পঞ্চম শ্রেণী বাংলা দ্বিতীয় অধ্যায় সংকল্প

সংকল্প
কাজী নজরুল ইসলাম

পাঠ্যবই থেকে বহুনির্বাচনি প্রশ্ন

য়     সঠিক উত্তরটি খাতায় লেখ।

১)    বীরেরা কী সাদরে গ্রহণ করেছে?

      ক    কোনোভাবে বেঁচে থাকাকে

      খ     আয়েশি জীবনকে        

      গ     বদ্ধ ঘরে থাকাকে  

      ঘ     মরণ-যন্ত্রণাকে

২)    এক দেশ থেকে আরেক দেশকে এককথায় কী

      বলা যায়?               

      ক    যুগান্তর      খ     দেশান্তর    

      গ     যুগ যুগ      ঘ     দেশভ্রমণ

৩)    মৃত্যুর মতো কঠিন যন্ত্রণাকেও হাসি মুখে কারা

      সহ্য করতে পারে?             

      ক    যারা ভীতু    খ     যেকোনো মানুষ    

      গ     যারা বীর     ঘ     যারা কিশোর

৪)    বিশ্বজগৎকে জানার কেমন কৌতূহল কিশোরের?     

      ক    সামান্য      খ     অদম্য

      গ     সীমিত ঘ     নেই বললেই চলে

৫)    সংকল্প কবিতার মূলভাব কী?          

      ক    কিশোরের পড়াশোনার আগ্রহ    

      খ     কিশোরের হিমালয় জয়ের স্বপ্ন

      গ     কিশোরের বিশ্বকে জানার আগ্রহ

      ঘ     কিশোরের স্বর্গপানে যাওয়ার স্বপ্ন

৬)    কিশোর কিসের সংকল্প করে?         

      ক    বদ্ধ ঘরে থাকার   

      খ     ভালো হয়ে চলার  

      গ     মন দিয়ে পড়ার   

      ঘ     পৃথিবীকে জানার

৭)    কিশোর কোথায় থাকতে চায় না?

      (ক)   পাতাল তলে (খ)   চাঁদের দেশে

      (গ)   জগৎ মাঝে (ঘ)   বদ্ধ ঘরে

৮)    ‘বদ্ধ’ শব্দের অর্থ হলোÑ

      (ক)   রাগ   (খ)   বন্ধ

      (গ)   দুশ্চিন্তা      (ঘ)   বায়ুর কুণ্ডলী

৯)    কিশোর বিশ্বজগৎ কীভাবে দেখবে?

      (ক)   ঘুরে ঘুরে কাছ থেকে

      (খ)   দূর থেকে অল্প করে

      (গ)   বদ্ধ ঘরে বসে থেকে

      (ঘ)   হাউই চড়ে উড়াল দিয়ে

১০)   ‘জগৎ’ শব্দের অর্থ কী

      (ক)   বায়ু   (খ)   মঙ্গল

      (গ)   পৃথিবী       (ঘ)   আকাশ

১১)   কবিতাংশে প্রকাশিত হয়েছেÑ

      (ক)   মহাকাশের রহস্যের কথা

      (খ)   সাগরতলের প্রাণীদের কথা

      (গ)   কিশোর মনের কৌতূহলের কথা

      (ঘ)   ঘরের কোণে থাকার কথা

      পাঠ্যবই থেকে বহুনির্বাচনি প্রশ্নের উত্তর

      ১) ঘ মরণ-যন্ত্রণাকে

২)    খ     দেশান্তর    

৩)    গ     যারা বীর      

৪)    খ     অদম্য

৫)    গ     কিশোরের বিশ্বকে জানার আগ্রহ

৬)    ঘ     পৃথিবীকে জানার

৭) (ঘ) বদ্ধ ঘরে

৮) (খ) বন্ধ

৯) (ক) ঘুরে ঘুরে কাছ থেকে

১০) (গ) পৃথিবী

১১) (গ) কিশোর মনের কৌতূহলের কথা।

      পাঠ্যবই থেকে প্রশ্নের উত্তর লিখন

য়   নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখ।

১)    কবি বদ্ধ ঘরে থাকতে চান না কেন?

      উত্তর : বিশ্বের সব অজানা রহস্যকে জানার অদম্য কৌতূহল রয়েছে কবির। তাঁর ইচ্ছা গোটা জগৎটা ঘুরে দেখবেন। তাই কবি বদ্ধ ঘরে থাকতে চান না।

২)    যুগান্তরের ঘূর্ণিপাকে মানুষ ঘুরছে বলতে কী বোঝ লেখ।

      উত্তর : যুগান্তর অর্থ হলো এক যুগের পর আরেক যুগ। যুগান্তরের ঘূর্ণিপাকে মানুষ ঘুরছে বলতে বোঝায় মানুষ যুগের পর যুগ পার হয়ে নতুন দিনের পানে এগিয়ে চলছে।

৩)    চন্দ্রলোকের অচিনপুরে কারা যেতে চায়?

      উত্তর : দুঃসাহসীরা চন্দ্রলোকের অচিনপুরে যেতে চায়।

৪)    কিসের আশায় বীর মরণকে বরণ করছে?

      উত্তর : বীরেরা পৃথিবীর সব রহস্যকে জানতে চায়। মানুষের জীবনকে সুখী ও সুন্দর করতে চায়। সেই আশাতেই তারা নিজেদের জীবনকে অনায়াসে বিপন্ন করছে।

৫)    কবি হাতের মুঠোয় পুরে কী এবং কেন দেখতে চান?

      উত্তর : কবি হাতের মুঠোয় পুরে বিশ্বজগৎ দেখতে চান।

এই বিশ্বজগৎ অসীম রহস্যে ঘেরা। সমস্ত রহস্যকে জানার জন্য কবির কৌতূহলের শেষ নেই। এ কারণেই তিনি বিশ্বজগৎকে হাতের মুঠোয় পুরে দেখতে চান।

৬)    হাউই চড়ে দুঃসাহসীরা কোথায় যেতে চায়?

উত্তর : হাউই চড়ে দুঃসাহসীরা চন্দ্রলোকের অচিন দেশে যেতে চায়।

৭))   কবি কোন ইঙ্গিত শুনতে চান?

উত্তর : কবি মঙ্গল থেকে কোনো অজানা ইঙ্গিত ভেসে আসে কি না তা শুনতে চান।

৮)    কিশোর কী জানতে চায়?

উত্তর : কিশোর অসীম মহাবিশ্ব সম্পর্কে জানতে আগ্রহী। সে জানতে চায় কেন মানুষ অসীমে আর অতলে ছুটে চলেছে, বীরেরা কেন হাসিমুখে মৃত্যুকে বরণ করছে। ডুবুরিরা কেন ডুবছে, দুঃসাহসীরা কেন উড়ছে। বিশ্বজগতের সব কিছুর রহস্য জানতে চায় কিশোর।

৯)    কবি বিশ্বজগৎ হাতের মুঠোয় পুরতে চান কেন?

উত্তর : কবির বাসনা বিশ্বজগৎকে খুব কাছ থেকে ভালোভাবে দেখার ও বোঝার। এ কারণেই তিনি বিশ্বজগৎকে হাতের মুঠোয় পুরতে চান।

১০)   মানুষ কিসের ঘূর্ণিপাকে ঘুরছে?

উত্তর : মানুষ যুগান্তরের ঘূর্ণিপাকে ঘুরছে।

১১)   কবি আকাশ ফুঁড়ে উঠতে চান কেন?

উত্তর : কবি অসীম মহাকাশের সকল রহস্য অনুসন্ধান করতে চান। তাই তাঁর মনে আকাশ ফুঁড়ে ওঠার বাসনা জাগে।

      পাঠ্যবই থেকে মূলভাব লিখন

য়     কবিতাংশটির মূলভাব লেখ।

উত্তর : অসীম মহাবিশ্ব সম্পর্কে জানার অদম্য কৌতূহল কিশোরের। যুগে যুগে কীভাবে মানুষের পরিবর্তন ঘটছে সেই রহস্য জানতে অত্যন্ত আগ্রহী সে। সব রহস্য জানা ও বোঝার জন্য কিশোর পৃথিবীকে ঘুরে ঘুরে দেখবে। তাই সে বদ্ধ ঘরে বন্দি থাকতে চায় না।

      পাঠ্যবই বহির্ভূত যোগ্যতাভিত্তিক প্রশ্ন

য় নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখ।

বিশাল এ পৃথিবীকে জানার জন্য আমাদের অনন্ত উৎকণ্ঠা। আর পৃথিবীকে জানার অন্যতম শ্রেষ্ঠ উপায় হলো ঘরের কোণে বন্দি না থেকে দেশভ্রমণে বেরিয়ে পড়া। দেশভ্রমণের মাধ্যমেই আমাদের বই পড়ে অর্জিত জ্ঞান পূর্ণতা লাভ করে। এর ফলে জীবন ও জগৎ সম্পর্কে আমাদের অভিজ্ঞতা বাড়ে, মন উদার হয়। জাফর শরাফীও বুঝেছিলেন দেশভ্রমণের প্রয়োজনীয়তা। পেশায় ছিলেন দর্জি, আর নেশা ছিল সাইকেল চালানো। দেশভ্রমণকে জীবনের লক্ষ্য করে সাইকেল নিয়েই বেরিয়ে পড়েন তিনি। সাইকেলে চড়েই ঘুরে এসেছেন বাংলাদেশের সব জেলা, ভারতের আজমীর শরিফ ইত্যাদি স্থান। ইচ্ছে আছে নেপাল, ইরানসহ আশপাশের আরও অনেক দেশ ঘুরে দেখার। তাঁর আগ্রহ সাইকেলে চড়ে সৌদি আরবে হজ পালন করতে যাওয়া এবং সেখান থেকে পরে বিশ্বভ্রমণে বের হওয়া। তবে যেখানেই যান না কেন সঙ্গী হবে প্রিয় সাইকেলটি। দৃঢ় মনোবলের এই মানুষটি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধাও। ১৯৭১ সালে ৪ নং সেক্টরের অধীনে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন তিনি। দেশভ্রমণে অপরিসীম আনন্দ পেলেও কষ্টও কম করতে হয়নি তাঁকে। খেয়েছেন সস্তা হোটেলে। থেকেছেন রাস্তায়। আর সাইকেল চালানোর শারীরিক পরিশ্রম তো আছেই। সব বাধা অতিক্রম করে তিনি ছুটে চলেছেন আপন লক্ষ্যে। এভাবে ঘুরতে ঘুরতে যদি মৃত্যু হয়, সেজন্য প্রস্তুতি হিসেবে সাথে রেখেছেন কাফনের কাপড়। 

য়     সঠিক উত্তরটি উত্তরপত্রে লেখ।

১)    জাফর শরাফীর পেশা কী ছিল?

      (ক)   জুতা সেলাই

      (খ)   কাপড় সেলাই

      (গ)   সাইকেল চালানো   

      (ঘ)   রিকশা চালানো

২)    জাতীয় জাদুঘর সম্পর্কে তুমি কীভাবে সবচেয়ে ভালো জানতে পারবে?

      (ক)   বইয়ে পড়ে  

      (খ)   টিভিতে দেখে

      (গ)   শিক্ষকের কাছে শুনে     

      (ঘ)   বইয়ে পড়ে ও সেখানে ঘুরতে গিয়ে

৩)    জাফর শরাফীর কর্মকাণ্ডের সাথে নিচের কোন কথাটি মিলে যায়?

      (ক)   ছবির মতো দেশ

      (খ)   শুধু দেখো আর খুশি হও মনে

      (গ)   দেখব এবার জগৎটাকে

      (ঘ)   বইয়ের পাতায় প্রদীপ জ্বলে

৪)    অনুচ্ছেদটিতে মূলত বলা হয়েছে জাফর শরাফীর-

      (ক)   দেশপ্রেমের কথা

      (খ)   জীবন সংগ্রামের কথা

      (গ)   দুঃসাহসী অভিযাত্রার কথা

      (ঘ)   শারীরিক সামর্থ্যরে কথা

৫)    জাফর শরাফী নিজের সাথে কাফনের কাপড় রেখেছেন, কেননাÑ

      (ক)   তাঁর বাঁচার আগ্রহ নেই

      (খ)   তাঁর কোনো পিছুটান নেই

      (গ)   তিনি মৃত ব্যক্তিদের সৎকার করেন

      (ঘ)   তিনি একজন দর্জি

      উত্তর : ১) (খ) কাপড় সেলাই২) (ঘ) বইয়ে পড়ে ও সেখানে ঘুরতে গিয়ে; ৩) (গ) দেখব এবার জগৎটাকে৪) (গ) দুঃসাহসী অভিযাত্রার কথা৫) (খ) তাঁর কোনো পিছুটান নেই।

য়     নিচে কয়েকটি শব্দ ও শব্দার্থ দেওয়া হলো। উপযুক্ত শব্দটি দিয়ে নিচের বাক্যগুলোর শূন্যস্থান পূরণ কর।

শব্দ   অর্থ

উদার মহৎ।

পূর্ণতা সফলতা।

সস্তা  কম দামি।

অনন্ত যার অন্ত বা শেষ নেই।

উৎকণ্ঠা     ব্যাকুলতা।

শ্রেষ্ঠ  সবচেয়ে ভালো।

ক)    আমরা  নিয়ে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছি।

খ)    জ্ঞান লাভের  মাধ্যম হলো বই।

গ)    আকাশকে দেখে মনে হয় এটি অসীম, 

ঘ)    রহমান সাহেব  মনের মানুষ।

ঙ)    বাজারে আজ টমেটো খুব ।

      উত্তর : ক) উৎকণ্ঠা;   খ) শ্রেষ্ঠ;   গ) অনন্ত;   ঘ) উদার;   ঙ) সস্তা।

য়     নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখ।

ক)    জাফর শরাফী সাইকেল নিয়ে কোথায় কোথায় গিয়েছেন? দেশভ্রমণের তিনটি উপকারিতার কথা লেখ।

            উত্তর : জাফর শরাফী সাইকেল নিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের বিভিন্ন স্থানে ভ্রমণ করেছেন।

            দেশভ্রমণের তিনটি উপকারিতার কথা নিচে উল্লেখ করা হলো :

১)    দেশভ্রমণে গেলে পৃথিবীর নানা দেশের নানা বিস্ময়কর জিনিস সম্পর্কে জানা যায়।

২)    দেশভ্রমণের মাধ্যমে আমাদের বই পড়ে অর্জিত জ্ঞান পূর্ণতা পায়।

৩)    দেশভ্রমণের মাধ্যমে জীবন সম্পর্কে আমাদের অভিজ্ঞতা বাড়ে, আমরা উদার হতে শিখি।

খ)    জাফর শরাফীকে দেশভ্রমণের জন্য কেমন কষ্ট স্বীকার করতে হয়েছে? পাঁচটি বাক্যে লেখ।

            উত্তর : জাফর শরাফীকে দেশভ্রমণের জন্য অনেক কষ্ট স্বীকার করতে হয়েছে। সব জায়গায় তিনি ঘুরে বেড়িয়েছেন সাইকেলে চড়ে, যা খুবই পরিশ্রমের কাজ। আর্থিক সংগতির অভাবে খোলা আকাশের নিচে থাকতে হয়েছে। খেতে হয়েছে সস্তা হোটেলে। তবুও দমে যাননি তিনি।

গ)    জাফর শরাফী কেন এত কষ্ট স্বীকার করেছেন? পাঁচটি বাক্যে লেখ।

            উত্তর : জাফর শরাফীর জীবনের লক্ষ্য ছিল দেশভ্রমণ। সে লক্ষ্য পূরণে তিনি ছিলেন দৃঢ়সংকল্প। পরিশ্রম ও অধ্যবসায়ের জোরেই মানুষ তার স্বপ্নকে সত্য করতে পারে। জাফর শরাফীও এ সত্যটি বুঝতে পেরেছিলেন। এ কারণেই সব কষ্টকে হাসি মুখে মেনে নিয়ে সামনে এগিয়ে গিয়েছেন তিনি।

ঘ)    জাফর শরাফী সম্পর্কে পাঁচটি বাক্য লেখ।

উত্তর : জাফর শরাফী সম্পর্কে পাঁচটি বাক্য নিচে উল্লেখ করা হলো

১)    জাফর শরাফী একজন দুঃসাহসী অভিযাত্রী।

২)    তিনি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা।

৩)    তিনি দৃঢ় মনোবলের অধিকারী।

৪)    লক্ষ্য পূরণে তিনি কঠোর পরিশ্রম করে চলেছেন।

৫)    সাইকেল চালানো তাঁর নেশা।

      যুক্তবর্ণ বিভাজন ও বাক্যে প্রয়োগ

য়     নিচের যুক্তবর্ণগুলো কোন কোন বর্ণ নিয়ে তৈরি ভেঙে দেখাও এবং প্রতিটি যুক্তবর্ণ দিয়ে একটি করে শব্দ গঠন করে বাক্যে প্রয়োগ দেখাও।

      দ্ধ, ন্ত, ন্ধ, শ্ব, ষ্ক।

      উত্তর :

      দ্ধ    =     দ + ধ                 উদ্ধার      

      –     বন্যায় আটকে পড়া সবাইকে উদ্ধার করা হয়েছে।

ন্ত    =     ন + ত                       ক্লান্ত 

–     ফুটবল খেলে আমরা ক্লান্ত হয়েছি।

ন্ধ    =     ন + ধ                 বন্ধু  

      –     রহিম ও সুবল খুব ভালো বন্ধু।

শ্ব     =     শ + ব-ফলা (  ¦ )       বিশ্বাস

      –     বাবা আমার কথা বিশ্বাস করলেন।

ষ্ক    =     ষ + ক                       পরিষ্কার    

      –     পানি পরিষ্কার দেখালেও তাতে জীবাণু থাকতে পারে।

এককথায় প্রকাশ/ক্রিয়াপদের চলিতরূপ লিখন

য়     এককথায় প্রকাশ কর।

ক) এক দেশ থেকে আর এক দেশ।

খ) এক যুগের পর আরেক যুগ। 

গ) কোনো কিছু সাদরে গ্রহণ।

ঘ) মৃত্যুর মতো কঠিন যন্ত্রণা।

ঙ) দমন করা যায় না এমন।

      উত্তর : ক) দেশান্তর; খ) যুগান্তর; গ) বরণঘ) মরণ-যন্ত্রণা;   ঙ) অদম্য।

য়     ক্রিয়াপদের সাধু ও চলিত রূপ শিখি।

চলিত রূপ         সাধু রূপ     চলিত রূপ         সাধু রূপ

আঁকব Ñ     আঁকিব ছুটছে Ñ     ছুটিতেছে

দেখব Ñ     দেখিব আসছে      Ñ     আসিতেছে

ঘুরছে Ñ     ঘুরিতেছে    চলছে Ñ     চলিতেছে

মরছে Ñ     মরিতেছে               

বিপরীত/সমার্থক শব্দ লিখন

য়     নিচের শব্দগুলোর বিপরীত শব্দ লেখ।

      বদ্ধ, মরণ, আপন, আশা, আকাশ।

      উত্তর :

      মূল শব্দ           সমার্থক শব্দ

বদ্ধ   –     মুক্ত/খোলা

মরণ  –     জীবন

আপন –     পর

আশা  –     নিরাশা

আকাশ      –     পাতাল

য়     নিচের শব্দগুলোর অর্থ লেখ।

      বীর, পাতাল, ইঙ্গিত, জগৎ, আপন।

উত্তর :

      শব্দ         অর্থ

বীর        সাহসী।

পাতাল      ভূগর্ভ।

ইঙ্গিত      ইশারা।      শব্দ         অর্থ

জগৎ       পৃথিবী।

আপন      নিজ।

য়     নিচের শব্দগুলোর সমার্থক শব্দ লেখ।

      বিশ্ব, বীর, অন্তরীক্ষ, প্রতিজ্ঞা।

      উত্তর : মূল শব্দ           সমার্থক শব্দ

      বিশ্ব   Ñ     জগৎ, পৃথিবী।     

      বীর   Ñ     সাহসী, বলশালী।

      অন্তরীক্ষ     Ñ     গগন, আকাশ।    

      প্রতিজ্ঞা      Ñ     সংকল্প, পণ।

কবিতার চরণ সাজিয়ে লিখন এবং কবিতা, কবির নাম ও প্রশ্নোত্তর লিখন

য় নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও :

ক)    কবিতার লাইনগুলো পরপর সাজিয়ে লেখ ঃ

      কেমন করে ঘুরছে মানুষ

      দেখব এবার জগৎটাকে,

      থাকব নাকো বদ্ধ ঘরে

      যুগান্তরের ঘূর্ণিপাকে।

      ছুটছে তারা কেমন করে,

      দেশ হতে দেশ দেশান্তরে       

খ)    কবিতার অংশটুকু কোন কবিতা থেকে নেওয়া হয়েছে তা লেখ।                 

গ)    কবিতাটির কবির নাম কী?      

      ঘ)    কবি বদ্ধ ঘরে থাকতে চান না কেন?

উত্তর :

(ক)   থাকব নাকো বদ্ধ ঘরে

      দেখব এবার জগৎটাকে,

      কেমন করে ঘুরছে মানুষ

      যুগান্তরের ঘূর্ণিপাকে।

      দেশ হতে দেশ দেশান্তরে

      ছুটছে তারা কেমন করে,

(খ)   কবিতার অংশটি ‘সংকল্প’ কবিতা থেকে নেওয়া হয়েছে।

(গ)   কবিতাটির কবির নাম কাজী নজরুল ইসলাম।

(ঘ)   বিশ্বের সব অজানা রহস্যকে জানার অদম্য কৌতূহল রয়েছে কবির। তাঁর ইচ্ছা গোটা জগৎটা ঘুরে দেখবেন। তাই কবি বদ্ধ ঘরে থাকতে চান না।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.