে?

উত্তর : পরিবার হলো সমাজকাঠামোর মৌল সংগঠন। গোষ্ঠী জীবনের প্রথম ধাপ হচ্ছে পরিবার। পরিবার হচ্ছে মোটামুটিভাবে স্বামী-স্ত্রীর একটি স্থায়ী সংঘ বা প্রতিষ্ঠান, যেখানে সন্তানসন্ততি থাকতে পারে আবার নাও থাকতে পারে। বিবাহ পরিবার গঠনের অন্যতম পূর্বশর্ত। একজন পুরুষ সমাজস্বীকৃত উপায়ে একজন নারীকে বিয়ে করে একটি পরিবার গঠন করে।

প্রশ্ন আমাদের সমাজ ব্যবস্থায় পিতৃবাস পরিবার অধিক থাকার কারণ চিহ্নিত কর। 

উত্তর : যে পরিবারে বিবাহের পর নবদম্পতি স্বামীর পিতৃগৃহে বসবাস করে তাকে পিতৃবাস পরিবার বলে। আমাদের সমাজে এ ধরনের পরিবার অধিক সংখ্যক দেখা যায়। কারণ, আমাদের সমাজে পরিবারের সামগ্রিক ক্ষমতা ও কর্তৃত্বের ভার পুরুষ সদস্যের ওপর ন্যস্ত। এ ধরনের পরিবারের বংশপরিচয় প্রধানত পুরুষ সূত্র দ্বারা নির্বাচিত হয়। তাছাড়া আমাদের দেশে পিতৃপ্রধান পরিবারপ্রথা চালু থাকার কারণেই পিতৃবাস পরিবার অধিক হয়ে থাকে।

প্রশ্ন অন্তর্গোত্র পরিবার ব্যবস্থার পরিবর্তনের কারণ কী? ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : যখন কোনো ব্যক্তি নিজ গোত্রের মধ্যে বিয়ে করে, তখন তাকে অন্তর্গোত্র পরিবার বলে। কারণ, এ ধরনের বিয়ের পিছনে যুক্তি হলো নিজ গোত্রের মধ্যে-তথাকথিত রক্তের বন্ধন ও বিশুদ্ধতা রক্ষা করা। বর্তমানে এ ধরনের গঠনে ব্যাপক পরিবর্তন লক্ষ করা যাচ্ছে। অধিকাংশ হিন্দু পরিবার এ প্রথাকে কুসংস্কার মনে করে।

প্রশ্ন তোমার সামাজিকীকরণে বিদ্যালয়ের ভূমিকা ব্যাখ্যা কর। 

উত্তর : পরিবারের পর শিশুর সামাজিকীকরণে বিদ্যালয় এবং সহপাঠীর প্রভাব গুরুত্বপূর্ণ। বিদ্যালয় শিশুর সামাজিকীকরণের আনুষ্ঠানিক মাধ্যম। শিশুর জ্ঞানার্জনের পাশাপাশি কতকগুলো সামাজিক আদর্শ বিদ্যালয় হতে শিখে থাকে। এই আদর্শগুলোর মধ্যে রয়েছেÑ শৃঙ্খলাবোধ, নিয়মানুবর্তিতা, শ্রদ্ধাবোধ, সহযোগিতা, পারস্পরিক ভালোবাসা প্রভৃতি। বৃহত্তর সমাজের অনুমোদিত আদব-কায়দা, আচার-আচরণ, মূল্যবোধ প্রভৃতি শিশু বিদ্যালয় থেকেই শিখে থাকে।

বর্ণনামূলক প্রশ্ন ও উত্তর

প্রশ্ন পরিবারের অর্থনৈতিক কাজ উদাহরণসহ ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : পরিবার ছিল এক সময়ের অর্থনৈতিক কার্যকলাপের মূল কেন্দ্রস্থল। তখন পরিবারের যাবতীয় প্রয়োজনীয় বস্তুগুলো গৃহেই উৎপাদন হতো। এজন্য পরিবারকে বলা হতো উৎপাদন ব্যবস্থার প্রধান একক। এক সময়ে গ্রামীণ যৌথ পরিবারের মধ্যেই এসব অর্থনৈতিক কর্মকাÊ সম্পাদিত হতো। কিন্তু সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে পরিবারের অর্থনৈতিক কাজগুলো মিল, কারখানা, দোকান, বাজার, ব্যাংক এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সম্পাদিত হচ্ছে। এখন পরিবারের সদস্যরা অর্থ উপার্জনের জন্য ঘরের বাইরে কাজ করে। বর্তমানে এজন্য পরিবারকে আয়ের একক বলা হয়। তাছাড়া আমাদের দেশে গ্রামীণ কৃষি পরিবার কৃষি অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি। শুধু তাই নয়, পরিবারকে কেন্দ্র করে এদেশের কুটিরশিল্প গড়ে উঠেছে, যা আমাদের দেশের অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

প্রশ্ন তোমার পরিবারের কার্যাবলির মধ্যে কোন কাজগুলো অর্থনৈতিক কাজ ব্যাখ্যা কর। 

উত্তর : পরিবারের ভূমিকার পরিধি ব্যাপক এবং এর কার্যাবলি বহুমাত্রিক। সন্তান প্রজনন থেকে শুরু করে লালন পালন এবং তার সুষ্ঠু বিকাশে পরিবারের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। পরিবারের কতকগুলো মূল কাজ রয়েছে। এর মধ্যে যে কাজগুলো অর্থনৈতিক তা হলো : পরিবারের অর্থনৈতিক কাজগুলো মিল, কারখানা, দোকান, বাজার, ব্যাংক এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সম্পাদিত হচ্ছে। এখন পরিবারের সদস্যরা অর্থ উপার্জনের জন্য ঘরের বাইরে কাজ করে।  এগুলোই পরিবারের অর্থনৈতিক কাজ। বর্তমানে এজন্য পরিবারকে আয়ের একক বলা হয়। তাছাড়া আমাদের দেশে গ্রামীণ কৃষি পরিবার কৃষি অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি। শুধু তাই নয়, পরিবারকে কেন্দ্র করে এদেশের কুটিরশিল্প গড়ে উঠেছে, যা আমাদের দেশের অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

প্রশ্ন তোমার গ্রামে যে ধরনের পরিবার দেখা যায় তা ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : আমার গ্রামে বেশিরভাগ পরিবারই হলো যৌথ পরিবার। এখন এ ধরনের পরিবারের সংখ্যা নানা কারণে হ্রাস পেয়েছে। এছাড়াও আমাদের গ্রামে বর্ধিত পরিবারের পাশাপাশি পিতৃসূত্রীয় পরিবার রয়েছে। এছাড়াও আমাদের গ্রামে পিতৃবাস পরিবারের উপস্থিতি দেখা যায়। যেখানে নবদম্পতি স্বামীর গৃহে বসবাস করে। আমাদের গ্রামের কিছু পরিবার মূলত একজন পুরুষের একই সময় একাধিক স্ত্রী বর্তমান থাকে। অর্থাৎ বহুপত্নীক পরিবার দেখা যায়। সুতরাং পরিশেষে বলা যায় যে, আমাদের গ্রামে উপরিউক্ত পরিবার ব্যবস্থা দেখা যায়।

প্রশ্ন ॥ ‘ব্যক্তির সামাজিকীকরণে খেলার সাথীর ভূমিকা অধিক তাৎপর্যপূর্ণ’- বিশ্লেষণ কর।

উত্তর : শিশুর সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে খেলার সাথি ও পড়ার সাথির ভূমিকা রয়েছে। এদের মাধ্যমেই সহযোগিতা, সহনশীলতা, সহমর্মিতা, নেতৃত্ব

প্রভৃতি গুণাবলি বিকশিত হয়। এই সাথি দলের  মধ্যে আবার কখনো বা  দ্বন্দ্ব দেখা দেয়, যা সমস্যা সমাধানে ও দ্বন্দ্ব নিরসন কৌশল আয়ত্তকরণে সহায়তা করে। খেলা ও পড়ার সাথিদের মাধ্যমে শিশু নিজের আচরণের ভালো কিংবা মন্দ দিকের গুণাবলি ও মুখোমুখি সমালোচনা শুনতে পায়। এ ধরনের সমালোচনা শিশুকে সমাজের কাক্সি¶ত আচরণ করতে শিক্ষা দেয়। সমবয়সী খেলা ও পড়ার সাথিদের আচার-আচরণ প্রায় একই প্রকৃতির হয়। এটি একটি ক্ষুদ্র দল। এ দলের রয়েছে বিশেষ মূল্যবোধ, শৃঙ্খলা ও রীতিনীতি। এ কারণে এ দলকে বলে অন্তরঙ্গ বন্ধুদল। শৈশব ও কৈশোরে এই সাথি দলের পারস্পরিক আচরণিক প্রভাব গুরুত্বপূর্ণ। এই দলের প্রভাবে শিশু সমাজ স্বীকৃত ভালো মূল্যবোধ গ্রহণ করতে পারে। আবার সমাজে ঘৃণিত মূল্যবোধও গ্রহণ করতে পারে। তবে এক্ষেত্রে পরিবারের সদস্য, শিক্ষক ও সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গকে সচেতন হতে হবে।

প্রশ্ন গ্রাম শহরে বসবাসকারী দুই ছাত্রের সামাজিকীকরণের বৈসাদৃশ্য তুলে ধর।

উত্তর : গ্রাম ও শহরে বসবাসকারী দুই ছাত্রের সামাজিকীকরণের কতকগুলো বৈসাদৃশ্য রয়েছে। গ্রাম ও শহরে উভয় পরিবেশই প্রতিবেশী রয়েছে। গ্রামের শিশুকিশোর বয়োজ্যেষ্ঠ প্রতিবেশীর সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বন্ধনে আবদ্ধ থাকে। তবে শহরে বসবাসকারীদের মধ্যে এরূপ সম্পর্ক দেখা যায় না। আত্মীয়স্বজনের সাথে সম্পর্ক শহরের ছাত্রের তুলনায় গ্রামের ছাত্রের সংখ্যা বেশি। সহপাঠী এবং অন্তরঙ্গ বন্ধুদের সাথে সম্পর্ক শহরের ছাত্রের তুলনায় গ্রামের ছাত্রের স্বতঃস্ফূর্ত ও আন্তরিক। বিদ্যালয়ের পরিবেশ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন উপাদানের প্রভাব শহর ও গ্রামভেদে পার্থক্য তৈরি করে। শহরের পেশাগত ক্ষেত্র গ্রাম থেকে আলাদা হওয়ায় গ্রাম ও শহরের ছাত্রদের সামাজিকীকরণে এই উভয় পরিবেশে পার্থক্য সূচিত হয়।

গুরুত্বপূর্ণ বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

সাধারণ বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

১.            কোন ¶ুদ্র নৃগোষ্ঠীর মধ্যে এখনো মাতৃসূত্রীয় পরিবার ব্যবস্থা প্রচলিত আছে?

                ক চাকমা ও খাসিয়া         খ রাখাইন ও গারো

                গ হাজং ও গারো                খাসিয়া ও গারো

২.           জাহেদার বিয়ের পর তাঁর স্বামী জলিল শহরের একটি পৃথক এ্যাপার্টমেন্টে তাদের দাম্পত্য জীবন শুরু করেন। এটি কোন পরিবারের উদাহরণ?

                ক অনুলোম        খ প্রতিলোম        গ পিতৃবাস           নয়াবাস

৩.           কৃষিভিত্তিক গ্রামীণ মুসলিম সমাজে কোন ধরনের পরিবার দেখা যায়?

                ক বহুপতি পরিবার            বহুপত্নীক পরিবার

                গ মাতৃপ্রধান পরিবার      ঘ পিতৃপ্রধান পরিবার

৪.           পরিবার গঠনের অন্যতম পূর্বশর্ত কোনটি?

                 বিবাহ                খ  পরিবার কাঠামো গঠন

                গ সামাজিকীকরণ            ঘ মূল্যবোধ গঠন

৫.           বর্তমানে গ্রাম ও শহরে পরিবারের মধ্যে আত্মকেন্দ্রিক মনোভাব বৃদ্ধির মূল কারণ কী?

                ক একক পরিবারের বৃদ্ধি               খ  আর্থিক অবস্থার উন্নতি

                 নয়াবাস পরিবারের বৃদ্ধি             ঘ পিতৃতান্ত্রিক পরিবারে আধিক্য

৬.           পরিবার হলো সমাজ কাঠামোর

                 মৌল সংগঠন খ মৌল একক    গ মৌল ভিত্তি     ঘ মৌল প্রতিষ্ঠান

৭.           বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশু কারা?

                ক যাদের মা বাবা নেই     খ যারা পথশিশু

                গ যারা পরিবারে বাস করে না        যারা শারীরিক মানসিক প্রতিবন্ধী

৮.           রাজিবের বাবা একজন শিল্পপতি। পাড়ার খারাপ বন্ধুদের সাথে মিশে রাজিব দিন দিন উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করছে। উদ্দীপকে নিচের কোনটি প্রমাণিত হয়?

                 সামাজিকীকরণে বন্ধুদের ভূমিকা রয়েছে

                খ মানুষ বন্ধুদের দ্বারা প্রভাবিত হয় না

                গ সকলের সাথে মেলামেশা করা উচিত

                ঘ রাজিব ধনীর ছেলে হওয়ায়

৯.           ছকটিতে প্রকাশ পেয়েছে

                ক পরিবারের বৈশিষ্ট্য        পরিবারের কার্যাবলি

                গ পরিবারের নীতি            ঘ পরিবারের ধরন

১০.         স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবার কত প্রকার?

                ক ২        ৩         গ ৪        ঘ ৫

১১.         “?” চিহ্নের সাথে সম্পৃক্ত পরিবার নিচের কোনটি?

                ক আকারের ভিত্তিতে

                খ স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে

                 পাত্র-পাত্রী নির্বাচনের ভিত্তিতে

                ঘ বিবাহোত্তর বসবাসের ভিত্তিতে

১২.         বিবাহোত্তর বসবাসের ভিত্তিতে পরিবার কত প্রকার?

                ক ২        ৩         গ ৪        ঘ ৫

১৩.         কোন মাপকাঠির ভিত্তিতে পরিবারকে পিতৃতান্ত্রিক অথবা মাতৃতান্ত্রিক ভাগে ভাগ করা যায়?

                ক আকারের ভিত্তিতে পরিবার    

                 কর্তৃত্বের ভিত্তিতে পরিবার

                গ পাত্রপাত্রী নির্বাচনের ভিত্তিতে পরিবার

                ঘ বংশ মর্যাদা ও সম্পত্তির উত্তরাধিকারের ভিত্তিতে পরিবার

১৪.         মানুষের দলবদ্ধ জীবনযাপনের বিশ্বজনীন প্রতিষ্ঠান কী?

                ক রাষ্ট্র  খ সমাজ               সরকার             ঘ পরিবার

১৫.        কোন ধরনের পরিবার বাংলাদেশে দেখা যায় না?

                ক একপত্নী         খ বহুপত্নী             বহুপতি             ঘ যৌথ পরিবার

১৬.        যে পদ্ধতিতে একটি শিশু ক্রমান্বয়ে ব্যক্তিত্বসম্পন্ন সামাজিক মানুষে পরিণত হয় তাকে বলে

                ক সমাজ কাঠামো            সামাজিকীকরণ

                গ সংস্কৃতি                            ঘ সভ্যতা

১৭.         বর্তমানে যৌথ পরিবার কমে যাওয়ায় কারণ

                র.  শিল্পায়ন ও নগরায়ন  রর. ভোগবাদী মানসিকতা

                ররর. ¶ুদ্র ঋণদান কর্মসূচির অসুবিধা

                নিচের কোনটি সঠিক?

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১৮.         গোষ্ঠী জীবনের প্রথম ধাপ কী?

                 পরিবার             খ সমাজ              গ সম্প্রদায়         ঘ রাষ্ট্র

১৯.         বিয়ের পর থেকে মনসুর আলী তার স্ত্রীর পিত্রালয়ে বসবাস করছে। এই পরিবারটি হচ্ছেÑ

                ক মাতৃতান্ত্রিক পরিবার   খ পিতৃতান্ত্রিক পরিবার

                 মাতৃবাস পরিবার           ঘ পিতৃবাস পরিবার

২০.        শহরের চাকরিজীবীদের মধ্যে কোন ধরনের পরিবার দেখা যায়?

                ক পিতৃবাস                         খ মাতৃবাস

                গ যৌথ পরিবার                  নয়াবাস পরিবার

২১.         শৈশবে নারীর প্রতি বঞ্চনার অভিজ্ঞতা একজন পুরুষকে সহিংস করে তোলে। এর মূল কারণ হলোÑ

                 ত্রুটিপূর্ণ সামাজিকীকরণ           খ মূল্যবোধের অবক্ষয়

                গ গোঁড়ামিপূর্ণ মনোভাব ঘ আধিপত্যভাব

২২.        মানুষের সামাজজীবনের মূলবিষয় কী?

                ক পরিবার গঠন খ বিবাহ গ একতা               মিথস্ক্রিয়া

২৩.        শিশুর সামাজিকীরণে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম কোনটি?

                ক ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান             খ খেলার সাথী

                গ বিদ্যালয়                           পরিবার

২৪.        মাতৃসূত্রীয় পরিবার ব্যবস্থা প্রচলিত আছে কোন ¶ুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মধ্যে?

                ক চাকমা ও মারমা           খ হাজং ও মুরং

                গ সাঁওতাল ও রাখাইন      খাসিয়া ও গারো

২৫.        অনুলোম বিবাহভিত্তিক পরিবার কোন পরিবারের অন্তর্ভুক্ত?

                 বহির্গোত্র          খ অন্তর্গোত্র        গ প্রতিলোম       ঘ বহুগোত্রীয়

২৬.       স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবারের ধরণ কয়টি?

                ক ২        ৩         গ ৪        ঘ ৫

২৭.        বহুস্বামী গ্রহণ পদ্ধতির প্রচলন কোথায় ছিল?

                ক আফ্রিকায়       তিব্বতে            গ ভারতে             ঘ চীনে

২৮.        সামাজিকীকরণের মুখ্য ভূমিকা কোন মাধ্যম পালন করে?

                ক বিদ্যালয়         খ চলচ্চিত্র           পরিবার             ঘ খেলার সাথি

২৯.        স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবারের ধরন কয়টি?

                ক ২        ৩         গ ৪        ঘ ৫

৩০.        ¶ুদ্রতম সামাজিক সংগঠন কোনটি?      

                ক ব্যক্তি                 পরিবার             গ গোষ্ঠী ঘ দল

৩১.        গোষ্ঠী জীবনের প্রথম ধাপ কী?

                ক সম্প্রদায়        খ সমাজ              গ ব্যক্তি  পরিবার

৩২.        আদর্শ পরিবার বলতে কোনটিকে বোঝায়?

                 একপত্নী পরিবারকে    খ পিতৃপ্রধান পরিবারকে

                গ যৌথ পরিবারকে           ঘ ছোট পরিবারকে

৩৩.       সাধারণত বহুপত্নীক পরিবার কোন সমাজে দেখা যায়?

                 মুসলিম            খ হিন্দু   গ বৌদ্ধ ঘ খ্রিষ্টান

৩৪.        বহুপতি পরিবার কোথায় দেখা যেত?       

                 তিব্বতে            খ নেপালে           গ চীনে                  ঘ আফ্রিকায়

৩৫.       বাংলাদেশে খাসিয়া ও গারোদের পরিবার কেমন?

                 মাতৃসূত্রীয় পরিবার       খ পিতৃসূত্রীয় পরিবার

                গ পিতৃপ্রধান পরিবার      ঘ মাতৃবাস পরিবার

৩৬.       খাসিয়া ও গারোদেরও মধ্যে ‘চ’ পরিবার ব্যবস্থা প্রচলিত। ‘চ’ পরিবার ব্যবস্থা কোনটিকে সমর্থন করে?

                ক পিতৃবাস          মাতৃসূত্রীয়       গ যৌথ পরিবার ঘ অন্তর্গোত্র

৩৭.        আকৃতির ভিত্তিতে পরিবার কত প্রকার?

                ক ২        ৩         গ ৪        ঘ ৫

৩৮.       ইমুর দাদার বড় বউ ঢাকায় থাকে, মেঝ বউ বরগুনা শহরে থাকে আর ছোট বউ পাতা কাটা গ্রামে থাকে। ইমুর দাদার পরিবারটি কোন ধরনের?

                ক বহুপতি           খ বহুপত্নী            গ একপত্নী           বর্ধিত

৩৯.        মাতৃবাস পরিবার বাংলাদেশের কোন নৃগোষ্ঠীর মাঝে দেখা যায়?

                ক চাকমা             খ মারমা               গ লুসাই  গারো

৪০.        কোন পরিবারে বৃদ্ধ পিতামাতা নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছে?

                ক যৌথ পরিবারে              খ একক পরিবারে

                 নয়াবাস পরিবারে          ঘ মাতৃবাস পরিবারে

৪১.         নয়াবাস পরিবারে নবদম্পর্ত্তি কীভাবে বসবাস করে?          

                 পৃথক বাড়িতে খ স্ত্রীর পিতার বাড়িতে

                গ স্বামীর পিতার বাড়িতে ঘ স্ত্রী নিজস্ব বাড়িতে

৪২.        শিশুর চরিত্রের ভিত্তিপ্রস্তর রচিত হয় কোথায়?

                 পরিবারে           খ বিদ্যালয়ে        গ খেলার মাঠে   ঘ পাঠাগারে

৪৩.        যৌথ পরিবার ভেঙে একক পরিবারের সৃষ্টি হচ্ছে কেন?    

                 শিল্পায়নের কারণে        খ খরচ কমানোর জন্য

                গ পারিবারিক বিশৃঙ্খলার কারণে ঘ সম্পর্কের অবনতির কারণে

৪৪.        শিশুর নৈতিক শিক্ষার পিছনে কার ভূমিকা সবচেয়ে বেশি?

                ক পরিবারপ্রধানের          খ গ্রামের মুরব্বির

                 পিতামাতার    ঘ সমাজের মানুষের

৪৫.        সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়া বলতে কী বোঝায়?

                ক সমাজে বসবাস করার প্রক্রিয়া               খ সমাজে চলার নিয়ম শিক্ষা

                গ সামাজিক হওয়ার মাধ্যমে         সমাজে খাপ খাওয়ানোর প্রক্রিয়া

৪৬.       আচরণগত পারস্পরিক প্রভাবের প্রতিক্রিয়াকে ইংরেজিতে কী বলে?

                ক ঝুসনরড়ংরং                 খ খবহঃরপরংস                 ওহঃবৎধপঃরড়হ          ঘ ঋৎরবহফংযরঢ়

৪৭.        মিথস্ক্রিয়া বলতে কী বোঝায়?

                ক আচরণ

                খ পারস্পরিক প্রভাব

                 আচরণগত পারস্পরিক প্রভাবের প্রতিক্রিয়া

                ঘ মনস্তাত্ত্বিক প্রভাব

৪৮.        শিশুর সামাজিকীকরণের অনুষ্ঠানিক মাধ্যম কোনটি?

                ক পরিবার           খ রাষ্ট্র   গ সমাজ               বিদ্যালয়

৪৯.        বৌদ্ধদের ধর্মগ্রন্থ কোনটি?

                ক কোরআন       খ বেদ   গ বাইবেল             ত্রিপিটক

৫০.        গ্রাম্য পরিবেশ শিশু মনকে কেমন করে?

                ক ধূর্ত    খ জটিল               গ জ্ঞানী                 কোমল

বহুপদী সমাপ্তিসূচক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

৫১.        বাংলাদেশে যৌথ পরিবার ব্যবস্থা ভেঙে যাওয়ার কারণ হলো

                র. দারিদ্র্য ও জনসংখ্যা বৃদ্ধি        

                রর. শিল্পায়ন ও নগরায়ণ

                ররর. নিরক্ষরতা ও অজ্ঞতা

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

৫২.        যৌথ পরিবার ভেঙে পড়ার যথার্থ কারণ হলোÑ

                র. শিল্পায়ন

                রর. নগরায়ণ

                ররর. জনসংখ্যা বৃদ্ধি

                নিচের কোনটি সঠিক?

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

৫৩.       সিলেটের ছাতকে কর্মরত মানুষের মধ্যে একক পরিবার গড়ে ওঠার কারণ হলোÑ

                র. বাসস্থান সংকট

                রর. স্বল্প মজুরি

                ররর. সচ্ছল পরিবার গড়া

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

৫৪.        বহুপতি পরিবার দেখা যেতÑ

                র. আফ্রিকায়

                রর. তিব্বতে

                ররর. মালাগড় অঞ্চলে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

৫৫.       পরিবারের মধ্যে ঘটেÑ

                র. সন্তান প্রতিপালন

                রর. মূল্যবোধ গঠন

                ররর. অধিকার সচেতনতা সৃষ্টি

                নিচের কোনটি সঠিক?

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

অভিন্ন তথ্যভিত্তিক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ৫৬ ৫৭ নম্বর প্রশ্নের উত্তর দাও :

মাহাবুব নবম শ্রেণির ছাত্র। তার পিতা-মাতা দুজনই চাকরিজীবী। মাহাবুব নিয়মিত স্কুলে যায়। পিতা-মাতাও তাদের সন্তানের দেখাশোনা করেন। মাহাবুব খুবই সামাজিক।

৫৬.       উদ্দীপকে কোন প্রক্রিয়ার ইঙ্গিত আছে?

                ক পরিবারের গঠন           খ সামাজিক মূল্যবোধ

                 সামাজিকীকরণ            ঘ সামাজিক পরিবর্তন

৫৭.        কোন কোন প্রতিষ্ঠান মাহাবুবকে সামাজিক করে তুলেছে?

                ক স্থানীয় গোষ্ঠী ও সম্প্রদায়           পরিবার ও বিদ্যালয়

                গ পরিবার ও রাষ্ট্র              ঘ বিদ্যালয় ও গণমাধ্যম

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ৫৮ ৫৯ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

রহিমের মায়ের মৃত্যুর পর তার বাবা ২য় বিয়ে করেন। রহিমের সৎমা রহিমের ওপর অত্যাচার চালায়। রহিম ক্লাসে অমনোযোগী থাকে। বন্ধুদের সাথে মেলামেশা করে না। পরবর্তীতে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে।

৫৮.       রহিমের এই পরিণতির জন্য সামাজিকীকরণের কোন মাধ্যমটি দায়ী?

                ক বিদ্যালয়         খ খেলার সাথি    গ গণমাধ্যম        পরিবার

৫৯.        রহিমকে সুস্থজীবনে ফিরিয়ে আনতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে          

                র. শিক্ষক           

                রর. সাংবাদিক

                ররর. বন্ধু-বান্ধব

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ রর ও ররর        র ও ররর           ঘ র, রর ও ররর

নিচের ছকটি লক্ষ করে ৬০ ৬১ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

৬০.       ‘?’ চি‎িহ্নত স্থানে কী বসবে?        

                ক সামাজিক মূল্যবোধ    খ আচার-আচরণ

                 সামাজিকীকরণ            ঘ সমাজজীবন

৬১.        শিশুর সামাজিকীকরণের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম কোনটি?      

                 পরিবার             খ প্রতিবেশী

                গ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান              ঘ স্থানীয় গোষ্ঠী

 অতিরিক্ত বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

 ভূমিক

সাধারণ বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

৬২.       সমাজের প্রাথমিক প্রতিষ্ঠান কোনটি?       (জ্ঞান)

                ক রাষ্ট্র  খ গোষ্ঠী  পরিবার             ঘ সংগঠন

৬৩.       কোনটি থেকে সমাজের উৎপত্তি?             (জ্ঞান)

                ক রাষ্ট্র  খ গোষ্ঠী  পরিবার             ঘ সংগঠন

৬৪.       মানুষের অকৃত্রিম ও নিবিড় সম্পর্ক গড়ে ওঠে কোন প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে? (অনুধাবন)

                 পরিবার             খ গোত্র গ গোষ্ঠী ঘ সংগঠন

৬৫.       প্রতিটি মানুষ গোষ্ঠী জীবনের প্রথম ধাপ অতিক্রম করে কীভাবে? (অনুধাবন)

                 পারিবারিক জীবনের সূচনা থেকে           খ গোষ্ঠী জীবনের সূচনা থেকে

                গ সমাজ জীবনের সূচনা থেকে   ঘ শিক্ষা জীবনের সূচনা থেকে

৬৬.       মিতা মা-বাবা, ভাইবোন, দাদা-দাদিসহ একত্রে বসবাস করে। এটিকে কী বলা হয়?   (প্রয়োগ)

                ক সংগঠন          খ গোষ্ঠী গ গোত্র  পরিবার

৬৭.       সামাজিক পরিবেশের সাথে মানুষের খাপ খাইয়ে চলার প্রক্রিয়াকে কী বলে?             (অনুধাবন)

                 সামাজিকীকরণ            খ সামাজিক শিক্ষা

                গ পারিবারিক শিক্ষা         ঘ সামাজিক মূল্যবোধ

৬৮.       কোনটি মানুষের জীবনব্যাপী চলতে থাকে?           (জ্ঞান)

                ক সামাজিক শিক্ষা          খ পারিবারিক শিক্ষা

                 সামাজিকীকরণ            ঘ ধর্মীয় শিক্ষা

৬৯.       ফয়সাল সমাজের একজন দায়িত্বশীল সদস্য। কোনটির মাধ্যমে তার এরূপ অবস্থান তৈরি হয়েছে? (প্রয়োগ)

                 সামাজিকীকরণ            খ উত্তরাধিকার সূত্রে

                গ শিক্ষার             ঘ অর্থের

 পরিচ্ছেদ-১৩.১ : বাংলাদেশের পরিবার কাঠামো

  • সমাজের প্রাথমিক প্রতিষ্ঠান হলো পরিবার।        
  • পরিবার হলো সমাজ কাঠামোর মৌল সংগঠন।
  • গোষ্ঠী-জীবনের প্রথম ধাপ হচ্ছে পরিবার।
  • পরিবার গঠনের অন্যতম পূর্বশর্ত হচ্ছে বিবাহ।
  • পরিবার আমাদের দলবদ্ধ জীবনের আবেগময় ভিত্তি।
  • স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবার তিন ধরনের।
  • আমাদের দেশের গ্রামীণ কৃষি সমাজ ছাড়াও চীনে বর্ধিত পরিবার প্রথা রয়েছে।
  • খাসিয়া ও গারোদের মধ্যে মাতৃসূত্রীয় পরিবার ব্যবস্থা এখনও প্রচলিত।
  • মা শিশুর জীবনের শ্রেষ্ঠ শিক্ষক।
  • বর্তমানে পরিবারকে আয়ের একক বলা হয়।

সাধারণ বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

৭০.        মানব শিশু বড় হয় কোথায়?        (জ্ঞান)

                ক বাড়িতে            পরিবারে           গ সমাজে            ঘ গ্রামে 

৭১.         মানুষের জন্ম, কর্মময় জীবন এবং শেষ পরিণতি পরিবারেই সম্পন্ন হয়। এখানে পরিবারের কোন বৈশিষ্ট্য ফুটে উঠেছে?               (উচ্চতর দক্ষতা)

                ক পরিবারিক রীতিনীতি  পারিবারিক বন্ধন

                গ জীবনের ধারা                 ঘ জীবনের পরিণতি

৭২.        কোথায় শিশুর সকল সামাজিক গুণের বিকাশ ঘটে?          (জ্ঞান)

                ক সমাজে            পরিবারে           গ গ্রামে ঘ শহরে

৭৩.        পরিবার গঠনের অন্যতম  পূর্বশর্ত কী?     (জ্ঞান)

                 বিবাহ                 খ আত্মীয়তা       গ বংশবিস্তার      ঘ দলবদ্ধ জীবন 

৭৪.        কীভাবে একটি পরিবার গঠিত হয়?            (অনুধাবন)

                ক আত্মীয়তার মাধ্যমে   খ রক্তের মাধ্যমে

                 সমাজস্বীকৃত উপায়ে বিবাহ করে            ঘ সুশৃঙ্খল কাঠামোর মাধ্যমে

৭৫.        বিবাহ ব্যতিরেকে পরিবার গঠিত হয় কোন সমাজে?           (অনুধাবন)

                ক আফ্রিকার বাহিমা উপজাতিতে             খ আধুনিক সমাজে

                গ মধ্যযুগীয় সমাজে        আদিম সমাজে

৭৬.       পরিবার কী?        (জ্ঞান)

                ক আত্মীয়তার সম্পর্ক গড়া 

                 মানুষের দলবদ্ধ জীবনযাপনের প্রতিষ্ঠান

                গ সামাজিক দল

                ঘ মনস্তাত্ত্বিক নিরাপত্তা 

৭৭.        পরিবারের প্রয়োজন কেন?           (অনুধাবন)

                 দলবদ্ধ জীবনযাপনের জন্য     খ নিয়ম পালনের জন্য

                গ সাংস্কৃতিক নিরাপত্তার জন্য      ঘ জীবন পরিচালনার জন্য

৭৮.        বাংলাদেশের পরিবার ব্যবস্থা এখনও সুদৃঢ় কেন?  (অনুধাবন)

                ক অর্থনৈতিক প্রয়োজনে              খ দারিদ্র্যের জন্য

                গ সম্পদের অপ্রতুলতার জন্য      মায়া-মমতার উপস্থিতির জন্য

৭৯.        পরিবারের নিয়মনীতি, আদর্শ, মূল্যবোধ প্রভৃতির সামগ্রিক রূপ কোনটি?   (জ্ঞান)

                ক সমাজ              পরিবার কাঠামো

                গ পারিবারিক উপাদান   ঘ সামাজিকীকরণ

৮০.        মানবসমাজে পরিবারের কার্যাবলি বহুমাত্রিক। উক্তিটিতে কী বোঝানো হয়েছে?      (উচ্চতর দক্ষতা)

                ক পরিবারের উদ্দেশ্য      খ সমাজ পরিবর্তন

                 পরিবারের কাজ ও গুরুত্ব          ঘ সমাজের গুরুত্ব 

৮১.        কোনটি মানুষের জীবনের শুরু হতে শেষ অবধি আশ্রয়স্থল?          (জ্ঞান)

                ক রাষ্ট্র   পরিবার             গ গোষ্ঠী ঘ সমাজ

৮২.        পরিবারেই একজন মানুষ জীবন অতিবাহিত করে। এখানে পরিবার ও মানুষের মধ্যে সম্পর্ক কী?     (উচ্চতর দক্ষতা)

                ক বন্ধুত্বসুলভ    খ সহযোগিতামূলক

                 গভীর ও শৃঙ্খলিত         ঘ সামাজিক

৮৩.       স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবার কয় ধরনের? (জ্ঞান)

                ক ২        ৩         গ ৪        ঘ ৫

৮৪.        একজন পুরুষের সঙ্গে একজন নারীর বিবাহের মাধ্যমে কোন পরিবার গড়ে ওঠে? (জ্ঞান)

                ক বহুপতি            একপত্নী

                গ অন্তর্গোত্র বিবাহভিত্তিক            ঘ বহুপত্নী

৮৫.       কোন ধরনের পরিবারে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক পরিলক্ষিত হয়? (অনুধাবন)

                ক অণু   খ নয়াবাস            গ বহুপত্নী             একপত্নী

৮৬.       কোন পরিবারে একজন পুরুষের একাধিক স্ত্রী থাকে?         (জ্ঞান)

                ক মাতৃতান্ত্রিক পরিবারে খ পিতৃতান্ত্রিক পরিবারে

                 বহুপত্নী পরিবারে          ঘ বর্ধিত পরিবারে

৮৭.        সজিবের বাবা তিনটা বিবাহ করেছে। সজিবদের পরিবারটি কোন ধরনের পরিবার? (প্রয়োগ)

                 বহুপত্নী             খ বহুপতি            গ বর্ধিত ঘ একপত্নী

৮৮.       অর্পণার বিদেশি বান্ধবী সিনহা। তার দুই স্বামী আছে। অর্পণার বান্ধবীর পরিবারটি কোন ধরনের পরিবার?                 (প্রয়োগ)

                 বহুপতি             খ বহুপত্নী            গ বর্ধিত ঘ যৌথ

৮৯.        দক্ষিণ-ভারতের মালাগড় অঞ্চলে কোন ধরনের পরিবার দেখা যেত?            (অনুধাবন)

                ক একপত্নী          বহুপতি             গ বহুপত্নী            ঘ যৌথ

৯০.        কর্তৃত্বের ভিত্তিতে পরিবার কয় ধরনের?   (জ্ঞান)

                 ২         খ ৩        গ ৪        ঘ ৫

৯১.         রিপনের পরিবারের সকল সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে তার বাবা। রিপনের পরিবার কোন ধরনের পরিবার?   (প্রয়োগ)

                ক বর্ধিত               খ একপত্নী           পিতৃতান্ত্রিক    ঘ মাতৃতান্ত্রিক

৯২.        পিতৃতান্ত্রিক পরিবারের কর্তৃত্বভার কার ওপর থাকে?           (জ্ঞান)

                ক নারীর                পুরুষের            গ শিশুর               ঘ বৃদ্ধের 

৯৩.        একক পরিবার কয় পুরুষ আবদ্ধ?             (অনুধাবন)

                ক এক    দুই      গ তিন   ঘ চার

৯৪.        বিশ্বের সভ্য দেশগুলোতে কোন ধরনের পরিবার প্রথা প্রচলিত?      (জ্ঞান)

                ক মাতৃপ্রধান      খ পিতৃপ্রধান        একক                ঘ বহুপত্নী

৯৫.        কোন পরিবারের বিবাহিত পুত্র ও তার সন্তানাদিসহ পিতার কর্তৃত্বাধীন এক সংসারে বাস করে?          (জ্ঞান)

                 যৌথ  খ বর্ধিত গ একক               ঘ পিতৃতান্ত্রিক

৯৬.       গ্রামে কোন ধরনের পরিবার দেখা যায়?    (জ্ঞান)

                ক একপত্নী         খ বহুপত্নী            গ একক                যৌথ 

৯৭.        পপির দাদা-দাদিকে দেখাশোনা করে তার মা এবং স্ত্রী। পপির পরিবার কোন ধরনের পরিবার?            (প্রয়োগ)

                ক যৌথ  বর্ধিত গ অণু   ঘ মাতৃবাস

৯৮.        বর্ধিত পরিবারের প্রথা কোথায় রয়েছে?     (জ্ঞান)

                ক ভারতে             খ তিব্বতে            চীনে  ঘ আফ্রিকায় 

৯৯.        সম্পত্তির উত্তরাধিকারের ভিত্তিতে পরিবার কত প্রকার?   (জ্ঞান)

                 ২         খ ৩        গ ৪        ঘ ৫

১০০.     পিতৃসূত্রীয় পরিবারের সন্তানসন্ততি কার বংশমর্যাদার অধিকারী হয়ে থাকে?             (জ্ঞান)

                ক মাতার              পিতার               গ দাদির               ঘ দাদার

১০১.      লিংকন তার মায়ের পরিচয়ে পরিচিত। লিংকনের পরিবারটির সাথে মিল রয়েছে কোনটার? (প্রয়োগ)

                ক মারমাদের পরিবার     খ মুরংদের পরিবার

                 গারোদের পরিবার        ঘ সাঁওতালদের পরিবার

১০২.     চুয়াংচু চাকমার পরিবার মায়ের সম্পত্তির উত্তরাধিকার অর্জন করে। তাদের পরিবার কোন ধরনের পরিবার?                (প্রয়োগ)

                ক পিতৃসূত্রীয়      মাতৃসূত্রীয়       গ একক               ঘ বর্ধিত

১০৩.     স্বামী-স্ত্রীর বসবাসের স্থানের ওপর ভিত্তি করে পরিবার কয় প্রকার?                 (জ্ঞান)

                ক ২        ৩         গ ৪        ঘ ৫

১০৪.     রবিন সম্প্রতি বিয়ে করেছে। সে বাবা-মা’র সাথে না থেকে স্ত্রী নিয়ে নতুন বাসায় উঠেছে। রবিনের পরিবারটি কোন ধরনের?               (প্রয়োগ)

                ক পিতৃবাস পরিবার         খ মাতৃবাস পরিবার

                গ অণু পরিবার    নয়াবাস পরিবার

১০৫.     নয়াবাস পরিবারের সংখ্যা কোথায় সর্বাধিক?          (জ্ঞান)

                ক গ্রামে                 শহরে 

                গ পাহাড়ি এলাকায়          ঘ উপকূলে

১০৬.     হিন্দু সমাজে কয় ধরনের পরিবার লক্ষ করা যায়? (জ্ঞান)

                ক ১         ২         গ ৩        ঘ ৪

১০৭.     নিজের গোত্রের বাইরে বিয়ে করে গঠিত পরিবার কোনটি?               (অনুধাবন)

                ক অন্তর্গোত্রে বিবাহভিত্তিক          বহির্গোত্র বিবাহভিত্তিক

                গ বহুপতি            ঘ নয়াবাস

১০৮.     বহির্গোত্র বিবাহভিত্তিক পরিবার কয় ধরনের?        (জ্ঞান)

                 ২         খ ৩        গ ৪        ঘ ৫

১০৯.     উঁচু বর্ণের পাত্রের সাথে নিচু বর্ণের পাত্রীর বিয়ের মাধ্যমে কোন পরিবার গড়ে ওঠে?               (জ্ঞান)

                ক প্রতিলোম        অনুলোম         গ অন্তর্গোত্র       ঘ মাতৃতান্ত্রিক

১১০.      সরজ চ্যাটার্জি ও বন্যা রানি দাস স্বামী-স্ত্রী। সরজ চ্যাটার্জি ব্রা‏হ্মণ বর্ণের কিন্তু তার স্ত্রী অন্য বর্ণের। তাদের পরিবার কোন ধরনের?   (প্রয়োগ)

                 অনুলোম বিবাহভিত্তিক              খ প্রতিলোম বিবাহভিত্তিক

                গ অন্তর্গোত্র বিবাহভিত্তিক            ঘ অসম বিবাহভিত্তিক

১১১.       কীভাবে সামাজিক অজাচার রোধ করা যায়?          (অনুধাবন)

                ক অনুলোম বিবাহ দ্বারা  প্রতিলোম বিবাহ দ্বারা

                গ অন্তর্গোত্র বিবাহ দ্বরা ঘ বহির্গোত্র  বিবাহ দ্বারা 

১১২.      অন্তর্গোত্রভিত্তিক বিয়ে কোথায় বেশি প্রচলিত?     (জ্ঞান)

                ক মুসলিম সমাজে            হিন্দু সমাজে

                গ উপজাতির মধ্যে          ঘ এস্কিমোদের মধ্যে

১১৩.      শিশুর আচরণ কীভাবে বিকশিত হয়?       (অনুধাবন)

                 পারিবারিক মূল্যবোধের মাধ্যমে              খ নীতিশিক্ষায়

                গ আদব-কায়দায়             ঘ পড়ালেখায়

১১৪.      ‘পরিবার একটি বিশ্বজনীন প্রতিষ্ঠান।’ বাক্যটি দ্বারা কী বুঝানো হয়েছে?      (উচ্চতর দক্ষতা)

                ক পরিবার হতে সমাজের সৃষ্টি হয়েছে

                খ পরিবারের মাধ্যমে বিশ্ব সৃষ্টি হয়েছে

                গ পরিবার হতে গোষ্ঠীর সৃষ্টি হয়েছে

                 বিশ্বের সকল সমাজেই পরিবার স্বীকৃত

১১৫.      গ্রাম ও শহরের পরিবার কাঠামোতে পরিবর্তন হয়েছে কেন?            (অনুধাবন)

                ক পরিবার পরিবর্তনের কারণে    খ স্থান পরিবর্তনের কারণে

                 সামাজিক পরিবর্তনের কারণে ঘ নগরায়ণের কারণে

১১৬.     কোন প্রতিষ্ঠানে নর-নারী সমাজ স্বীকৃত জৈবিক চাহিদা পূরণ করে?             (জ্ঞান)

                ক নির্বাচিত         খ প্রেক্ষাগৃহ         গ  হোটেল            পরিবার

১১৭.      কীভাবে নর-নারী জৈবিক চাহিদা পূরণ করে?         (অনুধাবন)

                ক সন্তান প্রজননের মাধ্যমে          বিয়ের মাধ্যমে

                গ ভালোবাসার মাধ্যমে   ঘ দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে 

১১৮.      পরিবার গঠনের মূল উদ্দেশ্য কী?               (অনুধাবন)

                ক সন্তান প্রজনন              খ লালন-পালন

                 সন্তান প্রজনন ও লালন-পালন ঘ মূল্যবোধ জাগ্রত

১১৯.      সন্তানের সুষ্ঠু লালন-পালন নির্ভর করে কিসের ওপর?     (জ্ঞান)

                ক পিতামাতার সচেতনতার ওপর                পরিবারের আয়ের ওপর

                গ খেলার সাথিদের ওপর ঘ পরিবারের সদস্যদের ওপর

১২০.     সমাজের রীতিনীতি, আচার-ব্যবহার, নিয়মকানুন, অভ্যাস এগুলো শিশু কোথা হতে শিখে থাকে?    (অনুধাবন)

                ক সমাজ থেকে  পরিবার থেকে

                গ রাজনৈতিক সংগঠন হতে         ঘ প্রতিবেশীদের থেকে

১২১.      অর্থনৈতিক কার্যকলাপের মূল কেন্দ্রস্থল কোথায়?               (জ্ঞান)

                ক শহর                 খ গ্রাম    পরিবার             ঘ সমাজ 

১২২.     পরিবারকে আয়ের একক বলা হয় কেন?                 (অনুধাবন)

                ক উৎপাদন ব্যবস্থার জন্য             খ বাজার করার জন্য

                গ কারখানা চালানোর জন্য

                 অর্থ উপার্জনের জন্য পরিবারের সদস্যরা বাইরে কাজ করে বলে

১২৩.     কোনটিকে কেন্দ্র করে এদেশের কুটিরশিল্প গড়ে উঠেছে? (অনুধাবন)

                ক গ্রাম  খ শহর   পরিবার             ঘ নগর

১২৪.     শিশুর অন্যতম শিক্ষাকেন্দ্র কোনটি?        (জ্ঞান)

                ক বিদ্যালয়         খ সমাজ               পরিবার             ঘ মসজিদ

১২৫.     শিশুর জীবনের শ্রেষ্ঠ শিক্ষক কে?              (জ্ঞান)

                ক দাদা খ দাদি  গ বাবা    মা

১২৬.     কার মাধ্যমে শিশু শিক্ষাজগতে প্রবেশ করে?         (জ্ঞান)

                ক দাদা-দাদি        বাবা-মা             গ ভাই-বোন        ঘ চাচা 

১২৭.      পরিবারকে কীভাবে একজন মানুষের বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে চিহ্নিত করা যায়?      (অনুধাবন)

                 সদস্যদের পারস্পরিক গল্পের কেন্দ্র

                খ পরিবারের টেলিভিশনের উপস্থিতি

                গ পারস্পরিক অর্থনৈতিক সহযোগিতা

                ঘ সদস্যদের পারস্পরিক সেবা

১২৮.     পরিবার কীভাবে সদস্যদের মধ্যে ঐক্য বজায় রাখে?          (অনুধাবন)

                ক শিক্ষার মাধ্যমে             খ বিচার বিবেচনা করে

                 পারিবারিক আড্ডার মাধ্যমে     ঘ শৃঙ্খলার মাধ্যমে

১২৯.     কাকনের পরিবারের সব সদস্য মিলেমিশে কক্সবাজার বেড়াতে যায়। তাদের পরিবারের এই কাজটি কোন ধরনের?               (প্রয়োগ)

                 বিনোদনমূলক               খ অবসরমূলক

                গ শিক্ষামূলক    ঘ সমাজসেবামূলক

১৩০.     শিশু কীভাবে পিতা-মাতার গুণাবলি অর্জন করে থাকে?    (অনুধাবন)

                ক সমাজের মাধ্যমে        খ শিক্ষার মাধ্যমে

                 পরিবারের মাধ্যমে        ঘ আচার-ব্যবহার শিখার মাধ্যমে

১৩১.      নয়াবাস পরিবারের ভূমিকায় কোন মনোভাব পরিলক্ষিত হয়?         (জ্ঞান)

                ক সচেতনতা     খ অসচেতনতা

                 আত্মকেন্দ্রিক ঘ প্রতিষ্ঠা লাভ

১৩২.     কৃষিভিত্তিক গ্রামীণ মুসলিম সমাজে কোন পরিবার দেখা যায়?       (জ্ঞান)

                ক একপত্নী         খ বহুপতি             বহুপত্নী             ঘ নয়াবাস

১৩৩.     শিমুর মা তাকে স্থানীয় শিশু একাডেমিতে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য নিয়ে যান। এটি পরিবারের কোন ধরনের কাজ?        (প্রয়োগ)

                ক জৈবিক           খ বিনোদনমূলক              গ মনস্তাত্ত্বিক      শিক্ষামূলক

১৩৪.     নৈতিকতার বীজ পরিবার থেকেই শিশুর আচরণে বিকশিত হয়। এখানে পরিবারের কোন বৈশিষ্ট্য পরিলক্ষিত হয়?                 (উচ্চতর দক্ষতা)

                 পারিবারিক মূল্যবোধ   খ পারিবারিক ন্যায়নীতি

                গ পারিবারিক আচার ব্যবহার       ঘ পারিবারিক শিক্ষা

১৩৫.     বর্তমানে সন্তান প্রসবে কোনটির ওপর গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে?            (অনুধাবন)

                 হাসপাতালে প্রেরণ       খ দক্ষ দাই

                গ কবিরাজ চিকিৎসা       ঘ মাতৃস্বাস্থ্য

১৩৬.     এদেশে একসময়ে ধর্ম শিক্ষার প্রাণকেন্দ্র ছিল কোনটি?      (জ্ঞান)

                 পরিবার             খ মসজিদ           গ মাদরাসা          ঘ বিদ্যালয়

১৩৭.     মানুষ কেন ধর্ম শিক্ষায় সন্তানের প্রতি সজাগ?      (অনুধাবন)

                ক পারিবারিক কারণে       ধর্মীয় মূল্যবোধের জন্য

                গ কর্তব্য পালনের জন্য ঘ নিরাপত্তার জন্য

১৩৮.     সন্তানের সুষ্ঠু লালন-পালন নির্ভর করে কিসের ওপর?     (অনুধাবন)

                ক পিতামাতার সচেতনতার ওপর                পরিবারের আয়ের ওপর

                গ পরিবারের সদস্যদের ওপর      ঘ খেলার সাথিদের ওপর

১৩৯.     বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশু কারা? (অনুধাবন)

                ক যাদের বাবা নেই           খ যাদের বাবা-মা নেই

                গ যারা পরিবারে বসবাস করে না  যারা শারীরিক প্রতিবন্ধী

১৪০.     বর্তমানে বাংলাদেশের কোন শিশুরা অলিম্পিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছে? (জ্ঞান)

                ক মেধাবী             অটিস্টিক        গ অবহেলিত     ঘ ইয়াতিম

বহুপদী সমাপ্তিসূচক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

১৪১.      পরিবার একটি স্থানীয় সামাজিক প্রতিষ্ঠান-             (উচ্চতর দক্ষতা)

                র. স্নেহ-মায়া-মমতার

                রর. সম্প্রীতি ও সহযোগিতার

                ররর. যা স্বল্পস্থায়ী

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১৪২.     মানুষ দলবদ্ধভাবে জীবনযাপন করে এবং পরিবার গঠন করে। পরিবার গঠন করা হয়Ñ      (অনুধাবন)

                র. জৈবিক প্রয়োজন মেটানোর জন্য

                রর. দলবদ্ধভাবে থাকার জন্য

                ররর. বংশগতি অ¶ুণ্ণ রাখার জন্য

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর             র ও ররর           গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১৪৩.     সন্তানের সুষ্ঠু লালন পালন করা প্রয়োজনÑ         (অনুধাবন)

                র. সামাজিক মানুষে পরিণত করার জন্য

                রর. সন্তান প্রজননের আনুষঙ্গিক কাজের জন্য

                ররর. পরবর্তীতে সন্তান দেখবে বলে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১৪৪.     প্রতিবেশী দল থেকে শিশু যেসব গুণ অর্জন করতে পারে তা হলোÑ             (অনুধাবন)

                র. সহযোগিতা ও সহমর্মিতা

                রর. সহিষ্ণুতা ও দ্বন্দ্ব মোকাবিলা

                ররর. নেতৃত্ব ও পারস্পরিক শ্রদ্ধা

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

১৪৫.     বর্তমানকালে যে ধরনের পরিবার গঠনের প্রবণতা দেখা যাচ্ছেÑ     (অনুধাবন)

                র. একপত্নীক পরিবার

                রর. একক পরিবার

                ররর. যৌথ পরিবার

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর             র ও ররর           গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১৪৬.     সমাজে বিভিন্ন ধরনের পরিবার রয়েছে। পরিবারের এই ভিন্নতা হয়-             

(অনুধাবন)

                র.  অঞ্চলভেদে 

                রর. সমাজভেদে

                ররর. দেশভেদে  

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

১৪৭.      পরিবারের বংশপরিচয় পুরুষ সূত্র দ্বারা নির্ধারিত হয়-         (অনুধাবন)

                র. কর্তৃত্বের কারণে

                রর. পিতৃপ্রধান পরিবারের জন্য

                ররর. অধিকার বেশি সেজন্য

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১৪৮.     আজগর আলীর পরিবারটি বহুপত্নীক পরিবার । এ পরিবারটি সাধারণত দেখা যায়- (প্রয়োগ)

                র. গ্রামীণ মুসলিম সমাজে

                রর. এস্কিমো উপজাতি সমাজে

                ররর. আফ্রিকার নিেেগ্রাদের সমাজে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ রর ও ররর       গ র ও ররর           র, রর ও ররর

১৪৯.     পলক তার নিজ গোত্রের মধ্যে বিয়ে করেছে। এর পেছনে যৌক্তিক কারণ হলো-      (প্রয়োগ)

                র. রক্তের বন্ধন

                রর. আত্মীয়তার বন্ধন

                ররর. রক্তের বিশুদ্ধতা

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর             র ও ররর           গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১৫০.     বিথিদের যৌথ পরিবার ভেঙে গেছে। এর পেছনে যৌক্তিক কারণ হলো-       (প্রয়োগ)

                র.  ভোগবাদী মানসিকতা

                রর. শিল্পায়ন

                ররর. অশিক্ষা

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১৫১.      পরিবারই কাকলির শেষ আশ্রয়স্থল। এখানে পরিবারের যে রূপটি অধিক উপযোগী-             (প্রয়োগ)

                র. পরিবারের গুরুত্ব

                রর. আবাসস্থল

                ররর. পরিবারের সাথে মানুষের সম্পর্ক

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর             র ও ররর           গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১৫২.     করিমের বাবা তার মা থাকা সত্ত্বেও আরেকটি বিয়ে করে। এক্ষেত্রে করিমের পরিবারটি হলো-            (প্রয়োগ)

                র. বহুপত্নীক পরিবার

                রর. বহুপতি পরিবার

                ররর. পিতৃতান্ত্রিক পরিবার

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক  র ও রর            র ও ররর           গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

১৫৩.     পরিবার হতে শিশু যে যে শি¶া গ্রহণ করেÑ           (অনুধাবন)

                র. সমাজকে কীভাবে নেতৃত্ব দিতে হবে সেটি শেখে

                রর. রীতিনীতি ও আচার-ব্যবহার

                ররর. নিয়মকানুন ও অভ্যাস

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

১৫৪.     পিতৃপ্রধান পরিবারের প্রধান বৈশিষ্ট্য হলো-             (অনুধাবন)

                র.   ছোট ছেলে পরিবারের প্রধান

                রর. বয়স্ক কোনো পুর“ষ পরিবারের প্রধান

                ররর. পিতা বা স্বামী পরিবারের প্রধান

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

অভিন্ন তথ্যভিত্তিক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ১৫৫ ১৫৬ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

সাগরের পরিবারে দাদা-দাদি, চাচা-চাচি, ভাইবোন একত্রে বসবাস করে। একদিন বিকেলে সাগরের বাবা পরিবারের সকল শিশু-কিশোরদের একত্রে ডেকে বললেন, তোমরা ছোটদের স্নেহ করবে, বড়দের প্রতি অনুগত থাকবে, একে অন্যকে সহযোগিতা করবে।

১৫৫.     অনুচ্ছেদে বর্ণিত পরিবারটি কোন ধরনের?             (প্রয়োগ)

                ক একপত্নীক     খ পিতৃতান্ত্রিক    গ মাতৃসূত্রীয়       যৌথ

১৫৬.    সাগরের পিতার উক্ত উপদেশ পরিবারের সদস্যদের-         (উচ্চতর দক্ষতা)

                র. সুনাগরিক করে গড়ে তুলবে

                রর.  ছেলেমেয়েদেরকে রাজনৈতিকভাবে সচেতন করবে

                ররর. শিশুদের মধ্যে দায়িত্ববোধ জাগিয়ে তুলবে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর             র ও ররর           গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

নিচের ছকটি লক্ষ করে ১৫৭ ১৫৮ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

১৫৭.     ছকটিতে কী প্রকাশ পেয়েছে?     (প্রয়োগ)

                ক পরিবারের বৈশিষ্ট্য       খ পরিবারের ধরন

                গ পরিবারের ভাঙন          পরিবারের কার্যাবলি

১৫৮.     উক্ত ছকের শিশুর লেখাপড়ায় পরিবারের স্থান দখল করেছে

                র. কিন্ডারগার্টেন

                রর. নার্সারি স্কুল   

                ররর. বিশ্ববিদ্যালয় 

                নিচের কোনটি সঠিক?   (উচ্চতর দক্ষতা)

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ১৫৯ ১৬০ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

সুধাম দাস বিয়ে করেছেন তার বর্ণের চেয়ে নিচু বর্ণের মহিলাকে। কিন্তু তার ছোট ভাই রাহুল দাস নিজ বর্ণের চেয়ে উঁচু বর্ণের এক মহিলাকে বিয়ে  করে। এখন সে নিজেকে গর্বিত মনে করে। তাদের পিতা সন্তোষ দাস মনে করেন উঁচু ও নিচু বর্ণ বলতে কোনো কথা নাই; সকল মানুষই সৃষ্টিকর্তার কাছে সমান।

১৫৯.     সুধাম দাস পাত্রপাত্রী নির্বাচনের ভিত্তিতে কোন পরিবারের সদস্য? (প্রয়োগ)

                 অনুলোম          খ প্রতিলোম        গ একক বিবাহ  ঘ বহুপত্নী

১৬০.     সুধাম দাসের মানসিকতায় সমাজে-

                র. শান্তি স্থাপিত হবে

                রর. হিংসা দূর হবে   

                ররর. বৈষম্য লোপ পাবে 

                নিচের কোনটি সঠিক?   (উচ্চতর দক্ষতা)

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ১৬১ ১৬২ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

জামানের দাদা-দাদি গ্রামে থাকেন কিন্তু জামান জন্মের পর থেকেই বাবা-মা’র সাথে শহরে বড় হয়েছে। জামানের বাবা একজন ডাক্তার হলেও জামানের ইচ্ছা সে একজন ইঞ্জিনিয়ার হবে।

১৬১.     জামানের বাবার শহরে এসে পরিবার গঠনের পেছনে কোন মনোভাব বিদ্যমান?     (প্রয়োগ)

                 অর্থনৈতিক                     খ আত্মকেন্দ্রিক

                গ অসামাজিক                  ঘ ধর্মীয়

১৬২.    উক্ত অনুচ্ছেদে গ্রাম ও শহরে পরিবার কাঠামোর উল্লেখযোগ্য দিক-

(উচ্চতর দক্ষতা)

                র. শহরে যৌথ পরিবার নেই বললেই চলে কিন্তু গ্রামে এখনও বিদ্যমান

                রর. শহরে পরিবারের সন্তানদের পেশা বাছাইয়ের স্বাধীনতা দেয়া হয়   

                ররর. বর্তমানে শহর ও গ্রামে একক পরিবারের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ  রর ও ররর       র, রর ও ররর

 পরিচ্ছেদ-১৩. ২ : সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়া

  • বিভিন্ন মাধ্যমে অভিজ্ঞতা অর্জন ও খাপ খাওয়ানোর প্রক্রিয়া হলো সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়া।         
  • আচরণগত পারস্পরিক প্রভাবের প্রতিক্রিয়াকে বলে মিথস্ক্রিয়া।
  • আচার-আচরণের সমষ্টিই হলো সমাজজীবন।
  • মূল্যবোধ আমাদের সমাজবদ্ধ জীবনের বৈশিষ্ট্য।
  • সামাজিক মূল্যবোধ হলো সাধারণ সাংস্কৃতিক আদর্শ।
  • সামাজিকীকরণের একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হলো কর্মক্ষেত্রের পরিবেশ ও অভিজ্ঞতা।
  • পিতামাতার মধ্যে সুসম্পর্ক শিশুর ব্যক্তিত্বের সুষ্ঠু বিকাশের জন্য অপরিহার্য।
  • মানুষের সৃষ্টি করা উপাদানসমূহ নিয়ে সাংস্কৃতিক পরিবেশ গঠিত।
  • এদেশের অদিকাংশ মানুষের সামাজিকীকরণ ঘটে গ্রামীণ পরিবেশে।
  • ধর্মীয় উৎসবের নানা কার্যক্রম শিশুমনে ধর্মানুভূতির পাশাপাশি ঐক্য ও সংহতি এবং সম্প্রীতির শিক্ষা দেয়।

সাধারণ বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

১৬৩.    মানুষের সমাজজীবন কীভাবে নিয়ন্ত্রিত হয়?         (অনুধাবন)

                 আচার-আচরণ দ্বারা     খ সামাজিক মূল্যবোধ দ্বারা

                গ ধর্মীয় শিক্ষা দ্বারা          ঘ নীতি শিক্ষা দ্বারা

১৬৪.     মিনহাজ সাহেব সমাজের একজন দায়িত্বশীল ও ব্যক্তিত্বপূর্ণ মানুষ হিসেবে পরিচিত। তার ক্ষেত্রে কোনটি ঘটেছে? (প্রয়োগ)

                ক ধর্মীয় নিয়মনীতি অনুসরণ        সুষ্ঠু সামাজিকীকরণ

                গ রাষ্ট্রীয় বিধান সঠিকভাবে পালন             ঘ সামাজিক নীতি অনুসরণ

১৬৫.    সামাজিকীকরণ কী?        (জ্ঞান)

                 একটি প্রক্রিয়া                খ একটি পদ্ধতি

                গ একটি ধারণা   ঘ বৈশিষ্ট্য

১৬৬.    মানবশিশু বিভিন্ন অভিজ্ঞতা অর্জন করে সমাজের সাথে খাপখাইয়ে চলতে শেখে। উক্তিটিতে কী বোঝানো হয়েছে? (প্রয়োগ)

                 সামাজিকীকরণ             খ শিশুর অভিজ্ঞতা অর্জন

                গ সবার সাথে চলতে শেখা             ঘ সমাজে বড় হওয়া

১৬৭.     মানুষের আচরণের পারস্পরিক প্রভাবের প্রতিক্রিয়াকে কী বলে?   (প্রয়োগ)

                ক মূল্যবোধ         খ সংস্কৃতি             গ নৈতিকতা        মিথস্ক্রিয়া

১৬৮.    সামাজিকীকরণের উপাদান কয়টি?          (জ্ঞান)

                ক ২        ৩         গ ৪        ঘ ৫

১৬৯.     মানুষ বিকশিত হয় কোথায়?        (জ্ঞান)

                ক পারিবারিক পরিবেশে                 খ সাংস্কৃতিক পরিবেশে

                 সামাজিক পরিবেশে     ঘ অর্থনৈতিক পরিবেশে

১৭০.      কোনটি সামাজিক পরিবেশের অংশ?       (জ্ঞান)

                ক পরিবারিক পরিবেশ    খ উৎপাদন ব্যবস্থা

                গ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান               অর্থনৈতিক পরিবেশ

১৭১.      অর্থনৈতিক পরিবেশের উপাদান কোনটি?              (জ্ঞান)

                 জমিজমা         খ পরিবার            গ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান              ঘ ঘরবাড়ি

১৭২.     সাংস্কৃতিক পরিবেশের অন্তর্ভুক্ত কোনটি?               (অনুধাবন)

                ক জমিজমা         ঘরবাড়ি             গ বাগান               ঘ বাজার

১৭৩.     যান্ত্রিক সভ্যতা বিকাশের পারিপার্শ্বিক অবস্থাকে কী বলা হয়?          (জ্ঞান)

                 প্রযুক্তিগত পরিবেশ     খ সামাজিক পরিবেশ

                গ উন্নত পরিবেশ              ঘ অর্থনৈতিক পরিবেশ

১৭৪.     কোনটির মাধ্যমে সমাজ-সংস্কৃতির বিভিন্ন বিষয় মানুষের মধ্যে সঞ্চারিত হয়?          (জ্ঞান)

                ক পরিবারের      খ সামাজিকীকরণের

                 ভাষার               ঘ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের

১৭৫.     মানুষ কোথা থেকে মূল্যবোধ অর্জন করে?             (জ্ঞান)

                 সমাজ               খ পরিবার            গ বিদ্যালয়          ঘ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান

১৭৬.     গোষ্ঠীবদ্ধ মানুষের সামাজিক মূল্যবোধের পরিচয় পাওয়া যায় কিসের মাধ্যমে?       (অনুধাবন)

                ক আচার-ব্যবহারের মাধ্যমে        খ সমাজ ব্যবস্থার মাধ্যমে

                 জীবনধারার মাধ্যমে    ঘ ভাষার মাধ্যমে

১৭৭.     সামাজিক মূল্যবোধ কী? (জ্ঞান)

                ক পারিবারিক আদর্শ       সাংস্কৃতিক আদর্শ

                গ ব্যক্তিগত আদর্শ           ঘ অথনৈতিক আদর্শ

১৭৮.     কিভাবে শিশুর আচরণে পরিবর্তন আসে?               (অনুধাবন)

                ক নতুন পরিস্থিতিতে        সামাজিকীকরণের ফলে

                গ নীতিশিক্ষার ফলে        ঘ ধর্মীয় শিক্ষার ফলে

১৭৯.     শিশুর সবচেয়ে কাছের মানুষ কে?             (জ্ঞান)

                 বাবা-মা             খ সহপাঠী           গ প্রতিবেশী        ঘ খেলার সাথী

১৮০.     জন্মের পর মানবশিশু প্রথম কার সংস্পর্শে আসে?              (জ্ঞান)

                 মায়ের               খ বাবার                গ বোনের             ঘ দাদির 

১৮১.      শিশুর ভাষা শিক্ষার প্রথম মাধ্যম কে?       (অনুধাবন)

                 মা        খ বাবা

                গ বিদ্যালয়          ঘ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান 

১৮২.     শিশু সমাজ থেকে কী শেখে?       (জ্ঞান)

                ক ধর্ম    খ পড়ালেখা         রীতিনীতি         ঘ কথা বলা 

১৮৩.     জ্ঞাতি গোষ্ঠীর সদস্যদের পরস্পর সম্পর্ক কীরূপে নির্ণীত হয়?       (অনুধাবন)

                ক অর্থনৈতিক সম্পর্কে  খ ধর্মের সম্পর্কে

                 রক্তের সম্পর্কে              ঘ কর্মের সম্পর্কে

১৮৪.     নিজ পরিবার ব্যতীত যাদের সাথে রক্তের সম্পর্ক রয়েছে তাদেরকে কী বলা হয়?      (জ্ঞান)

                ক প্রতিবেশী        খ সহপাঠী            জ্ঞাতি গোষ্ঠী    ঘ অন্তরঙ্গ বন্ধু

১৮৫.     শিশু পরিবারের বাইরে আর কোথা থেকে অভিজ্ঞতা অর্জন করে? (জ্ঞান)

                ক শহর  প্রতিবেশী         গ গ্রাম   ঘ টিভি দেখে 

১৮৬.     সুখ-দুঃখের প্রথম অংশীদার কে?                (জ্ঞান)

                ক সমাজ             খ পরিবার            গ সহপাঠী            প্রতিবেশী

১৮৭.     ভালো কাজের জন্য প্রয়োজন ভালো প্রতিবেশী। উক্তিটি বলার পেছনে যৌক্তিক কারণ কোনটি?       (উচ্চতর দক্ষতা)

                ক ভালো কাজে উৎসাহ দান

                 সমাজস্বীকৃত আচরণে শিক্ষা দান

                গ সম্প্রীতিবোধ

                ঘ শ্রদ্ধাবোধ 

১৮৮.     কোথায় শিশুর ভূমিকা ও নেতৃত্ব নিয়ন্ত্রিত হয়?     (জ্ঞান)

                ক পরিবারে         খ  খেলার মাঠে

                গ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে             বিদ্যালয়ে

১৮৯.     শান্ত পড়ালেখা ও খেলাধুলা দুটোতেই সমান পারদর্শী, তার মধ্যে কোন লক্ষণ দেখা যায়?      (উচ্চতর দক্ষতা)

                ক বদরাগী ও বখাটের লক্ষণ পরিস্ফুট হচ্ছে

                 নেতৃত্ব ও আত্মনির্ভরশীল গুণের প্রকাশ ঘটছে

                গ বাবা-মা’র অবাধ্য হচ্ছে

                ঘ মূল্যবোধের অবক্ষয় ঘটেছে

১৯০.     বিদ্যালয়ের সাথে শিক্ষার্থীর সম্পর্ক কেমন?           (অনুধাবন)

                ক বন্ধুত্বমূলক     গভীর

                গ বাধ্যবাধকতামূলক      ঘ সহযোগিতামূলক

১৯১.      বন্ধুবান্ধবের সাথে আমাদের সম্পর্ক কীরূপ?         (জ্ঞান)

                ক বাধ্যবাধকতার              খ মর্যাদাপূর্ণ

                 সহযোগিতার  ঘ সৌহার্দের

১৯২.     শিশুর সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে কিসের গুরুত্ব অপরিসীম? (অনুধাবন)

                ক প্রতিবেশীর    খ গণমাধ্যমের

                 বিদ্যালয়ের      ঘ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের

১৯৩.     সাংস্কৃতিক জীবনের বিভিন্ন বিষয়ের জ্ঞান শিশু-কিশোররা কোথা থেকে অর্জন করে?            (জ্ঞান)

                ক বিদ্যালয়         খ পরিবার

                গ সহপাঠী            অন্তরঙ্গ বন্ধুদল

১৯৪.     ‘অন্তরঙ্গ বন্ধুদল’ এর ইংরেজি প্রতিশব্দ কোনটি? (জ্ঞান)

                ক চবধৎ মৎড়ঁঢ়                খ চধরৎ মৎড়ঁঢ়

                গ চববঢ়রহম মৎড়ঁঢ়        চববৎ মৎড়ঁঢ়

১৯৫.     জাহিদের সাহিত্য ক্লাবটি বিভিন্ন  সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার আয়োজন করে থাকে। তার ক্লাবটি কিসের অন্তর্ভুক্ত?                (প্রয়োগ)

                ক ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান              খ সম্প্রদায়

                গ গণমাধ্যম        স্থানীয় গোষ্ঠী

১৯৬.     গির্জা কাদের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান?      (অনুধাবন)

                ক বৌদ্ধদের         খ্রিষ্টানদের        গ হিন্দুদের          ঘ মুসলমানদের

১৯৭.     ইসলাম ধর্মের বৃহত্তর ধর্মীয় উৎসব কয়টি?             (জ্ঞান)

                ক একটি               দুটি     গ তিনটি              ঘ চারটি

১৯৮.     ধর্মীয় উৎসব শিশুমনে কিসের সৃষ্টি করে?               (জ্ঞান)

                ক সংস্কৃতি             সম্প্রীতি            গ  গোঁড়ামি         ঘ কুসংস্কার

১৯৯.     কোনটি মানুষের বিভিন্ন সেবামূলক কাজে অনুপ্রাণিত করে?           (জ্ঞান)

                ক গণমাধ্যম       খ স্থানীয় গোষ্ঠী

                 ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান               ঘ স্থানীয় সমাজ

২০০.     কোনটি শিশুর বাহ্যিক আচার ব্যবহার সংযত, বিবেকবোধ জাগ্রত  নৈতিকতা বিকাশে সহায়তা করে?                (জ্ঞান)

                 ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান               খ স্থানীয় গোষ্ঠী

                গ বিদ্যালয়          ঘ চলচ্চিত্র

২০১.     কোনটি ব্যক্তির বিবেকবোধ ও চেতনাকে জাগ্রত করে?      (জ্ঞান)

                ক স্থানীয় সমাজ                  ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান

                গ সহপাঠী           ঘ গণমাধ্যম

২০২.     কোনটি মনের সংকীর্ণতা দূর করে?           (জ্ঞান)

                ক বিনোদন         খ সংস্কৃতির শিক্ষা

                 সম্প্রীতির শিক্ষা            ঘ রাজনৈতিক শিক্ষা

২০৩.    মানবীয় গুণাবলি কীভাবে বিকশিত হয়? (অনুধাবন)

                ক ঘরোয়া পরিবেশে         খ সভ্য সমাজে

                 উন্নত সাংস্কৃতিক পরিবেশে        ঘ যান্ত্রিক পরিবেশে

২০৪.     শিশু-কিশোরের মনের খোরাক মেটায় কোনটি?   (অনুধাবন)

                ক গান-বাজনা  খ  খেলাধুলা

                 ইতিহাস ঐতিহ্য             ঘ নাটক 

২০৫.    কিসের মাধ্যমে শিশু জীবজগৎ সম্পর্কে বৈজ্ঞানিক ধ্যানধারণায় অনুপ্রাণিত হয়?  (জ্ঞান)

                 সংবাদপত্রের  খ  খেলার সাথি

                গ বিদ্যালয়                          ঘ  প্রতিবেশী

২০৬.    আমাদের জীবনে শিক্ষা ও আনন্দ দান করে কোনটি?        (জ্ঞান)

                ক রাজনৈতিক সংগঠন                  খ সহপাঠী

                গ প্রতিবেশী         বেতার

২০৭.     কোন চলচ্চিত্রের অনেক চরিত্র ব্যক্তির আচরণকে প্রভাবিত করে?              (জ্ঞান)

                ক প্রামাণ্য চলচ্চিত্র          খ বাণিজ্যিক চলচ্চিত্র

                 গঠনমূলক সামাজিক চলচ্চিত্র ঘ  ভৌতিক চলচ্চিত্র

২০৮.    গ্রাম ও শহর সমাজ মিলে বাংলাদেশে কী গড়ে উঠেছে?    (প্রয়োগ)

                ক  যৌথ পরিবার কাঠামো             খ গ্রামীণ সমাজকাঠামো

                গ শহুরে সমাজ কাঠামো                বৃহত্তর সমাজকাঠামো

২০৯.     সমাজ কাঠামোর বিশেষ বৈশিষ্ট্য কোনটি?              (অনুধাবন)

                 রক্ষণশীলতা                    খ শিক্ষা

                গ মূল্যবোধ                         ঘ আচরণ

২১০.     শহর সমাজ কাঠামোর বৈশিষ্ট্য কোনটি? (অনুধাবন)

                ক রক্ষণশীলতা  খ মূল্যবোধ

                গ যৌথ পরিবার  শিল্পভিত্তিক অর্থনীতি

২১১.      কোনটি বাংলাদেশের শহর সমাজকাঠামার বৈশিষ্ট্য?          (জ্ঞান)

                ক জীবনযাত্রায় লোকাচারের প্রভাব খ রক্ষণশীলতা

                 জটিল সমাজজীবন     ঘ  যৌথ পরিবার কাঠামো

২১২.     কোন সমাজে প্রতিবেশীর সম্পর্ক অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ হয়?         (জ্ঞান)

                ক কৃষি সমাজে                  খ শহুরে সমাজে

                গ শিল্প সমাজে    গ্রামীণ সমাজে

২১৩.     কোথায় বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষের সামাজিকীকরণ ঘটে?   (জ্ঞান)

                ক শহুরে পরিবেশে            গ্রামীণ পরিবেশে

                গ পাহাড়ি পরিবেশে         ঘ অর্থনৈতিক পরিবেশে

২১৪.     শহরের তুলনায় গ্রামের বন্ধুদের সাথে সম্পর্ক কীরূপ?       (অনুধাবন)

                ক বাধ্যবাধকতামূলক     খ  সৌহার্দমূলক

                গ সহযোগিতামূলক         স্বতঃস্ফূর্ত ও আন্তরিক

২১৫.     পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা, একক ও যৌথ পরিবার কাঠামো গড়ে উঠেছে। এর মাধ্যমে কোন বিষয়টি ফুটে উঠেছে?    (প্রয়োগ)

                ক সমাজ কাঠামোর বৈশিষ্ট্য         খ পরিবার কাঠামোর বৈশিষ্ট্য

                 গ্রাম্যসমাজ কাঠামোর বৈশিষ্ট্য ঘ শহুরে পরিবার কাঠামো

২১৬.     শিশু কেন জেদি হয়?      (অনুধাবন)

                ক রাগের ফলে    মূল্যবোধের অভাবে

                গ নীতিশিক্ষার অভাবে   ঘ পিতামাতার আচরণে

বহুপদী সমাপ্তিসূচক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

২১৭.     শিশু সামাজিক মানুষে পরিণত হয়         (অনুধাবন)

                র. সমাজে বিভিন্ন বিষয় থেকে অভিজ্ঞতা অর্জন করে

                রর. সামাজিকীকরণের মাধ্যমে   

                ররর. সবার সাথে মিশে 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

২১৮.     সামাজিকীকরণ বলতে আমরা বুঝি-         (অনুধাবন)

                র. একটি জীবনব্যাপী প্রক্রিয়াকে

                রর. নতুন পরিবেশে নিজেকে অভিযোজনের কৌশল   

                ররর. একজন পরিপূর্ণ সামাজিক মানুষ হওয়ার প্রক্রিয়া 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

২১৯.     সামাজিক পরিবেশের প্রভাব রয়েছে মানুষেরÑ     (অনুধাবন)

                র.  রাজনৈতিক জীবনের ওপর

                রর.  নৈতিক জীবনের ওপর

                ররর. মানসিক জীবনের ওপর 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

২২০.     উন্নত সাংস্কৃতিক পরিবেশে মানুষের-        (অনুধাবন)

                র. মানবিক গুণাবলি বিকশিত হয়

                রর. আচার-আচরণ উন্নত হয়   

                ররর. মনের প্রসারতা বাড়ে 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর             র ও ররর           গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

২২১.     সামাজিক মূল্যবোধ প্রতিভাত হয় ব্যক্তির             (অনুধাবন)

                র. চিন্তা-চেতনার মধ্য দিয়ে

                রর. আচার-ব্যবহারের মধ্য দিয়ে   

                ররর.   নৈতিকতার মধ্য দিয়ে 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

২২২.     পরিবারের মধ্যেই সূচনা হয়-        (প্রয়োগ)

                র. সামাজিক মূল্যবোধের

                রর. সামাজিক নীতিবোধের   

                ররর. নাগরিক চেতনার 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

২২৩.    শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভূমিকা হলো-   (অনুধাবন)

                র. ব্যক্তির মনে দায়িত্ববোধ ও সামাজিক চেতনা সৃষ্টি করা

                রর. ব্যক্তিকে সংস্কৃতি জ্ঞান দান করা   

                ররর. শিশুকে প্রহার করা 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

২২৪.     সজীব বন্ধুদের কাছ থেকে সহমর্মিতা, নেতৃত্ব প্রভৃতি শিখেছে। এখানে যেটি সমর্থন করে-    (প্রয়োগ)

                র. বন্ধুদের উদ্দেশ্য

                রর. নীতিশিক্ষা   

                ররর. বন্ধুদের ভূমিকা 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

২২৫.    অনিক তার অন্তরঙ্গ বন্ধু চিন্ময়ের  কাছ থেকে নানা বিষয়ে জ্ঞান লাভ করে থাকে। বন্ধুত্বের ফলে-   (উচ্চতর দক্ষতা)

                র. সামাজিক মূল্যবোধ বৃদ্ধি পায়

                রর. মানসিক দ্বন্দ্ব নিরসন কৌশল বৃদ্ধি পায়   

                ররর. শারীরিক স্বাস্থ্য বিকশিত হয় 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

২২৬.    শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সামাজিকীকরণে সহায়ক ভূমিকা পালন করে-        (অনুধাবন)

                র. ব্যক্তির মনে দায়িত্ববোধ সৃষ্টির মাধ্যমে

                রর. মানুষকে শিক্ষাদান করার মাধ্যমে   

                ররর. শিশুর মনে মূল্যবোধ সৃষ্টির মাধ্যমে 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

২২৭.     শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হতে শিশু গ্রহণ করে-         (অনুধাবন)

                র. সামাজিক কর্তব্যপরায়ণতা

                রর. সামাজিক চেতনাবোধ   

                ররর. সাংস্কৃতিক জ্ঞান 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

২২৮.    সমাজে বসবাস করতে হলে       (অনুধাবন)

                র. দায়িত্ব-কর্তব্য

                রর. আচার-আচরণ

                ররর. সামাজিক আদর্শ

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

২২৯.     মানুষের জীবনে সামাজিক পরিবেশের প্রভাব পড়ে-           (অনুুধাবন)

                র. অর্থনৈতিক দিক দিয়ে

                রর. নৈতিকতার দিক দিয়ে

                ররর. মানবিক দিক দিয়ে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           রর ও ররর        ঘ র, রর ও ররর

২৩০.    শিশুর ব্যক্তিত্ব নির্ভর করে-           (অনুধাবন)

                র. পিতামাতার মধ্যে সম্পর্কের ওপর

                রর. পরিবারের শিশুদের সম্পর্কের ওপর

                ররর. পিতামাতা ও শিশুর মধ্যে সম্পর্কের ওপর

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

২৩১.     টেলিভিশনে শিশুদের জন্য মীনা কার্টুনের সাথে একটি অনুষ্ঠান প্রচার করা হয়। এ অনুষ্ঠানটি হলো-                (প্রয়োগ)

                র. শিক্ষামূলক

                রর. সচেতনতামূলক   

                ররর. বিনোদনমূলক 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর          গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

২৩২.    বাংলাদেশ টেলিভিশনে বিভিন্ন গঠনমূলক অনুষ্ঠান প্রচারিত হয়। এ অনুষ্ঠানের ফলে ব্যক্তির জীবনে-                (উচ্চতর দক্ষতা)

                র. সচেতনতা বৃদ্ধি পায়

                রর. মানসিক স্বাস্থ্য বিকশিত হয়   

                ররর.  সামাজিক মূল্যবোধ বৃদ্ধি পায় 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

২৩৩.    জীবনে জ্ঞাতি গোষ্ঠীর প্রয়োজন- (অনুুধাবন)

                র. সামাজিক হওয়ার জন্য

                রর. আচরণ শেখার জন্য

                ররর. জীবনের সুষ্ঠু বিকাশের জন্য

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক র ও রর            খ র ও ররর           র ও ররর           ঘ র, রর ও ররর

২৩৪.    প্রত্যেক ধর্মের মৌলিক নির্দেশনা হলো-   (অনুধাবন)

                র. সত্য ও ন্যায়ের বাণী

                রর. ভালোবাসা ও সহনশীলতা

                ররর. বীরত্ব প্রদর্শন

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                ক রও রর           খ র ও রর             গ রর ও ররর        র, রর ও ররর

২৩৫.    বেতার সামাজিকীকরণে ভূমিকা পালন করে       (প্রয়োগ)

                র. বিনোদনমূলক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে      

                রর. শি¶ামূলক অনুষ্ঠান প্রচারের মাধ্যমে

                ররর. কৌতূহলমূলক অনুষ্ঠান প্রচারের মাধ্যমে

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

অভিন্ন তথ্যভিত্তিক বহুনির্বাচনি প্রশ্নোত্তর

অনুচ্ছেদটি পড়ে ২৩৬ ২৩৭ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

পার্থ-৬ বছরের একটি শিশু। পার্থকে তার পরিবার বাসায় নানাভাবে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার জন্য চেষ্টা করার পাশাপাশি পার্শ্ববর্তী স্কুলে ভর্তি করে দেয়।

২৩৬.    অনুচ্ছেদে উক্ত স্কুলে ভর্তি করানোর ফলে শিশুটির কী পরিবর্তন ঘটবে?

                                (উচ্চতর দক্ষতা)

                ক ন্যায়পরায়ণ হবে         খ ধর্মীয় শিক্ষা পাবে

                গ সহানুভূতিশীল হবে       সামাজিক চেতনা বাড়বে

২৩৭.    অনুচ্ছেদে সামাজিকীকরণের যে উপাদানের ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে তা হলো-            (প্রয়োগ)

                র. পরিবার           রর. বিদ্যালয়      ররর.  খেলার সাথি 

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

নিচের ছকটি লক্ষ করে ২৩৮ ২৩৯ নং প্রশ্নের উত্তর দাও :

২৩৮.    ছকটিতে প্রকাশ পেয়েছেÑ           (প্রয়োগ)

                 পরিবারের কার্যাবলি     খ পরিবারের বৈশিষ্ট্য

                গ পরিবারের নীতি            ঘ পরিবারের ধরন

২৩৯.    উক্ত ছকের শিশুর লেখাপড়ায় পরিবারের স্থান দখল করেছেÑ        (উচ্চতর দক্ষতা)

                র. কিন্ডারগার্টেন               রর. নার্সারি স্কুল

                ররর. বিশ্ববিদ্যালয়

                নিচের কোনটি সঠিক?  

                 র ও রর              খ র ও ররর          গ রর ও ররর       ঘ র, রর ও ররর

গুরুত্বপূর্ণ সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন- ১  পরিবারের প্রকারভেদ 

কবির সাহেব তার বিবাহিত দুই ছেলে ও তাদের স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে একই পরিবারে বসবাস করছেন। অন্যদিকে তার প্রতিবেশী হান্নান সাহেব স্ত্রীসহ অবিবাহিত তিন ছেলেকে নিয়ে বসবাস করছেন। পারিবারিক বিভিন্ন কাজে তারা প্রায়ই ব্যস্ত থাকেন।

 ক.সামাজিকীকরণের ব্যাপ্তি কত?             ১

খ.সামাজিকীকরণের উপাদান হিসেবে মূল্যবোধের ব্যাখ্যা দাও।     ২

গ.কবির সাহেবের পরিবারটিকে যৌথ পরিবারের পাশাপাশি বর্ধিত পরিবারও বলা যায় ব্যাখ্যা কর। ৩

ঘ.পরিবার দুটির সুবিধা-অসুবিধার একটি তুলনামূলক চিত্র বিশ্লেষণ কর।    ৪

 ক            সামাজিকীকরণ একটি জীবনব্যাপী প্রক্রিয়া।

 খ           মূল্যবোধ আমাদের সমাজবদ্ধ জীবনের বৈশিষ্ট্য। মানুষের জীবনধারার মান পরিমাপ করা যায় এ মূল্যবোধের মাধ্যমে। মূল্যবোধ অনুশীলনের মাধ্যমেই সামাজিক বিধিব্যবস্থা, আচারব্যবহার ও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ ব্যক্তি আচরণে স্পষ্ট হয়ে ওঠে। সামাজিক মূল্যবোধ হলো সাধারণ সাংস্কৃতিক আদর্শ। এ আদর্শের দ্বারা সমাজের মানুষের মনোভাব, প্রয়োজন ও ভালোমন্দের নীতিগত দিক যাচাই করা যায়।

 গ  উদ্দীপকে কবির সাহেবের পরিবারটিকে যৌথ পরিবারের পাশাপাশি বর্ধিত পরিবারও বলা যায়। যৌথ পরিবারে বিবাহিত পুত্র ও তার সন্তানাদিসহ পিতামাতার কর্তৃত্বাধীনে এক সংসারে বসবাস করে। একক পরিবারের মতো যৌথ পরিবারের বন্ধনও মূলত রক্তের সম্পর্কের মাধ্যমে গড়ে ওঠে। একসময়ে আমাদের দেশের গ্রামাঞ্চলে অধিকাংশ পরিবারই যৌথ পরিবার ছিল। এখন এ ধরনের পরিবারের সংখ্যা নানা কারণে হ্রাস পেয়েছে। পিতামাতা এবং তাদের সন্তান-সন্তুতি ও স্ত্রী পরিজন নিয়ে গঠিত পরিবারই বর্ধিত পরিবার। অর্থাৎ তিন পুরুষের পারিবারিক বন্ধনের পরিবারই বর্ধিত পরিবার। আমাদের দেশের গ্রামীণ কৃষি সমাজে এ ধরনের পরিবার এখনও দেখা যায়। উদ্দীপকের কবির সাহেব তার বিবাহিত দুই ছেলে ও তাদের স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে একই পরিবারে বসবাস করছেন। কাজেই কবির সাহেবের পরিবারটি যৌথ পরিবারের পাশাপাশি বর্ধিত পরিবারও বলা যায়।

 ঘ  উদ্দীপকের কবির সাহেবের পরিবারটি যৌথ পরিবার এবং হান্নান সাহেবের পরিবারটি হলো একক পরিবার। সাধারণত যৌথ পরিবারে বিবাহিত পুত্র ও তাদের সন্তানাদিসহ পিতামাতার কর্তৃত্বাধীনে এক সংসারে বাস করে। অন্যদিকে স্বামী, স্ত্রী ও তাদের অবিবাহিত সন্তান-সন্ততি নিয়ে একক পরিবার গঠিত। এক সময়ে আমাদের দেশের গ্রামাঞ্চলের অধিকাংশ পরিবারই ছিল যৌথ পরিবার। এ ধরনের পরিবারে অর্থনৈতিক কাজকর্মসহ পরিবারের যাবতীয় কাজকর্ম পরিবারের সদস্যবৃন্দ পারস্পরিক সহযোগিতা ও সহমর্মিতার মন নিয়ে সম্পাদন করেন। দায়িত্ব ও কর্তব্যগুলো বণ্টিত হয় লিঙ্গ, বয়স এবং পারদর্শিতার ভিত্তিতে। যৌথ পরিবারে বয়স্ক সদস্যবৃন্দ এক বিশেষ মর্যাদা এবং বার্ধক্যের দ্বারপ্রান্তে তারা বিশেষ সেবাযত্ন লাভ করেন। তবে  এ ধরনের পরিবারের ক্ষেত্রে অন্যতম অসুবিধা হলো, পরিবারের সদস্য সংখ্যা বেশি হওয়ার কারণে পরিবারের সদস্যদের মৌল মানবিক চাহিদা পূরণ হয় না। অন্যদিকে একক পরিবারের সদস্যগণকে বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত থাকতে দেখা যায়। যেমনটি উদ্দীপকের হান্নান সাহেবের পরিবারে দেখা যায়। মূলত এ ধরনের পরিবারের এক একজন সদস্য এক এক কর্মে দক্ষতার অধিকারী। এক্ষেত্রে প্রত্যেক্যের একটা নিজস্ব দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে। একক পরিবারে অন্যতম প্রধান অসুবিধা হলো বয়স্করা  তেমন কোনো সেবাযত্ন লাভ করে না। সুতরাং দেখা যাচ্ছে যে, একক ও যৌথ উভয় ধরনের পরিবারে সুবিধা ও অসুবিধা রয়েছে।

প্রশ্ন- ২  সামাজিকীকরণে পরিবার গণমাধ্যমের ভূমিকা  

মীম ও মাহিন এর বাবা-মা চাকরিজীবী। ছুটির দিনে তারা সবাই মিলে বেড়াতে যায়। তাদের আচরণ সকলের কাছে প্রশংসনীয়। দুজনেই বিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থী হিসেবে পরিচিত। পড়াশোনার ফাঁকে ফাঁকে তারা পত্রিকা পড়ে, শিক্ষামূলক অনুষ্ঠান, নাটক ইত্যাদি দেখে।

 ক.কীসের মাধ্যমে মানুষ সমাজের একজন দায়িত্বশীল সদস্যে পরিণত হয়?           ১

খ.‘মিথস্ক্রিয়া’ ধারণাটি ব্যাখ্যা কর।              ২

গ.উদ্দীপকের প্রথম অংশটি সামাজিকীকরণের কোন মাধ্যমকে নির্দেশ করে? ব্যাখ্যা কর। ৩

ঘ.উদ্দীপকের দ্বিতীয় অংশকে কেন্দ্র করে আধুনিক যুগের সংস্কৃতি গড়ে উঠেছে মন্তব্যটি বিশ্লেষণ কর।     ৪

 ক          সামাজিকীকরণের মাধ্যমে মানুষ সমাজের একজন দায়িত্বশীল সদস্যে পরিণত হয়।

 খ  সমাজে মানুষ একে অন্যের দ্বারা প্রভাবিত হওয়া এবং মানুষের আচরণগত বৈচিত্র্যের পারস্পরিক ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়াকে মিথস্ক্রিয়া বলে। মূলত সমাজ জীবনের মূল বিষয় হলো মিথস্ক্রিয়া। ব্যক্তির সামাজিকীকরণ, সামাজিক পরিবেশ, সমাজ জীবন ও সামাজিক মূল্যবোধের পারস্পরিক ক্রিয়া প্রতিক্রিয়ার অর্থাৎ সামাজিক মিথস্ক্রিয়ার মাধ্যমে ঘটে।

 গ  উদ্দীপকের প্রথম অংশটি সামাজিকীকরণের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম পরিবারকে নির্দেশ করে। পরিবারের মধ্যেই সামাজিকীকরণের ক্ষেত্র প্রস্তুত থাকে শিশুর জন্মের আগ থেকেই। এখানেই শিশুর সামাজিক নীতিবোধ ও নাগরিক চেতনার সূচনা হয়। সহযোগিতা, সহিষ্ণুতা, সম্প্রীতি, ভ্রাতৃত্ববোধ, ত্যাগ, ভালোবাসা প্রভৃতি গুণগুলো শিশু পরিবারের মধ্য থেকেই অর্জন করে। পরিবারের মধ্যে প্রধান যে বিষয়টি শিশুর সামাজিকীকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে তা হলো মা-বাবার মধ্যকার সম্পর্ক। মাবাবার মধ্যে সুসম্পর্ক শিশুর ব্যক্তিত্বের সুষ্ঠু বিকাশের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। মা-বাবার মধ্যে সুসম্পর্ক থাকলে শিশুর আত্মধারণা সমৃদ্ধ ও ব্যক্তিত্ব সুন্দর হয়; যেমনটি উদ্দীপকে চাকরিজীবী দম্পতি মীম ও মাহিনের মা-বাবার ক্ষেত্রে দেখা যায়। মীম ও মাহিনের মা-বাবার সুসম্পর্কের কারণে তাদের আচরণ সকলের কাছে প্রশংসনীয় এবং দুজনেই বিদ্যালয়ে মেধাবী শিক্ষার্থী হিসাবে পরিচিতি লাভ করেছে, যা মূলত সামাজিকীকরণের গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম পরিবারের প্রভাবকেই নির্দেশ করে।

 ঘ  উদ্দীপকের দ্বিতীয় অংশে সামাজিকীকরণের গুরুত্বপূর্ণ একটি মাধ্যম গণ মাধ্যমের ভূমিকা তুলে ধরা হয়েছে। বৃহৎ জনগোষ্ঠীর নিকট সংবাদ, দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতির বিষয়বস্তু, বিশেষ ধ্যান-ধারণা, বিনোদন প্রভৃতি পরিবেশন করার মাধ্যমই হলো গণমাধ্যম। আধুনিক যুগের সংস্কৃতি গণমাধ্যমকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে; যার প্রতিচ্ছবি উদ্দীপকের দ্বিতীয় অংশ তুলে ধরা হয়েছে। গণমাধ্যমগুলোতে প্রচারিত বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও সংবাদ শিশু কিশোরদের সামাজিকীকরণে তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বিশেষ করে টেলিভিশনে প্রচারিত ও বিভিন্ন গঠনমূলক অনুষ্ঠান ব্যক্তির জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যক্তির সচেতনতা বৃদ্ধি পায়। সে বিজ্ঞানমনস্ক হয় এবং তার মানসিক স্বাস্থ্য বিকশিত হয়। সামাজিক ও জীবনভিত্তিক চলচিত্র ব্যক্তির ব্যক্তিত্বে গভীর প্রভাব ফেলে। বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে শিক্ষা দেয়। সুতরাং উপর্যুক্ত আলোচনার প্রেক্ষিতে বলা যায় যে, উদ্দীপকের দ্বিতীয় অংশ অর্থাৎ গণমাধ্যমকে কেন্দ্র করে আধুনিক যুগের সংস্কৃতি গড়ে উঠেছে মন্তব্যটি সঠিক।

প্রশ্ন- পরিবারের প্রকারভেদ 

বৃদ্ধ হারিস মিয়া পরিবার সম্পর্কে নাতিদের বলেন, “এক সময় আমাদের গ্রামীণ সমাজে একটি বিশেষ ধরনের পরিবারের সংখ্যা অনেক ছিল। কিন্তু আজ সে ব্যবস্থা ভেঙে গ্রাম ও শহরে একক পরিবারের আধিক্য বিস্তার লাভ করেছে।” তিনি আরো বলেন, “পরিবারের ধরনের পরিবর্তনের সাথে এর ভূমিকারও পরিবর্তন ঘটেছে।”

 ক.সমাজের সবচেয়ে আদি প্রতিষ্ঠান কোনটি?     ১

খ.পরিবারকে উৎপাদনের একক বলা হয় কেন?   ২

গ.উদ্দীপকে হারিস মিয়া একটি বিশেষ ধরনের পরিবার বলতে যা বুঝিয়েছেন, তা ব্যাখ্যা কর।            ৩

ঘ.‘পরিবারের ধরনের পরিবর্তনের সাথে এর ভূমিকারও পরিবর্তন ঘটেছে’Ñ হারিস মিয়ার এ উক্তির সাথে তুমি কি একমত? তোমার মতের সপক্ষে যুক্তি দাও।               ৪

 ক          সমাজের সবচেয়ে আদি প্রতিষ্ঠান হলো পরিবার।

 খ           পরিবার ছিল এক সময়ের অর্থনৈতিক কার্যকলাপের মূল কেন্দ্রস্থল। এক সময় পরিবারের যাবতীয় প্রয়োজনীয় বস্তুগুলো গৃহেই উৎপাদিত হতো। পরিবারগুলো ছিল অর্থনৈতিকভাবে সবল। ঐ সময় পরিবারকে বলা হতো উৎপাদন ব্যবস্থার প্রধান একক। গ্রামীণ যৌথ পরিবারের মধ্যে এই সব অর্থনৈতিক কর্মকাÊ সম্পাদিত হতো।

 গ  উদ্দীপকে হারিস মিয়া একটি বিশেষ ধরনের পরিবার বলতে যা বুঝিয়েছেন তা হলো যৌথ পরিবার। যৌথ পরিবারে বিবাহিত পুত্র ও তার সন্তানাদিসহ পিতামাতার কর্তৃত্বাধীন এক সংসারে বাস করে। একক পরিবারের মতো যৌথ পরিবারের বন্ধনও মূলত রক্তের সম্পর্কের মাধ্যমে গড়ে ওঠে। এক সময়ে আমাদের দেশের গ্রামাঞ্চলের অধিকাংশ পরিবারই যৌথ পরিবার ছিল; যার প্রমাণ উদ্দীপকে উল্লিখিত হারিস মিয়ার বক্তব্যে পাওয়া যায়। এ ধরনের পরিবারের সংখ্যা বিভিন্ন কারণে হ্রাস পেয়েছে। মূলত পিতামাতা এবং তাদের সন্তানসন্ততি ও স্ত্রী পরিজন নিয়ে গঠিত পরিবারই যৌথ পরিবার অর্থাৎ ভিন্ন পুরুষের পারিবারিক বন্ধনের পরিবারই যৌথ পরিবার। আমাদের দেশের গ্রামীণ কৃষি সমাজে এখনো এ ধরনের পরিবার কদাচিৎ দেখা যায়। সুতরাং বলা যায় যে, উদ্দীপকের হারিস মিয়া একটি বিশেষ ধরনের পরিবার বলতে যৌথ পরিবারকে বুঝিয়েছেন।

 ঘ  হ্যাঁ, পরিবারের ধরনের পরিবর্তনের সাথে এর ভূমিকারও পরিবর্তন ঘটেছে। উদ্দীপকের হারিস মিয়ার এ বক্তব্যের সাথে আমি সম্পূর্ণ একমত। আমাদের দেশে শহরাঞ্চলে শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠায় গ্রামের সাধারণ নারী -পুরুষ কৃষি পেশা ছেড়ে শিল্প শ্রমিকে পরিণত হয়েছে। শিশু শিক্ষার ক্ষেত্রে দেখা যায় পরিবারের এ ভূমিকা বর্তমানে প্রাক-প্রাথমিক কিন্ডার গার্টেন কিংবা নার্সারি স্কুলগুলো গ্রহণ করেছে। শহরে এ সুযোগ তুলনামূলকভাবে বেশি। বিবাহের ক্ষেত্রে বর্তমানে গ্রাম ও শহর উভয়স্থানে পরিবারের মতামতের পরিবর্তে পাত্র-পাত্রীরা নিজ নিজ পছন্দে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ। পরিবারে নারীরা সিদ্ধান্তগ্রহণ প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ করছে। তারা আজ নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় অনেক বেশি সচেতন। বর্তমানে গ্রাম ও শহর উভয় স্থানে নয়াবাস পরিবার বৃদ্ধি পাওয়ায় পরিবারের মধ্যে কোনো কোনো ক্ষেত্রে আত্মকেন্দ্রিক মনোভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে। আর এ প্রেক্ষিতেই আমি উদ্দীপকের হারিস মিয়ার মিয়ার বক্তব্যের সাথে সম্পূর্ণ একমত পোষণ করছি। অর্থাৎ পরিবারের ধরনের পরিবর্তনের সাথে সাথে এর ভূমিকারও পরিবর্তন ঘটছে।

প্রশ্ন- ৪  সামাজিকীকরণের উপাদান 

শহরে বসবাসরত মুনা বাবা-মায়ের একমাত্র সন্তান। স্কুল ছুটির পর তার অবসর সময় ব্যয় হয় ভিডিও গেমস খেলে এবং টেলিভিশন দেখে। সে সবসময় খিটখিটে মেজাজে থাকে ও কারো সাথে মেলামেশা করে না। আবার গ্রামে বসবাসকারী মুনার চাচাতো বোন কণা মায়ের সাথে পারিবারিক কাজে অংশ নেয় এবং সর্বদা উৎফুল্ল থাকে।

 ক.অন্তগোত্রভিত্তিক বিয়ে কোন সমাজে প্রচলিত?             ১

খ.একপত্নী পরিবারকে আদর্শ পরিবার বলা হয় কেন? বুঝিয়ে দাও।              ২

গ.উদ্দীপকে মুনার সামাজিকীকরণের কোন উপাদানের প্রভাব পরিলক্ষিত হয় ব্যাখ্যা কর। ৩

ঘ.কণা এবং মুনার সামাজিকীকরণের ভিন্নতার পিছনে কার্যকর কারণগুলো বিশ্লেষণ কর।  ৪            

 ক           অন্তগোত্রভিত্তিক বিয়ে হিন্দু সমাজে প্রচলিত।

 খ            একজন পুরুষের সঙ্গে একজন নারীর বিবাহের মাধ্যমে একপত্নী পরিবার গড়ে ওঠে। বিশ্বে এ ধরনের পরিবার অধিক দেখা যায়। এ ধরনের পরিবার কাঠামোতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক পরিলক্ষিত হয়। আর এ কারণেই একপত্নী পরিবারকে আদর্শ পরিবার বলা হয়।

 গ  উদ্দীপকের মুনার সামাজিকীকরণে সামাজিক পরিবেশের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ প্রযুক্তিগত পরিবেশের প্রভাব পরিলক্ষিত হয়। আর যে বিশেষ সমাজ ব্যবস্থার মধ্যে মানুষ বাস করে তাকে সামাজিক পরিবেশ বলে। সামাজিক পরিবেশের মধ্যেই মানুষ বিকশিত হয়। মানুষের অর্থনৈতিক, মানসিক ও নৈতিক জীবনের ওপর সামাজিক পরিবেশের প্রভাব রয়েছে। মূলত ঐক্যবদ্ধ জীবনযাপনের কারণে মানুষ সামাজিক জীব হিসেবে স্বীকৃত। ঐক্যবদ্ধ জীবনযাপনের পিছনে রয়েছে মনস্তাত্ত্বিক কারণ। যান্ত্রিক সভ্যতা বিকাশের পারিপার্শ্বিক অবস্থাকে বলা হয় প্রযুক্তিগত পরিবেশ। এ পরিবেশ সামাজিক পরিবেশকে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করে। প্রযুক্তিগত আবিষ্কার, যেমন : বিভিন্ন গেমস, কম্পিউটার, ইন্টারনেট,  টেলিভিশন প্রভৃতি মানুষের আচার-আচরণকে প্রভাবিত করে। যেটি উদ্দীপকের মুনার আচরণে সুস্পষ্ট রূপে ফুটে উঠেছে। সুতরাং বলা যায় যে, উদ্দীপকে মুনার সমাজিকীকরণে সামাজিক পরিবেশের প্রভাব পরিলক্ষিত হয়।

 ঘ  উদ্দীপকের মুনা শহরে এবং কণা গ্রামে বেড়ে উঠেছে। উভয়ের সামাজিকীকরণে পার্থক্যের মূল কারণ হলো গ্রাম ও শহরের সামাজিকীকরণের উপাদানসমূহের ভূমিকাগত ভিন্নতা। বাংলাদেশের শহর সমাজ কাঠামোর বৈশিষ্ট্য হলো একক পরিবার কাঠামো, শিল্পভিত্তিক অর্থনীতি, জটিল সমাজ জীবন, শহরের সংস্কৃতি এবং মানুষের মধ্যে সামাজিক সম্পর্কের দূরত্ব প্রভৃতি। এ পরিবেশের বিভিন্ন উপাদানের সাথে ব্যক্তির আচরণিক ক্রিয়া প্রতিক্রিয়া ঘটে। যা তার সামাজিকীকরণে প্রভাবিত হয়। যেমনটি উদ্দীপকের উল্লিখিত শহরে বেড়ে ওঠা স্কুল পড়ুয়া ছাত্র মুনার আচরণে ফুটে উঠেছে। অন্যদিকে বাংলাদেশের গ্রাম সমাজ কাঠামোর বৈশিষ্ট্য হলো যৌথ পরিবার কাঠামো, দৃষ্টিভিত্তিক অর্থনীতি, পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ঘনিষ্টতা, সহজ সরল জীবনযাপন, জীবনযাত্রায় সামাজিক প্রথা ও লোকাচারের প্রভাব প্রভৃতি। তাছাড়া এ সমাজ কাঠামোতে দেখা যায়, প্রতিবেশী সুলভ আচরণ এবং ধর্মীয় আচার আচরণের প্রতি গভীর মনোযোগ। গ্রামের শিশু কিশোররা এ বৈশিষ্ট্যপূর্ণ পরিবেশে বড় হয় সমাজজীবনের বিভিন্ন উপাদানের সাথে, যা তার সামাজিকীকরণকে প্রভাবিত করে, যেমনটি উদ্দীপকে উল্লিখিত গ্রামে বেড়ে ওঠা মুনার চাচাতো বোন কণার আচরণে পরিলক্ষিত হয়। আর এসব কারণে কণা এবং মুনার সামাজীকরণে ভিন্নতা পরিলক্ষিত হয়। আর এসব কারণে কণা এবং মুনার সামাজিকীকরণে ভিন্নতা পরিলক্ষিত হয়েছে।

প্রশ্ন- ৫   যৌথ একক পরিবার 

দিনাজপুরের মেয়ে মিতার বিয়ে হয়েছে টাঙ্গাইলের কাগমারির পালবাড়ির ছেলে শ্যামলের সাথে। মিতা এখানে এসে লক্ষ্য করে এ বাড়ির ছয় ভাইয়ের পরিবারের মধ্যে বেশ সুসম্পর্ক রয়েছে। তাদের শাশুড়ির পুরানো রান্নাঘরেই রান্নার আয়োজন হয়। প্রতি বেলায় তারা তাদের শাশুড়ীর রান্নাঘরেই খাওয়া-দাওয়া করে। চাচাতো ভাইবোনদের মধ্যে দারুণ সম্পর্ক। অন্যদিকে মিতার ছোট বোন মিলি স্বামী ও এক সন্তানসহ বাস করে। মিলি মিতাকে প্রায়ই বলে, “তোমাদের মতো এ ধরনের পরিবার বর্তমানে খুব একটা দেখা যায় না।”

 ক.সামাজিকীকরণের উপাদান কয়টি?   ১

খ.অন্তরঙ্গ বন্ধুদল বলতে কী বোঝায়?      ২

গ.কাঠামোগত দিক থেকে মিতাদের পরিবার কোন ধরনের? উদ্দীপকের আলোকে ব্যাখ্যা কর।        ৩

ঘ.“বর্তমানে মিলিদের মতো পরিবারের সংখ্যা ক্রমশ বেড়ে যাচ্ছে” তোমার উত্তরের পক্ষে যুক্তি দেখাও।     ৪

 ক          সামাজিকীকরণের উপাদান তিনটি।

 খ           সমবয়সী খেলা ও পড়ার সাথিরা অন্তরঙ্গ বন্ধুদলের অন্তর্ভুক্ত। এ দলের সদস্যদের আচরণ প্রায় একই প্রকৃতির। এ দলের রয়েছে বিশেষ মূল্যবোধ, শৃঙ্খলা ও রীতিনীতি। শৈশব ও কৈশোরে এই সাথি দলের পারস্পরিক আচরণিক প্রভাব গুরুত্বপূর্ণ। এই দলের প্রভাবে শিশু যেমন সমাজ স্বীকৃত ভালো মূল্যবোধ গ্রহণ করতে পারে  তেমনি সমাজ ঘৃণিত মূল্যবোধও গ্রহণ করতে পারে।

 গ  কাঠামোগত দিক থেকে মিতাদের পরিবার যৌথ পরিবার। এ ধরনের পরিবারে বিবাহিত পুত্র ও তার সন্তানাদিসহ পিতামাতার কর্তৃত্বাধীনে এক সংসারে বাস করে। একক পরিবার মতো যৌথ পরিবারের বন্ধনও মূলত রক্তের সম্পর্কের ভিত্তিতে গড়ে ওঠে। এক সময়ে আমাদের দেশের অধিকাংশ পরিবারই যৌথ পরিবার ছিল। এখন এ ধরনের পরিবারের সংখ্যা নানা কারণে হ্রাস পেয়েছে। উদ্দীপকে দেখা যায়, মিতার স্বামীদের ছয় ভাইয়ের পরিবার ও তাদের চাচাতে ভাইবোনদের মধ্যে সুসম্পর্ক বিদ্যমান। তার শাশুড়ীর পুরানো রান্নাঘরেই রান্নার আয়োজন হয়। প্রত্যেক বেলায় তারা তাদের শাশুড়ীর রান্না ঘরেই খাওয়া দাওয়া করে, যা মূলত যৌথ  পরিবারেরই প্রতিচ্ছবি তুলে ধরে। সুতরাং বলা যায় যে, কাঠামোগত দিক থেকে মিতাদের পরিবার যৌথ পরিবার।

 ঘ  বর্তমানে মিলিদের মত পরিবারের সংখ্যা অর্থাৎ একক পরিবারের সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। শিল্পায়ন ও নগরায়ণের ফলে এ ধরনের পরিবার সংখ্যা বৃদ্ধির অন্যতম প্রধান কারণ। উদ্দীপকে দেখা যায় মিতার ছোট বোন মিলি তার স্বামী ও এক সন্তান নিয়ে বাস করে; যা মূলত একক পরিবারকে নির্দেশ করছে। এক সময় ছিল যখন আমাদের গ্রামীণ সমাজে যৌথ পরিবারের সংখ্যাই ছিল বেশি। কিন্তু বর্তমানে শিল্পায়ন, নগরায়ণ, জনসংখ্যা বৃদ্ধি, দরিদ্রতা, ভোগবাদী মানসিকতাসহ নানা কারণে যৌথ পরিবার পস্থা ভেঙ্গে যাচ্ছে। সাম্প্রতিক সময়ের সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থার ¶ুদ্র ঋণ কর্মসূচির বিভিন্ন সুবিধা গ্রহণও পরিবারে এটা পরিবর্তনে ভূমিকা রাখছে। ফলশ্রুতিতে গ্রাম ও শহরে বর্তমানে উদ্দীপকের মিলিদের মত পরিবারের সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে।

প্রশ্ন- সামাজিকীকরণে বিদ্যালয় প্রতিবেশীর ভূমিকা  

দশম শ্রেণির ছাত্র সৌমিক বড়দের সাথে যেমন শ্রদ্ধা রেখে কথা বলে, সালাম দেয়, তেমনি ছোটদেরকেও স্নেহ করে। স্কুলে যাবার সময় পাশের বাড়ির তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র রাকিবকেও সাথে নিয়ে যায়। রাকিবের বাবা লক্ষ করলেন তার ছেলে সৌমিকের সংস্পর্শে থেকে সত্য কথা বলতে এবং ন্যায়-অন্যায়ের পার্থক্য করতে শিখেছে। সৌমিকের মা অসুস্থ হয়ে পড়লে রাকিব ও তার পরিবার তাকে সার্বিক সহযোগিতা করে।

 ক.সমাজের মৌল সংগঠন কোনটি?        ১

খ.পরিবারকে এক সময় উৎপাদন ব্যবস্থার একক বলা হতো কেন?               ২

গ.সৌমিকের মধ্যে সামাজিকীকরণের কোন উপাদানের প্রভাব লক্ষ করা যায়? ব্যাখ্যা কর। ৩

ঘ.তুমি কি মনে কর, রাকিবের সামাজিকীকরণে প্রতিবেশীর প্রভাবই বেশি? তোমার উত্তরের সপক্ষে যুক্তি দাও।         ৪

 ক           পরিবার সমাজকাঠামোর মৌল সংগঠন।

 খ           পরিবার ছিল এক সময়ের অর্থনৈতিক কার্যকলাপের মূল কেন্দ্রস্থল। এক সময় পরিবারের যাবতীয় প্রয়োজনীয় বস্তুগুলো গৃহেই উৎপাদিত হতো। পরিবারগুলো ছিল অর্থনৈতিকভাবে সবল। ঐ সময় পরিবারকে বলা হতো উৎপাদন ব্যবস্থার প্রধান একক। গ্রামীণ যৌথ পরিবারের মধ্যে এই সব অর্থনৈতিক কর্মকাÊ সম্পাদিত হতো।

 গ  উদ্দীপকে সৌমিকের মধ্যে সামাজিকীকরণের বিদ্যালয় এবং সহপাঠী উপাদানের প্রভাব লক্ষ করা যায়। বিদ্যালয় শিশুর সামাজিকীকরণের আনুষ্ঠানিক মাধ্যম। জ্ঞানার্জনের পাশাপাশি শিশুরা কতগুলো সামাজিক আদর্শ বিদ্যালয় হতে শিখে থাকে। এই আদর্শগুলোর মধ্যে রয়েছে শৃঙ্খলাবোধ, নিয়মানুবর্তিতা, শ্রদ্ধাবোধ, সহযোগিতা, পারস্পরিক ভালোবাসা প্রভৃতি। শিশু বিদ্যালয়ের বিভিন্ন কার্যক্রমে অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষক, সহপাঠী, কর্মচারী, বিদ্যালয়ের পরিবেশ, প্রাতিষ্ঠানিক মূল্যবোধ প্রভৃতির সংস্পর্শে আসে। শিশুর সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে খেলার সাথী ও পড়ার  সাথীর ভূমিকা রয়েছে। এদের মাধ্যমেই সহযোগিতা, সহনশীলতা, সহমর্মিতা, নেতৃত্ব প্রভৃতি গুণাবলি বিকশিত হয়। এই সাথী দলের মধ্যে আবার কখনোবা দ্বন্দ্ব দেখা দেয়, যা সমস্যা সমাধানে ও দ্বন্দ্ব নিরসন কৌশল আয়ত্বকরণে সহায়তা করে। খেলা ও পড়ার সাথীদের মাধ্যমে শিশু নিজের আচরণের ভালো কিংবা মন্দ দিকের গুণাবলি ও মুখোমুখি সমালোচনা শুনতে পায়। এ ধরনের সমালোচনা শিশুকে সমাজের কাঙ্খিত আচরণ করতে শিক্ষা দেয়। উদ্দীপকেও দেখা যায়, দশম শ্রেণির ছাত্র সৌমিক বড়দের সাথে যেমন শ্রদ্ধা রেখে কথা বলে, সালাম দেয়, তেমনি ছোটদেরকেও স্নেহ করে। স্কুলে যাবার সময় পাশের বাড়ির তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র রাকিবকেও সাথে নিয়ে যায়। সুতরাং সৌমিকের মধ্যে সামাজিকীকরণের বিদ্যালয় এবং সহপাঠীর উপাদান বিদ্যমান।

 ঘ  হ্যাঁ,  আমি মনে করি রাকিবের সামাজিকীকরণে প্রতিবেশীর প্রভাবই বেশি। যারা বাড়ির আশেপাশে বসবাস করেন তারা হলেন আমাদের প্রতিবেশী। শিশুর জীবনের সুষ্ঠু বিকাশে জ্ঞাতি-গোষ্ঠী ও প্রতিবেশীর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের পাশাপাশি বাড়িগুলোতে সমবয়সী শিশুদের মধ্যে প্রতিবেশী দল গড়ে উঠে। প্রতিবেশী দল থেকে শিশু সহযোগিতা, সহমর্মিতা, ঐক্য, নেতৃত্ব প্রভৃতি গুণাবলি অর্জন করে। প্রতিবেশীদের বিভিন্ন অনুষ্ঠান; যেমন : বিয়ে, জন্মদিন, ঈদ, পূজা, বড়দিন প্রভৃতি অনুষ্ঠানে শিশুরা অংশগ্রহণ করে আনন্দ ফূর্তিতে মেতে উঠে এবং শিশুরা সহিষ্ণুতা, সহনশীলতা, সম্প্রীতি প্রভৃতি গুণাবলি অর্জন করে। প্রতিবেশীর যে কোনো অনুষ্ঠানে পরিবারের সকল সদস্য অংশগ্রহণ করে। যেমন দেখা যায়, উদ্দীপকে দশম শ্রেণির ছাত্র সৌমিক বড়দের সাথে যেমন শ্রদ্ধা রেখে কথা বলে, সালাম দেয়, তেমনি ছোটদেরকেও স্নেহ করে। স্কুলে যাবার সময় পাশের বাড়ির তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র রাকিবকেও সাথে নিয়ে যায়। রাকিবের বাবা লক্ষ করলেন তার ছেলে সৌমিকের সংস্পর্শে থেকে রাকিব ভালো গুণাগুণ অর্জন করতে শিখেছে। পরিশেষে বলা যায় উদ্দীপকের রাকিবের সামাজিকীকরণে প্রতিবেশীর প্রভাবই বেশি।

প্রশ্ন- ৭  সামাজিকীকরণে বিদ্যালয়ও সহপাঠীদের ভূমিকা  

আরিফ তার পিতামাতার সাথে শহরে থাকে। তাদের পিতামাতা উভয়ই চাকরিজীবী। শহরের পরিবেশে আরিফ তার প্রতিবেশী, বিদ্যালয় ও সহপাঠীদের সহযোগিতায় ক্রমেই সামাজিক হয়ে উঠছে। অপরদিকে তার চাচাতো ভাই শরিফ গ্রামে থাকে। সেখানে সে মা-বাবা, দাদা-দাদি ও চাচাদের সাথে বসবাস করছে। তাদের চিন্তা-চেতনা, দৃষ্টিভঙ্গি ও সামাজিক আদর্শেই সে বেড়ে উঠছে।

 ক.পরিবার কোন ধরনের সংগঠন?           ১

খ.বর্ধিত পরিবার বলতে কী বোঝায়?          ২

গ.আরিফের সামাজিকীকরণে কোন প্রতিষ্ঠান বেশি ভূমিকা পালন করে?   ৩

ঘ.উদ্দীপকে আরিফ ও শরিফের সামাজিকীকরণের ক্ষেত্রে বৈসাদৃশ্যসমূহ আলোচনা কর। ৪

 ক           পরিবার হলো সমাজকাঠামোর মৌল সংগঠন।

 খ            পিতামাতা সন্তানসন্ততি ও স্ত্রী-পরিজন নিয়ে গঠিত পরিবারই বর্ধিত পরিবার। অর্থাৎ তিন পুরুষের পারিবারিক বন্ধনের পরিবারই বর্ধিত পরিবার। আমাদের দেশে হিন্দুসমাজে এ ধরনের পরিবার এখনও দেখা যায়। 

 গ  উদ্দীপকে আরিফের সামাজিকীকরণে বিদ্যালয় ও সহপাঠী প্রতিষ্ঠান বেশি ভূমিকা পালন করে। বিদ্যালয় শিশুর সামাজিকীকরণের আনুষ্ঠানিক মাধ্যম। জ্ঞানার্জনের পাশাপাশি শিশুরা কতগুলো সামাজিক আদর্শ বিদ্যালয় হতে শিখে থাকে। এই আদর্শগুলোর মধ্যে রয়েছে শৃঙ্খলাবোধ, নিয়মানুবর্তিতা, শ্রদ্ধাবোধ, সহযোগিতা, পারস্পরিক ভালোবাসা প্রভৃতি। শিশু বিদ্যালয়ের বিভিন্ন কার্যক্রমে অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষক, সহপাঠী, কর্মচারী, বিদ্যালয়ের পরিবেশ, প্রাতিষ্ঠানিক মূল্যবোধ প্রভৃতির সংস্পর্শে আসে। শিশুর সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে খেলার সাথী ও পড়ার সাথীর ভূমিকা রয়েছে। এদের মাধ্যমেই সহযোগিতা, সহনশীলতা, সহমর্মিতা, নেতৃত্ব প্রভৃতি গুণাবলি বিকশিত হয়। এই সাথী দলের মধ্যে আবার কখনো বা দ্বন্দ্ব দেখা দেয়, যা সমস্যা সমাধানে ও দ্বন্দ্ব নিরসন কৌশল আয়ত্বকরণে সহায়তা করে। খেলা ও পড়ার সাথীদের মাধ্যমে শিশু নিজের আচরণের ভালো কিংবা মন্দ দিকের গুণাবলি ও মুখোমুখি সমালোচনা শুনতে পায়। এ ধরনের সমালোচনা শিশুকে সমাজের কাঙ্খিত আচরণ করতে শিক্ষা দেয়। সুতরাং শিশুর সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে বিদ্যালয় ও সহপাঠীর গুরুত্ব অপরিসীম।

 ঘ  উদ্দীপকে আরিফ শহরে ও শরিফ গ্রামে বাস করে। তাই তাদের সামাজিকীকরণের ক্ষেত্র ভিন্ন ভিন্ন। গ্রাম ও শহর উভয় সমাজেই শিশু লালিতপালিত হয় পরিবারে। উভয় সমাজব্যবস্থায় পরিবারের যে সাধারণ মনোভাব থাকে তা পরিবারের অন্তর্ভুক্ত শিশুর মনের ওপর গভীর রেখাপাত করে। আরিফ বড় হয়েছে শহরের পরিবেশে। শহরে প্রতিবেশীদের সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক থাকে না। শহরের সবাই যান্ত্রিক। সবাই নিজেদের কাজে ব্যস্ত থাকায় প্রতিবেশীদের খোঁজখবর নেয় না। সবার সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক না থাকায় তাদের মনের মধ্যে সংকীর্ণতা দেখা দেয়। অপরদিকে গ্রামের খোলা পরিবেশে বড় হয় শরিফ। শরিফের আচরণে গ্রামের প্রভাব পরিলক্ষিত হয়। সে সবার সাথেই খুব আন্তরিক। গ্রামের আদর্শ, মূল্যবোধের মধ্যেই সে লালিপালিত হয়। তাই দেখা যাচ্ছে যে, গ্রাম ও শহরের ভিন্ন ভিন্ন সামাজিক আদর্শ, সংস্কার, মূল্যবোধ, খাদ্যাভাস, প্রতিষ্ঠান প্রভৃতির কারণে আরিফ ও শরিফের মধ্যে আদর্শগত পার্থক্য দেখা যায়।

প্রশ্ন- সামাজিকীকরণে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা  

চাকরিজীবী বাবা-মার একমাত্র সন্তান সুজন। ৯ম শ্রেণির ছাত্র সুজন বাবা-মার আদর-স্নেহ তেমন একটা পায়নি, তার বাবা-মা ছোটখাটো বিষয় নিয়ে প্রায়ই ঝগড়া করে। সুজনের পড়াশুনা ও স্বাস্থ্যের প্রতি উনাদের তেমন একটা খেয়াল নেই। সুজন তার ঘনিষ্ঠ সহপাঠী রাসেলের সাথে তার নিঃসঙ্গতা ও পারিবারিক সমস্যাগুলো আলোচনা করেছে। রাসেল সুজনকে বাবা-মা মনে আঘাত পায় এমন কাজ করতে নিরুৎসাহিত করেছে। এবং সুজনের বিষয়ে সে শ্রেণিশিক্ষক আজমল স্যারের পরামর্শ নিয়েছে। স্যার সুজনকে ডেকে এনে অনেক উৎসাহ ও আশাব্যঞ্জক পরামর্শ দিয়েছেন।

 ক.সামাজিকীকরণ কোন ধরনের প্রক্রিয়া?            ১

খ.গণমাধ্যম বলতে কী বোঝ?      ২

গ.সুজনের বন্ধু রাসেলের ভূমিকায় সামাজিকীকরণের কোন মাধ্যমটির প্রতিফলন লক্ষ করা যায়? ব্যাখ্যা কর।           ৩

ঘ.‘শিশুর সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে পরিবার অন্যতম প্রধান মাধ্যম হিসেবে কাজ করে’ Ñ বক্তব্যের সপক্ষে যুক্তি দাও। ৪

 ক          সামাজিকীকরণ একটি জীবনব্যাপী প্রক্রিয়া।

 খ           বৃহৎ জনগোষ্ঠীর নিকট সংবাদ, দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতির বিষয়বস্তু, বিশেষ ধ্যান-ধারণা, বিনোদন প্রভৃতি পরিবেশন করার মাধ্যমই গণমাধ্যম। আধুনিক যুগের সংস্কৃতি গড়ে উঠেছে গণমাধ্যমকে কেন্দ্র করে। গণমাধ্যমগুলোর মধ্যে রয়েছে সংবাদপত্র, বেতার, চলচ্চিত্র, টেলিভিশন প্রভৃতি।

 গ           সুজনের বন্ধু রাসেলের ভূমিকায় সামাজিকীকরণের মাধ্যম হিসেবে বিদ্যালয় এবং সহপাঠীর প্রতিফলন লক্ষ করা যায়। সমবয়সী খেলা ও পড়ার সাথিদের আচার-আচরণ প্রায় একই প্রকৃতির হয়। এটি একটি ¶ুদ্রদল। এ দলের রয়েছে বিশেষ মূলবোধ, শৃঙ্খলা ও রীতিনীতি। এ কারণে এ দলকে বলে অন্তরঙ্গ বন্ধুদল (চববৎ মৎড়ঁঢ়)। শৈশব ও কৈশোরে এই সাথি দলের পারস্পরিক আচরণিক প্রভাব গুরুত্বপূর্ণ। এই দলের প্রভাবে শিশু সমাজ স্বীকৃত ভালো মূল্যবোধ গ্রহণ করতে পারে। যেমনÑ উদ্দীপকে সুজন তার ঘনিষ্ঠ সহপাঠী রাসেলের সাথে তার নিঃসঙ্গতা ও পারিবারিক সমস্যাগুলো আলোচনা করেছে। রাসেল সুজনকে বাবা-মা মনে আঘাত পায় এমন কাজ করতে নিরুৎসাহিত করেছে। আবার সুজনের বিষয়ে রাসেল শ্রেণিশিক্ষক আজমল স্যারের পরামর্শ নেয়। এক্ষেত্রে সামাজিকীকরণে বিদ্যালয়ের ভূমিকাও লক্ষণীয়। বিদ্যালয় শিশুর সামাজিকীকরণের আনুষ্ঠানিক মাধ্যম। জ্ঞানার্জনের পাশাপাশি শিশুরা কতগুলো সামাজিক আদর্শ বিদ্যালয় হতে শিখে থাকে। এই আদর্শগুলোর মধ্যে রয়েছেÑ শৃঙ্খলাবোধ, নিয়মানুবর্তিতা, শ্রদ্ধাবোধ, সহযোগিতা, পারস্পরিক ভালোবাসা প্রভৃতি। শিশু বিদ্যালয়ের বিভিন্ন কার্যক্রমে অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষক, সহপাঠী, কর্মচারী, বিদ্যালয়ের পরিবেশ, প্রাতিষ্ঠানিক মূল্যবোধ প্রভৃতির সংস্পর্শে আসে। রাসেল সামাজিকীকরণের এ প্রেক্ষাপটেই সুজনের বিষয়ে শিক্ষকের সাথে পরামর্শ করে এবং স্যার সুজনকে ডেকে এনে অনেক উৎসাহ ও আশাব্যঞ্জক পরামর্শ দেন। সুতরাং উদ্দীপকে রাসেলের ভূমিকায় প্রতীয়মান, শিশুর সামাজিকীকরণের বিদ্যালয় এবং সহপাঠীর প্রভাব গুরুত্বপূর্ণ।

 ঘ            পরিবার সামাজিকীকরণের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। পরিবারের মধ্যেই সামাজিকীকরণের ক্ষেত্র প্রস্তুত থাকে শিশুর জন্মের আগে থেকেই। যে ধরনের পরিবারেই আমরা বেড়ে উঠি না কেন, পারিবারিক জীবনের মধ্যেই আমাদের শৈশব কাটে। স্বাভাবিকভাবেই পারিবারিক জীবনের ভালো দিক এবং মন্দ দিক সবই আমাদের আচরণকে প্রভাবিত করছে। পরিবারের মধ্যেই সামাজিক নীতিবোধ ও নাগরিক চেতনার সূচনা হয়। আমরা সহযোগিতা, সহিষ্ণুতা, সম্প্রীতি, ভ্রাতৃত্ববোধ, ত্যাগ, ভালোবাসা প্রভৃতি গুণগুলো পরিবারের মধ্য থেকেই অর্জন করি। পরিবারের মধ্যে প্রধান যে বিষয়টি শিশুর সামাজিকীকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে তা হলো মা-বাবার মধ্যকার সম্পর্ক। মা-বাবার মধ্যে সুসম্পর্ক শিশুর ব্যক্তিত্বের সুষ্ঠু বিকাশের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। আবার মা-বাবার মধ্যকার দ্বন্দ্ব তাদের মধ্যেও দ্বন্দ্বের সৃষ্টি করে। যেমন উদ্দীপকে সুজন তার মা-বাবার বিরূপ সম্পর্কের কারণে, তাদের উদাসীনতায় নিঃসঙ্গতা অনুভব করে। অন্যদিকে শিশুর আত্মপ্রত্যয়ী মনোভাব ও জিদভাব মা-বাবার আচরণের ফল। এভাবে পরিবারের অন্যান্য সদস্য; যেমনÑ ভাই-বোন, চাচা-চাচি, চাচাত ভাই-বোন, দাদা-দাদি, নানা-নানি ও নিকট আত্মীয়-স্বজনের নিকট হতে শিশুর জীবনে অনেক আচরণিক বিষয় রেখাপাত করে, যা শিশুর আত্মধারণাকে সমৃদ্ধ ও ব্যক্তিত্বকে সুন্দর করে তোলে। সুতরাং বলা যায়, শিশুর সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে পরিবার অন্যতম প্রধান মাধ্যম হিসেবে কাজ করে।

প্রশ্ন- সামাজিকীকরণে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা  

তুলি চাকরিজীবী বাবা-মার একমাত্র সন্তান। বাবা-মার ব্যস্ততার কারণে তাকে তিন বছর বয়সে একটি ডে-কেয়ার সেন্টারে ভর্তি করে দেন। তুলি বর্তমানে এসএসসি পরীক্ষার্থী। তুলির বাবা-মা লক্ষ করেছেন সে বাবা-মার প্রতি তেমন শ্রদ্ধাশীল নয়। সে সবসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অনুসরণ করার চেষ্টা করে।

 ক.অন্তর্গোত্রভিত্তিক বিয়ে কোন সমাজে অধিক প্রচলিত?               ১

খ.পরিবারকে উৎপাদন ব্যবস্থার প্রধান একক বলা হতো কেন?       ২

গ.তুলির বাবা-মার প্রতি অসৌজন্যমূলক আচরণের জন্য সামাজিকীকরণের কোন বিষয়টি দায়ী? Ñ ব্যাখ্যা কর।        ৩

ঘ.তুমি কি মনে কর, তুলির সামাজিকীকরণে তার বিদ্যালয়ের ভূমিকাই মুখ্য? Ñ যুক্তি দাও। ৪

 ক          অন্তর্গোত্রভিত্তিক বিয়ে হিন্দু সমাজে অধিক প্রচলিত।

 খ           পরিবার ছিল এক সময়ের অর্থনৈতিক কার্যকলাপের মূল কেন্দ্রস্থল। তখন পরিবারের যাবতীয় প্রয়োজনীয় বস্তুগুলো গৃহেই উৎপাদন হতো। এক সময়ে গ্রামীণ যৌথ পরিবারের মধ্যেই এসব অর্থনৈতিক কর্মকাÊ সম্পাদিত হতো। আর এ কারণে পরিবারকে উৎপাদন ব্যবস্থার প্রধান একক বলা হতো।

 গ           তুলির বাবা-মার প্রতি অসৌজন্যমূলক আচরণের জন্য সামাজিকীকরণে পরিবারের ভূমিকা বিশেষ করে তার মা-বাবাই দায়ী। শিশুর সবচেয়ে কাছের মানুষ মা-বাবা। আবার মা-বাবা এ দুজনার মধ্যে অধিকতর কাছের হলেন ‘মা’। স্বভাবতই সামাজিকীকরণের সূত্রপাত ঘটে মা হতেই। মা শিশুর খাদ্যাভাস গঠন ও ভাষা শিক্ষার প্রথম মাধ্যম। মা শৈশবে শিশুকে যেসব খাদ্যের প্রতি ঝোঁক সৃষ্টি করবেন, শিশুর পরবর্তী জীবনের আচরণে এর প্রভাব লক্ষ করা যাবে। মায়ের ঘুমপাড়ানী গান, বর্ণ শিক্ষার কৌশল, ছড়া শিক্ষা অনেক বিষয়ই আমরা অতীত অভিজ্ঞতা ও শিখনের ফল হতে নিজ পরিবারে প্রয়োগ করে থাকি। অথচ তুলি তিন বছর বয়স থেকে ডে-কেয়ার সেন্টারে বড় হয়। তার মা-বাবা উভয়েই উপার্জন করেন। ব্যস্ততার কারণে তারা তাকে সময় দেন না। মা-বাবার এ স্বতন্ত্র আচরণ তুলির সামাজিকীরণে প্রভাব ফেলে। তার মনোভাব মা-বাবার আচরণের ফল। এভাবে আজ এসএসসি পরীক্ষার্থী তুলি পরিবারের সদস্য তথা মা-বাবার ভূমিকার কারণে সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়ায় বাবা-মার প্রতি অসৌজন্যমূলক আচরণ করছে।

 ঘ            আমি মনে করি, তুলির সামাজিকীকরণে তার বিদ্যালয়ের ভূমিকাই মুখ্য। পরিবারের পর শিশুর সামাজিকীকরণে বিদ্যালয়ের প্রভাব গুরুত্বপূর্ণ। বিদ্যালয় শিশুর সামাজিকীকরণের আনুষ্ঠানিক মাধ্যম। জ্ঞানার্জনের পাশাপাশি শিশুরা কতগুলো সামাজিক আদর্শ বিদ্যালয় হতে শিখে থাকে।এই আদর্শগুলোর মধ্যে রয়েছেÑ শৃঙ্খলাবোধ, নিয়মানুবর্তিতা, শ্রদ্ধাবোধ, সহযোগিতা, পারস্পরিক ভালোবাসা প্রভৃতি। শিশু বিদ্যালয়ের বিভিন্ন কার্যক্রমে অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষক, সহপাঠী, কর্মচারী, বিদ্যালয়ের পরিবেশ, প্রাতিষ্ঠানিক মূল্যবোধ প্রভৃতির সংস্পর্শে আসে। এসবগুলো উপাদানই শিশুর আচরণকে প্রভাবিত করে, যার মাধ্যমে শিশু মনে নেতৃত্ব, অন্যের মতের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ, ঐক্য, দেশপ্রেমবোধ, সহমর্মিতা, সহিষ্ণুতা, সম্প্রীতিবোধ প্রভৃতি জাগ্রত হয়। বিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে পরবর্তী স্তরে শিক্ষাগ্রহণ কিংবা কর্মজগতের জন্য উপযোগী করে তোলে। উদ্দীপকে তুলি মা-বাবার কর্মব্যস্ততার কারণে তিন বছর বয়স থেকে ডে-কেয়ার সেন্টারে বড় হয়। পরবর্তীতে স্কুলের পরিবেশে থেকে আজ সে এসএসসি পরীক্ষার্থী। এমতাবস্থায় দেখা যাচ্ছে, তুলি মা-বাবার প্রতি তেমন শ্রদ্ধাশীল নয় বরং বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অনুসরণের চেষ্টা করে। সুতরাং আলোচনার প্রেক্ষিতে যুক্তির নিরিখে আমি মনে করি, তুলির সামাজিকীকরণে তার বিদ্যালয়ের ভূমিকাই মুখ্য।

প্রশ্ন- ১০  পরিবারের প্রকারভেদ  

মামুনের পরিবারে তার স্ত্রী সন্তান ছাড়াও তার মা-বাবা, ভাইবোন বসবাস করে। সন্তানের লেখাপড়া চালাতে তাকে খুব বেগ পেতে হয়। তার বন্ধু দিলিপ চাকরি পেয়ে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে শহরে বসবাস করে।

 ক.পরিবার গঠনের পূর্বশর্ত কী? ১

খ.মিথস্ক্রিয়া বলতে কী বোঝায়?  ২

গ.দিলিপের পরিবারের ধরন ব্যাখ্যা কর।  ৩

ঘ.‘নগরায়ণের সাথে সাথে মামুনের মতো পরিবার বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে’ Ñ বিশ্লেষণ কর।            ৪

 ক          বিবাহ পরিবার গঠনের পূর্বশর্ত।

 খ           সমাজে ব্যক্তির আচরণ মূলত অন্যদের আচরণকে প্রভাবিত করে এবং অন্যান্যদের ব্যবহার দ্বারা ব্যক্তি নিজেও প্রভাবিত হয়। আচরণগত এই পারস্পরিক প্রভাবের প্রতিক্রিয়াকে বলে মিথস্ক্রিয়া (রহঃবৎধপঃরড়হ)। মানুষের সমাজজীবনের মূল বিষয়ই হলো এই মিথস্ক্রিয়া। অর্থাৎ ব্যক্তির সামাজিকীকরণ সামাজিক পরিবেশ, সমাজজীবন ও সামাজিক মূল্যবোধের পারস্পরিক ক্রিয়া প্রতিক্রিয়ার মাধ্যমে ঘটে থাকে। তাই মানুষের ব্যক্তিত্বের গঠন ও বিকাশে এ উপাদান তিনটির প্রভাব লক্ষ করা যায়।

 গ           দিলিপের পরিবারের ধরন আকারের ভিত্তিতে একক বা অনু পরিবার। আকারের ভিত্তিতে পরিবার তিন ধরনের হয়ে থাকে, যেমনÑ একক বা অনু পরিবার, যৌথ পবিরার ও বর্ধিত পরিবার। স্বামী-স্ত্রী ও তাদের অবিবাহিত সন্তান-সন্তুতি নিয়ে গঠিত পরিবারকে একক পরিবার বলে। এ পরিবার দুই পুরুষে আবদ্ধ। দুই পুরুষ হলো পিতা এবং অপ্রাপ্ত বয়স্ক সন্তান-সন্তুতি। আমাদের দেশের শহরাঞ্চলের অধিকাংশ পরিবারই একক পরিবার। উদ্দীপকের দিলিপও চাকরি পেয়ে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে শহরে বাস করে। অর্থাৎ তার পরিবার হচ্ছে একক পরিবার।

 ঘ            উদ্দীপকে মামুনের পরিবার একটি যৌথ পরিবার যেখানে স্ত্রী-সন্তান ছাড়াও তার মা-বাবা, ভাইবোন বসবাস করে। মামুনের মতো এ ধরনের যৌথ পরিবার সাধারণত গ্রামেই দেখা যায় এবং নগরায়ণের সাথে সাথে এ ধরনের পরিবার বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে। এক সময় ছিল যখন আমাদের গ্রামীণ সমাজে যৌথ পরিবারের সংখ্যাই ছিল বেশি। কিন্তু বর্তমানে শিল্পায়ন, নগরায়ণ, জনসংখ্যাবৃদ্ধি, দরিদ্রতা, ভোগবাদী মানসিকতাসহ নানা কারণে যৌথ পরিবার ব্যবস্থা ভেঙে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে নগরায়ণ ব্যাপক ভূমিকা রাখছে। কেননা গ্রামে বর্ধিত পরিবার দেখা গেলেও শহরে এ ধরনের পরিবার নেই বললেই চলে। মূলত দেশের শহরাঞ্চলে শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠায় গ্রামের সাধারণ নারী-পুরুষ কৃষি পেশা ছেড়ে শিল্প শ্রমিকে পরিণত হয়েছে। অর্থাৎ নগরায়ণের ফলে শহরে বিপুল জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাপেক্ষে অপরিসর স্থানে যৌথ পরিবার গঠনের সুযোগ থাকছে না। শহরে না আছে এত স্থান, না আমাদের মতো দেশগুলোতে শহরের শ্রমজীবী মানুষের আছে সাধ্য। সুতরাং, বাস্তবতা এই যে, নগরায়ণের সাথে সাথে মামুনের মতো পরিবার তথা যৌথ পবিরার বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে।

প্রশ্ন- ১১  সামাজিকীকরণে পরিবারের ভূমিকা 

বনি এবং জনি দুজন চাচাতো ভাই একই বাড়িতে বসবাস এবং একই শ্রেণিতে পড়ালেখা করে। বনি সবার সাথে সুন্দর আচরণ করে। পড়ালেখা ভালো করে এবং সে নম্র ও ভদ্র। পক্ষান্তরে, জনি ঠিক তার উল্টো। এমনকি বাবা-মায়ের সাথেও ভালো আচরণ করে না। তাছাড়া সবসময় একটা উচ্ছৃঙ্খল আচরণ বা উগ্রতা তার মধ্যে পরিলক্ষিত হয়। বনি মনে মনে ভাবে জনি তো কোনো বাজে ছেলেদের সাথে মেশে না, তাহলে দিন দিন অন্যরকম হয়ে যাচ্ছে কেন।

 ক.মানুষের সৃষ্টি করা উপাদানসমূহ নিয়ে কোন পরিবেশ গঠিত?  ১

খ.সামাজিকীকরণে সহপাঠীর ভূমিকা বর্ণনা কর। ২

গ.বনি এবং জনির মধ্যকার আচরণের পার্থক্যের কারণ কী? তা ব্যাখ্যা কর।              ৩

ঘ.‘জনি’র মতো ছেলের ‘বনি’র মতো করে গড়ে তুলতে কী ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা আবশ্যক বলে তুমি মনে কর?                ৪

 ক          মানুষের সৃষ্টি করা উপাদানসমূহ নিয়ে সাংস্কৃতিক পরিবেশ গঠিত।

 খ           শিশুর সামাজিকীকরণে সহপাঠীর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। শিশুর সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে খেলার সাথি ও পড়ার সাথি ভূমিকা রয়েছে। এদের মাধ্যমেই সহযোগিতা, সহনশীলতা, সহমর্মিতা, নেতৃত্ব প্রভৃতি গুণাবলি বিকশিত হয়। এই সাথি দলের মধ্যে আবার কখনোবা দ্বন্দ্ব দেখা দেয়, যা সমস্যা সমাধানে ও দ্বন্দ্ব নিরসন কৌশল আয়ত্বকরণে সহায়তা করে। খেলা ও পড়ার সাথিদের মাধ্যমে শিশু নিজের আচরণের ভালো কিংবা মন্দ দিকের গুণাবলি ও মুখোমুখি সমালোচনা শুনতে পায়। এ ধরনের সমালোচনা শিশুকে সমাজের কাক্সি¶ত আচরণ করতে শিক্ষা দেয়। সমবয়সী খেলা ও পড়ার সাথিদের আচার-আচরণ প্রায় একই প্রকৃতির হয়। এটি একটি ¶ুদ্রদল। এ দলের রয়েছে বিশেষ মূল্যবোধ, শৃঙ্খলা ও রীতিনীতি। এ কারণে এ দলকে বলে অন্তরঙ্গ বন্ধুদল (চববৎ মৎড়ঁঢ়)। শৈশব ও কৈশোরে এই সাথি দলের পারস্পরিক আচরণিক প্রভাব গুরুত্বপূর্ণ।

 গ           বনি এবং জনির মধ্যকার আচরণের পার্থক্যের কারণ সামাজিকীকরণের ভিন্নতা। উদ্দীপকে দেখা যায়, বনি এবং জনি দুজন চাচাতো ভাই একই বাড়িতে বসবাস এবং একই শ্রেণিতে পড়ালেখা করে। বনি সবার সাথে সুন্দর আচরণ করে। পড়ালেখা ভালো করে এবং সে নম্র ও ভদ্র। পক্ষান্তরে, জনি ঠিক তার উল্টো। অথচ সে বাজে ছেলেদের সাথে মেশে না। সুতরাং জনির আচরণের উপর তার পরিবারের সদস্যদের প্রভাবই থাকবে। এক্ষেত্রে দেখা যায় জনি তার বাবা-মায়ের সাথেও ভালো আচরণ করে না। সুতরাং বলা  যেতে পারে তার বাবা মা এ ব্যাপারে সচেতন নন, বরং প্রশ্রয় দিয়ে চলেছেন। কেননা শিশুর সবচেয়ে কাছের মানুষ মা-বাবা। পরিবারের মধ্যেই সামাজিক নীতিবোধ ও নাগরিক চেতনার সূচনা হয়। আমরা সহযোগিতা, সহিষ্ণুতা, সম্প্রীতি, ভ্রাতৃত্ববোধ, ত্যাগ, ভালোবাসা প্রভৃতি গুণগুলো পরিবারের মধ্য থেকেই অর্জন করি। পরিবারের মধ্যে প্রধান যে বিষয়টি শিশুর সামাজিকীকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে তা হলো মা-বাবার মধ্যকার সম্পর্ক। মা-বাবার মধ্যে সুসম্পর্ক শিশুর ব্যক্তিত্বের সুষ্ঠু বিকাশের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। আবার মা-বাবার মধ্যকার দ্বন্দ্ব তাদের মধ্যেও দ্বন্দ্বের সৃষ্টি করে। জনির জীবনেও এমন প্রভাব রয়েছে বলে উদ্দীপকের ইঙ্গিতে বোঝা যায়। আর সামাজিকীকরণের এ ভিন্নতাই বনি ও জনির আচরণে পার্থক্যের কারণ।

 ঘ            জনির মতো ছেলেদের ‘বনি’র মতে গড়ে তুলতে উপযুক্ত সামাজিকীকরণ প্রয়োজন। এক্ষেত্রে পরিবারের সকল সদস্যদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে হবে। কেননা পবিরার সামাজিকীকরণের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। পরিবারের মধ্যেই সামাজিকীকরণের ক্ষেত্র প্রস্তুত থাকে শিশুর জন্মের আগে থেকেই। আর জনি একটি যৌথ পরিবারে বসবাস করে। এক্ষেত্রে পরিবারের অন্যান্য সদস্য; যেমনÑ ভাই-বোন, চাচা-চাচি, চাচাত ভাই-বোন, দাদা-দাদি, নানা-নানি ও নিকট আত্মীয়-স্বজনের নিকট হতে জনি সহযোগিতা পেলে তা তার আচরণিক বিষয়ে রেখাপাত করবে, যা তার আত্মধারণাকে সমৃদ্ধ ও ব্যক্তিত্বকে সুন্দর করে তুলবে। এছাড়া বনি যেহেতু তার চাচাতো ভাই ও সহপাঠী বনি বিশেষ করে জনির আচরণ পরিবর্তনে পদক্ষেপ নিতে পারে। কেননা সহপাঠীদের মাধ্যমেই সহযোগিতা, সহনশীলতা, সহমর্মিতা, নেতৃত্ব প্রভৃতি গুণাবলি বিকশিত হয়। জনি এই সহপাঠী দলের সাথে মিশলে সহজেই সামজ স্বীকৃত ভালো মূল্যবোধ গ্রহণ করতে পারবে। পরিশেষে বলা যায়, ‘জনি’র মতো ছেলেদের ‘বনি’র মতো গড়ে তুলতে সামাজিকীকরণের অন্যতম উপাদান পরিবার ও সহপাঠীদের ভূমিকা গ্রহণ করা আবশ্যক।

প্রশ্ন- ১২ সামাজিকীকরণের উপাদান  

সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়া

ছক অ  ছক ই

অর্থনৈতিক,

সাংস্কৃতিক,

মনস্তাত্ত্বিক ও

প্রযুক্তিগত           জন্মদিন, বিয়ে,

ঈদ, পূজা, বড়দিন,

বুদ্ধের জন্মদিন, বিবাহবার্ষিকী

 ক.স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবার কয় ধরনের হয়ে থাকে?     ১

খ.পরিবারের অর্থনৈতিক কাজ ব্যাখ্যা কর।            ২

গ.ছক ‘অ’-তে উল্লিখিত বিষয়গুলো সামাজিকীকরণের কোন উপাদান নির্দেশ করে? ব্যাখ্যা কর।     ৩

ঘ.“ছক ‘ই’-তে উল্লিখিত অনুষ্ঠানগুলো ব্যক্তির সামাজিকীকরণের ওপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে।” Ñ মূল্যায়ন কর।        ৪

 ক          স্বামী-স্ত্রী সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবার তিন ধরনের হয়ে থাকে।

 খ           বর্তমানে পরিবারে অর্থনৈতিক কাজ বলতে বুঝায় তার সদস্যদের অর্থনৈতিক কাজের সমষ্টি। পরিবার ছিল এক সময়ের অর্থনৈতিক কার্যকলাপের মূল কেন্দ্রস্থল। তখন পরিবারের যাবতীয় প্রয়োজনীয় বস্তুগুলো গৃহেই উৎপাদন হতো। এক সময়ে গ্রামীণ যৌথ পরিবারের মধ্যেই এসব অর্থনৈতিক কর্মকাÊ সম্পাদিত হতো। কিন্তু সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে পরিবারের অর্থনৈতিক কাজগুলো মিল, কারখানা, দোকান, বাজার, ব্যাংক এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সম্পাদিত হচ্ছে। এখন পরিবারের সদস্যরা অর্থ উপার্জনের জন্য ঘরের বাইরে কাজ করে। বর্তমানে এজন্য পরিবারকে আয়ের একক বলা হয়। তাছাড়া আমাদের দেশে গ্রামীণ কৃষি পরিবার কৃষি অর্থনীতির মূল চালিকা শক্তি। শুধু তাই নয়, পরিবারকে কেন্দ্র করে এদেশের কুটির শিল্প গড়ে উঠেছে, যা আমাদের দেশের অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

 গ           ছক ‘অ’-তে উল্লিখিত বিষয়গুলো সামাজিকীকরণের অন্যতম উপাদান সামাজিক পরিবেশকে নির্দেশ করে। যে বিশেষ সমাজব্যবস্থার মধ্যে মানুষ বাস করে তাকে সামাজিক পরিবেশ বলে। সামাজিক পরিবেশের মধ্যেই মানুষ বিকশিত হয়। সামাজিক পরিবেশে গড়ে উঠেছে পরিবার, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে গড়ে উঠা সংস্কৃতি মানুষের আচরণকে নানাভাবে প্রভাবিত করে, যা সাংস্কৃতিক পরিবেশের অংশ। মানুষের সৃষ্টি করা উপাদানসমূহ নিযে সাংস্কৃতিক পরিবেশ গঠিত। ঘর-বাড়ি, রাস্তা-ঘাট, আচার-আচরণ, জ্ঞান-বিজ্ঞান সবই সাংস্কৃতিক পরিবেশের অন্তর্গত। মানুষের সামাজিকীকরণে সাংস্কৃতিক পরিবেশের প্রভাবও গভীর। উন্নত সাংস্কৃতিক পরিবেশে মানুষের মানবিক গুণাবলি বিকশিত হয় এবং মনের প্রসারতা বাড়ে।            ঐক্যবদ্ধ জীবন যাপনের কারণে মানুষ সামাজিক জীব হিসেবে স্বীকৃত। ঐক্যবদ্ধ জীবন-যাপনের পিছনেব রয়েছে মনস্তাত্ত্বিক কারণ। যান্ত্রিক সভ্যতা বিকাশের পারিপার্শ্বিক অবস্থাকে বলা হয় প্রযুক্তিগত পরিবেশ। এ পরিবেশও সামাজিক পরিবেশকে প্রভাবিত করে। প্রযুক্তিগত আবিষ্কার; যেমনÑ কম্পিউটার, টেলিভিশন, ইন্টারনেট প্রভৃতি মানুষের আচার-আচরণকে প্রভাবিত করে।

 ঘ            ছক ‘ই’-তে উল্লিখিত অনুষ্ঠানগুলো সমাজজীবনের গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ যা ব্যক্তির সামাজিকীকরণের ওপর ব্যাপক প্রভাব ফেলে। সমাজজীবন সামাজিকীকরণের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। মানুষের সমাজজীবন মূলত কতকগুলো আচার-আচরণ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। মানুষ যে সমাজে বসবাস করে, সে সমাজের জীবনধারা অর্থাৎ আচার-আচরণের সমষ্টিই হলো সমাজজীবন। মানুষ সমাজের নানা কর্মকাÊ ও অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে। এসব কর্মকাÊ ও অনুষ্ঠান সংশ্লিষ্ট আচরণের সাথে মানুষ ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া করে খাপ খাওয়ানোর চেষ্টা করে। এক্ষেত্রে মানুষ অন্যের আচরণ অনুকরণ করে কাজ সম্পাদনের চেষ্টা করে। অর্থাৎ অনুকরণ প্রবণতা থেকে মানুষ একই ভাষা, উচ্চারণ, কথা বলার ধরনসহ নানা বিষয় আয়ত্ব করে থাকে। সমাজ-সংস্কৃতির বিভিন্ন বিষয় ভাষার মাধ্যমে মানুষের মধ্যে সঞ্চারিত হয়। জন্মদিন, বিয়ে, ঈদ, পূজা, বড়দিন, বুদ্ধের জন্মদিন, বিবাহবার্ষিকী প্রভৃতি অনুষ্ঠান সমাজ জীবনে অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। ছক ‘ই’-তে এসব অনুষ্ঠানাদিই উল্লিখিত হয়েছে। সমাজজীবনের এসব অনুষ্ঠান ব্যক্তির সামাজিকীকরণে প্রভাব ফেলে।

প্রশ্ন- ১৩ সামাজিকীকরণে পরিবার পরিবারের সদস্যদের ভূমিকা  

তুহিন চার ভাইয়ের মধ্যে সবার ছোট। সে তার এলাকার একটি স্কুলে নবম শ্রেণিতে পড়ালেখা করে। তার মা-বাবার মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া লাগে। বড় ভাইরা যে যার মতো করে চলে। কেউ তুহিনের ভালো মন্দের খবর নেয় না। তুহিন ক্লাসের অন্যদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করে।

 ক.গ্রাম ও শহর উভয় সমাজে শিশু কোথায় লালিত-পালিত হয়?   ১

খ.শিশুর সামাজিকীকরণে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের প্রভাব গুরুত্বপূর্ণ- ব্যাখ্যা কর।               ২

গ.তুহিনের সামাজিকীকরণের ক্ষেত্রে যে প্রতিষ্ঠানের অভাব রয়েছে তার ব্যাখ্যা দাও।            ৩                           

ঘ.“তুহিনের অসৌজন্যমূলক কাজের জন্য তার পিতামাতাই বেশি দায়ী” Ñ বিশ্লেষণ কর।    ৪

 ক          গ্রাম ও শহর উভয় সমাজে শিশু পরিবারে লালিত-পালিত হয়।

 খ           শিশু তার পিতা-মাতা ও অন্যান্য আত্মীয়স্বজনকে মসজিদ, মন্দির, গির্জা ও প্যাগোডাতে ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান সম্পাদন করতে দেখে এসব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন কার্যক্রমে শিশুকিশোররা অংশগ্রহণ করে। এসব প্রতিষ্ঠানের ধর্মীয় অনুষ্ঠান শিশুমনে গভীর রেখাপাত করে। তাদের বাহ্যিক আচার-ব্যবহারকে সংযত করে এবং নৈতিক উন্নতি সাধন করে। এসব ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ব্যক্তির বিবেকবোধ ও চেতনাকে জাগ্রত করে। পারস্পরিক বন্ধন সুদৃঢ় করে, সৌহার্দ ও সম্প্রীতি বাড়িয়ে তোলে, যা শিশু-কিশোরদের নৈতিকতা বিকাশে সহায়তা করে। সম্প্রীতির শিক্ষা মনের সংকীর্ণতাকে দূরীভূত করে।

 গ  তুহিনের সামাজিকীকরণের ক্ষেত্রে মা-বাবা, পরিবার ও পরিবারের সদস্যদের ভূমিকার অভাব রয়েছে। আমার যে ধরনের পরিবারেই বেড়ে উঠি না কেন, পারিবারিক জীবনের মধ্যেই আমাদের শৈশব কাটে। স্বাভাবিকভাবেই পারিবারিক জীবনের ভালো দিক এবং মন্দ দিক সবই আমাদের আচরণকে প্রভাবিত করছে। পরিবারের মধ্যে সামাজিক নীতিবোধ ও নাগরিক চেতনার সূচনা হয়। আমরা সহযোগিতা, সহিষ্ণুতা, সম্প্রীতি, ভ্রাতৃত্ববোধ, ত্যাগ, ভালোবাসা প্রভৃতি গুণ পরিবারের মধ্য থেকেই অর্জন করি। পরিবারের মধ্যে প্রধান যে বিষয়টি শিশুর সামাজিকীকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে তা হলো মা-বাবার মধ্যকার সম্পর্ক। মা-বাবার মধ্যে সুসস্পর্ক শিশুর ব্যক্তিত্বের সুষ্ঠু বিকাশের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। আবার মা-বাবার মধ্যকার দ্বন্দ্ব তাদের মধ্যেও দ্বন্দ্বের সৃষ্টি করে। উদ্দীপকেও দেখা যায়, তুহিন তার বাবা-মায়ের মধ্যে প্রতিনিয়ত ঝগড়া করতে দেখে এবং বড় ভাইরা যে যার মতো চলে। তাদের কাছ থেকে ন্যায়-অন্যায়, ভালো-মন্দের কোনো শিক্ষা পায়নি। এতে তুহিনের সামাজিকীকরণ ব্যহত হয়। উপর্যুক্ত আলোচনার প্রেক্ষিতে বলা যায় যে, তুহিনের সামাজিকীকরণের ক্ষেত্রে বাবা-মা, পরিবার ও পরিবারের সদস্যদের ভূমিকার অভাব রয়েছে।

 ঘ            তুহিনের অসৌজন্যমূলক আচরণের জন্য তার পিতামাতাই বেশি দায়ী। পরিবারের মধ্যে প্রধান যে বিষয়টি শিশুর সামাজিকীকরণের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে তা হলো মা-বাবার মধ্যকার সম্পর্ক মা-বাবার মধ্যে সুসম্পর্ক শিশুর ব্যক্তিত্বের সুষ্ঠু বিকাশের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। আবার মা-বাবার মধ্যকার দ্বন্দ্ব তাদের মধ্যেও দ্বন্দ্বের সৃষ্টি করে। মা-বাবার এ স্বতন্ত্র আচরণ ও মূল্যবোধ শিশুর সামাজিকীকরণে প্রভাব ফেলে। শিশুর আত্মপ্রত্যয়ী মনোভাব ও জিদভাব মা-বাবার আচরণের ফল। এভাবে পরিবারের অন্যান্য সদস্য; যেমন : ভাই-বোন, চাচা-চাচি, চাচাতো ভাই-বোন, দাদা-দাদি, নানা-নানি ও নিকট আত্মীয়স্বজনের কাছ হতে শিশুর জীবনে অনেক আচরণিক বিষয় রেখাপাত করে, উদ্দীপকেও দেখা যায়, তুহিনের বাবা-মায়ের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ থাকতে। তাদের কাছ থেকে তুহিন ঝগড়া বিবাদ আর অসৌজন্যমূলক আচরণ ছাড়া আর কিছুই শিখতে পারেনি। উল্লিখিত আলোচনার মাধ্যমে বলা যায় যে, তুহিনের অসৌজন্যমূলক আচরনের জন্য তার পিতামাতাই বেশি দায়ী।

 প্রশ্ন- ১৪    সামাজিক পরিবেশ 

একজন সমাজবিজ্ঞানী পত্রিকায় একটি নিবন্ধের প্রথম কলামে লিখলেন, আমরা যা করি তাই আমাদের সংস্কৃতি। ব্যক্তির সামাজিকীকরণে এ সংস্কৃতি প্রভাব ফেলে। তিনি শেষের কলামে লিখলেন, “ব্যক্তির সামাজিকীকরণের এমনি আরও অনেক সামাজিক উপাদানের প্রভাব আছে।”

 ক.ইসলাম ধর্মের বৃহত্তর ধর্মীয় উৎসব কোনটি?   ১

খ.পরিবারের বিনোদনমূলক কাজের ধারণা দাও। ২

গ.উদ্দীপকে সমাজবিজ্ঞানী তার নিবন্ধে কোন উপাদানের প্রতি ইঙ্গিত করেছেন? ব্যাখ্যা কর।           ৩

ঘ.উদ্দীপকের শেষ অংশের যথার্থতা মূল্যায়ন কর।             ৪

 ক          ইসলাম ধর্মের বৃহত্তর ধর্মীয় উৎসব হচ্ছে ঈদুল ফিতর।

 খ           পরিবার অবকাশ বিনোদনের কেন্দ্রস্থল। পরিবারের সদস্যরা নিজেদের মধ্যে গল্পগুজব, হাসিঠাট্টা, আমোদ-আহ্লাদ, খেলাধুলা, গানবাজনা ইত্যাদি করে অবসর বিনোদন করে বর্তমানে যদিও বিনোদন ব্যবস্থায় নানা প্রযুক্তি, যান্ত্রিকতা এসেছে তথাপি মানসিক আনন্দের জন্য আজও পরিবারকেই সবচেয়ে বড় বিনোদনকেন্দ্র ধরা হয়ে থাকে।

 গ           উদ্দীপকে সমাজবিজ্ঞানী ব্যক্তিজীবনে সামাজিক পরিবেশ উপাদানের প্রতি ইঙ্গিত করেছেন। নিচে তা ব্যাখ্যা করা হলো :

যে বিশেষ ব্যবস্থার মধ্যে মানুষ বাস করে তাকে সামাজিক পরিবেশ বলে। সামাজিক পরিবেশে গড়ে উঠেছে পরিবার, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে গড়ে ওঠা সংস্কৃতি মানুষের আচরণকে নানাভাবে প্রভাবিত করে, যা সাংস্কৃতিক পরিবেশের অংশ। মানুষের সৃষ্টি করা উপাদানসমূহ নিয়ে সাংস্কৃতিক পরিবেশ গঠিত। ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাট, আচার-আচরণ, জ্ঞানবিজ্ঞান সবই সাংস্কৃতিক পরিবেশের অন্তর্গত। মানুষের সামাজিকীকরণে সামাজিক পরিবেশের প্রভাবও গভীর। উন্নত সাংস্কৃতিক পরিবেশে মানুষের মানবিক গুণাবলি বিকশিত হয় এবং মনের প্রসারতা বাড়ে। সুতরাং উল্লিখিত আলোচনার মাধ্যমে বলা যায় যে, উদ্দীপকে সামজবিজ্ঞানী ব্যক্তিজীবনে সামাজিক পরিবেশ উপাদানের প্রতি ইঙ্গিত করেছেন।

 ঘ            উদ্দীপকে উল্লিখিত শেষ অংশের বক্তব্য হলো ব্যক্তির সামাজিকীকরণে সংস্কৃতি ছাড়া আরও অনেক সামাজিক উপাদানের প্রভাব রয়েছে। ব্যক্তির সামাজিকীকরণ সামাজিক পরিবেশ, সমাজজীবন ও সামাজিক মূল্যবোধের পারস্পরিক ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়ার মাধ্যমে ঘটে থাকে। সমাজজীবন সামাজীকরণের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। মানুষের সমাজজীবন মূলত কতকগুলো আচার-আচরণ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। মানুষ যে সমাজে বসবাস করে, সে সমাজের জীবনধারা অর্থাৎ আচার-আচরণের সমষ্টিই হলো সমাজজীবন। জন্মদিন, বিয়ে, ঈদ, পূজা, বড়দিন, গৌতমবুদ্ধের জন্মদিন, বিবাহবার্ষিকী প্রভৃতি অনুষ্ঠান সমাজজীবনে অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। সমাজজীবনের এসব অনুষ্ঠান ব্যক্তির সামাজিকীকরণে প্রভাব ফেলে। মূল্যবোধ আমাদের সমাজবদ্ধ জীবনের বৈশিষ্ট্য। মানুষের জীবনধারার মান পরিমাপ করা যায় এই মূল্যবোধের মাধ্যমে। সামাজিক মূল্যবোধ হলো সাধারণ সাংস্কৃতিক আদর্শ। এই আদর্শের দ্বারা সমাজের মানুষের মনোভাব, প্রয়োজন ও ভালো মন্দের নীতিগত দিক যাচাই করা যায়। মানুষ বড় হওয়ার সাথে সাথে সামাজিক মূল্যবোধগুলো শেখে। সুতরাং, উদ্দীপকে উল্লিখিত শেষ অংশের বক্তব্য হলো ব্যক্তির সামাজিকীকরণ সংস্কৃতি ছাড়াও আরও অনেক সামাজিক উপাদানের প্রভাব রয়েছে।

অতিরিক্ত সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন- ১৫ পরিবারের ধারণা  

রহিম মা-বাবার একমাত্র সন্তান। মা-বাবা বংশরক্ষার জন্য পার্শ্ববর্তী একটি মেয়ের সাথে রহিমের বিবাহ দেন। তিন বছর পর রহিমের সংসারে একটি সুন্দর ফুটফুটে সন্তান জন্মগ্রহণ করে।

 ক.নয়াবাস পরিবার কাদের মধ্যে দেখা যায়?         ১

খ.পরিবারে শিশুর শিক্ষামূলক কাজের পরিচয় দাও।          ২

গ.উদ্দীপকে সমাজ কাঠামোর কোন প্রতিষ্ঠানের উপস্থিতি রয়েছে? ব্যাখ্যা কর।      ৩

ঘ.উদ্দীপকে সমাজের যে প্রতিষ্ঠানের উপস্থিতি রয়েছে তার গুরুত্ব বর্ণনা কর।         ৪

 ক          শহরে চাকরিজীবীদের মধ্যে  নয়াবাস পরিবার দেখা যায়।

 খ           পরিবার শিশুর অন্যতম উল্লেখযোগ্য শিক্ষাকেন্দ্র। জন্মের পর শিশু গৃহেই প্রাথমিক শিক্ষা লাভ করে। মাতাই শিশুর খাদ্যাভ্যাস গঠন ও ভাষা শিক্ষার প্রথম মাধ্যম। মা শৈশবে শিশুকে গান, বর্ণ শিক্ষার কৌশল, ছড়া শিক্ষা দিয়ে থাকেন। আচার-ব্যবহার, নিয়মানুবর্তিতা, নৈতিকতা, ধর্মীয় বিধিবিধান, আচার-আচরণ সম্পর্কিত বিষয়গুলো শিশু পরিবার থেকেই শিক্ষা গ্রহণ করে।

 গ           উদ্দীপকে সমাজ কাঠামোর পরিবারের উপস্থিতি রয়েছে। সামাজিক প্রতিষ্ঠানের মধ্যে পরিবার সবচেয়ে আদি ও গুরুত্বপূর্ণ। এটি সমাজ কাঠামোর মৌল সংগঠন। পরিবার হচ্ছে মোটামুটিভাবে স্বামী-স্ত্রীর একটি স্থায়ী সংঘ বা প্রতিষ্ঠান, যেখানে সন্তানসন্ততি থাকতে পারে আবার নাও থাকতে পারে। পরিবার মানুষের জৈবিক প্রয়োজন সাধন করে এবং বংশগতি অ¶ুণ্ণ রাখে। বিবাহ, আত্মীয়তা অথবা পিতামাতা সূত্রের বন্ধনে আবদ্ধ সামাজিক দলই পরিবার। বিবাহ পরিবার গঠনের অন্যতম পূর্বশর্ত। সাধারণত একজন পুরুষ সমাজস্বীকৃত উপায়ে একজন নারীকে বিয়ে করে পরিবার গঠন করে। আদিম সমাজেও পরিবারের অস্তিত্ব ছিল, সে সমাজে বিবাহ ব্যতিরেকেই পরিবার গঠিত হতো। কিন্তু বর্তমান সমাজে এটা সম্ভব নয়। উদ্দীপকেও দেখা যায়, রহিম বংশরক্ষার জন্য পার্শ্ববর্তী একটি মেয়েকে বিয়ে করেছে। বিয়ের তিন বছর পর তার সংসারে একটি সন্তান জন্মগ্রহণ করে। উপর্যুক্ত আলোচনা শেষে বলা যায় যে, বিবাহের মাধ্যমেই মূলত পরিবার গঠিত হয়ে থাকে।

 ঘ            উদ্দীপকে সমাজের পরিবার নামক প্রতিষ্ঠানের উপস্থিতি রয়েছে। পরিবার হচ্ছে মানুষের দলবদ্ধ জীবনযাপনের বিশ্বজনীন প্রতিষ্ঠান। সব সমাজে এবং সমাজ বিকাশের প্রত্যেক স্তরেই পরিবারের অস্তিত্ব রয়েছে। এটি আমাদের দলবদ্ধ জীবনের আবেগময় ভিত্তি। সন্তান উৎপাদন, প্রতিপালন এবং স্নেহ-মায়ামমতার বন্ধন, মূল্যবোধ গঠন, অধিকার সচেতনতা সৃষ্টি প্রভৃতি পরিবারের মধ্যেই ঘটে। আদিম সমাজ হতে শুরু করে আজ পর্যন্ত পরিবারের গঠন, কার্যাবলি ও কাঠামোতে অনেক পরিবর্তন হয়েছে। কিন্তু এই পরিবর্তন সত্ত্বেও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের তুলনায় মানবসমাজে পরিবারের প্রয়োজনীয়তা ও গুরুত্ব অপরিসীম। কেননা, মানুষের জীবনের শুরু হতে শেষ অবধি আশ্রয়স্থল হচ্ছে পরিবার। পরিবারের সাথে মানুষের সম্পর্ক গভীর ও শৃঙ্খলিত, জন্ম হতে মৃত্যু পর্যন্ত। পরিবারের মাধ্যমেই সামাজিক, অর্থনৈতিক, মনস্তাত্ত্বিক এবং সাংস্কৃতিক নিরাপত্তা নিশ্চিত হয়। যেমনটি উদ্দীপকে দেখা যায়, রহিম তার বাবা-মা, স্ত্রী, সন্তান নিয়ে একটি পরিবার গড়ে তুলছে।  সুতরাং উপর্যুক্ত আলোচনায় প্রেক্ষিতে বলা যায়, ব্যক্তি ও সমাজ জীবনে পরিবারের গুরুত্ব অপরিসীম।

প্রশ্ন- ১৬ পরিবারের প্রকারভেদ  

বিপুল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে। তার গারো ¶ুদ্র নৃগোষ্ঠীর এক বন্ধু রয়েছে, নাম চৌপদ। বিপুল কক্সবাজারে বন্ধুর বাড়িতে বেড়াতে যায়। সেখানে একটি বিষয় বিপুলকে বিস্মিত করে। বন্ধুর মা তাদের পরিবারের সকল ক্ষমতা ও কর্তৃত্বের অধিকারী। অথচ বিপুলদের পরিবারে তার বাবা ক্ষমতা ও কর্তৃত্বের অধিকারী।

 ক.পরিবার গঠনের অন্যতম পূর্বশর্ত কী?               ১

খ.অন্তর্গোত্র বিবাহভিত্তিক পরিবার বলতে কী বোঝায়?      ২

গ.উদ্দীপকে বর্ণিত বিপুল ও তার বন্ধুর পরিবারের ধরন ব্যাখ্যা কর।               ৩                           

ঘ.‘এছাড়াও পরিবারের আরও অনেক ধরন আছে’Ñ কথাটি বিশ্লেষণ কর।  ৪

 ক          পরিবার গঠনের অন্যতম পূর্বশর্ত হলো বিবাহ।

 খ           যখন কোনো ব্যক্তি নিজ গোত্রের মধ্যে বিয়ে করে তখন তাকে অন্তর্গোত্র বিবাহভিত্তিক পরিবার বলে। অন্তর্গোত্রভিত্তিক বিয়ে হিন্দুসমাজেই অধিক প্রচলিত। এ ধরনের বিয়ের পিছনে যুক্তি ছিল নিজ গোত্রের মধ্যে তথাকথিত রক্তের বন্ধন বা বিশুদ্ধতা রক্ষা করা।

 গ           উদ্দীপকে উল্লিখিত বিপুলের পরিবার হলো পিতৃতান্ত্রিক ও তার বন্ধুর পরিবার হলো মাতৃতান্ত্রিক। পরিবারের সামগ্রিক ক্ষমতা ও কর্তৃত্বের ভার পুরুষ সদস্য অর্থাৎ পিতা, স্বামী কিংবা বয়স্ক পুরুষের ওপর ন্যস্ত থাকলে এ ধরনের পরিবারকে পিতৃপ্রধান পরিবার বলা হয়। এ ধরনের পরিবারের বংশ পরিচয় প্রধানত পুরুষ সূত্র দ্বারা নির্ধারিত হয়। বাংলাদেশের সমাজে এ ধরনের পরিবার রয়েছে। উদ্দীপকে দেখা যায়, বিপুলের পরিবারের প্রধান পুরুষ, তাই তার পরিবারটি পিতৃতান্ত্রিক। আবার যে পরিবারে সামগ্রিক ক্ষমতা, কর্তৃত্ব ও ভার মায়ের হাতে অর্থাৎ মা-ই যখন ওই পরিবারের সর্বময় কর্তা, এ ধরনের পরিবারকে মাতৃতান্ত্রিক পরিবার বলে। খাসিয়া এবং গারোদের পরিবার মাতৃতান্ত্রিক। বিপুলের বন্ধুর পরিবারের প্রধান তার মা, তাই বিপুলের বন্ধুর পরিবারটি মাতৃতান্ত্রিক। উপর্যুক্ত আলোচনায় প্রতীয়মান হয় যে, বিপুলের পরিবার পিতৃতান্ত্রিক ও তার বন্ধুর পরিবার মাতৃতান্ত্রিক।

 ঘ  উদ্দীপকে উল্লিখিত পরিবার হলো পিতৃতান্ত্রিক ও মাতৃতান্ত্রিক পরিবার। এছাড়াও পরিবারের আরও অনেক ধরন আছে। সমাজভেদে ও দেশভেদে বিভিন্ন প্রকারের পরিবার রয়েছে। বিভিন্ন মাপকাঠির ভিত্তিতে পরিবারকে বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে। স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবার তিন ধরনের যেমনÑ একপত্নীক, বহুপত্নীক ও বহুপতি পরিবার। আকারের ভিত্তিতে পরিবার তিন ধরনের যেমনÑ একক পরিবার, যৌথ পরিবার ও বর্ধিত পরিবার।     বংশমর্যাদা এবং সম্পত্তির উত্তরাধিকারের ভিত্তিতে পরিবার দুই ধরনের, যেমনÑ পিতৃসূত্রীয় ও মাতৃসূত্রীয় পরিবার। পাত্র-পাত্রী নির্বাচনের ভিত্তিতে পরিবার দুই ধরনের, যেমনÑ বহির্গোত্র বিবাহভিত্তিক পরিবার এবং অন্তর্গোত্র বিবাহভিত্তিক পরিবার। উপরিউক্ত আলোচনায় প্রতীয়মান হয় যে, পিতৃতান্ত্রিক ও মাতৃতান্ত্রিক পরিবার ছাড়াও আরও অনেক ধরনের পরিবার আছে।

প্রশ্ন- ১৭  পরিবারের প্রকারভেদ 

আরিফ সামান্য খাবারের দোকানদার। তার পরিবারে স্ত্রী, সন্তান ছাড়াও রয়েছে মা-বাবা ও ভাই-বোন। সন্তানদের লেখাপড়া চালাতে তাকে বেগ পেতে হচ্ছে। অন্যদিকে বন্ধু সবুজ সরকারি চাকরি পেয়ে গ্রাম ছেড়ে শহরে গিয়ে দুটি সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করছে।

 ক.আকারের ভিত্তিতে পরিবার কত প্রকার?           ১

খ.পরিবার শিশুর অন্যতম উল্লেখযোগ্য শিক্ষাকেন্দ্র’-ব্যাখ্যা কর।  ২

গ.আরিফ কোন ধরনের পরিবারের সদস্য তা ব্যাখ্যা কর। ৩                           

ঘ.আরিফ ও সবুজের পরিবারে কাঠামোগত পার্থক্য বিশ্লেষণ কর। ৪

 ক          আকারের ভিত্তিতে পরিবার তিন প্রকার।

 খ           পরিবার শিশুর অন্যতম উল্লেখযোগ্য শিক্ষাকেন্দ্র। জন্মের পর শিশু গৃহেই প্রাথমিক শিক্ষা লাভ করে। যদিও বর্তমানে শিক্ষা দেওয়ার যাবতীয় দায়িত্ব গ্রহণ করেছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তবুও আচার-ব্যবহার, নিয়মানুবর্তিতা, নৈতিকতা, ধর্মীয় বিধিবিধান, আচার-আচরণ সম্পর্কিত বিষয়গুলো শিশু পরিবার থেকেই শিক্ষা গ্রহণ করে।

 গ           আরিফ যৌথ পরিবারের সদস্য। সাধারণত পরিবারের কাঠামো অনুযায়ী পরিবারকে কয়েকটি ভাগে ভাগ করা হয়। এগুলোর মধ্যে রয়েছে পিতৃতান্ত্রিক পরিবার, মাতৃতান্ত্রিক পরিবার, একপত্নীক পরিবার, বহুপত্নীক পরিবার, বহুপতি পরিবার, একক পরিবার, যৌথ পরিবার প্রভৃতি। এ কাঠামোভিত্তিক পরিবারগুলোর মধ্যে একেকটির কার্যপরিধি একেক রকম। এ কার্যপরিধি বিবেচনায় আরিফের পরিবার যৌথ পরিবার। কারণ আরিফের পরিবারে তার স্ত্রী সন্তান ছাড়াও তার বাবা মা ও ভাই-বোন রয়েছে। আর আরিফ এই পরিবারের চালকের দায়িত্ব পালন করছেন যা কেবল একটি যৌথ পরিবারেই পরিলক্ষিত হয়। সুতরাং আমরা বলতে পারি যে, আরিফের পরিবার হচ্ছে একটি যৌথ পরিবার।

 ঘ  আরিফ ও সবুজের পরিবারের কাঠামোগত পার্থক্য রয়েছে। আরিফ তার পরিবারের প্রধান উপার্জনকারী ব্যক্তি। তার স্ত্রী সন্তানসন্ততি ছাড়াও বাবা-মা ও ভাই-বোন রয়েছে। কাঠামোগত দিক থেকে আরিফের পরিবারকে যৌথ পরিবারের অন্তর্ভুক্ত করা যায়। আরিফের বন্ধু সবুজ তার দুটি সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে শহরে বসবাস করছে। কাঠামোগত দিক থেকে এটি একক পরিবার বা অণু পরিবার। আধুনিক সমাজে সবাই একক পরিবারের দিকে ঝুঁকেছে। কারণ একক পরিবারের সদস্য সংখ্যা কম থাকায় পরিবার পরিচালনা সহজ হয়। এছাড়া এখানে ¶ুদ্র পরিসরে পারিবারিক উৎকর্ষ সাধন সহজ হয়। অন্যদিকে যৌথ পরিবারে সদস্য সংখ্যা বেশি থাকে। যার ফলে পরিবার পরিচালনাকারীর ওপর চাপ বেশি পড়ে। তবে যৌথ পরিবারে পারস্পরিক বন্ধন খুবই দৃঢ় থাকে। একে অন্যের বিপদে খুব দ্রুত এগিয়ে আসে। যা একক পরিবারে লক্ষ করা যায় না। উপর্যুক্ত আলোচনার মাধ্যমে বলতে পারি যে, আরিফ ও সবুজের পরিবারের কাঠামোগত পার্থক্য বিদ্যমান।

প্রশ্ন- ১৮ পরিবারের কার্যাবলি  

 ক.মানুষের আশ্রয়স্থল কোনটি? ১

খ.বংশমর্যাদা এবং সম্পত্তির উত্তরাধিকারের ভিত্তিতে পরিবারের প্রকারভেদ আলোচনা কর।             ২

গ.ছকে উল্লিখিত (রর) নং কাজগুলো আলোচনা কর।        ৩

ঘ.ছকে উল্লিখিত পরিবারের (র) নং কাজের গুরুত্ব বিশ্লেষণ কর।   ৪

 ক          মানুষের আশ্রয়স্থল হচ্ছে পরিবার।

 খ           বংশমর্যাদা এবং সম্পত্তির উত্তরাধিকারের ভিত্তিতে পরিবার দুই ধরনের হয়ে থাকে। যেমন : পিতৃসূত্রীয় ও মাতৃসূত্রীয় পরিবার। পিতৃসূত্রীয় পরিবারের সন্তানসন্ততি পিতার বংশমর্যাদার অধিকারী ও সম্পত্তির উত্তরাধিকারী হয়ে থাকে। মাতৃসূত্রীয় পরিবার মায়ের দিক থেকে বংশমর্যাদা ও সম্পত্তির উত্তরাধিকার অর্জন করে।

 গ           ছকে উল্লিখিত পরিবারের (রর) নং কাজটি হলো পরিবারের শিক্ষামূলক কাজ। ছকে বর্ণিত পরিবারের রর নং কাজ হলো দেশপ্রেম, নেতৃত্ব ও ঐক্য; যা পরিবারের শিক্ষামূলক কাজকেই নির্দেশ করে। পরিবারই শিশুর শিক্ষার প্রাথমিক স্তর। পরিবার শিশুর অন্যতম উল্লেখযোগ্য শিক্ষাকেন্দ্র। জন্মের পর শিশু গৃহেই প্রাথমিক শিক্ষা লাভ করে। মাতাই শিশুর শ্রেষ্ঠ শিক্ষক। সন্তানের ভরণপোষণের সাথে তার সামাজিকীকরণের প্রাথমিক দায়িত্ব পিতা-মাতা ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যের। এ সময় হতেই শিশু অপরের দৃষ্টিতে নিজেকে দেখতে শেখে। পারিবারিক মূল্যবোধ শেখে, পছন্দ-অপছন্দ বলতে পারে, পরিবারের বাইরের লোকের সাথে পরিচয় হয় এবং খাপখাওয়ানোর দক্ষতা অর্জন করে। শিশুকাল হতেই শিশু সমাজের রীতিনীতি, আচার-ব্যবহার, নিয়মকানুন, অভ্যাস প্রভৃতি পরিবার হতে শিক্ষালাভ করে। পারিবারিক সুন্দর পরিবেশেই শিশুর মধ্যে প্রত্যাশিত আচরণ তৈরি হয়। সুতরাং ছকে উল্লিখিত (র) নং অর্থাৎ শিক্ষামূলক কাজ পরিবারের একটি গুরুত্বপূর্ণ স্তর।

 ঘ            ছকে উল্লিখিত পরিবারের (র) নং অর্থনৈতিক কাজের গুরুত্ব অত্যধিক। পরিবার ছিল এক সময়ের অর্থনৈতিক কার্যকলাপের মূল কেন্দ্রস্থল। তখন পরিবারের যাবতীয় প্রয়োজনীয় বস্তুগুলো গৃহেই উৎপাদন হতো। এজন্য পরিবারকে বলা হতো উৎপাদন ব্যবস্থার প্রধান একক। এক সময়ে গ্রামীণ যৌথ পরিবারের মধ্যেই এসব অর্থনৈতিক কর্মকাÊ সম্পাদিত হতো। কিন্তু সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে পরিবারের অর্থনৈতিক কাজগুলো মিল, কারখানা, দোকান, বাজার, ব্যাংক এসব প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সম্পাদিত হচ্ছে। এখন পরিবারের সদস্যরা অর্থ উপার্জনের জন্য ঘরের বাইরে কাজ করে। বর্তমানে এজন্য পরিবারকে আয়ের একক বলা হয়। তাছাড়া আমাদের দেশে গ্রামীণ কৃষি পরিবার কৃষি অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি। শুধু তাই নয়, পরিবারকে কেন্দ্র করে এদেশের কুটিরশিল্প গড়ে উঠেছে, যা আমাদের দেশের অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ছকে উল্লিখিত (র) নং অর্থনৈতিক কাজ পরিবারের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

প্রশ্ন- ১৯ বাংলাদেশে গ্রাম শহরের পরিবারের ভূমিকা 

সবিতা ঢাকার বনানীতে বড় হয়েছে। এখানে তার বাবা, মা ও বড় বোন থাকে। শহুরে জীবনের সবকিছুই তাকে আকৃষ্ট করে। আচার-আচরণে সে পুরোপুরি শহরের মেয়ে। গ্রামে তার দাদি, চাচা-চাচি, চাচাতো ভাই-বোন থাকে। মামাতো বোন কবিতা তার সমবয়সী। সে প্রায়ই ঢাকায় বেড়াতে আসে। দুই বোনের মধ্যে খুবই ভাব, কিন্তু আচার-আচরণে উভয়ের মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে।

 ক.শিশুর সামাজিকীকরণে শক্তিশালী ভূমিকা পালন করে কে?      ১

খ.শিশুর সামাজিকীকরণের মাধ্যম হিসেবে পরিবারের ভূমিকা কী?              ২

গ.সবিতার সামাজিকীকরণে বিভিন্ন উপাদানের প্রভাব ব্যাখ্যা কর।                ৩                           

ঘ.সবিতা ও কবিতার মধ্যকার আচরণগত পার্থক্যের কারণ বিশ্লেষণ কর।   ৪

 ক          শিশুর সামাজিকীকরণে শক্তিশালী ভূমিকা পালন করে শিশুর খেলার সাথি।

 খ           সামাজিকীকরণের মাধ্যমগুলোর মধ্যে পরিবারের ভূমিকাই সর্বাপেক্ষা গুরুত্বপূর্ণ। বলা হয়ে থাকে যে, শিশুর ব্যক্তিত্ব বিকাশের পথে বংশগতি মূল উপাদান জোগায়, সংস্কৃতি নকশা তৈরি করে এবং পরিবারে পিতামাতা কারিগর হিসেবে কাজ করে। কারণ শিশুর দৈহিক, মানসিক, বস্তুগত ও অবস্তুগত যাবতীয় প্রয়োজন মেটায় পরিবার।

 গ           সবিতার সামাজিকীকরণে সামাজিক পরিবেশ, সমাজজীবন ও সামাজিক মূল্যবোধের প্রভাব রয়েছে। সবিতা শহরের পরিবেশে বড় হয়েছে। তাই তার সামাজিকীকরণে শহরের প্রভাব পড়েছে বেশি। উন্নত সাংস্কৃতিক পরিবেশে তার গুণাবলি বিকশিত হয়েছে। যান্ত্রিক সভ্যতা অর্থাৎ প্রযুক্তিগত পরিবেশের মধ্যে বড় হয়েছে সে। টেলিভিশন, কম্পিউটার প্রভৃতি তার আচরণকে প্রভাবিত করেছে। সমাজের নানা কর্মকাÊ ও অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের মাধ্যমে কথা বলার ধরনসহ নানা বিষয় আয়ত্ত করেছে। বিভিন্ন মানুষের সাথে মেশার ফলে তাদের জীবনধারা সম্পর্কে জানতে পেরেছে। এর ফলে মানুষের মনোভাব, ভালো-মন্দ যাচাই, ন্যায়বোধ প্রভৃতি সামাজিক মূল্যবোধ অর্জন করেছে। উপরিউক্ত আলোচনা থেকে বলা যায়, সবিতার সামাজিকীকরণে বিভিন্ন উপাদানের প্রভাব পড়েছে।

 ঘ            সবিতা ও কবিতার মধ্যে আচরণগত পার্থক্য রয়েছে। এই পার্থক্যের পেছনে কিছু কারণ রয়েছে। গ্রাম ও শহর উভয় সমাজেই শিশু লালিত-পালিত হয় পরিবারে। উভয় সমাজব্যবস্থায় পরিবারের যে সাধারণ মনোভাব থাকে তা পরিবারের অন্তর্ভুক্ত শিশুর মনের ওপর গভীর রেখাপাত করে। সবিতা বড় হয়েছে শহরের পরিবেশে। শহরে প্রতিবেশীদের সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক থাকে না। শহরের সবাই যান্ত্রিক। সবাই নিজেদের কাজে ব্যস্ত থাকায় প্রতিবেশীদের খোঁজখবর নেয় না। সবার সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক না থাকায় তাদের মনের মধ্যে সংকীর্ণতা দেখা দেয়। অপরদিকে গ্রামের খোলা পরিবেশে বড় হয় কবিতা। কবিতার আচরণে গ্রামের প্রভাব পরিলক্ষিত হয়। সে সবার সাথেই খুব আন্তরিক। গ্রামের আদর্শ, মূল্যবোধের মধ্যেই সে লালিত-পালিত হয়। তাই দেখা যাচ্ছে যে, গ্রাম ও শহরের ভিন্ন ভিন্ন সামাজিক আদর্শ, সংস্কার, মূল্যবোধ, খাদ্যাভ্যাস, প্রতিষ্ঠান প্রভৃতির কারণে সবিতা ও কবিতার মধ্যে আচরণগত পার্থক্য দেখা যায়। সুতরাং উল্লিখিত আলোচনার প্রেক্ষিতে বলা যায় যে, সাবিতা ও কবিতার মধ্যে আচরণগত পার্থক্য লক্ষ করা যায়।

প্রশ্ন- ২০ পরিবারের সাধারণ কার্যাবলি  

মিসেস সালমা সাদাত একটি বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানে নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছেন। কিছুদিন আগে সমাজের অবহেলিত পথশিশুদের ওপর একটি গবেষণামূলক কার্যক্রম সম্পাদন করেছেন। গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করতে গিয়ে তিনি লক্ষ করেছেন, যেসব পরিবারে মাতাপিতার সম্পর্ক ভালো নয়, সেসব পরিবারের সন্তানরা, তুলনামূলক যেসব পরিবারের পিতামাতার সম্পর্ক সুমধুর তাদের অপেক্ষা বেশি অপরাধপ্রবণ। আদর্শ নাগরিক গড়ে তোলার দায়িত্ব পরিবারের।

 ক.কোনটি মানুষের জীবনব্যাপী প্রক্রিয়া?              ১

খ.শিশুর জীবনে পিতামাতার প্রভাব বর্ণনা কর।    ২

গ.উদ্দীপকে বর্ণিত অপরাধপ্রবণ শিশুদের সুনাগরিক হতে পরিবার কী ধরনের ভূমিকা রাখতে পারে? বর্ণনা কর।       ৩

ঘ.সামাজিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিবারের কার্যাবলি বিশ্লেষণ কর।  ৪

 ক          সামাজিকীকরণ মানুষের জীবনব্যাপী প্রক্রিয়া।

 খ           শিশুর সবচেয়ে কাছের মানুষ পিতামাতা। স্বভাবতই সামাজিকীকরণের সূত্রপাত ঘটে মা থেকেই। মা শিশুর খাদ্যাভ্যাস গঠন ও ভাষা শিক্ষার প্রথম মাধ্যম। মা শৈশবে শিশুকে যেসব খাদ্যের প্রতি ঝোঁক সৃষ্টি করবেন, শিশুর পরবর্তী জীবনের আচরণে এর প্রভাব লক্ষ করা যায়। পিতামাতার স্বতন্ত্র আচরণ ও মূল্যবোধ শিশুর সামাজিকীকরণে প্রভাব ফেলে। এভাবেই শিশুর জীবনে পিতামাতার প্রভাব লক্ষণীয়।

 গ           পরিবারই তাদের সুনাগরিক করে গড়ে তুলতে পারে। পরিবার আদিম সামাজিক প্রতিষ্ঠান। সন্তানসন্ততির জন্মদান ও লালনপালনের নিমিত্তে জৈবিক সম্পর্ক দ্বারা সংগঠিত ¶ুদ্র সংগঠন পরিবার। মানুষের বহুমুখী মৌলিক প্রয়োজন মিটিয়ে সুন্দর ও নিরাপদ জীবনব্যবস্থা গঠনের জন্য পরিবার বহুবিধ কাজ করে পরিবার থেকেই সহযোগিতা, সহমর্মিতা, শৃঙ্খলাবোধ, আত্মসংযম ও সামাজিক মূল্যবোধের শিক্ষা লাভ করে। আর এ সদগুণাবলি অর্জনের জন্য পরিবারে পিতামাতার মধ্যে সুসম্পর্ক বজায় থাকা অতীব জরুরি। কেননা শিশুরা পিতামাতাকে বেশি অনুসরণ করে। পরিবারে পিতামাতা শাসকের ভূমিকা আর সন্তানরা নাগরিকের ভূমিকা পালন করে। আদেশ নিষেধ মেনে চলা এবং বড়দের প্রতি আনুগত্য প্রকাশের শিক্ষা পরিবারই দিয়ে থাকে। বিবেক, বুদ্ধি ও আত্মসংযমের শিক্ষাদানের মাধ্যমে পরিবারই তাকে সুনাগরিক করে গড়ে তোলে।

 ঘ            সামাজিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে পরিবার নিম্নলিখিত কার্যাবলি সম্পাদন করে।

জৈবিক কাজ : নর-নারীর জৈবিক প্রয়োজন মেটানো পরিবারের অন্যতম প্রধান কাজ। বিয়ের মাধ্যমে পরিবার তার সদস্যদের জৈবিক চাহিদা পূরণ করে।

সন্তান উৎপাদন লালনপালন : সন্তান উৎপাদনের একমাত্র স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান হলো পরিবার। জন্মের পর শিশুকে লালনপালন করে একজন আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার দায়িত্ব পরিবারের।

সামাজিকীকরণ : শিশুর চরিত্রের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপিত হয় পরিবারেই। শিশুকাল হতে একটি শিশু সমাজের রীতিনীতি, আচার-ব্যবহার, নিয়মকানুন, অভ্যাস প্রভৃতি পরিবার থেকেই শিক্ষালাভ করে।

অর্থনৈতিক কাজ : পরিবারের সদস্যদের অর্থনৈতিক চাহিদা তথা তাদের অন্যান্য চাহিদা মেটানোর দায়িত্ব হলো পরিবারের।

শিক্ষামূলক কাজ : যদিও বর্তমানে শিক্ষা দেওয়ার যাবতীয় দায়িত্ব গ্রহণ করেছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, তবুও আচার-ব্যবহার, নিয়মকানুন, সামাজিক রীতিনীতি ইত্যাদি শিশুরা পরিবারেই শেখে।

রক্ষামূলক কাজ : সবরকম বিপদ-আপদ, অসুখ-বিসুখ হতে পরিবারের সদস্যদের রক্ষা করার দায়িত্ব পরিবারের।

ধর্মীয় কাজ : শিশুর নৈতিক ও ধর্মীয় শিক্ষা মূলত পরিবারেই দেয়া হয়।

প্রশ্ন- ২১  সামাজিকীকরণে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান  

ফারিয়ার বাবা বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা। বাবার চাকরির সুবাদে ফারিয়া বহু দেশ ভ্রমণের সুযোগ লাভ করেছে। এক এক দেশের মানুষের বিশ্বাস, ধর্ম, চালচলন ইত্যাদির ভিন্নতা ফারিয়াকে অবাক করে। এ ব্যাপারে ফারিয়া তার স্কুলের ধর্ম শিক্ষককে প্রশ্ন করলে তিনি বললেন, ‘‘আদিম যুগ হতে আরম্ভ করে বর্তমান আধুনিক সভ্য সমাজেও ধর্মের অস্তিত্ব দেখা যায়। বিভিন্ন সমাজে ধর্মের বিভিন্ন ধরন দেখা যায়। যেমন : কোনো সমাজে ভূত-প্রেতকে কেন্দ্র করে ধর্ম গড়ে ওঠে, কোনো সমাজে মানুষ গাছপালা, লতাপাতা, পশুপাখিকে পূজা করে, কোনো সমাজে এক ঈশ্বর/সৃষ্টিকর্তাকে আরাধনা করে।

 ক.মাতৃবাস পরিবার কোথায় দেখা যায়?  ১

খ.ধর্মের অনুশাসনের প্রতি মানুষ শ্রদ্ধাশীল হয় কেন?        ২

গ.কীভাবে সুন্দর সমাজ গঠন করা যেতে পারে? উদ্দীপকের আলোকে বর্ণনা কর। ৩

ঘ.‘ফারিয়াদের সমাজে সংহতি র¶া করতে ধর্ম একটি নিয়ামক শক্তি হিসেবে কাজ করছে’-ব্যাখ্যা কর।         ৪

 ক          গারোদের মধ্যে মাতৃবাস পরিবার দেখা যায়।

 খ           সমাজজীবনে ধর্মের  ভূমিকা ব্যাপক। পৃথিবীর প্রায় প্রতিটি মানুষ কোনো না কোনো ধর্মের অনুসারী। পরিবার অনুসৃত ধর্মই সে পরিবারে জন্মগ্রহণকারী শিশুর ওপর বর্তায়। তাই প্রতিটি ধর্মের কিছু কিছু অনুশাসন রয়েছে। ধর্ম সাম্য ও শান্তির বাণী প্রচার করে বলেই মানুষ ধর্মীয় অনুশাসনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়।

 গ           সুন্দর সমাজ গঠনে ধর্মের ভূমিকা উদ্দীপকে নির্দেশিত হয়েছে । মূলত ধর্ম এমন এক ধরনের সামাজিক প্রতিষ্ঠান যাতে মানুষ অতি প্রাকৃতিক শক্তিকে কেবল বিশ্বাসই করে না, সেই বিশ্বাসকে জীবনের বিভিন্ন কর্মকাÊ ও অনুষ্ঠান আচরণের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত করে। যেমন এক আল্লাহতে বিশ্বাস করার সাথে সাথে আল্লাহর প্রতি তাদের আস্থা ও বিশ্বাস বাস্তবে নামাজ, রোজা ইত্যাদি আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে প্রমাণও করে। জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে তারা এই বিশ্বাস দ্বারা তাড়িত হয়। অর্থাৎ ধর্ম মানুষকে নিয়ন্ত্রণ করে। ধর্মীয় বিশ্বাস ব্যক্তিগত ব্যাপার হলেও সমাজজীবনে ধর্মের একটা বিশিষ্ট ভূমিকা রয়েছে। বিভিন্ন পারিবারিক, অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, অনুষ্ঠান প্রতিষ্ঠানের ওপর ধর্মের প্রভাব পরিলক্ষিত হয়। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলো সামাজিক মেলামেশার কেন্দ্র। সামাজিক মেলামেশার ফলে ধনী, দরিদ্র নির্বিশেষে সকল মানুষের মধ্যে পারস্পরিক সহানুভূতি ও প্রীতির সঞ্চার হয়। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলো মানুষের মধ্যে ভ্রাতৃত্ববোধ জাগ্রত করে, মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে এবং জনকল্যাণমূলক কর্ম সম্পাদন করার জন্য উৎসাহ প্রদান করে।

 ঘ            ফারিয়াদের সমাজে সংহতি রক্ষা করতে ধর্ম একটি নিয়ামক শক্তি হিসেবে কাজ করছেÑ ধর্ম সুপ্রাচীন একটি সামাজিক প্রতিষ্ঠান। সভ্যতার আদিকাল থেকে শুর“ করে অদ্যাবধি মানবসভ্যতার প্রতিটি পর্যায়েই ধর্মের অস্তিত্ব ল¶ণীয়। যেমন : মুসলমানরা এক আল্লাহতে বিশ্বাস করার সাথে সাথে আল্লাহর প্রতি তাদের আস্থা ও বিশ্বাস বাস্তবে নামাজ, রোজা ইত্যাদি আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে প্রমাণ করে। জীবনের বিভিন্ন ¶েত্রে তারা এই বিশ্বাস দ্বারা তাড়িত হয়। এর ফলে ধর্ম সব সমাজের মতো ফারিয়াদের সমাজকেও শৃঙ্খলাবদ্ধ রাখতে গুর“ত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছে। ধর্মীয় বিশ্বাস ব্যক্তিগত ব্যাপার হলেও সমাজজীবনে এর একটি বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। যা ফারিয়াদের সমাজেও ব্যাপকভাবে বিদ্যমান। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলো মানুষের মধ্যে ভ্রাতৃত্ববোধ জাগ্রত করার পাশাপাশি মানুষকে ঐক্যবদ্ধ জনকল্যাণমূলক কর্ম সম্পাদন করার জন্য উৎসাহ প্রদান করে। তাই বলা যায়, ফারিয়াদের সমাজে সংহতি র¶া করতে ধর্ম একটি নিয়ামক শক্তি হিসেবে কাজ করছে।

প্রশ্ন- ২২ সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়ায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা 

মুমতাহিনা মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে। লেখাপড়ায় সে অনেক ভালো। শহরের ভালো একটি স্কুলে সে পড়ালেখা করে। তার ঘরে টিভি ও ডিশ লাইন আছে। সে কম্পিউটারও ব্যবহার করে। নিয়মিত খবরের কাগজও পড়ে। বিকেলে সে যাদের সাথে খেলে তাদের কাছ থেকে জেনেছে যে, তাদের অনেকের বাসায় টিভি নেই এবং পত্রিকাও রাখে না।

 ক.বাংলাদেশে কোন ধরনের পরিবার দেখা যায়? ১

খ.স্থানীয় গোষ্ঠী বলতে কী বোঝ? ২

গ.উদ্দীপকে মুমতাহিনার সামাজিকীকরণে উল্লিখিত মাধ্যম কীভাবে অবদান রাখতে পারে? নিরূপণ কর।   ৩

ঘ.মুমতাহিনা কীভাবে তার প্রতিবেশী খেলার সাথিদের সামাজিকীকরণে সহযোগিতা করতে পারে? বিশ্লেষণ কর।      ৪

 ক          বাংলাদেশে পিতৃতান্ত্রিক পরিবার দেখা যায়।

 খ           গোষ্ঠী বা দল হলো অনেক ব্যক্তির সমষ্টি; যাদের মধ্যে এক বিশেষ সম্পর্ক রয়েছে। একটা সাংগঠনিক কাঠামোতে পরস্পরের মধ্যে মানবগোষ্ঠী হলো সামাজিক গোষ্ঠী। এ দৃষ্টিকোণ থেকে বিচার করলে রাজনৈতিক দল, শ্রমিক সংঘ, সাংস্কৃতিক ক্লাব, সাহিত্য ক্লাব প্রভৃতি গোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত।

 গ           উদ্দীপকে মুমতাহিনার সামাজিকীকরণে গণমাধ্যম বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারে। কেননা সামাজিকীকরণে গণমাধ্যম অনন্য ভূমিকা পালন করে। আর উল্লিখিত বিষয়গুলো গণমাধ্যমের অন্তর্ভুক্ত। সংবাদপত্রে দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি, অর্থনীতিসহ বিভিন্ন বিষয়বস্তুর উপর সংবাদ প্রকাশিত হয়। শিশু-কিশোররা এসব পাঠ করে মনের খোরাক পূরণ করতে পারে। টেলিভিশনে প্রচারিত বিভিন্ন গঠনমূলক অনুষ্ঠান ব্যক্তির জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলে। এর ফলে ব্যক্তির সচেতনতা বৃদ্ধি পায়, ব্যক্তি বিজ্ঞানমনস্ক হয়, তার মানসিক স্বাস্থ্য বিকশিত হয়। গঠনমূলক সামাজিক চলচ্চিত্রের অনেক চরিত্র ব্যক্তির আচরণকে প্রভাবিত করে। বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে শেখায়। সামাজিক অনেক ক্ষেত্রে আমাদের সচেতন করে। উল্লিখিত আলোচনার মাধ্যমে বলা যায় যে, উদ্দীপকে মুমতাহিনা সামাজিকীকরণে গণমাধ্যম বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারে।

 ঘ            উদ্দীপকে উল্লিখিত মুমতাহিনা তার প্রতিবেশী খেলার সাথিদের সামাজিকীকরণে অনন্য ভূমিকা পালন করতে পারে। শিশুর সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে খেলার সাথি ও পড়ার সাথির ভূমিকা রয়েছে। এদের মাধ্যমেই সহযোগিতা, সহনশীলতা, সহমর্মিতা নেতৃত্ব প্রভৃতি গুণাবলি বিকশিত হয়। এই সাথি দলের মধ্যে আবার কখনো দ্বন্দ্ব দেখা দেয় যা সমস্যা সমাধানে ও দ্বন্দ্ব নিরসনের কৌশল আয়ত্তে সহায়তা করে। খেলার সাথিদের মাধ্যমে শিশু নিজের আচরণের ভালো দিকের প্রশংসা এবং মন্দ দিকের সমালোচনা শুনতে পায়। এ ধরনের সমালোচনা শিশুকে সমাজের কাক্সি¶ত আচরণ করতে শিক্ষা দেয়। সমবয়সী খেলা ও পড়ার সাথিদের আচার-আচরণ একই প্রকৃতির হয়। এটি একটি ¶ুদ্র দল। এ দলের রয়েছে বিশেষ মূল্যবোধ, শৃঙ্খলা ও রীতিনীতি। এ কারণে এ দলকে বলে অন্তরঙ্গ বন্ধু দল।

প্রশ্ন- ২৩ পরিবারের প্রকারভেদ 

মি. ইউসুফ ও ধীমান একই বিশ্ববিদ্যালয়ে একই বিভাগে পড়াশোনা করে। তারা দুজন দুদেশের হলেও পরস্পর খুব ঘনিষ্ঠ বন্ধু। একদা ছুটিতে মি. ইউসুফ ধীমানের দেশে তার গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে এসে দেখে ধীমানের পরিবারে তার মা পরিবারের সকল ক্ষমতা ও কর্তৃত্বের অধিকারী। অথচ মি. ইউসুফের পরিবারে তার বাবাই প্রধান।

 ক.বংশ ও নিয়ন্ত্রণ সূত্রের ভিত্তিতে পরিবারকে কয় শ্রেণিতে ভাগ করা যায়?              ১

খ.বর্ধিত পরিবার বলতে কী বোঝ?              ২

গ.উদ্দীপকের মি. ইউসুফ ও ধীমানের পরিবার কোন ধরনের পরিবার? ব্যাখ্যা কর। ৩

ঘ.উদ্দীপকে বর্ণিত পরিবার ছাড়া আর কি কোনো ধরনের পরিবার আছে Ñ বিশ্লেষণ কর।    ৪

 ক          বংশ ও নিয়ন্ত্রণ সূত্রের ভিত্তিতে পরিবারকে দুই ভাগে ভাগ করা যায়।

 খ           পিতামাতা এবং সন্তানসন্ততি ও স্ত্রী পরিজন নিয়ে গঠিত পরিবারই বর্ধিত পরিবার। অর্থাৎ তিনি পুরুষের পারিবারিক বন্ধনের পরিবারই বর্ধিত পরিবার। আমাদের দেশে হিন্দুসমাজে এ ধরনের পরিবার এখনও দেখা যায়।

 গ           উদ্দীপকে বর্ণিত মি. ইউসুফের পরিবার হলো পিতৃতান্ত্রিক ও ধীমানের পরিবার হলো মাতৃতান্ত্রিক।  পরিবারের সামগ্রিক ক্ষমতা ও কর্তৃত্বের ভার পুরুষ সদস্য অর্থাৎ পিতা, স্বামী কিংবা বয়স্ক ব্যক্তির ওপর ন্যস্ত সমাজে এ ধরনের পরিবার রয়েছে। মি. ইউসুফের পরিবারের প্রধান পুরুষ তাই তার পরিবারটি পিতৃতান্ত্রিক। আবার যে পরিবারে সামগ্রিক ক্ষমতা ও কর্তৃত্ব  মায়ের হাতে অর্থাৎ মা-ই ওই পরিবারের সর্বময় কর্তা, এ ধরনের পরিবারকে মাতৃতান্ত্রিক পরিবার বলে। খাসিয়া এবং গারোদের পরিবার মাতৃতান্ত্রিক। মি. ইউসুফের বন্ধুর পরিবারের প্রধান তার মা। তাই মি. ইউসুফের বন্ধুর পরিবারটি মাতৃতান্ত্রিক। উপর্যুক্ত আলোচনায় পরিলক্ষিত হয় যে, মি. ইউসুফের পরিবার পিতৃতান্ত্রিক ও তার বন্ধুর পরিবার মাতৃতান্ত্রিক।

 ঘ            উদ্দীপকে বর্ণিত পরিবার হলো পিতৃতান্ত্রিক ও মাতৃতান্ত্রিক পরিবার। এছাড়াও পরিবারের আরও অনেক ধরন আছে। সমাজভেদে ও দেশভেদে বিভিন্ন প্রকারের পরিবার রয়েছে। বিভিন্ন মাপকাঠির ভিত্তিতে পরিবারকে বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে। স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবার তিন ধরনের। যেমনÑ একপত্নীক, বহুপত্নীক ও বহুপতি পরিবার। আকারের ভিত্তিতে পরিবার তিন ধরনের। যেমন : একক পরিবার, যৌথ পরিবার ও বর্ধিত পরিবার। বংশমর্যাদা এবং সম্পত্তির উত্তরাধিকারের ভিত্তিতে পরিবার দুই ধরনের, যেমন : পিতৃসূত্রীয় ও মাতৃসূত্রীয় পরিবার। পাত্র-পাত্রী নির্বাচনের ভিত্তিতে পরিবার দুই ধরনের। যেমন : বহির্গোত্র বিবাহভিত্তিক পরিবার এবং অন্তর্গোত্র বিবাহভিত্তিক পরিবার। পরিশেষে আমরা বলতে পারি যে, পিতৃতান্ত্রিক ও মাতৃতান্ত্রিক পরিবার ছাড়াও পরিবারের আরও অনেক ধরন আছে।

অনুশীলনমূলক কাজের আলোকে সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন- ২  বাংলাদেশে গ্রাম শহরের পরিবারের ভূমিকা 

দীপা শহরের মেয়ে। তার সব চাচারা গ্রামে থাকেন। তার এক চাচাতো বোন চন্দনা। গ্রামের পরিবেশে বেড়ে ওঠা চন্দনা পিতামাতার একমাত্র সন্তান।

 ক.জন্মের পর শিশু কোথায় প্রাথমিক শিক্ষা লাভ করে?    ১

খ.পরিবারকে উৎপাদন ব্যবস্থার প্রধান একক বলা হয় কেন?           ২

গ.দীপার সামাজিকীকরণে বিভিন্ন উপাদানের পারস্পরিক প্রভাব চিহ্নিত কর।         ৩                           

ঘ.চন্দনার সামাজিকীকরণ দীপার থেকে ভিন্ন প্রকৃতিরÑ আলোচনা কর।    ৪

 ক          জন্মের পর শিশু পরিবারে প্রাথমিক শিক্ষা লাভ করে।

 খ           পরিবার ছিল এক সময় অর্থনৈতিক কার্যকলাপের মূল কেন্দ্রস্থল। তখন পরিবারের যাবতীয় প্রয়োজনীয় বস্তুগুলো গৃহেই উৎপাদন হতো। এক সময়ে গ্রামীণ যৌথ পরিবারের মধ্যেই এসব অর্থনৈতিক কর্মকাÊ সম্পাদিত হতো। এজন্য পরিবারকে বলা হতো উৎপাদন ব্যবস্থার প্রধান একক।

 গ           দীপা শহরের মেয়ে। সে তার মাতাপিতাকে কাছে তেমন একটা পায় না। সে শহুরে তাই বোঝা যায় যে, তার বাবা-মা উভয়ই উপার্জন করেন। সংসার পরিচালনায় তাদের অনেক নিয়মনীতি প্রয়োগ করতে হয়। পিতামাতার এ স্বতন্ত্র আচরণ ও মূল্যবোধ তার সামাজিকীকরণে প্রভাব ফেলে। এতে দীপার আত্মপ্রত্যয়ী মনোভাব ও জিদভাব দেখা যায়। এভাবেই তার সামাজিকীকরণে বিভিন্ন উপাদান পারস্পরিক প্রভাব ফেলে।

 ঘ            চন্দনা দীপার চাচাতো বোন হলেও সে গ্রামে বড় হয়েছে। তাই চন্দনার সামাজিকীকরণ ভিন্ন প্রকৃতির। চন্দনা গ্রামের পরিবেশে বেড়ে ওঠে। ফলে সে পিতা-মাতার পাশাপাশি অন্যান্য সদস্য যেমন : ভাইবোন, চাচা-চাচি, চাচাতো ভাইবোন, দাদা-দাদি প্রভৃতি আত্মীয়স্বজনের নিকট হতে তার জীবনে অনেক আচরণিক বিষয় রেখাপাত করে, যা তার আত্মধারণাকে সমৃদ্ধ ও ব্যক্তিত্বকে সুন্দর করে তোলে। প্রেম ভালোবাসা, সহযোগিতা, সম্প্রীতি ইত্যাদি পরিবার থেকে অর্জন করে থাকে। অন্যদিকে দীপা শহরে একা একা আত্মপ্রত্যয়ী ও জিদভাব নিয়ে বেড়ে ওঠে। প্রাকৃতিক পরিবেশের সাথে সাথে সামাজিক পরিবেশের ভিন্নতা দীপা ও চন্দনার সামাজিকীকরণেও ভিন্নতা এনেছে।

প্রশ্ন- ২৫  সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়ায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা  

নূর ইসলাম একদিন খুব রাগ করে। এতে তার কাকা বলেন যে, নূর ইসলাম তার বাবার মতো জেদি হয়েছে। বাবার মতো জেদি হলেও সে মায়ের মতো কর্মে ধীর ও শান্ত। বিদ্যালয় ও সহপাঠীদের কাছে সে শান্ত হিসেবে পরিচিত।

 ক.আধুনিক যুগে সংস্কৃতি কোনটিকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে?     ১

খ.সামাজিক পরিবেশ বলতে কী বোঝ?    ২

গ.উদ্দীপকে নূর ইসলামের কাকার কথায় সামাজিকীকরণের কোন উপাদানের ইঙ্গিত রয়েছে? ব্যাখ্যা কর। ৩                           

ঘ.নূর ইসলামের জীবনে উদ্দীপকে উল্লিখিত প্রতিষ্ঠানটির ভূমিকা অনেক।Ñ কথাটি বিশ্লেষণ কর।  ৪

 ক          আধুনিক যুগে সংস্কৃতি গণমাধ্যমকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে।

 খ           যে বিশেষ সমাজব্যবস্থার মধ্যে মানুষ বাস করে তাকে সামাজিক পরিবেশ বলে। সামাজিক পরিবেশের মধ্যেই মানুষ বিকশিত হয়। সামাজিক পরিবেশের মধ্যে রয়েছে সমাজের প্রচলিত রীতিনীতি, প্রথা-প্রতিষ্ঠান, বিধিব্যবস্থা, সকল প্রকার প্রবণতা ও সমস্যা প্রভৃতি।

 গ           উদ্দীপকে উল্লিখিত নূর ইসলামের কাকার কথায় সামাজিকীকরণে পরিবার ও পরিবারের সদস্যদের ভূমিকার প্রতি ইঙ্গিত রয়েছে। পরিবারের মধ্যে প্রধান যে বিষয়টি শিশুর সামাজিকীকরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে তা হলো পিতামাতার মধ্যকার সম্পর্ক। পিতামাতার মধ্যকার সুসম্পর্ক শিশুর ব্যক্তিত্বের সুষ্ঠু বিকাশের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। পিতামাতার স্বতন্ত্র আচরণ ও মূল্যবোধ শিশুর সামাজিকীকরণে প্রভাব ফেলে। শিশুর আত্মপ্রত্যয়ী মনোভাব ও জেদি ভাব পিতামাতার আচরণের ফল। এভাবে পরিবারের অন্যান্য সদস্য ও আত্মীয়স্বজনের কাছ থেকে শিশুর জীবনে অনেক আচরণিক বিষয় রেখাপাত করে, যা শিশুর আত্মধারণাকে সমৃদ্ধ ও ব্যক্তিত্বকে সুন্দর করে তোলে। উদ্দীপকেও দেখা যায়, নূর ইসলাম বাবার মতো জেদি এবং মায়ের মতো শান্ত ও কর্মে ধীর। উপর্যুক্ত আলোচনা শেষে বলা যায় যে, শিশুর সামাজিকীকরণে পিতামাতা অনন্য ভূমিকা রাখে।

 ঘ            নূর ইসলামের জীবনে উদ্দীপকে উল্লিখিত প্রতিষ্ঠান অর্থাৎ বিদ্যালয়ের ভূমিকা অনেক। পরিবারের পর শিশুর সামাজিকীকরণে বিদ্যালয়ের প্রভাব গুরুত্বপূর্ণ। বিদ্যালয় শিশুর সামাজিকীকরণের আনুষ্ঠানিক মাধ্যম। শিশু জ্ঞানার্জনের পাশাপাশি কতকগুলো সামাজিক আদর্শ বিদ্যালয় থেকে শিখে থাকে। শিশু বিদ্যালয়ে বিভিন্ন কার্যক্রমে অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষক, সহপাঠী, কর্মচারী, বিদ্যালয়ের পরিবেশ, প্রাতিষ্ঠানিক মূল্যবোধ প্রভৃতির সংস্পর্শে আসে। সবগুলো উপাদানই শিশুর আচরণকে প্রভাবিত করে, যার মাধ্যমে শিশুর মধ্যে নেতৃত্ব, অন্যের মতের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ, ঐক্য, দেশপ্রেম, সহমর্মিতা, সহিষ্ণুতা প্রভৃতি জাগ্রত হয়। বিদ্যালয় শিক্ষার্থীকে পরবর্তী স্তরে শিক্ষাগ্রহণ কিংবা কর্মজগতের জন্য উপযোগী করে তোলে। উদ্দীপকেও দেখা যায়, নূর ইসলাম বিদ্যালয় ও সহপাঠীদের কাছে সে শান্ত হিসেবে পরিচিত। কারণ পাঠ্যবইয়ের বিষয়বস্তু, শিক্ষক ও সহপাঠীদের সংস্পর্শে এসে তার আচরণকে প্রভাবিত করেছে। বিদ্যালয়ের পরিবেশ শিক্ষকের মূল্যবোধ ও আচরণ শিক্ষার্থীর সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম।

অনুশীলনের জন্য সৃজনশীল প্রশ্নব্যাংক (উত্তরসংকেতসহ)

প্রশ্ন- ২৬ পরিবারের প্রকারভেদ 

কিবরিয়া দশম শ্রেণির ছাত্র। কুমিল্লা বসবাস করে। তার বাবা-মা ভাই ও বোনকে নিয়ে তাদের পরিবার। গ্রামে তার দাদা-দাদি, কয়েক চাচা-চাচি, তাদের সন্তান ও ফুফু এক পরিবারে থাকে। তার নানার পরিবারে নানা-নানি, বড় মামা-মামি এবং আরও দুই মামা একত্রে বাস করে।

ক.বংশমর্যাদার ভিত্তিতে পরিবার কত প্রকার?       ১

খ.বর্ধিত পরিবার বলতে কী বোঝ?              ২

গ.উদ্দীপকে পরিবারগুলোর ধরন নিরূপণ কর।   ৩

ঘ.উদ্দীপকে পরিবারের সবগুলো ধরন অন্তর্ভুক্ত হয়নি। কথাটি বিশ্লেষণ কর।           ৪

 ক          বংশমর্যাদার ভিত্তিতে পরিবার ২ প্রকার।

 খ           কোনো পরিবারের কর্তার সাথে যদি বাবা-মা এক বা একাধিক ভাই ও তাদের সন্তানসন্ততি বা নিকট আত্মীয়স্বজন বসবাস করে তবে তাকে বর্ধিত পরিবার বা যৌথ পরিবার বলে। বর্ধিত পরিবারের লোকসংখ্যা সাধারণত বেশি থাকে। শিল্পায়ন ও শহরায়নের প্রভাবে বর্ধিত পরিবার কাঠামোতে পরিবর্তন সূচিত হলেও এ ধরনের পরিবার এখনও বিলুপ্ত হয়নি। কিছু কিছু ক্ষেত্রে বর্ধিত পরিবারের বাহ্যিক শর্তাবলির পরিবর্তন লক্ষ করা গেলেও যৌথ পরিবারের সনাতন মনোভাব এখনও প্রবল।

 গ           আকারের ভিত্তিতে পরিবারের শ্রেণিবিভাগ কর।

 ঘ            পরিবারের শ্রেণিবিভাগ বিশ্লেষণ কর।

প্রশ্ন- ২৭ সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়া 

রাতুল সৎ, নিষ্ঠাবান ও কর্তব্যপরায়ণ ব্যক্তি হিসেবে সবার প্রিয় পাত্র। সে সবসময় নামাজ, কোরআন শরীফ তেলাওয়াতসহ ধর্মীয় অন্যান্য বিধি বিধানগুলো মেনে চলে। রাতুলের সবকিছুই অন্যের কাছে অনুসরণযোগ্য।          

ক.সামাজিক পরিবেশ কী?            ১

খ.পরিবার ছিল এক সময়ের অর্থনৈতিক কার্যকলাপের কেন্দ্রস্থল”Ñ বুঝিয়ে লেখ।   ২

গ.রাতুলকে সৎ, নিষ্ঠাবান ও কর্তব্যপরায়ণ ব্যক্তিত্বে পরিণত করার ক্ষেত্রে সামাজিকীকরণের কোন উপাদানটি কার্যকর রয়েছে? ব্যাখ্যা কর।         ৩

ঘ.রাতুলকে একজন পূর্ণাঙ্গ সামাজিক মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে পরিবারের ভূমিকাও রয়েছে”Ñ উক্তিটির যথার্থতা  নিরূপণ কর।    ৪

 ক          যে বিশেষ সমাজ ব্যবস্থার মধ্যে মানুষ বসবাস করে তাকে সামাজিক পরিবেশ বলে।

 খ           পরিবার ছিল এক সময়ের অর্থনৈতিক কার্যকলাপের মূল কেন্দ্রস্থল। এক সময় পরিবারের যাবতীয় প্রয়োজনীয় বস্তুগুলো গৃহেই উৎপাদিত হতো। পরিবারগুলো ছিল অর্থনৈতিকভাবে সবল। ঐ সময় পরিবারকে বলা হতো উৎপাদন ব্যবস্থার প্রধজান একক। গ্রামীণ যৌথ পরিবারের মধ্যে এই সব অর্থনৈতিক কর্মকাÊ সম্পাদিত হতো।

গ            সামাজিকীকরণের উপাদান হিসেবে সমাজ জীবন সম্পর্কে ব্যাখ্যা কর।

 ঘ            সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়ায় পরিবারের ভূমিকা বিশ্লেষণ কর।

প্রশ্ন- ২৮ বাংলাদেশের পরিবার কাঠামো 

মরক্কোর এক ছাত্র তার বাংলাদেশি বন্ধুকে জিজ্ঞেস করে তুমি যে ঘরে বসবাস কর সেখানে আর কে থাকে এবং তোমারা সবাই মিলে কী কাজ কর। বাংলাদেশি বন্ধু তাকে উত্তর দিল ঘরে আমার মা-বাবা, ভাইবোন রয়েছে। মা-বাবা আমাদের দেখাশোনা, খাদ্যের ব্যবস্থা, শিক্ষার ব্যবস্থাসহ নানা কাজ করে। আমি এবং আমার ভাই-বোন মিলে পিতামাতার কাজে সাহায্য করি।     

ক.কর্তৃত্বের ভিত্তিতে পরিবার কত প্রকার?               ১

খ.পরিবার একটি সামাজিক প্রতিষ্ঠান ব্যাখ্যা কর। ২

গ.উদ্দীপকে পাঠ্যপুস্তকের যে ধারণার প্রতিফলন ঘটেছে তার বর্ণনা দাও। ৩

ঘ.তুমি কি মনে কর, উদ্দীপকের কাজগুলো ছাড়াও পরিবারে আরও অনেক সাধারণ কার্যাবলি রয়েছে? মতামতের পক্ষে যুক্তি দাও।           ৪

 ক          কর্তৃত্বের ভিত্তিতে পরিবার ২ প্রকার।

 খ           পরিবার একটি আদিম সামাজিক প্রতিষ্ঠান। মানুষ সঙ্গপ্রিয়। সঙ্গপ্রিয়তার কারণে মানুষ পরস্পর একসঙ্গে বসবাস করতে চায়। মানুষ স্বয়ংসম্পূর্ণ জীব নয়। পারস্পরিক সহযোগিতা ছাড়া মানুষের পক্ষে জীবনধারণ করা অসম্ভব। এই সহযোগিতার আদি অকৃত্রিম সংগঠন হলো পরিবার। পরিবার স্নেহ, মায়া, মমতা ও সহযোগিতার দ্বারা গঠিত সামাজিক প্রতিষ্ঠান।

 গ           পরিবারের গঠন বর্ণনা কর।

 ঘ            পরিবারের কার্যাবলি বিশ্লেষণ কর।

প্রশ্ন- ২৯ বাংলাদেশের পরিবার কাঠামো 

অরুণের মামাবাড়ি যশোরের একটি গ্রামে। সে তার মামাবাড়ি গিয়ে দেখে প্রত্যেক পরিবারই দু-পাঁচ জন লোক নিয়ে বসবাস করছে। প্রায় প্রত্যেকটি পরিবারই দেখা যায় পিতামাতা, ভাইবোন, চাচা-চাচি, দাদা-দাদি, চাচাতো ভাই বোন নিয়ে বসবাস করছে। তবে চারটা পরিবারে রয়েছে শুধুমাত্র স্বামী-স্ত্রী অথবা স্বামী-স্ত্রীর সাথে তাদের সন্তান।             

ক.স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবার কত ধরনের হয়ে থাকে?      ১

খ.পরিবার শিশুর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষালয় ব্যাখ্যা কর।             ২

গ.উদ্দীপকে পাঠ্যপুস্তকের যে ধারণা প্রতিফলন ঘটেছে তা ব্যাখ্যা কর।       ৩

ঘ.অনুরণের মামাদের গ্রামের লোকজন এভাবে একত্রে বসবাসের মাধ্যমে নিজেদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করে। উত্তরের পক্ষে যুক্তি দাও।               ৪

 ক          স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবার ৩ প্রকার।

 খ           পরিবার শিশুর অন্যতম উল্লেখযোগ্য শিক্ষাকেন্দ্র। জšে§র পর শিশু গৃহেই প্রাথমিক শিক্ষা লাভ করে। যদিও বর্তমানে শিক্ষা দেওয়ার যাবতীয় দায়িত্ব গ্রহণ করেছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তবুও আচার-ব্যবহার, নিয়মানুবর্তিতা, নৈতিকতা, ধর্মীয় বিধি-বিধান, আচার-আচরণ সম্পর্কিত বিষয়গুলো শিশু পরিবার থেকেই শিক্ষা গ্রহণ করে।

গ            পরিবারের ধারণা ব্যাখ্যা কর।

 ঘ            পরিবারের কার্যাবলি বিশ্লেষণ কর।

প্রশ্ন- ৩০ পরিবারের প্রকারভেদ এবং বাংলাদেশে গ্রাম শহরের পরিবারের ভূমিকা 

বহুল প্রচলিত     কম প্রচলিত       প্রচলন নেই

একপত্নীক          বহুপত্নী বহুপত্নীক

একক    যৌথ      বর্ধিত

পিতৃবাস               নয়াবাস মাতৃবাস

ক.সমাজিক জীবনে কী?               ১

খ.নয়াবাস পরিবার কাকে বলে।   ২

গ.উল্লিখিত ছকটির যথার্থতা নিরূপণ কর।              ৩

ঘ.ছকে উল্লিখিত পরিবারের ধরন দিয়ে কি সমগ্র বাংলাদেশের পরিবার কাঠামো ব্যাখ্যা করা যাবে? উত্তরের পক্ষে যুক্তি দাও।      ৪

 ক          মানুষ যে সমাজে বসবাস করে সে সমাজের জীবনধারা অর্থাৎ আচার-আচরণের সমষ্টিই হলো সমাজজীবন।

 খ           বিবাহোত্তর স্বামী-স্ত্রীর বসবাসের স্থানের ওপর ভিত্তি করে যে তিন ধরনের পরিবার লক্ষ করা যায় তার মধ্যে নয়াবাস পরিবার একটি। বিবাহিত দম্পত্তি স্বামী বা স্ত্রী কারও পিতার বাড়িতে বাস না করে পৃথক বাড়িতে বাস করলে তাকে নয়াবাস পরিবার বলা হয়। শহরে চাকরিজীবীদের মধ্যে এ ধরনের পরিবার দেখা যায়।

 গ           পরিবারের প্রকারভেদ আলোচনা কর।

 ঘ            বাংলাদেশের গ্রাম ও শহরের পরিবারের ভূমিকা বিশ্লেষণ কর।

প্রশ্ন- ৩১   সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়া 

আয়ন দশম শ্রেণির ছাত্র। সে নিয়মিত বিদ্যালয়ে যায়। বিভিন্ন বিষয়ে দুর্বল ছাত্রদের সে সহযোগিতা করে। সে শিক্ষক ও গুরুজনদের শ্রদ্ধা করে। বিদ্যালয়ে ক্রিকেট টিমের সে ক্যাপ্টেন। তার শৃঙ্খলাবোধ, আচার-আচরণ সবাইকে মুগ্ধ করে।

ক.বাংলাদেশের কোন ক্ষুদ্র জাতিসত্তার পরিবার মাতৃতান্ত্রিক?         ১

খ.সামাজিকীকরণের উপাদান হিসেবে সমাজজীবনের ব্যাখ্যা দাও।             ২

গ.উদ্দীপকে আয়নের চরিত্রে সামাজিকরণের কোন প্রতিষ্ঠানের প্রভাব লক্ষণীয়? ব্যাখ্যা কর।            ৩

ঘ.সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে উক্ত প্রতিষ্ঠান যথেষ্ট নয়Ñ উক্তিটির যর্থার্থতা নিরূপণ কর।              ৪

 ক          বাংলাদেশের খাসিয়া ও গারো ক্ষুদ্র জাতিসত্তার পরিবার মাতৃতান্ত্রিক।

 খ           মানুষের সমাজ জীবন মূলত কতকগুলো আচার-আচরণ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। মানুষ যে সমাজে বসবাস করে, সে সমাজের জীবনধারা সমষ্টিই হলো সমাজজীবন। মানুষ সমাজের নানা কর্মকাÊ ও অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে। এসব কর্মকাÊ ও অনুষ্ঠান সংশ্লিষ্ট আচরণের সাথে মানুষ ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া করে খাপ-খাওয়ানোর চেষ্টা করে। এক্ষেত্রে মানুষ অন্যের আচরণ অনুকরণ করে কাজ সম্পাদনের চেষ্টা করে। জš§দিন, বিয়ে, ঈদ, পূজা, বড়দিন, বুদ্ধের জš§দিন, বিবাহ বার্ষিকী প্রভৃতি অনুষ্ঠান সমাজজীবনে অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। সমাজজীবনের এসব অনুষ্ঠান ব্যক্তির সামাজিকীকরণে প্রভাব ফেলে।

 গ           সামাজিকীকরণের উপাদান হিসেবে সামাজিক মূল্যবোধ সম্পর্কে ব্যাখ্যা কর।

 ঘ            সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়ায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা বিশ্লেষণ কর।

প্রশ্ন- ৩২ সামাজিকীকরণের উপাদান 

‘বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়’ পিরিয়ডে জনাব হুদা ৯ম শ্রেণিতে প্রবেশ করলে শামীম নামের এক শিক্ষার্থী তাকে দাঁড়িয়ে সম্মান দেখায়নি। শামীমের সহপাঠী শিমুল বিষয়টি শামীমের কাছে জানতে চাইলে বলে সে ভীষণ অসুস্থ। শামীম বাড়িতে এসে বিষয়টি বললে তার বাবা-মা শামীমকে বলেন, ‘শিক্ষকদের সম্মান করা তোমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য।’

ক.সামাজিকীকরণের উপাদান কয়টি?    ১

খ.ব্যক্তির সামাজিকীকরণে খেলার সাথির ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ কেন?               ২

গ.জনাব হুদাকে দাঁড়িয়ে শিক্ষার্থীদের সম্মান দেখানো সামাজিকীকরণের কোন উপাদানকে নির্দেশ করে? ব্যাখ্যা কর।                ৩

ঘ.শামীমের বাবা-মায়ের বক্তব্য সামাজিকীকরণের প্রক্রিয়ার খÊাংশ মাত্র- বিশ্লেষণ কর। ৪

 ক          সামাজিকীকরণের উপাদান ৩টি।

 খ           শিশুর সুষ্ঠু সামাজিকীকরণের খেলার সাথি ও পড়ার সাথির ভূমিকা রয়েছে। এদের মাধ্যমেই সহযোগিতা, সহনশীলতা, সহমর্মিতা, নেতৃত্ব প্রভৃতি গুণাবলি বিকশিত হয়। এই সাথি দলের মধ্যে আবার কখনো বা দ্বন্দ্ব দেখা দেয়, যা সমস্যা সমাধানে ও দ্বন্দ্ব নিরসন কৌশল আয়ত্তকরণে সহায়তা করে। খেলা ও পড়ার সাথিদের মাধ্যমে শিশু নিজের আচরণের ভালো কিংবা মন্দ দিকের গুণাবলি ও মুখোমুখি সমালোচনা শুনতে পায়। এ ধরনের সমালোচনা শিশুকে সমাজের কাঙ্ক্ষিত আচরণ করতে শিক্ষা দেয়।

 গ           সামাজিকীকরণের উপাদান হিসেবে সামাজিক মূল্যবোধ ব্যাখ্যা কর।

 ঘ            সামাজিকীকরণের উপাদানসমূহ বিশ্লেষণ কর।

অধ্যায় সমন্বিত সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন- ৩৩ গনতন্ত্রের ধারণা পরিবার  

জনাব আজাদ চৌধুরী একজন ব্যবসায়ী ও প্রতিষ্ঠিত রাজনীতিবিদ। তিনি পরিবারে সময় দিতে পারেন না বলে ছেলেমেয়েরা হোস্টেলে থেকে লেখাপড়া করে। তার নির্বাচনি এলাকায় এবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দুজন প্রধান প্রার্থী। একজন তিনি নিজে। অন্যজন হলেন অশিক্ষিত এক সন্ত্রাসী শ্রমিক নেতা। কিন্তু নির্বাচনের ফলাফলে দেখা যায়, অশিক্ষিত শ্রমিক নেতা বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে সংসদ সদস্য হন।  জনাব আজাদ চৌধুরী অনেক ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন।

 ক.মানুষের আশ্রয়স্থল কোনটি? ১

খ.সমাজের দ্র একক কোনটি? ব্যাখ্যা কর।             ২

গ.উদ্দীপকে জনাব আজাদ চৌধুরীর এলাকায় নির্বাচনের ফলাফলে গণতন্ত্রের কোন ত্রুটিপূর্ণ দিক ফুটে ওঠে? ব্যাখ্যা কর।       ৩

ঘ.আজাদ সাহেবের পরিবারের প্রেক্ষিতে কি বলা যায় পরিবার ব্যবস্থা বিলুপ্ত হয়ে যাবে? তোমার উত্তরের পক্ষে যুক্তি দেখাও। ৪

 ক          মানুষের আশ্রয়স্থল হলো পরিবার।

 খ           সমাজের দ্র একক হচ্ছে পরিবার। বৈবাহিক সম্পর্কের ভিত্তিতে একজন পুরুষ, একজন মহিলা এবং তাদের সন্তানাদি, পিতামাতা ও অন্যান্য পরিজন নিয়ে গঠিত সংগঠনই হলো পরিবার। পরিবার শিশুর অন্যতম শিক্ষাকেন্দ্র। জন্মের পর শিশু গৃহেই প্রাথমিক শিক্ষা লাভ করে। মাতাই শিশুর জীবনের শ্রেষ্ঠ শিক্ষক। পরিবার একটি আদিম সামাজিক প্রতিষ্ঠান। পরিবার ছাড়া সমাজ গঠিত হতে পারে না। আর পারস্পরিক সহযোগিতা ছাড়া মানুষের জীবনধারণ করা অসম্ভব।

 গ  উদ্দীপকে জনাব আজাদ চৌধুরীর এলাকায় নির্বাচনের ফলাফলে গণতন্ত্রের যে সীমাবদ্ধতা বা ত্রুটিগুলো ফুটে ওঠে। তা ব্যাখ্যা করা হলো :

প্রখ্যাত মনীষী ও দার্শনিকগণ, যেমন : প্লেটো ও এরিস্টটল গণতন্ত্রকে মূর্খের ও অযোগ্যের শাসনব্যবস্থা বলে অভিহিত করেছেন। কেননা, সংখ্যাগরিষ্ঠের শাসন হিসেবে গণতন্ত্রে নির্বাচনের মাধ্যমে অজ্ঞ, অযোগ্য ও দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যক্তিও শাসন ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হন। যেমনটি উদ্দীপকে হয়েছে। গণতন্ত্রে বহু পরস্পরবিরোধী মত ও ধারণা দেখা দেয়। এতে বিভিন্ন ক্ষেত্রে মতপার্থক্য ও সংঘর্ষের সৃষ্টি হয় এবং জাতীয় সংহতি বিনষ্ট হয়। এছাড়া রাজনৈতিক দলগুলো নিজেদের মধ্যে পারস্পরিক সমঝোতা প্রতিষ্ঠায় ব্যর্থ হলে জাতি দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়ে এবং গণতন্ত্র অকার্যকর রূপ নেয়। অনুন্নত দেশগুলোতে সরকারি দল নিজ দলের স্বার্থকে লক্ষ রেখে শাসন কাজ পরিচালনা করে থাকে। ফলে নিরপেক্ষতা নষ্ট হয়। এতে করে গণ-অসন্তোষ দেখা দেয়। উপযুক্ত লোকের অভাবে গণতন্ত্রের উদ্দেশ্য ব্যাহত হয় এবং শাসনকাজ পরিচালনায় নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়।

 ঘ            আজাদ সাহেবের পরিবারের প্রেক্ষিতে কেউ কেউ বলতে পারেন, পরিবার ব্যবস্থা একদিন বিলুপ্ত হয়ে যাবে। কিন্তু বাস্তবে পরিবার ব্যবস্থা কখনই বিলুপ্ত হবে না। বর্তমানে অনেক যৌথ পরিবার ভেঙে একক পরিবার তৈরি হচ্ছে ঠিকই কিন্তু এতে পরিবারের বিলুপ্তি ঘটে না। উদ্দীপকে আজাদ সাহেবের পরিবারে তার ছেলেমেয়েরা পড়াশোনার কারণে দূরে অবস্থান করছে। এতে তাদের পারিবারিক বন্ধন কিছুটা শিথিল হলেও তারা পরিবার থেকে দূরে সরে যায়নি বা তাদের পরিবারটি কোনো ভেঙে পড়া পরিবার নয় বা তারা তাদের দায়িত্ব পালন থেকে বিরত থাকেনি। নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষার প্রয়োজনে মানুষ পরিবার গঠন করে এবং তা টিকিয়ে রাখে। মানুষের মৌলিক প্রয়োজন যত দিন থাকবে পরিবার ব্যবস্থাও তত দিন থাকবে। তাই আজাদ সাহেবের পরিবারের প্রেক্ষিতে কখনই বলা যাবে না যে, পরিবার ব্যবস্থা বিলুপ্ত হয়ে যাবে।

জ্ঞানমূলক প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন কোনটি সমাজকাঠামোর মৌল সংগঠন?

উত্তর : পরিবার সমাজকাঠামোর মৌল সংগঠন।

প্রশ্ন পরিবার গঠনের পূর্বশর্ত কী?

উত্তর : পরিবার গঠনের পূর্বশর্ত বিবাহ।

প্রশ্ন দলবদ্ধ জীবনযাপনের বিশ্বজনীন প্রতিষ্ঠান কোনটি?

উত্তর : দলবদ্ধ জীবনযাপনের বিশ্বজনীন প্রতিষ্ঠান পরিবার।

প্রশ্ন স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবার কয় ধরনের হয়ে থাকে?

উত্তর : স্বামী-স্ত্রীর সংখ্যার ভিত্তিতে পরিবার তিন ধরনের হয়ে থাকে।

প্রশ্ন বিশ্বের সভ্য দেশগুলোতে কোন ধরনের পরিবার প্রথা সর্বত্রই প্রচলিত?

উত্তর : বিশ্বের সভ্য দেশগুলোতে একক পরিবার প্রথা সর্বত্রই প্রচলিত।

প্রশ্ন কর্তৃত্বের ভিত্তিতে পরিবার কত প্রকার?

উত্তর : কর্তৃত্বের ভিত্তিতে পরিবার দুই প্রকার।

প্রশ্ন বাংলাদেশের কোন ক্ষুদ্র জাতিসত্তার পরিবার মাতৃতান্ত্রিক?

উত্তর : বাংলাদেশের খাসিয়া ও গারো ক্ষুদ্র জাতিসত্তার পরিবার মাতৃতান্ত্রিক।

প্রশ্ন বিবাহোত্তর স্বামী-স্ত্রীর বসবাসের স্থানের ওপর ভিত্তি করে পরিবার কয় ধরনের হয়?

উত্তর : বিবাহোত্তর স্বামী-স্ত্রীর বসবাসের স্থানের ওপর ভিত্তি করে পরিবার তিন ধরনের হয়।

প্রশ্ন কয় পুরুষের পারিবারিক বন্ধনের পরিবারই বর্ধিত পরিবার?

উত্তর : তিন পুরুষের পারিবারিক বন্ধনের পরিবারই বর্ধিত পরিবার।

প্রশ্ন ১০ বংশমর্যাদা এবং সম্পত্তি উত্তরাধিকারের ভিত্তিতে পরিবার কয় ধরনের হয়ে থাকে?

উত্তর : বংশমর্যাদা এবং সম্পত্তি উত্তরাধিকারের ভিত্তিতে পরিবার দুই ধরনের হয়ে থাকে।

প্রশ্ন ১১ সামাজিকীকরণের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম কোনটি?

উত্তর : সামাজিকীকরণের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যমে হলো পরিবার।

প্রশ্ন ১২ অন্তর্গোত্রভিত্তিক বিয়ে কোন সমাজে অধিক প্রচলিত?

উত্তর : অন্তর্গোত্রভিত্তিক বিয়ে হিন্দু সমাজে অধিক প্রচলিত।

প্রশ্ন ১৩ আচরণগত পারস্পরিক প্রভাবের প্রতিক্রিয়াকে কী বলে?

উত্তর : আচরণগত পারস্পরিক প্রভাবের প্রতিক্রিয়াকে মিথস্ক্রিয়া (রহঃবৎধপঃরড়হ) বলে।

প্রশ্ন ১৪ সমাজজীবন কী?

উত্তর : মানুষ যে সমাজে বসবাস করে, সে সমাজের জীবনধারা অর্থাৎ আচার-আচরণের সমষ্টিই হলো সমাজজীবন।

প্রশ্ন ১৫ পরিবার গঠনের মূল্য উদ্দেশ্য কী?

উত্তর : পরিবার গঠনের মূল উদ্দেশ্য সন্তান প্রজনন এবং লালন-পালন করা।

প্রশ্ন ১৬ পাত্র-পাত্রী নির্বাচনের ভিত্তিতে পরিবার কয় ধরনের হয়?

উত্তর : পাত্র-পাত্রী নির্বাচনের ভিত্তিতে পরিবার দুই ধরনের হয়।

প্রশ্ন ১৭ একসময় কোনটি ধর্ম শিক্ষার প্রাণকেন্দ্র ছিল?

উত্তর : একসময় পরিবার ধর্ম শিক্ষার প্রাণকেন্দ্র ছিল।

প্রশ্ন ১৮ সামাজিক পরিবেশ কী?

উত্তর : যে বিশেষ সমাজ ব্যবস্থার মধ্যে মানুষ বসবাস করে তাকে সামাজিক পরিবেশ বলে।

প্রশ্ন ১৯ সন্তানের সামাজিকীকরণের প্রাথমিক দায়িত্ব কাদের?

উত্তর : সন্তানের সামাজিকীকরণের প্রাথমিক দায়িত্ব পিতামাতা ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যের।

প্রশ্ন ২০ বর্তমানে বাংলাদেশের গ্রাম শহরে কোন পরিবারের সংখ্যাই বেশি?

উত্তর : বর্তমানে বাংলাদেশের গ্রাম ও শহরে একক পরিবারের সংখ্যাই বেশি।

অনুধাবনমূলক প্রশ্ন উত্তর

প্রশ্ন যৌথ পরিবার হ্রাসের কারণ ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : বাংলাদেশের গ্রাম ও শহর সমাজে বিভিন্ন ধরনের পরিবার দেখা যায়। হিন্দুপ্রধান সমাজে এখনো যৌথ পরিবার দেখা যায়। শিল্পায়ন, জনসংখ্যা বৃদ্ধি, দারিদ্র্য, ভোগবাদী মানসিকতাসহ নানা কারণে যৌথ পরিবার ভেঙে যাচ্ছে। এখন যৌথ পরিবার নেই বললেই চলে।

প্রশ্ন ॥ ‘পরিবার ছিল এক সময়ের অর্থনৈতিক কার্যকলাপের মূল কেন্দ্রস্থল’ –বুঝিয়ে লেখ।

উত্তর : পরিবার ছিল এক সময়ের অর্থনৈতিক কার্যকলাপের মূল কেন্দ্রস্থল। এক সময় পরিবারের যাবতীয় প্রয়োজনীয় বস্তুগুলো গৃহেই উৎপাদিত হতো। পরিবারগুলো ছিল অর্থনৈতিকভাবে সবল। ঐ সময় পরিবারকে বলা হতো উৎপাদন ব্যবস্থার প্রধান একক। গ্রামীণ যৌথ পরিবারের মধ্যে এই সব অর্থনৈতিক কর্মকাÊ সম্পাদিত হতো।

প্রশ্ন ॥ “পরিবার একটি সামাজিক প্রতিষ্ঠান” ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : পরিবার একটি আদিম সামাজিক প্রতিষ্ঠান। মানুষ সঙ্গপ্রিয়। সঙ্গপ্রিয়তার কারণে মানুষ পরস্পর একসঙ্গে বসবাস করতে চায়। মানুষ স্বয়ংসম্পূর্ণ জীব নয়। পারস্পরিক সহযোগিতা ছাড়া মানুষের পক্ষে জীবনধারণ করা অসম্ভব। এই সহযোগিতার আদি  অকৃত্রিম সংগঠন হলো পরিবার। পরিবার স্নেহ, মায়া, মমতা ও সহযোগিতার দ্বারা গঠিত সামাজিক প্রতিষ্ঠান।

প্রশ্ন নয়াবাস পরিবার বলতে কী বোঝায়?

উত্তর : বিবাহিত দম্পতি স্বামী বা স্ত্রী কারও পিতার বাড়িতে বাস না করে পৃথক বাড়িতে বাস করলে তাকে নয়াবাস পরিবার বলা হয়। শহরে চাকরিজীবীদের মধ্যে এ ধরনের পরিবার দেখা যায়।

প্রশ্ন ॥ ‘পারিবারিক সুন্দর পরিবেশেই শিশুর মধ্যে বাঞ্ছিত আচরণ তৈরি হয়।Ñব্যাখ্যা কর।

উত্তর : সন্তানের ভরণপোষণের সাথে তার সামাজিকীকরণের প্রাথমিক দায়িত্ব পিতামাতা ও পরিবারের অন্য সদস্যের। এ সময় থেকেই শিশু অপরের দৃষ্টিতে নিজেকে দেখতে শেখে। পারিবারিক মূল্যবোধ শেখে, পছন্দ-অপছন্দ বলতে পারে, খাপখাওয়ানোর দক্ষতা অর্জন করে। শিশুকাল থেকেই শিশু সমাজের রীতিনীতি, আচারব্যবহার, নিয়মকানুন, অভ্যাস প্রভৃতি পরিবার থেকে শিক্ষা লাভ করে। তাই বলা যায় যে, পারিবারিক সুন্দর পরিবেশেই শিশুর মধ্যে বাঞ্ছিত আচরণ তৈরি হয়।

প্রশ্ন ॥ ‘সামাজিক মূল্যবোধ হলো সাধারণ সাংস্কৃতিক আদর্শ’Ñ ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : মূল্যবোধ আমাদের সমাজবদ্ধ জীবনের বৈশিষ্ট্য। মানুষের জীবনধারার মান পরিমাপ করা যায় এ মূল্যবোধের মাধ্যমে। মূল্যবোধ অনুশীলনের মাধ্যমেই সামাজিক বিধিব্যবস্থা, আচারব্যবহার ও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ ব্যক্তি আচরণে স্পষ্ট হয়ে ওঠে। সামাজিক মূল্যবোধ হলো সাধারণ সাংস্কৃতিক আদর্শ। এ আদর্শের দ্বারা সমাজের মানুষের মনোভাব, প্রয়োজন ও ভালোমন্দের নীতিগত দিক যাচাই করা যায়।

প্রশ্ন শিশুর সামাজিকীকরণে বিদ্যালয়ে ভূমিকা বর্ণনা কর।

উত্তর : পরিবারের পর শিশুর সামাজিকীকরণে বিদ্যালয়ের প্রভাব গুরুত্বপূর্ণ। বিদ্যালয় শিশুর সামাজিকীকরণের আনুষ্ঠানিক শিশু বিদ্যালয়ের বিভিন্ন কার্যক্রমের অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিক্ষক, সহপাঠী, বিদ্যালয়ের পরিবেশ প্রভৃতির সংস্পর্শে আসে। এসবই শিশুর আচরণকে প্রভাবিত করে, যার মাধ্যমে শিশু নেতৃত্ব, ঐক্য, সম্প্রীতিবোধ জাগ্রত হয়।

প্রশ্ন স্থানীয় সমাজ বা সম্প্রদায় শিশুর সামাজিকীকরণের অন্যতম উপাদান-ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : সমাজের মধ্যেই শিশু ধীরে ধীরে বয়ঃপ্রাপ্ত হয়। স্থানীয় সমাজ নির্দিষ্ট অঞ্চল ও স্থানীয়ভাবে গড়ে ওঠে। এই সমাজের রয়েছে বিশেষ মূল্যবোধ, যা স্থানীয়ভাবে গড়ে ওঠা মূল্যবোধের সমন্বয়ে গড়ে ওঠে। এ সমাজের মানবগোষ্ঠী, সামাজিক পরিবেশ, প্রতিষ্ঠান শিশুর আচরণকে প্রভাবিত করে। আর শিশুর মধ্যে স্বজাত্যবোধের জন্ম হয় এই সমাজেই।

প্রশ্ন সামাজিকীকরণ প্রক্রিয়ায় স্থানীয় সম্প্রদায়ের ভূমিকা আলোচানা কর।

উত্তর : স্থানীয় সমাজ বা সম্প্রদায় সামাজিকীকরণের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। এই সমাজের মধ্যে শিশু ধীরে ধীরে বয়ঃপ্রাপ্ত হয়। এই স্থানীয় সমাজ নির্দিষ্ট অঞ্চল ও স্থানীয়ভাবে গড়ে ওঠে। এ সমাজের রয়েছে

বিশেষ মূল্যবোধ, যা স্থানীয়ভাবে গড়ে ওঠা মূল্যবোধের সমন্বয়ে গড়ে ওঠে। এ সমাজের মানবগোষ্ঠী, সামাজিক পরিবেশ, প্রতিষ্ঠান শিশুর আচরণকে প্রভাবিত করে। এছাড়া স্থানীয় সমাজের মূল্যবোধ ব্যক্তি জীবনকে প্রভাবিত করে।

প্রশ্ন ১০ শিশুর সামাজিকীকরণে খেলার সাথির ভূমিকা বর্ণনা কর।

উত্তর : শিশুর সুষ্ঠু সামাজিকীকরণে খেলার সাথি ও পড়ার সাথির ভূমিকা রয়েছে। এদের মাধ্যমেই সহযোগিতা, সহনশীলতা, সহমর্মিতা, নেতৃত্ব প্রভৃতি গুণাবলি বিকশিত হয়। এই সাথি দলের  মধ্যে আবার কখনো বা দ্বন্দ্ব দেখা দেয়, যা সমস্যা সমাধানে ও দ্বন্দ্ব নিরসন কৌশল আয়ত্তকরণে সহায়তা করে। খেলা ও পড়ার সাথিদের মাধ্যমে শিশু নিজের আচরণের ভালো কিংবা মন্দ দিকের গুণাবলি ও মুখোমুখি সমালোচনা শুনতে পায়। এ ধরনের সমালোচনা শিশুকে সমাজের কাক্সি¶ত আচরণ করতে শিক্ষা দেয়।

প্রশ্ন ১১ বাংলাদেশের গ্রামীণ সমাজ কাঠামোর বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করো।

উত্তর : বাংলাদেশের গ্রামীণ সমাজ কাঠামোর বৈশিষ্ট্য হলোÑ একক ও যৌথ পরিবার কাঠামো, কৃষিভিত্তিক অর্থনীতি, পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা, সহজ-সরল জীবনযাপন, জীবনযাত্রার সামাজিক প্রথা ও লোকাচারের প্রভাব প্রভৃতি। দারিদ্র্য, অশিক্ষা ও রক্ষণশীলতা এ সমাজ কাঠামোর বিশেষ  বৈশিষ্ট্য।

প্রশ্ন ১২ অনুলোম বিবাহভিত্তিক পরিবার কী? বুঝিয়ে লেখ।

উত্তর : উঁচু বর্ণের সঙ্গে নিচু বর্ণের পাত্রীর বিবাহের মাধ্যমে যে পরিবার গঠিত হয়, তাকে অনুলোম বিবাহভিত্তিক পরিবার বলে। পাত্র-পাত্রী নির্বাচনের দিক থেকে পরিবারকে দুটি ভাগে ভাগ করা হয়েছে। অন্তর্গোত্র ও বহির্গোত্র বিবাহভিত্তিক পরিবার। আবার বহির্গোত্রভিত্তিক পরিবারকে বর্ণগত দিক থেকে অনুলোম ও প্রতিলোম বিবাহভিত্তিক পরিবার- এই দুইভাগে ভাগ করা হয়। উঁচু বর্ণের পাত্রের সঙ্গে নিচু বর্ণের পাত্রীর বিবাহের মাধ্যমে অনুলোম বিবাহভিত্তিক পরিবার আবার পাত্রী উঁচু বর্ণের এবং পাত্র নিচু বর্ণের, বিয়ের মাধ্যমে প্রতিলোম বিবাহভিত্তিক পরিবার গঠিত হয়।

প্রশ্ন ১৩ অটিস্টিক শিশুরা আজ শিশু অলিম্পিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছে।Ñ ব্যাখ্যা কর।

উত্তর : একসময় আমাদের দেশে গ্রাম কিংবা শহরে জন্মগ্রহণকারী বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুকে পরিবারের বোঝা ভাবা হতো। কিন্তু এ মনোভাবের অনেক পরিবর্তন ঘটেছে। এসব শিশুর জন্য গড়ে উঠেছে আলাদা বিদ্যালয়। সেখানে তারা লেখাপড়া, গান, নাচ, খেলাধুলা, কারিগরি বিদ্যাসহ হাতের কাজেও পারদর্শিতা অর্জন করছে। যার ফলে আমাদের দেশের অটিস্টিক শিশুরা আজ শিশু অলিম্পিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে শারীরিক ও মানসিক যোগ্যতার প্রমাণ দিচ্ছে।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.